শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

গৃহিণীদের রান্নার কাজে গ্যাসের চুলার ব্যবহার অন্যান্য মাধ্যম থেকে বেশি জনপ্রিয়। কারণ হিসেবে বলা যায়, ব্যবহারের দিক থেকে নিরাপদ, সাশ্রয়ী ও সর্বৈব সুবিধা। বাজারে রয়েছে দেশি-বিদেশি নানান রকম গ্যাসের চুলা। বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা গেল সাধারণত লোহা, স্টিল ও গ্লাস (কাচের) এই তিন ধরনের চুলা পাওয়া যায়। আমদানিকৃত গ্যাসের চুলার অধিকাংশই স্টেইনলেস স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের তৈরি। জনপ্রিয়তার মাপকাঠিতে চীন ও জাপানের তৈরি গ্যাসের চুলার চাহিদা বেশি। এসব চুলার মধ্যেও রয়েছে ব্র্যান্ড ও নন ব্র্যান্ড যেমন; অ্যারিস্টোন (ইতালি) কিনবো (তুরষ্ক), আকাই এলজি, কোয়ান্টাম, মিয়াকো, আরএফএল, নিক্কো, কমেট, জেসিএলসহ অনেক ধরনের দেশি বিদেশি চুলা। দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি অ্যালুমিনিয়াম ও টিনের গ্যালভানাইজড গ্যাসের চুলার ব্যবহার বেশি লক্ষ করা যায়। সহজ ব্যবহার পদ্ধতি, সাশ্রয়ী, টেকসই ও গুণগতমানসম্পন্ন হওয়ায় চাহিদা বেড়েছে ব্যাপকভাবে। দেশীয় ব্র্যান্ডের মধ্যে আরএফএল, ন্যাশনাল, র‌্যাংগস, গাজী ব্র্যান্ডের চাহিদা বেশি। 
 
 
চুলার রকমফের
স্টার্টার সুইচ ঘুরালেই চুলাতে আগুন জ্বলে (দিয়াশলাই বা ম্যাচ লাগে না)। অটোচুলা হিসেবে পরিচিতি এসব চুলা মান ভেদে দাম পড়বে বর্তমানে প্রায় ২ হাজার ৫শ' থেকে ২৫ হাজার টাকা।
 
গ্লাস বডির ব্র্যান্ডের চুলার দাম ১০ হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকা। এই ধরনের চুলায় ২টি থেকে ৫টি বার্নার থাকে। বার্নারের সংখ্যার সঙ্গে দরদামও উঠানামা করে। এসব চুলার বিক্রয়োত্তর সেবার জন্য ওয়ারেন্টি ও গ্যারান্টি দেওয়া হয়।
 
কমদামেও অটোচুলা রয়েছে। এসবের মধ্যে অন্যতম হল আরএফএল, মিয়াকো, নিক্কো, কমেট ইউনিভার্সাল, কোয়ান্টামসহ দেশি কিছু ব্র্যান্ডের চুলা। এরকম প্রতিটি চুলা পেয়ে যাবেন আড়াই হাজার থেকে ৮ হাজার টাকার মধ্যে।
বাসার ব্যবহৃত চুলাগুলোর বেশিরভাগই সাধারণ চুলা। এসব চুলায় দিয়াশলাই বা ম্যাচের কাঠি ব্যবহার করে আগুন জ্বালাতে হয়। সাধারণত এই চুলাগুলো লোহা কিংবা স্টিলের হয়ে থাকে। এগুলোর বর্তমান বাজার মূল্য ৬শ' থেকে দেড় হাজার টাকা। 
 
মনে রাখবেন, বোতলজাত গ্যাস এবং পাইপের গ্যাস ব্যবহার করার জন্য চুলার ধরণ আলাদা হয়। তবে, এলপি চুলার পিন পরিবর্তন করেও সাধারণ পাইপলাইনে ব্যবহার করা যায়। পিন ও বার্নার পরিবর্তন করতে খরচ হবে ৫০ থেকে ১৫০ টাকা।
মেরামত
এখন প্রায় বেশিরভাগ ব্র্যান্ডের চুলাতে বিক্রয়োত্তর ২ থেকে ৫ বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি কিংবা গ্যারান্টি প্রদান করে থাকে। আর সাধারণ অটোচুলাগুলোতে থাকে নির্দিষ্ট মেয়াদে বিক্রয়োত্তর সেবা।
তাছাড়া হার্ডওয়ার দোকানগুলোতে চুলার সব ধরনের মেরামতের ব্যবস্থা থাকে। চুলার সুইচ, বার্নার ও কানেক্টর নাট এসব কিনে এনে আপনি নিজেও ঠিক করে নিতে পারেন। চুলার সুইচ এবং কানেকটর নাটের দাম পড়বে ৫০ থেকে দেড়শ টাকা।
কোথায় পাবেন
ঢাকাসহ দেশের প্রায় সব জেলাশহর কিংবা উপজেলা হার্ডওয়ার দোকানে চুলা এবং চুলা মেরামতের সব কিছু পেয়ে যাবেন। তবে যদি দেখে শুনে কিনতে চান তাহলে চলে যেতে পারেন, গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম মার্কেট, বায়তুল মোকারাম মার্কেট, নিউ সুপার মার্কেট, চর্ন্দ্রিমা সুপার মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি মার্কেট লেভেল ওয়ান, গুলশান ডিসিসি সুপাস মার্কেট ১ ও ২, মিরপুর ১০ ও উত্তরা। অনলাইন শপিং সাইট আজকের ডিল থেকেও ঢাকা সহ দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে ফোন করে অর্ডার দিন, আজকের ডিল একদম দরজায় আপনার পণ্য পাঠিয়ে দিবে l 
 
দরদাম
গৃহিণীদের সামর্থ্য ও রুচির ভিন্নতায় বিভিন্ন মূল্যের গ্যাসের চুলা রয়েছে। ন্যাশনাল ব্র্যান্ডের চুলার দাম ৭০০-১৪০০ টাকা, র‌্যাংগস ৮০০-১০০০ টাকা, গাজী ৭০০-১৫০০ টাকা। মডেলভেদে ৪০০০-১২০০০ টাকা মূল্যের চুলাও রয়েছে। জাপানের তৈরি নোকা কুকারের দাম ১৯০০-৪০০০ টাকা, এনইওএস ২৫০০-৩০০০ টাকা, টার্বো ৩০০০-৬০০০ টাকা, আরএফএল ২৪০০-৭০০০ টাকার মধ্যে।
সাবধানতা
গ্যাসের চুলা ব্যবহারের পর সুইচ ভালোভাবে বন্ধ রাখুন। নয়তো দুর্ঘটনার ঝুঁকি থাকে। অপ্রয়োজনে চুলা জ্বালিয়ে রাখবেন না। সতর্ক হোন এবং জাতীয় সম্পদ গ্যাস ব্যবহারে মিতব্যয়ী হোন। চুলার সাথে গ্যাস নেট ও লাইটার কিনে নিতে পারেন, এতে করে ঝুঁকি কমে যাবার সাথে সাথে আপনার রান্নাঘর থাকবে পরিষ্কার - পরিচ্ছন l তাছাড়া গ্যাস সাশ্রয়ও হবে এতে l 
 
এ কয়েকটি ডিজাইন বাদে আরো কিছু ডিজাইন রয়েছে সেগুলো দেখতে চাইলে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকের ডিলের কিচেন অ্যান্ড ডাইনিং এপ্লিয়েন্স থেকে ঘুরে আসুন  অথবা এখানে ক্লিক করুন
 

 

*গ্যাসেরচুলা* *গৃহস্থালিসামগ্রী*

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

এক্ষনি একাউন্ট তৈরী কর

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

বেশতো বিজ্ঞাপন