বাংলার বেদুঈন

@ZAHIRHASAN

মানুষের অফুরন্ত সম্ভাবনায় বিশ্বাস হারাতে নেই
business_center চাকুরী
school খুলনা জেলা স্কুল
location_on খুলনা
1363360913000  থেকে আমাদের সাথে আছে

বাংলার বেদুঈন: শোন দস্যি মেয়ে...... ঐ দূর পাহাড়ের গায়ে, রুপালী নূপুর পায়ে, ছুটে চলে যে মেয়েটি ডানে আর বায়ে। তার প্রেমেতে ডুবেছি, তারে নিয়ে স্বপন বেধেছি, সাথে সাথে প্রানেও মরেছি। কালো চুলের বেণীর ফাঁদে, আটকে গিয়েছি অজানা কোন আস্বাদে, দিবারাত্রি কেন মনটা আমার কাঁদে। রাত এলে ঘুম আসে চোখ জুড়ে, তখন স্বপ্ন আসে ফিরে, পুরাটাই সেই দস্যি মেয়েকে ঘিরে। শোন গো দস্যি মেয়ে, একটুখানি স্ময় নিয়ে, তোমায় ভালবেসেছি এই জীবন দিয়ে।

বাংলার বেদুঈন: আমি জানি না বিষ্যটি বন্ধুরা কিভাবে নেবেন। আমি আপনাদের কাছে বিনিত অনুরোধ করছি, আপনাদের কারো গ্রামের বাড়ি যদি ফাকা পরা থাকে এবং সেখানে যদি কিছু দিন সময় কাটানো যায় তবে আমাকে জানান। আমি বেশকিছু দিন পরিচিতদের থেকে নির্জনে কাটাতে চাই। আমার টাকায় আমি সব করব কিন্তু শুধু থাকার জায়গা হলেই হবে।

বাংলার বেদুঈন: (হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট) ভোর হইয়াছে, দূর আকাশে রক্তিম আভা প্রতীয়মান। আড়মোড়া ভাঙ্গিয়া জাগিয়া উঠিয়াছি পৃথিবি।শুরু হইল আরেকটি দিনের। কালের কালো গহ্বরে হারাইয়া গেল আরো ২৪ টি ঘণ্টা। ভাবিয়া দেখিয়াছি কি , গতকল্য আমাদের অগ্রগতি কতখানি ? ভাবিয়া দেখুন বন্ধুগন, ভাবুন !! স্থবির জীবন বড়ই মূল্যহীন, মৃত নদীর ন্যায়।

বাংলার বেদুঈন: আমাদের দেশে সারা বৎসর নানা উৎসব হয়, কিন্তু নববর্ষ হচ্ছে এমন একটি উৎসব যে উৎসবে সকল ধর্মের মানুষ একসাথে উৎযাপন করতে পারে। পুজা, ঈদ বা অন্যান্য উৎসব সব ধর্মের মানুষ মিলিত হতে পারে না বিভিন্ন কারনে কিন্তু পহেলা বৈশাখ সারা পৃথিবী জুড়ে বসবাস করা বাঙ্গালী জাতির প্রানের উৎসব। আসুন সবাই মিলে এই প্রানের উৎসব প্রান ভরে উপভোগ করি।

বাংলার বেদুঈন: [বসন্ত-একতোড়াফুল]অন্তঃজালের সকল বিভাগ হইতে বিদায় নিয়াছি শুধুমাত্র বেশতোতেই স্ক্রিয়।আগামিকল্য নব বৎসর শুরু হইবে সেহেতু এই স্থানের সকল ভ্রাত ভগ্নী আর বন্ধুদের প্রতি রহিল নববর্ষের শুভেচ্ছা। সবাই সকল গ্লানি ভুলিয়ে নানা পদের ভর্তা আর পান্তার সহিত পুর্বের সকল রাগ আর অনুরাগ গিলিয়া ফেলিবেন। যাহারা বা যে আপনাকে কষ্ট দিয়াছে তাহাদের সকলকে ক্ষমা করিয়া দিবেন। তবে স্মরণ রাখিবেন বিশ্বাসঘাতকদের সহিত আবার নতুনভাবে জড়াইতে যাইবেন না যেন। ক্ষমা করিবেন তবে দুরুত্ব বজায় রাখিয়া।

বাংলার বেদুঈন: (হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট) এই ভিত্তিহীন স্বাধীনতা দিয়ে আমাদের কি লাভ ? স্বাধীনতার প্রায় ৫০ বছর পরেও আমরা ব্যর্থ হয়েছি নারী আর শিশুদের নিরাপত্তা দিতে, আমরা ব্যর্থ হয়েছি তাদের মৌলিক মানবিক চাহিদা পুরন করতে। নুসরাতরা যখন সব লজ্জা আর দ্বিধা ঝেড়ে ফেলে প্রতিবাদ করতে শেখে তখন এক শ্রেণীর মানুষ তাদের চরিত্রহীনা উপাধি দিতে তৎপর হয়। যখন নুসরাত ঐ মানুষ পেতে জন্মানো কুত্তার ব্যাপারে আওয়াজ তুলেছিল তখনই কেন যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি ?

বাংলার বেদুঈন: স্বপ্ন দেখেছিলাম দুজনে মিলে নতুন একটি পৃথিবী গড়ব, চলার পথের নকশা সেভাবেই সাজিয়েছিলাম। কিন্তু এত পরে হায় জানা গেল আমার অজান্তে তুমি গড়ে তুলেছ এক নতুন পৃথিবী যেখানে আমার প্রবেশাধিকার নেই। তো একাই চলা উত্তম।

বাংলার বেদুঈন: (হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট) স্বপ্ন দেখতে নেই রে বাঁধা, নেই রে কোন সীমানা। তবে স্বপ্ন কিন্তু চুরি হয়, কষ্ট শুধু স্বপ্ন ভাঙ্গার যন্ত্রনা। স্বপ্ন তো ঘুমের মাঝে একান্ত আবেশ স্বপ্ন হচ্ছে সামনে এগিয়ে যাবার দিশা, তবে স্বপ্ন স্বপ্নই থাকে যদি না মেলে, সব স্বপ্নই মিথ্যা, শুধু লোভ পুরনের খায়েশ।

বাংলার বেদুঈন: (হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট) তোমার হাত দুটি ধরে, হারিয়ে যাব দূর কোন সীমানায়, যেথায় আকাশ মাটি মিশে গেছে, অজানা কোন এক মায়ায়। স্নাত অপার্থিব জোসনায় সারারাত মিশে যাব মাটির গন্ধের সাথে, আবিস্কার করব নতুনভাবে তোমায়। কোমল হাতে মাথার চুলে বিলি কেটে দেব, তুমি ঘুমাবে পরম নিশ্চিন্তে, আমি শুধু অবাক নয়নে, তোমার মায়াবী মুখের পানে তাকিয়ে রব। মায়ার জগতে, মায়ায় বাঁধি, জীবনের খেলাঘর, আজ না হয় হলাম সুখী, জানি না কি হবে দুই দিন পর।

বাংলার বেদুঈন: সদা হাসি ধরে রাখি, দুই ঠোটের কোনে। কত দুঃখ আছে জমা, এই মনের গহীনে। কাছের মানুষটির নেই সময়, কভু কি সে শোনে। কত রাত কেঁদেছি একা, কেউ কি তা জানে ?

বাংলার বেদুঈন: [বসন্ত-সুখপাখি]যে কোন বিচ্ছেদ বেদনাময় হলেও এটি জীবনের স্বাভাবিক একটি ঘটনা। একটি জুটি গড়া যেমন স্বভাবিক বিচ্ছেদও তেমন স্বাভাবিক।প্রতিটি বিচ্ছেদের পেছনে একটি কারন থাকে। তবে সেই কারণটি যদি নৈতিক অধপতন সংক্রান্ত হয়ে থাকে তাহলে কষ্টের পরিমান অনেক অনেক বেশী হয়।কাছের মানুষটি দূরে সরে যেতেই পারে সেটা মেনেও নেয়া যায় কিন্তু সেই মানুষটি যদি চরিত্রহীন হয় তবে সেই ব্যাথা কোন দিনও মুছে যায় না, বরং অবসরে স্মৃতির ঝাপই খুলে বসলে শুধুই কিছু প্রশ্ন জাগে যার উত্তর নেই সত্যিই নেই।

বাংলার বেদুঈন: কেন জানি আমি বার বার আবেগীয় দুর্ঘটনার শিকার হই, খুব বাজে ভাবেই হই।কেন জানি না মানুষের চোখের পানি আমাকে খুবই দুর্বল করে ফেলে।এই দুর্বলতার কারনে জীবনে অনেক কিছু হারিয়েছি। এই গাঁয়ে পরে অন্যের উপকার করতে গিয়ে আজ আমি পথের ফকির। জানি না আবার কিভাবে ঘুরে দাঁড়াব, জানি না আবার কবে ফিরে পাব নিজেকে।সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

বাংলার বেদুঈন: [বেশবচন-ছন্দাহয়েগেলাম]সেই ব্যক্তি উপদেশ দিতে পারে যে ব্যাক্তি জীবনে সৎ। যখন কেউ অন্যকে কোন বিষয়ে উপদেশ দেয়, নানা বিধি নিষেধ আরোপ করে তবে সেই বিধি নিষেধ তার জন্যও সমানভাবে প্রযোজ্য হয়ে যায়।

বাংলার বেদুঈন: কেন জানি কিছুদিন ধরে একটি সুক্ষ অনুভূতি কিছুক্ষনের জন্য মনটাকে পুরাপুরি অসার করে দেই। শত চেষ্টা করেও সেই সুক্ষ অনুভুতিকে আলাদাভাবে চিহ্নিত করতে ব্যর্থ হচ্ছি।জীবনটাকে আর উপভোগ করতে পারছি না। কিসের যে অভাব সেটাই বুঝতে পারছি না। মাঝে মাঝে মনে হয় একটি সিগারেট খেয়ে দেখি স্নায়ুগত কোন মজা পাই কি না। আবার চিন্তা করি দূর টাকা খরচ করে ধোঁয়া খাব কেন ? যদি খেতেই হয় তবে পেট পুরে বিরিয়ানি খাব, আর আরামসে ঘুম দেব।

বাংলার বেদুঈন: মায়া ভাল কোন অনুভূতি না। এটি অনেক ক্ষতিকর একটি অনভুতি। তবে তার পরেও আমরা নিজের অজান্তে কারো কারো সাথে মায়ায় জড়িয়ে পরি, এবং সম্পুর্নরুপে ক্ষতিগ্রস্ত না হওয়া পর্যন্ত সেই মায়ায় পরে থাকে। আহাঁরে মায়া !!

বাংলার বেদুঈন: [শীত-কেবলেশীতনাই](হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট) শীতের রাতের ক্ষনে,নিশাচর পাখীর বেশে, জানালায় করাঘাত করে যদি কেউ এসে। বুঝে নিও হারিয়ে যাওয়া মানুষটি, ফিরেছে শুধু তোমায় ভালবেসে। হৃদয়ের উষ্ণতা নাই দিলে, কষ্টগুলো সামলে নিলে, দিও একটু উষ্ণতা পুর্বের তিক্ততা ভুলে।

ছবি

বাংলার বেদুঈন: ফটো পোস্ট করেছে

* আসুন ভোট দিতে যাই *

বাংলার বেদুঈন: শুভ সকাল বন্ধুরা !! সকালে উঠে দেশের প্রতি কর্তব্য হিসেবে আমার ভোট দিয়ে এসেছি। আমি জানি অনেকেই বলবেন এইটা আবার নতুন কি ? জি নতুন !! আমার বাসস্থান থেকে প্রায় ৮/ ৯ কিমি পথ হেটে ভোট দিয়ে এসেছি, শুধুমাত্র কর্তব্য পালনের জন্য। পথে স্বতফুর্ত ভোটার দেখে অনেক ভাল লাগ্ল।দেশ পরিবর্তন হচ্ছে তবে আমরা কেন পিছিয়ে থাকব ? আসুন সবাই মিলে ভোট কেন্দ্রে যাই, নিজের মুল্যবান ভোটটি পছন্দের প্রার্থিকে দেই।আসুন ভোট দিয়ে আসি।!!

বাংলার বেদুঈন: [বাঘমামা-আরপারিনা](মনখারাপ)(মনখারাপ)(মনখারাপ)(মনখারাপ) জানালায় দেখি ঝুলে আছে আধখানি চাঁদ, ঠিক যেন আমার মনের মত। প্রতি মুহুর্তে ভেঙ্গে চুরমার হচ্ছি, পাগল সময়ের অসহায় ভাবে যুদ্ধ করে যাচ্ছি, জীবন থেকে হারিয়ে যাচ্ছে কত সময়, তবুও শান্তি পাই না। যদি আমাবস্যা হত, সব আলো হারিয়ে যেত, নিজেকেও দেখতে পেতাম না। তবে নয়ন ভিজিয়ে কাঁদার একটু ফুরসৎ মিলতো। প্রতিদিন সকালে ভাবি আজ বোধহয় দিনটি এমন যাবে, আজ মনে হয় মন খুলে হাঁসতে পারব, কিন্তু দিনের শেষে আমিই পরাজিত, আমিই আশাহত সেই। (হার্টব্রেক)(হার্টব্রেক)(হার্টব্রেক)

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

আজকের
গড়
এযাবত
১৯,৬৬৮

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

***

+ আরও