Mahi Rudro: একটি বেশব্লগ লিখেছে


রোম অথবা প্যারিসে,
নিউইয়র্ক, বুয়েনস আইরেস, মাদ্রিদ,
কোলকাতা, কায়রো, এই সব সমস্ত জায়গায়
ছেঁড়া ছালা আছে
জুতোর ভগ্নাংশ - হাড়-ছোঁয়া -
আবর্জনা - ভস্মীভূত,
গভীর গর্ত - বিশুষ্ক;
পৃথিবীর পরিত্যক্ত - জংধরা,
জমাট রক্তের মানুষী ছাল -
মৃত লাভার মতো ক্ষওয়া,
কোঁচকানো বেদনার্ত চামড়া -
ঘোষণাপত্র যা দোষায়,
চীৎকার করে যদিও তাদের কোন মুখ নেই,
বোবা আর্তনাদ নিঃশব্দতার মতোই বেদনাদায়ক।
.
কোত্থেকে এই সব ধস,
এই সব নির্বাহু পঙ্গু অবশেষ,
গহ্বর যা মুহূর্তে ছিঁড়ে আরো বর্ধিষ্ণু,
মোচড়ানো সিল্কের ছিন্ন সুতোর চট,
বিভ্রান্ত কাদার দলা, লাল গালা
চক-গুঁড়ো - কোত্থেকে?
কি বেরোবে, কি উথ্‌লোবে এখান থেকে?
কি বিস্ফোরিত হবে এইসব সহিংস ভীতির থেকে,
কি ধ্বসবে অন্ধ, তামস বিচ্ছিন্ন ছাল থেকে,
কখন ছিঁড়বে দড়ি, সেলাই খুলে কামড়াবে হঠাৎ,
লৌহ-খনিজ, খড়িমাটি উজ্জ্বলচ্ছটাময়
কি পারে নতুন সৌন্দর্য জাগাতে?
..
কিন্তু, আহ্‌! ইতিমধ্যে একটা
“ছুঁয়ো না, মৃত্যুর শঙ্কা” - সব জোড়াতালি মারা
ছিন্ন-কোণ বাস্তবতার তলে থমকে থাকে!
হটাও, হটাও হাত,
একটি আঙুলও বার ক’রো না, তুমি তোমার
পালিশঅলা নখ শুদ্দো - ছুঁচো,
এ-সব নালায় তুমি ঢুকতে চেষ্টা ক’রো না।
হটো, হটো - তুমি কারবার ক’রে ফ্যাকাশে,
শূন্যতা থেকে ধূসর - এদিকে এক পা-ও না,
এক কদমের ঝুঁকি নয়, নয় চোখের ইশারা !
আলোড়ন - এক বৈদ্যুতিক কম্পন, এখানে
হানতে পারে - এবং কিরণ, অন্তঃস্থিত আলো
এইসব পিণ্ডাকার মানুষী-করুণ ধ্বংস-স্তূপ।
.
---অনুবাদ : ওমর শামস।
.
[রাফায়েল আলবের্তি, Rafael Alberti Merello (1902 - 1999),
স্পেনের ১৯২৭ গোত্রের বিখ্যাত কবি। স্পানীশ সুররিয়ালিস্টদের
অন্যতম পুরোধা যদিও অন্য স্টাইলের কবিতা তিনি বিস্তর লিখেছেন।
১৯৩৯ সনে আর্জেন্টিনা চলে যান। ১৯৬৫ থেকে আমৃত্যু ইতালিতে
স্বেচ্ছা-নির্বাসনে ছিলেন। উদ্ধৃত কবিতাটি স্পেনের ৪০০০-৩০০০
বছরের পুরোনো মানব বসতি, ‘মিয়ারেস’-এর ধ্বংসাবশেষ নিয়ে,
অনেকটা নেরুদার মাচ্চু-পিচুর কবিতার মতো।

*বিদেশীকবিতা*

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

এক্ষনি একাউন্ট তৈরী কর

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত