বাবুই: একটি বেশব্লগ লিখেছে

গত ম্যাচে ঐতিহাসিক জয়ের কারণে আমরা জরিমানার ব্যপারটা গায়ে মাখি নি। ধীর ওভার রেটের কারণে মাশরাফির ৪০% ও বাকিদের ২০% ম্যাচ ফি কাটা গেছে। তাও না হয় গেল। 
কিন্তু এর আরেকটা দিক আছে। মাশরাফির স্থগিত দন্ডাদেশ। অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফিকে এক ম্যাচ ব্যান করা হয়েছে কিন্তু এই দন্ডাদেশ স্থগিত। অর্থাৎ এই টুর্নামেন্টে আবার যদি অগ্রহণযোগ্য ওভার রেট হয় তাহলে মাশরাফি পরের ম্যাচ খেলতে পারবেন না। তার মানে কি দাড়ালো? নিউজিল্যান্ড এর বিপক্ষে যদি ওভার রেট ধীর হয় তাহলে মাশরাফি কোয়ার্টার ফাইনাল মিস করবেন। 
তাহলে উপায়? এর একটা সহজ সমাধান আছে, যা শ্রীলংকা ২০১২ টি-২০ বিশ্বকাপে দেখিয়েছিল। তা হলো একেক ম্যাচে একেকজনকে ক্যাপ্টেন দেখানো। মাহেলা স্থগিত দন্ডাদেশ পাওয়ার পরের ম্যাচে অধিনায়ক সাঙ্গাকারা, তার পরের ম্যাচে আরো কে যেন। অর্থাৎ টস করতে নামবেন যে কেউ একজন। কাগজে কলমে তিনি অধিনায়ক। কিন্তু মাঠে সব নিয়ন্ত্রণ করবেন আসল অধিনায়ক। কারণ মাঠে খেলোয়াড়দের মাঝে কি কথা হবে, কে সিদ্ধান্ত নেবেন তা ম্যাচ রেফারি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না।
অতএব নিউজিল্যান্ড এর বিপক্ষে আগামী ম্যাচে মুশফিক বা সাকিবকে কাগজে কলমে ক্যাপ্টেন দেখানো বুদ্ধিমানের কাজ হবে। তাহলে মাশরাফিকে হারানোর ঝুঁকি থাকবে না।
*কোয়ার্টারফাইনাল* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫*
কমেন্ট

আমানুল্লাহ সরকার: *কোয়ার্টারফাইনাল* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫*

1426044243000 ভালো ০

আশরাফ উদ্দিন চৌধুরী: আইডিয়াটা চমৎকার.

1426047629000 ভালো ০

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

এক্ষনি একাউন্ট তৈরী কর

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

বেশতো বিজ্ঞাপন