শুধু আফরিন

@afrinparvez

অনেক চেষ্টা করেও মনের বয়স বাড়াতে পারিনি ...
business_center প্রফেশনাল তথ্য নেই
school এডুকেশনাল তথ্য নেই
location_on লোকেশন পাওয়া যায়নি
1412355710000  থেকে আমাদের সাথে আছে

শুধু আফরিন: https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=406856396406352&id=273049036453756

শুধু আফরিন: সব ই বদলে গেছে... চুল কমে গেছে... চেহারা বুড়োটে হয়ে গেছে... খালি আমার মন টা বুড়ো হল না... এখনো আমি কেনো বড় হলাম না...

শুধু আফরিন: ছেলেবেলায় সপ্ন গুলো ছিল ফানুশের মত... সচ্ছ কিন্তু রঙিন... হাল্কা আর বায়বীয়... বাতাসে ভেসে বেড়াতো আর ভেঙে গেলে তেমন কষ্ট হত না.... এক টা ভেঙে গেলে মন দ্রুত আরেকটা সপ্ন ফুলিয়ে নিত... আস্তে আস্তে যত বড় হতে থাক লাম সপ্ন গুলো কাচের মত হয়ে গেল.. সচ্ছ কিন্তু রঙ নেই...কঠিন আর ভারী... সপ্ন গুলো যেন চোখের পাতায় ভারী একটা বোঝা... এই বুঝি ভেঙে যায়... খুব সাব ধানে রাখতে হয়... কারন কোনো আঘাতে যদি ভেঙে যায় তাহলে ভাঙা কাচের টুক রো রক্তাক্ত করে ফেলবে আমাকে...

শুধু আফরিন: যে মানুষটিকে তুমি পছন্দ কর দেখবে কোন না কোন ভাবে মানুষটির প্রতি তুমি ডিপেন্ডেন্ট হয়ে গেছো। তার দিকে তাকিয়ে এমন অনেক কষ্ট তুমি সহ্য করে গেছো যে কষ্টটা তোমার ছিল না। অনেক সুখ তুমি গায়ে মাখো নি যে সুখটা তোমার ছিল। এই ইমোশন সাইকেলটি এক পর্যায় তোমাকে তোমার কাছ থেকে কেড়ে নিবে। অন্যএকজন মানুষের উপর নির্ভর করবে, তুমি ভাল থাকবে নাকি খারপ। মানুষটি চলে গেলে তুমি কিংকর্তব্যবিমুঢ় পাগলের মত ঝড়ের রাতে কাঁদবে..

শুধু আফরিন: ফিরে এলাম.. @nipusen

শুধু আফরিন: একটি বেশব্লগ লিখেছে

মেয়েটা

রিকশাটা খুব আস্তে যাচ্ছে .. ইস আজ মনে হচ্ছে মিস হয়ে যাবে ... কেন যে রিকশা ওয়ালা টা জোরে যাচ্ছে না !!!!!
অল্প খানি রাস্তা ... বাংলা কলেজের গেট থেকে চাইনিজ স্টপএইজ ...
ঠিক সাড়ে আটটার পর ই ওকে দেখা যাবে ... আবার পোনে নয়টার পর হলে দেখতে পাব না ...
বেশ একটু দূর থেকে বাসের লাইন টা দেখা যাচ্ছে .... লাইন এ ও কোথায় ????
 ওই তো ঠিক হয়ত ১১ জন পরে ... যাক, আজ তাহলে তাকে দেখতে তো পেলাম ...
রিক্সাটা এগিয়ে যাচ্ছে ... আস্তে আস্তে ছেলেটার চেহারা স্পষ্ট হচ্ছে ...সাদাসিধে গোলগাল একটা ছেলে ...মুখটা সবসময় হাসিহাসি ... আজ গাঢ় নীল্ রঙের একটা শার্ট পরেছে ... ইস কি মানিয়েছে !!!
সামনের একজন লোকের সাথে কি যেন কথা বলছে ...
আমার রিকশাটা কাছাকাছি চলে আসতেই হালকা আড় চোখে তাকিয়ে মুচকি হাসলো ... উফ !!!
মনে হলো যেন খুব ঠান্ডা একটা হাত হটাথ করে কেউ ঘাড়ে ছুইয়ে দিল...
ও  কি তাহলে বুঝলো যে আমি রোজ এই সময় এই রাস্তা দিয়ে যাই শুধু তাকে এক ঝলক দেখার জন্য ... কে জানে হয়ত হা...
রিকশা টা পাশ কাটিয়ে সামনে চলে গেল ... আমি একবার পিছন ফিরে তাকালাম ...
আরেহ !!!!
ও তো পিছন ফিরে তাকিয়ে আছে!!!!
আমার দিকে তাকিয়ে হাসছে ... উফ এত ছেলেমানুষের মত হাসি তার ...
অল্প একটু সময় ... বেশি হলে ৭০ সেকেন্ড ... কিন্তু আর রেশটা থাকে পুরোদিন ...
কাল আবার দেখা হবে তো ???

ছেলেটা

আরেহ দেরী হয়ে গেল নাতো!!!
রোজ তো সাড়ে আটটার পর ই এই রাস্তা দিয়ে যায় ও ... দেখি তো কয়টা বাজে ???
৮:৩৭ ... হুম নাহ ... দেরী হয়নি ... লাইন ই দাড়িয়ে গেলাম ...
দূর থেকে অনেকগুলো রিকশা আসছে ... নাহ একটাতে ও নাই ...
আচ্ছা আমার ঘড়িটা বন্ধ নাতো ???... নাহ টিক টিক শব্দ তো হচ্ছে ... তাহলে কি স্লো হয়ে গেল নাকি ঘড়িটা ????
আচ্ছা মোবাইল এ টাইম টা মিলিয়ে দেখি ...
ধুর !!!!
মোবাইল তো ৩:২৫ বেজে আছে .. কেনযে কাল রাতে সিম চেঞ্জ করে মুরসালিন এর সাথে কথা বলেছিলাম ????
শালা !!! তখন টাইম টা এলোমেলো হয়ে গেছে মোবইলের...
দেখি সামনের লোকটাকে সময়টা জিগেশ করি ???
"ভাই আপনের ঘড়িতে কয়টা বাজে ???"
ওহ ৮:৪০ ... এত বেজে গেল এখনো এলো না ???
আজ কি দেখতে পাব ওকে ???
অসুস্থ নাতো ???
আরেহ !!! ঐতো ... রিকশা টা আসছে ... দূর থেকে তার বেগুনি রঙের ওড়না দেখা যাচ্ছে ... নাহ মেয়েটার মুখটা রোগা আর গায়ের রংটা বেশ চাপা ... কিন্তু হলে কি হবে ???? যেই রংটা ই পরে তাতেই মানিয়া যায় ... আর হাসলে গালে একটা রাজকীয় টোল পরে ...উফ !!! আর কিছু কি লাগে ওর.... একবার হাসলে ই আমার বুকে মনে হয় হৃদপিন্ডটা buzz দিতে থাকে ...
রিকশা টা কাছাকাছি ... চোখে চোখ পড়তেই গালের মাঝে হালকা টোল টা দেখা গেল ... নাহ আজ আমি তো চোখ ফেরাতে পারছি না ...
রিকশা টা পাশ কাটিয়ে সামনে চলে গেল ... পিছন থেকে মেয়েটা লম্বা কালো চুল দেখা যাচ্ছে ... একটু কি পিছনে ফিরে তাকাবে না !!!!! তাকাবে!!!! তাকাবে !!!!

yessssss !!!
তাকালো !!! ফিরে তাকালো !!!!
উফ !!!আজ সারাদিন কাজে  মন বসবে না !!!...
নাহ মেয়েটার সাথে খুব জলদি কথা বলতে হবে ..
কাল কি একবার চেষ্টা করব????



*ভালবাসা* *অচেনা* *হাসি*
৫/৫

শুধু আফরিন: তুমি ভাবো আমি একা আমি নিঃসঙ্গ কিন্তু আমার মনে ভালবাসার কোলাহল, ভাবনার ভীড়, স্বপ্নের শোরগোল আমি কখনো একা নই ... আমি ততটা নিঃসঙ্গ নই যতটা তুমি আমায় ভাবো .. বরংচ তুমি বেশি নিঃসঙ্গ .. কারণ হাজার মানুষের ভীড়ে তুমি একা .. কোলাহলের মাঝে তোমার মনে নিস্তব্ধতা .. তীব্র রোদে গহীন কুপের অন্ধরার তোমার মনে ...

৫/৫

শুধু আফরিন: ধোঁয়াটা ভিজছে নিয়ণ আলোয়; খুঁজতে বেরিয়ে জানালার আকাশ, ছুঁয়ে ফেলছি মনের ইচ্ছেটা; গন্ধ, ছায়া, মাধুর্য্য সব সেই— ছেলেবেলার আমি, শুধু আলো পড়তেই সব বিপরীত, ঠিক মিথ্যে— ছায়া; বিপ্রতীপ করবো তাই, ভিজছি নীলে, বিপরীতটা কে অবগাহনের— প্রচেষ্টায়...!!

ছবি

শুধু আফরিন: ফটো পোস্ট করেছে

৪/৫

এইটা আমি ....

৪/৫

শুধু আফরিন: তুমি যা খুজছো তা তোমাকে খুঁজে বেড়াচ্ছে ...

৩/৫

শুধু আফরিন: তুমি বললে আজ দুজনে নীল রঙা বৃষ্টিতে ভিজব রোদেলা দুপুরে একসাথে নতুন সুরে গান গাইবো । শেষ বিকেলের ছায়ায় নীল আকাশের বুকে আমি, লাল রঙা স্বপ্ন আঁকব ।। তুমি চাইলে আজ দুজনে সাত রঙা প্রজাপতি ধরবো নোনা বালিচরেতে একসাথে আকাশের সমুদ্র স্নান দেখবো *প্রিয়গান*

৪/৫

শুধু আফরিন: সামনে রাস্তা অনেক কঠিন ... এখনি দুর্বল হলে চলবে না.. কোনো ভাবেই ভেঙ্গে পরা যাবে না

শুধু আফরিন: তোর সাথে হঠাথ করে দেখা, পরিচয়, বন্ধুত্ব ... সময়টা অনেক অল্প ... কিন্তু মুহুর্তগুলা অনেক অনেক গভীর ... অনেক দিন ভাবসি তোকে একটা কথা বলব ...কিন্তু বলা হয়নি ... দোস্ত "you are my lucky charm"... @nipusen

৫/৫

শুধু আফরিন: পুরো পৃথিবীর সব নিষ্পাপ হাসি আজ তোর্ জন্য সব তারার আলো তোর্ জন্য .. শুভো জন্মদিন দোস্ত .. @nipusen

শুধু আফরিন: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

হায় আল্লাহ !!!!! আবার আমার স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে !!!! তারমানে আবার একটা বিশাল ধাক্কা খাবো !!!! নাআআআআআ !!!!!

শুধু আফরিন: একটি বেশব্লগ লিখেছে

চাওয়া পাওয়া খুব বেশি কিছু ছিল না ...

চোখে অনেক বছর ধরে কাজল পরি না ... কেউ কখনো জানতে চাইতো না যে কেন কাজল পরি না ...
খুব ইচ্ছা করত কেউ একজন খুব আবেগ নিয়ে বলবে "এই একটু কাজল দাও না চোখে ".... এই অপেক্ষায় অপেক্ষায়  অনেক বছর কেটে গেল ... কেউ এলো না জীবনে আর কেউ বলল ও না কখনো ....তারপর একসময় পর এই ছোটো চাওয়াটা মনের অতলে কোথাও হারিয়ে গেল ...

তারপর কোথেকে এক পাগলা এলো আমার জীবনে ... আমাকে  নিয়ে একটা উপমা দিত, সে বলত, "কারো খুব যত্নে গড়া পুতুল আমি ... পুকুর পাড়ের কালচে এটেল মাটি দিয়ে গড়া আমি ...পানির স্নিগ্ধতা আমার কালচে মুখে চেয়ে থাকে ... এটেল মাটি তো তাই শুকনো অবস্হায় আমি পাথরের মত শক্ত আমি ... আমাকে ভেঙ্গে ফেলা খুব কঠিন তখন ... আবার  যখন পানির স্পর্শে আসি তখন আমি মোমের মত গলে যাই "..... আরো বলত, " খুব সাবধান !!!  নিজেকে পানি থেকে বাঁচিয়ে চলতে হবে, পুতুলের মাটির যাতে অপচয় না হয়, তাই খুব সাবধান"

তারপর কোনো একদিন ভোরবেলা খুব দাবি নিয়ে বলল, "আজ তুমি চোখে হালকা করে কাজল পরবে আর কপালে একটা ছোটো টিপ পরবে" .... অনুরোধ টা শুনে কোথায় জানি একটা মিটমিটে আবেগ চলে আসলো ...আমার আধার কুপের মত মনের অতল থেকে সে বীর ডুবুরীর মত অতি যত্নে আমার ছোটো  চাওয়াটাকে খুঁজে নিয়ে এলো ....নিজেকে অনেক কষ্ট করে ও আর ধরে রাখতে পারলাম না ... তার অনুরোধটা রেখে ফেললাম  ...
অনেকদিন পরে নিজেকে আয়না  দিয়ে দেখলাম ... নিজেকে দেখে চিনতে পারলাম না ... একি আমি ???
নাকি তার ভালবাসার রঙে রাঙানো এটেল মাটির পুতুল ?????
জানি না ... তবে ক্ষুদ্র ইচ্ছেটা আমার পূরণ হলো .... আর পাথরের সেই মূর্তি এখন তার ভালবাসার প্রতিছবি ....




*ভালবাসা* *স্বপ্ন* *আবেগ*
৫/৫

শুধু আফরিন: এই ঘোর যেন না কাটে ... এই পথ যেন না ফুরায় ... এই পথেই ভালবাসা ... তাই এই পথেই যেন শেষ হয় জীবন গতি ... ভালবাসা যদি কুয়াশা হয় তাহলে আর রোদের হাসি দেখতে চাই না... তুমি ঘন কুয়াশার মতো ছেয়ে থাকো আমার মাঝে ...

*ভালবাসা*
৫/৫

শুধু আফরিন: ভোরবেলা প্রথম ফোনটা আসে তোমার ... আমার ঘুম ভাঙ্গতে হয়ত মাঝে মাঝে দেরী হয়.. কিন্তু তোমার দেরী হয় না ... আমার ছায়াসঙ্গী তুমি... আমার দিন শুরু হয় প্রিয় মানুষের কন্ঠ শুনে ... প্রতিদিন তাই মনে হয় হয়ত অদৃষ্টের কেউ আমার উপর অনেক খুশি ... . (খুকখুকহাসি)

৫/৫

শুধু আফরিন: কেন চেনা মানুষগুলো অচেনা হয়ে যায় ??? কেন অচেনা একটা মানুষ কাছের হয়ে যায় ??? কেন পাশে থাকা মানুষটা কখনো মলিন মুখটাকে দেখেও না দেখার ভান করে ??? আর কেনইবা অচেনা দুরের মানুষটা কন্ঠসর শুনলেই বুঝতে পারে যে মুখটা মলিন ??? কেন এই সব হয় জানিনা ...শুধু জানি অনুভুতি টুকু থেকে যায় ...

*অনুভুতি*
৫/৫

শুধু আফরিন: আমার উষ্ণ মনে হটাথ তোমার শীতল আবেগের স্পর্শ... যেন শীতের সকালে কেউ ঠান্ডা হাত ঘাড়ে ছুইয়ে দিল ..

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

আজকের
গড়
এযাবত
১,০৮৬

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত