★ছায়াবতী★

@Saadiia

ছায়ামানবী ...ছায়া ছায়া অনুভবে
business_center প্রফেশনাল তথ্য নেই
school এডুকেশনাল তথ্য নেই
location_on লোকেশন পাওয়া যায়নি
1393443818000  থেকে আমাদের সাথে আছে

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

এই শীতে এমনকি এই বছরে প্রথম আসলাম বেশতো তে কেমন আছেন আশা করি সবাই ভাল

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

.

★ছায়াবতী★: https://www.facebook.com/DailyProthomAlo/videos/1420344514665297/ গল্পটি তাসমিনার৷ নওগাঁর এই কিশোরি ঘোড়া চালায়৷ ঘোড়দৌড়ে জিততে চায়। মেডেল বা পুরস্কার নয়, জয়ের নেশায়! অদম্য তাসমিনায় জয়ের কাহিনী নিয়েই এই ছবি, ‘ঘোড়সওয়ার’৷ আনিসুল হকের তত্ত্বাবধানে তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেন তানহা জাফরীন৷ রোকেয়া দিবসে প্রথম আলোর নিবেদন৷

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

সুখ হল -সুখের অনুভূতিকে অব্যক্ত রাখা

★ছায়াবতী★: একটি নতুন উত্তর দিয়েছে

 অনেক সময়ই হাতে মেহেদি লাগানোর সময় কাপড়ে লেগে গিয়ে দাগ বসে যায়। এই দাগ কাপড় থেকে উঠাতে কি করা যেতে পারে?
★ছায়াবতী★: অনেক সময়ই হাতে মেহেদি লাগানোর সময় কাপড়ে লেগে গিয়ে দাগ বসে যায়।এ রকম হলে দাগ লাগা অংশটি গরম দুধে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেললে অনেক সময় দাগ চলে যায়।নতুবা বাজারে কাপড়ের কঠিন দাগ তোলার নানা...বিস্তারিত

১ টি উত্তর আছে

*মেহেদিরদাগ* *কাপড়েদাগ* *দাগদূর*

★ছায়াবতী★: একটি নতুন উত্তর দিয়েছে

 রান্নার সময় হাতে তেলের ছিটে লাগাটা খুব স্বাভাবিক একটা ব্যাপার। গরম তেলে পুড়ে যাওয়া ত্বকের চিকিৎসায় প্রাথমিকভাবে কি করা যেতে পারে?
★ছায়াবতী★: গরম তেল হাতে লাগার সাথে সাথেই আমরা দৌড়ে ফ্রিজের কাছে যাও্য আর বরফের টুকরো বের করে সেখানটায় দেই। কিন্তু বরফ রক্তের প্রবাহকে রোধ করে এবং ত্বকের চামড়াকে সংকুচিত করে? ভালো তো নয়ই, বরং আরো অনেক বেশি খারাপ ...বিস্তারিত

২ টি উত্তর আছে

*রান্না* *গরমতেল* *তেলেরছিটা* *টোটকা* *লাইফস্টাইলটিপস*

★ছায়াবতী★: একটি নতুন উত্তর দিয়েছে

 সাইনাসের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া সমাধান কি কি হতে পারে?
★ছায়াবতী★: স্বাস্থ্যবিষয়ক এক ওয়েবসাইটে জানানো হয়, করোটির হাড়ে যে বাতাস-পূর্ণ গর্তগুলো নাসান্ধ্রের সঙ্গে সংযোগ রক্ষা করে তাদের যে কোনোটিকে সাইনাস বলে। আর বায়ুবাহী এলার্জি, খাদ্যাভ্যাসের সমস্যা ইত্যাদি কারণে সাইনা...বিস্তারিত

১ টি উত্তর আছে

*ঘরোয়াসমাধান* *সাইনাস* *টোটকা* *হেলথটিপস*
ছবি

★ছায়াবতী★: ফটো পোস্ট করেছে

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

একটা চমৎকার বার্ধক্যের মূল কথা হচ্ছে নিঃসংগতার সঙ্গে স্রেফ একটা সম্মানজনক চূক্তি। -গার্সিয়া মার্কেজ।
জোকস

★ছায়াবতী★: একটি জোকস পোস্ট করেছে

(হাসি-৩)(হাসি-৩)

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

সুখ হল -সুখের অনুভূতিকে অব্যক্ত রাখা
ছবি

★ছায়াবতী★: ফটো পোস্ট করেছে

★ছায়াবতী★: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দানবীর হাজি মুহাম্মদ মহসিনের নাম আমরা কে না শুনেছি। দানশীলতার কারণে তিনি আজও কিংবদন্তিতে এবং বর্তমানেও দানের ক্ষেত্রে তুলনা অর্থে তাঁর দৃষ্টান্তই ব্যবহার হয়ে থাকে। প্রায় তিনশত বছর পরও যার অবদান আমাদের সামনে দৃশ্যমান রয়েছে, চট্টগ্রামের হাজি মুহাম্মদ মহসিন কলেজ, হুগলির মহসিন কলেজসহ আজও তাঁর দানের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে আছে।

সেই দানবীর হাজি মুহাম্মদ মহসিনের মৃত্যুবার্ষিকী ছিল গতকাল । ১৮১২ সালের ২৯ নভেম্বর মৃত্যু বরণ করেছিলেন উপমহাদেশের এই দানবীর।

উইকিপিডিয়ার তথ্য মতে, মুহাম্মদ মহসিন ১৭৩২ সালে হুগলিতে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা হাজি ফয়জুল্লাহ ও মা জয়নাব খানম। ফয়জুল্লাহ ছিলেন একজন ধনী জায়গিরদার। তিনি ইরান থেকে বাংলায় এসেছিলেন। জয়নব ছিলেন ফয়জুল্লাহর দ্বিতীয় স্ত্রী। জয়নবেরও পূর্বে বিয়ে হয়েছিল। মন্নুজান খানম নামে তার ও তার সাবেক স্বামী আগা মোতাহারের একটি মেয়ে ছিল। আগা মোতাহারও বিপুল সম্পদের মালিক ছিলেন। হুগলি, যশোর, মুর্শিদাবাদ ও নদীয়ায় তার জায়গির ছিল। আগা মোতাহারের সম্পত্তি তার মেয়ে মন্নুজান উত্তরাধিকার সূত্রে অর্জন করেছিলেন। ১৮০৩ সালে মন্নুজানের মৃত্যুর পর মহসিন তার উত্তরাধিকারী হিসেবে সম্পদের মালিক হন।

গৃহশিক্ষকের তত্ত্বাবধানে মহসিন ও তার সৎ বোন মন্নুজান শিক্ষার্জন করেছেন। পরবর্তীতে উচ্চ শিক্ষার জন্য রাজধানী মুর্শিদাবাদ যান। শিক্ষাজীবন শেষে তিনি দেশভ্রমণে বের হন। সফরকালে তিনি হজ পালন করেন। এ সময় তিনি মক্কা, মদিনা, কুফা, কারবালাসহ ইরান, ইরাক, আরব, তুরস্কসহ নানা স্থান সফর করেছেন। সফর শেষে দীর্ঘ ২৭ বছর পর তিনি দেশে ফিরে আসেন। দেশে ফেরার পর তিনি তার বিধবা বোনের সম্পদ দেখাশোনা শুরু করেন।

বোনের মৃত্যুতে তার সম্পদের মালিক হন মহসিন । কিন্তু একজন ধার্মিক এবং সহজ-সরল জীবনের অধিকারী মহসিন সেই সম্পদ নিজে ভোগ করলেন না। সিদ্ধান্ত নিলেন মানুষ এবং মানবতার কল্যাণে ব্যয় করার। তাছাড়া তিনি ছিলেন চিরকুমার। তাই বংশধরদের জন্যও তার কোনো ভাবনা ছিল না।

১৭৬৯-৭০ সালের দুর্ভিক্ষের সময় তিনি অনেক লঙ্গরখানা স্থাপন করেন এবং সরকারি তহবিলে অর্থ সহায়তা প্রদান করেন। ১৮০৬ সালে তিনি মহসিন ফান্ড নামক তহবিল প্রতিষ্ঠা করে তাতে দুইজন মোতাওয়াল্লি নিয়োগ করেন। ব্যয়নির্বাহের জন্য সম্পত্তিকে নয়ভাগে ভাগ করা হয়। এর মধ্যে তিনটি ভাগ ধর্মীয় কর্মকাণ্ড, চারটি ভাগ পেনশন, বৃত্তি ও দাতব্য কর্মকাণ্ড এবং দুইটি ভাগ মোতাওয়াল্লিদের পারিশ্রমিকের জন্য বরাদ্দ করা হয়।

হুগলির হুগলি মহসিন কলেজ ও চট্টগ্রামের সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ প্রতিষ্ঠার সময় মহসিনের ওয়াকফকৃত অর্থ ব্যবহৃত হয়, তার পৃষ্ঠপোষকতায় গড়ে ওঠে দৌলতপুর মুহসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এছাড়াও মহসিন ফান্ডের অর্থে অসংখ্য দরিদ্র ছাত্রদের পড়াশোনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে এখনও। ঢাকায় অবস্থিত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ঘাঁটির নাম বিএনএস হাজি মহসিন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহসিন হলের নামও তাঁর স্মরণেই রাখা হয়েছে।

হাজি মুহাম্মদ মহসিন ১৮১২ সালে হুগলিতে ইন্তেকাল করেন। তাকে হুগলি ইমামবাড়ায় দাফন করা হয়।

(সংগৃহীত)

★ছায়াবতী★: একটি নতুন উত্তর দিয়েছে

 মাষকলাই ডালের উপকারিতা সমন্ধে বিস্তারিত জানতে চাই l
★ছায়াবতী★: দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এর চাষ বেশি হয়ে থাকে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, মাষকলাইয়ের ডালে শতকরা ২০ থেকে ২৩ ভাগ আমিষ থাকে। প্রোটিন ও ভিটামিন বি-এর সমৃদ্ধ উৎস হলো এই ডাল। এ ডাল পেট কেচে বর্জ্য নামিয়ে দেয়।...বিস্তারিত

১ টি উত্তর আছে

*পুষ্টিগুণ*

★ছায়াবতী★: একটি নতুন উত্তর দিয়েছে

 নার্সদের ইউনিফর্ম নাকি বদলে গেল। সাদার পরিবর্তে কি পোশাক দেওয়া হচ্ছে কেউ কি বিস্তারিত জানেন?
★ছায়াবতী★: শত বছরের ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এতদিন নারীদের ক্ষেত্রে সাদা শাড়ি, সাদা ক্যাপ, অ্যাপ্রোন, সাদা জুতা ও পুরুষদের ক্ষেত্রে সাদা শার্ট, সাদা ফুল প্যান্ট ও কালো জুতা পরিহিত নার্সদের...বিস্তারিত

১ টি উত্তর আছে

*নার্স* *ইউনিফর্ম*

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

শুভ সকাল صباح الخير Good Morning আজ বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০১৬ খ্রীষ্টাব্দ ২৯ সফর ১৪৩৮ হিজরী ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ এখন হেমন্তকাল আজকের সূর্যোদয় ৬:২৪ ও সূর্যাস্ত ৫:০৯ মিনিটে সতর্ক থাকুন, নিরাপদে থাকুন আনন্দময় হোক আপনার সারাদিন

★ছায়াবতী★: একটি বেশব্লগ লিখেছে

জন্মঃ আগস্ট ১৩, ১৯২৬ - মৃত্যুঃ নভেম্বর ২৫, ২০১৬) যিনি ফিদেল কাস্ত্রো বা শুধুই কাস্ত্রো নামে পরিচিত; তিনি একজন কিউবান রাজনৈতিক নেতা ও সমাজতন্ত্রী বিপ্লবী। কিউবার পূর্বাঞ্চলে বিরান জেলায় স্পেনীয় বংশোদ্ভূত এক অভিবাসী পরিবারে। পুরো নাম ফিদেল আলেজান্দ্রো কাস্ত্রো রুজ। বাবা ছিলেন আখের খামারী।
১৯৫৯ সালে সশস্ত্র বিপ্লবের মধ্য দিয়ে কিউবার মার্কিন সমর্থিত একনায়ক ফুলগেন্সিও বাতিস্তাকে উৎখাত করে যুক্তরাষ্ট্রের নাকের ডগায় একটি সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বিশ শতকের কিংবদন্তীতে পরিণত হয়েছিলেন ফিদেল কাস্ত্রো। স্নায়ুযুদ্ধ এবং বিশ্বব্যাপী মার্কিন নেতৃত্বাধীন পুঁিজবাদের জয়জয়কারের মধ্যেও সমাজতান্ত্রিক কিউবাকে টিকিয়ে রেখে সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের প্রবাদ পুরুষ হিসেবে পরিচিতি পান তিনি।
কিউবা বিপ্লবের নেতা থেকে বিশ্বজুড়ে সাম‌্যবাদের স্বপ্নচারীদের নায়ক বনে যাওয়া ফিদেল কাস্ত্রো তার জীবনের সঙ্গে পাঁচ দশকের শাসনকালে নানা বক্তব‌্য দিয়েও ছিলেন আলোচিত-
“আমাকে অপরাধী বানাতে পারো, এটা কোনো গুরুত্ব বহন করে না। ইতিহাস আমাকে মুক্তি দেবে”

(এই উক্তি করেছিলেন বাতিস্তা সরকারকে উৎখাতে ১৯৫৩ সালে মনকাদা ব্যারাকে হামলা চালানোর পর গ্রেপ্তার কাস্ত্রো বিচার চলাকালীন)
“বিপ্লব গোলাপের শয্যা নয়. বিপ্লব হচ্ছে মৃত্যু পর্যন্ত অতীত ও ভবিষ্যতের মধ্যকার সংগ্রাম”

(১৯৫৯ সালে এই উক্তি করেন)
“তথ্যে বিদ্ধ হতে হবে এবং মেনে নিতে হবে, সমাজতান্ত্রিক শিবিরের পতন হয়েছে।”

(১৯৯১ সালে সোভিয়েত রাশিয়ার পতনের পর কাস্ত্রো)

“তারা সমাজতন্ত্রের ব্যর্থতার কথা বলে, কিন্তু এশিয়া, আফ্রিকা আর দক্ষিণ আমেরিকায় পুঁজিবাদের সাফল্য কী?”

(১৯৯১ সালে সমাজতান্ত্রিক শিবিরের পতনের পর দেয়া এক বক্তব্যে)
“দ্রুতই আমি অন্যদের মতো বিদায় নেব। এটা আমাদের সবার জীবনেই আসবে, কিন্তু কিউবার কমিউনিস্টদের ধারণা এ গ্রহে প্রমাণ হিসেবে টিকে থাকবে, যদি তারা ঐকান্তিকতা ও মর্যাদার সঙ্গে কাজ করে।…

(২০১৬-র এপ্রিলে কিউবান কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেসে দেওয়া বিদায়ী ভাষণে)
বিদায়!!!!!!!!!

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

আমি বলি না >>>>>>
তুমি বল হ্যাআআআআআ

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

বেশতো :D

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

আজকের
গড়
এযাবত
৪৮,৩২৮

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

***

*

+ আরও