মুকতাদির

@Muktadir8788

business_center প্রফেশনাল তথ্য নেই
school এডুকেশনাল তথ্য নেই
location_on লোকেশন পাওয়া যায়নি
1366393443000  থেকে আমাদের সাথে আছে

মুকতাদির বেশটুনটি শেয়ার করেছে

একটি শীতবস্ত্র, একটি কম্বল, একটু সহযোগীতা... [শীত-কেবলেশীতনাই](প্লিইইজ) একটি মুখের হাসি.....
বেশি কিছু অনেকেই পড়বে না। অনেকেই অনেক কিছু অলরেডি বলেও ফেলেছে। জাস্ট একটা কথা, একটা শীতের রাত শুধু শীতের কাপড় ছাড়া বাইরে কাটিয়ে দেখুন। নিজেকে ওরকমভাবে কল্পনা করতে না পারলে নিজের কোনও প্রিয়জনকে বা পরিবারকে ওভাবে কল্পনা করার চেষ্টা করতে পারেন। কষ্টটা অনুভব করতে পারলে আসুন তাদের কষ্টটা লাঘব করার চেষ্টা করি (প্লিইইজ)(প্লিইইজ)(প্লিইইজ)
যেকোন ধরনের সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা- #বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল)(প্লিইইজ) #বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল) #ডাচ বাংলা মোবাইল একাউন্ট ০১৬৭৪৫৬৫৮৯৮০ #ব্যাংক এ্যাকাউন্ট নং- Name of the Account: MD. YASEEN KHAN Account No: 105 -101 -70249 Dutch-Bangla Bank Ltd Foreign Exchange Br.[শীত-কেবলেশীতনাই] Motijheel, Dhaka. ##হটলাইন -০১৯১২৫৬২০৭২

মুকতাদির বেশব্লগটি শেয়ার করেছে

ঘুম থেকে উঠে জানালার বাইরে চোখ পড়তেই ঘন কুয়াশার তীব্র আস্ফলন চোখে পড়লো
নাদিয়ার।ঘড়ির কাটাই সকাল আটটা ছুঁইছুঁই।হঠাত্‍ মনে পড়লো আজ ক্যাম্পাসে
ডিপার্টমেন্টের ফেস্টিভ্যাল আছে।তাড়াহুড়ো করে কম্বল সরিয়ে নিচে নামতেই
শরীর সকল লোম পর্যন্ত শিরশির করে উঠলো।মাঘের মধ্যম দশা চলছে।শীত জাকিয়ে
বসেছে চারিদিকে।অবশ্য নাদিয়ার শীতই পছন্দ।কি সুন্দর কুয়াশাই ঢাকা শুভ্র
নগর,গরম গরম ভাপা পিঠে আর কম্বলের তলে আরামে ঘুমিয়ে থাকার জন্য এর থেকে
ভাল সময় আর হয়না।

ওয়াসরুম থেকে ফ্রেস হয়ে বের হতেই নাদিয়া দেখলো বিছানার উপর মা গরম কাপড়
বের করে রেখেছে।তবে এবার আর শীত উপভোগ করার মত অবস্থা থাকলো না তার।সব
কাপড় পুরানো,গত বছরের পোশাক।একবছর ব্যবহার করা শীতের পোশাক পরের বছর কেউ
পরে নাকি!!!
গত বছরে ৮-১০টি শীতের ফ্যাশানেবল ড্রেস নেওয়া হয়েছিল,কিন্তু এই বছর শপিং
করা হয়নি ব্যস্ততায়।নাদিয়ার কাঁদতে ইচ্ছে করলো।পুরানো পোশাক পরে কিভাবে
সবার সামনে যাবে!!
মা এসে নাদিয়াকে বোঝায়,গতবার একবারও ব্যবহার না করা সুন্দর উলবোনা পোশাক
টা পড়তে বলে,কথা দেয় বিকেলেই শপিং এ গিয়ে ওর পছন্দের সব পোশাক কিনে
দেবে।উপায় না পেয়ে মনখারাপ করে ওই পোশাকটা পরেই বের হয় সে।
ক্যাম্পাসে এসে দাড়াতেই দেখে নাদিয়ার এক এক টি ফ্রেন্ড এক  এক রকম ভাবে
সেজেছে।নাদিয়ার পোশাকটি দেখে সবাই প্রশংসা করলেও তার মন ভাল হয়না।সবার
থেকে সরে এসে ফাকা টং এর পাশে দাড়ায় নাদিয়া।হঠাত্‍ ই একটি ৫-৬বছরের
বাচ্চা ছেলের দিকে চোখ পড়ে।যে তার কোলে ১বছর বয়সী আরেকটি বাচ্চাকে জাপটে
ধরে টং এর দোকানের এক কোনে বসে আছে।একটি পাতলা ছেড়া চাদর দিয়ে নিজেদের
উষ্ণটা পাওয়ার লড়াই করছে তারা।ছোট বাচ্চা টা ঠান্ডার প্রকোপে কেঁদে উঠছে
বার বার।ঠান্ডায় জমে যাওয়া গলার আওয়াজ বিড়ালের বাচ্চার মত শোনাচ্ছে।
হুট করে নাদিয়ার নিজের উপর ভীষণ আক্ষেপ হয়।ছলছল চোখে তাকিয়ে থাকে বাচ্চা
২টির দিকে,আর ঘেন্নায় মন ভরে ওঠে তার মত শীতবিলাসী মানুষের জন্য।
উপরের গল্পটা কাল্পনিক হলেও আমাদের দেশে নাদিয়ার মত মানুষের সংখ্যা
নেহাতই কম নয়।কাউকে কিচ্ছু বোঝাবো না,শুধু বলবো একটি বার আপনার নিচের
সারির মানুষ গুলোর দিকে তাকান,এগিয়ে আসুন শীতার্তদের সাহায্যে।

যেকোন ধরনের সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা-
#বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল)
#বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল)
#ডাচ বাংলা মোবাইল একাউন্ট ০১৬৭৪৫৬৫৮৯৮০
#ব্যাংক এ্যাকাউন্ট নং-
Name of the Account: MD. YASEEN KHAN
Account No: 105 -101 -70249
Dutch-Bangla Bank Ltd

ছবি

মুকতাদির ফটোটি শেয়ার করেছে

"*শীতার্তদের-জন্য* আমরা চাইলেই পারি

মুকতাদির বেশটুনটি শেয়ার করেছে

মানুষ মানুষের জন্যে, জীবন জীবনের জন্যে- একটু সহানুভূতি কি- মানুষ পেতে পারে না?
ছোট বেলায় অনেক ভালো ছিলাম, অন্যের দুক্ষ দেখলে দুক্ষ পেতাম l সুখ-দুখে সকলে সকলের পাশে থাকতাম l সহপাটিদের কারো কিছুর অভাব হলে সকলে চাদা তুলে তা পূরণ করার চেষ্টা করতাম l আজ আমরা বড় হয়ে গেছি, সমাজে প্রতিষ্ঠিত, অনেক ব্যস্ত নিজেকে নিয়ে, সমাজের অবহেলিত মানুষদের নিয়ে ভাববার সময় কোথায়? ভুলে গেছি ছুট বেলার সেই মূলমন্ত্র গুলা-
দশে মিলে করি কাজ, হারি জিতি নাহি লাজ; সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে l কেমন জানি হয়ে গেছি! এগুলা এখন শুনতে ভালো লাগে কিন্তু মনের মাঝে সেই ছুট্ট বেলার মত আর দাগ কাটে না l তবুও বলছি আসুন না একটু চেষ্টা করি শীতার্ত মানুষদের জন্যে কিছু করার - বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল) বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল) হটলাইন -০১৯১২৫৬২০৭২

মুকতাদির পোস্টটি শেয়ার করেছে

★ছায়াবতী★: যে যার অবস্থান থেকে আর্ত নিপীড়িত জনের যথাসম্ভব উপকারে আসার জন্য ই আমরা বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ গুলো এক হয়ে প্রতিবছর ই চেষ্টা করি, এবার ও তার ব্যাতিক্রম ঘটেনি। প্লিজ আপনরা যে যার অবস্থান থেকে আপনার আশেপাশের দরিদ্র মানুষ গুলোর পাশে দাঁড়াতে আমাদের একটু সাহায্য করুন। শীতবস্ত্র বিতরণ নিয়ে কাজ চলছে, আর্ত মানবতার সেবায় ছোট- বড় অনেক মানুষ এগিয়ে আসছে আমার এবং আপনার ভরসায়, আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করলে মাতৃভূমির দরিদ্র মানুষ গুলো শীতের প্রকোপ থেকে কিছুটা পরিত্রাণ পাবে, এমন দিন ও আসবে যেদিন আর পত্রিকায় কিংবা পত্রিকার বাহিরে এমন খবর আমরা পাবো না যে শীতের প্রকোপে কোন মানুষ মারা গেছে... প্লিজ সময় খুব কম যে যার অবস্থান থেকে একটু সাহায্য করুন। বেশতো পরিবার অনেক বড় সবাই যদি নিজ নিজ জায়গা থেকে একটু সহায়তা করেন আমরা অনেক মানুষকে উষ্ণতা দিতে পারব (প্লিইইজ)(প্লিইইজ)(প্লিইইজ) আমাদের সাহায্য করার ঠিকানা- বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল) বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল) ডাচ বাংলা মোবাইল একাউন্ট ০১৬৭৪৫৬৫৮৯৮০ ব্যাংক এ্যাকাউন্ট- Name of the Account: MD. YASEEN KHAN Account No: 105 -101 -70249 Dutch-Bangla Bank Ltd Foreign Exchange Br. Motijheel, Dhaka. হটলাইন নম্বর-০১৯১২৫৬২০৭২ বি: দ্র: আর্থিক সাহায্য ছাড়াও ব্যবহার উপযোগী শীতের কাপড় দিতে পারেন।

মুকতাদির বেশব্লগটি শেয়ার করেছে

একটা কথা শেয়ার করছি, জানিনা সবাই কিভাবে নিবেন, গতবছর আমরা সবাই খুব সতুস্ফুর্তভাবে শীতবস্ত্র কার্যক্রমে অংশগ্রহন করেছি, পোস্ট করা, পোস্ট শেয়ার করা, সবাইকে কে অনুপ্রানিত করার চেষ্টা করেছি সবাই যার যার অবস্থান থেকে। কিন্তু কিন্তু এবার সতুস্ফুর্ততার বিষয়টি অনেকাংশেই কেন যেন কম। যদি আমাদের এই কার্যক্রম কে সফল করে তুলতে হয় সবাইকে ঠিক গতবারের মত কিংবা গতবারের তুলনায় অনেক বেশি অনুপ্রেরণা জগতে হবে সবার মাঝে। শুধু একবার নয়, আমরা দুবার এমন কার্যক্রম কে সফল করে তুলেছি আমাদের সকলের প্রচেষ্টার মাধ্যমে এবং বেশতোপরিবারের বাইরের অনেকের সহযোগিতার মাধ্যমে। এর জন্য সকলের ইচ্ছের জোর খুব প্রয়োজন। সবথেকে বড়কথা হলো আমরা একটি মহৎ উদ্যেশ্য কে লক্ষ্য করে এই কার্যক্রম কে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাচ্ছি।" সকলে মিলে এক " বলেই ইনশা আল্লাহ সব বাধা অতিক্রম করে আমরা আমাদের এই মহৎ কার্যক্রমকে সফল করে তুলব, পাশে থাকতে পারব বেশকিছু মানুষের পাশে।

আর এই কার্যক্রমের জন্য আমরা সবাই অনুগ্রহ করে একটি ষ্টারওয়ার্ড  *শীতার্তদের-জন্য* ব্যবহার করি, তাহলে সবাই একটি
ষ্টারওয়ার্ড এর মাধ্যমে এই কার্যক্রম সংক্রান্ত সকল পোস্ট একটি জায়গায় দেখতে পাবে।  

মুকতাদির পোস্টটি শেয়ার করেছে

আগন্তুক দখলদার: তোমাদের তো অনেক আছে,৩ বেলা খাও,পাকা ঘরে ঘুমাও,ভালো ভালো পোশাক পরো কতো কি! আমাদের ১টা জামা দিবে এই শীতে ? গতবারের ন্যয় এবারও বেশতো পরিবার গরিব, অসহায় মানুষদের মাঝে শীতবস্র বিতরন করার উদ্দোগ নিয়েছে।আশা করি আমরা সকলে আছি এমন মহত উদ্দেশ্যকে সফল করতে। আর্থিক সাহায্য পাঠানোর বিস্তারিত --বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল) বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল) ডাচ বাংলা মোবাইল একাউন্ট নম্বর: ০১৬৭৪৫৬৫৮৯৮০ ব্যাংক এ্যাকাউন্ট ডিটেইলসঃ Name of the Account: MD. YASEEN KHAN Account No: 105 - 101 - 70249 Dutch-Bangla Bank Ltd Foreign Exchange Br. Motijheel, Dhaka. যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ০১৯১২৫৬২০৭২ বি: দ্র: আর্থিক সাহায্য ছারাও ব্যবহার উপযোগী শীতের কাপর দিতে পারেন।

মুকতাদির বেশব্লগটি শেয়ার করেছে

হঠাৎ শীতটা বেশ জাকিয়ে আসলো আর আমার পা পড়লো চট্টগ্রামে। শহরটা আমার বেশ পছন্দ, মাঝে মাঝেই অফিসের কাজে আসতে হয় এখানে । অবশ্য এবার আসার ইচ্ছে ছিলোনা একদমই। মানিব্যাগের স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাচ্ছে না আজকাল, তারপর আবার মাসের শেষ। বাস থেকে নেমে কিছুদূর যেতেই আবিষ্কার করলাম, খারাপ স্বাস্থ্য নিয়ে বহুদিন আমার সাথে থাকা মানিব্যাগটা নেই! সামান্য কিছু টাকা কাঁধের ব্যাগে ছিলো বলে রক্ষা কিন্তু তা দিয়ে কিভাবে চলবো সেটা ভেবে কিছুক্ষণ চুল ছিঁড়লাম। তারপর ভাবলাম সস্তা হোটেলে উঠবো, খাবো সস্তা খাবার। রাগ ও দুঃখে অনেক ক্ষণ মন খারাপ করে থেকে রাতের খাবার খেতে গেলাম। খাবার খেয়ে স্বভাবমত ভুঁড়ি উচু করে রাস্তায় হাঁটছি এমন সময় খেয়াল করলাম ফুটপাথের পাশে এক বৃদ্ধা পাতলা কাঁথা নিয়ে শোবার আয়োজন করছে। এত ঠাণ্ডার ভেতর বৃদ্ধা ছেড়া একটা কাথা নিয়ে ঘুমাতে যাচ্ছে ব্যাপারটা খুব করুণ। ব্যাপারটা অসম্ভব করুণ হয়ে যায় যখন দেখি বৃদ্ধা শীতে কাঁপছেন । ব্যাপারটা ঠিক হজম করতে পারলাম না। খালি সেই বৃদ্ধার কথা মনে হতে লাগলো। রাতে কম্বল নিয়ে ঘুমাতে পারছিলাম না, মনে হচ্ছিলো ঐ বৃদ্ধার ফুটপাথে ছেড়া কাঁথা নিয়ে ঘুমাবার কথা। প্রচন্ড অপরাধবোধ কাজ করছিলো কোনো অপরাধ না করেই। পরদিন বিকেলে দিনের কাজ শেষে মনে হলো আমার এই কয়েকদিন কিভাবে যাবে সেটা জানিনা কিন্তু এই অপরাধবোধ থেকে আগে বাঁচতে হবে। যে অল্পকিছু টাকা ছিলো তার প্রায় পুরোটা দিয়েই একটা কম্বল কিনলাম সেই বৃদ্ধার জন্য। মনে হচ্ছিলো তার শীতের যন্ত্রনা একটু কমলে হয়তো আমার এই অপরাধবোধও কিছুটা কমবে।

রাতেরবেলা সেই ফুটপাথের পাশে অপেক্ষা করতে থাকলাম বৃদ্ধার জন্য। ভেবে বেশ ভালো লাগছিলো কম্বলটা পাওয়ার পর বৃদ্ধার অনুভূতি কেমন হবে। হঠাৎ খেয়াল করলাম বেশ কিছু সময় কেটে গেলেও বৃদ্ধা আসছেননা। অনেক ক্ষণ অপেক্ষা করেও বৃদ্ধার দেখা পেলামনা। পুরো রাস্তার ঘুরলাম, আসে পাশের রাস্তা গুলোতেও খুঁজলাম কিন্তু তাকে কোথাও পেলাম না। অনেকক্ষণ খোঁজার পর একসময় ব্যার্থ মনে হোটেল রুমে ফিরে গেলাম। খুব বেশি মন-খারাপ লাগছিলো।

পরের দিন রাতে আবার বের হলাম সেই বৃদ্ধার সন্ধানে, কিন্তু কোথাও পেলামনা তাকে। অনেক ক্ষণ অপেক্ষা করলাম, অনেক ক্ষণ রাস্তায় রাস্তায় ঘুরলাম কিন্তু কোঁথায় সে? আমি চট্টগ্রামে আরো পাঁচ দিন ছিলাম, প্রতি রাতেই কম্বল নিয়ে বৃদ্ধাকে খুঁজতে বের হতাম, যদি তাকে পাই।

কাউকে মন থেকে কিছু দিতে চেয়েও দিতে না পারার কষ্টটা খুব গভীর। সেই কষ্ট নিয়েই ঢাকা ফিরে আসলাম।

(শীতরাতের অপরাধবোধ নামে এই গল্পটা আগেও পোষ্ট করেছিলাম যা আমার জীবনের এক সত্য ঘটনা । আজও প্রায়ই আমি সেই অপরাধবোধে ভুগি। আসলে আমাদের সবার ভেতরেই এমন কিছু অপরাধবোধ বা ব্যাথা থাকে । সেই সাথে আমাদের ভেতর কিছু দ্বায়িত্ববোধ থাকে । সেই দ্বায়িত্ববোধ থেকে আমরা দাড়াতে চাই শীতার্তদের পাশে, আর সাথে চাই আপনাকে, তোমাকে ও তোকে ।
আমাদের আর্থিক সাহায্য পাঠানোর জন্য
--বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল)
বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল)
ডাচ বাংলা মোবাইল একাউন্ট নম্বর: ০১৬৭৪৫৬৫৮৯৮০
ব্যাংক এ্যাকাউন্ট ডিটেইলসঃ
Name of the Account: MD. YASEEN KHAN
Account No: 105 - 101 - 70249
Dutch-Bangla Bank Ltd
Foreign Exchange Br.
Motijheel, Dhaka.
যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ০১৯১২৫৬২০৭২।
আশা করি আমাদের ছোট ছোট প্রচেষ্টা বড় কিছুতে রূপান্তরিত হবে।

মুকতাদির: [পিরিতি-ভালোবাসারসংগ্রাম]নিজের সাথে নিজের কথাই শেষ হলো না ...অন্যের সাথে "কি আর বলিব" প্রভু!!! ডুবে মরি কথাহীন সাগরে ..(ঘুড়ি)

*হযবরল*

মুকতাদির বেশটুনটি শেয়ার করেছে

স্বার্থ ভুলে অন্যের কষ্ট কে নিজের কষ্ট ভেবে নিপীড়িত মানুষ এর পাশে গিয়ে তাদেরকে সাহায্য করতে পারার নাম ও মানবতা
মানুষ কে মানবতার দৃষ্টি দিয়ে দেখতে পারা, ভালবাসতে , সম্মান করতে , সুখে দুঃখে সাহায্য করতে, সততার সাথে নিরপেক্ষ ভাবে ন্যায় ও কে প্রতিহতকরা- মানবতা কে জাগিয়ে তুলে।মানবতাবোধ,এর আরেক টা রুপ ই হলো স্বেচ্ছাসেবক হওয়া।সেই মানবতার প্রেক্ষিতেই এবার আমরা একটু চাইতে চাই, আমাদের চাওয়া মিলে চেষ্টা করলে মাতৃভূমির দরিদ্র মানুষ গুলো শীতের প্রকোপ থেকে কিছুটা
পরিত্রাণ পাবে, আমাদের সাহায্য পাঠানোর বিস্তারিত --বিকাশ নম্বর: ০১৯১২৫৬২০৭২ (পার্সোনাল) বিকাশ নম্বর: ০১৮২০৫৮২৬৩৬ (পার্সোনাল) ডাচ বাংলা মোবাইল একাউন্ট ০১৬৭৪৫৬৫৮৯৮০ ব্যাংক এ্যাকাউন্ট- Name of the Account: MD. YASEEN KHAN Account No: 105 -101 -70249 Dutch-Bangla Bank Ltd Foreign Exchange Br. Motijheel, Dhaka. হটলাইন নম্বর-০১৯১২৫৬২০৭২

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

আজকের
গড়
এযাবত
৫,৯৮০

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

+ আরও