আফটার সেভ

আফটারসেভ নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কিনতে ক্লিক করুনবাইরে অসহ্য গরম। গরমে চেহারা ও শরীরের বারটা বেজে যাচ্ছে। উষ্কোখুষ্কো চেহারা, শরীর থেকে ঘামের গন্ধ আসছে। এর থেকে রেহাই পেতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও পরিপাটি থাকা প্রয়োজন। এই গরমে বাজারে পুরুষের জন্য নানা ধরনের প্রসাধন পাওয়া যায়। এই যেমন শেভিং জেল, শেভিং ক্রিম বা ফোম, ডিওডোরেন্ট ও সুগন্ধি। এসব প্রসাধনের ব্যবহার একদিকে আপনাকে সতেজ রাখবে, অন্যদিকে ব্যক্তিত্বও বাড়িয়ে তুলবে। তবে কেনার আগে ভালো মানের প্রসাধন বেছে নিতে হবে। আরেকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে, এসব প্রসাধন আপনার ত্বকের জন্য উপযুক্ত কি না।

নির্ঝঞ্ঝাট শেভিংয়ের জন্য জেল

কিনতে ক্লিক করুন

তরুণদের এখন শেভিংয়ের জন্য শেভিং জেলই পছন্দের তালিকায় শীর্ষে। বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের শেভিং জেল পাওয়া যায়। যারা প্রতিদিন সকালবেলা উঠে অফিস কিংবা ক্লাস করতে যান তাদের জন্য শেভিং জেল অত্যান্ত দরকারী। নিয়মিত শেভের জন্য ফোম, ক্রিমের তুলনায় জেল বেশ কার্যকর। দাড়ি কাটার সময় জেল ব্যবহারের জন্য দাড়ির গোড়া দ্রুত নরম হয়ে যায়। যার কারণে খুব সহজেই দ্রুত শেভ করা যায়।

শেভিং ক্রিম ও ফোম

কিনতে ক্লিক করুন

যুবক থেকে শুরু করে বয়ষ্ক—বেশির ভাগের শেভের জন্য পছন্দ শেভিং ফোম। একটু ফোমেই বেশ স্বাচ্ছন্দ্যে শেভ করা যায় বলেই শেভিং ফোম বেছে নেন কেউ কেউ। তবে ফোম, জেল বা ক্রিম—যা-ই হোক না, গোসলের সময় শেভিং করা ভালো।

আফটার শেভের ব্যবহার

কিনতে ক্লিক করুন

শেভের আগে হালকা গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিলে দাড়ি নরম হয়ে যায়। পুরো দাড়িতে ব্রাশ বা আঙুল দিয়ে শেভিং জেল, ফোম ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে। দাড়ি কাটার সময় রেজারের ব্লেড নিচের দিকে টানবেন, কখনোই ওপরের দিকে টানবেন না। ওপরের দিকে টানলে দাড়ির গোড়া উপড়ে আসার সম্ভাবনা থাকে। এ ছাড়া দাড়ির গোড়ায় গোটা বা ত্বক কেটে যেতে পারে। বারবার এভাবে শেভ করলে ত্বক খসখসে হয়ে যায়।

গরমে ঘাম প্রতিরোধে

কিনতে ক্লিক করুন

গরমে কারও কারও অতিরিক্ত ঘাম হয়। আর তা থেকে শরীরে দুর্গন্ধ তৈরি হয়। এ জন্য ব্যবহার করতে পারেন ডিওডোরেন্ট। গোসলের পরপরই ব্যবহার না করে কিছু সময় পর শুকনা শরীরে ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করুন। গরমে ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করলে ঘামের কারণে সৃষ্ট ব্যাকটেরিয়াকে প্রতিরোধ করা যায়।

সতেজ থাকতে সুগন্ধি

কিনতে ক্লিক করুন

সুগন্ধির কথা বললেই শুধু মেয়েদের কথা ভেবে নেন অনেকেই, এই ধারণা ভুল। বাজারে নারী ও পুরুষের জন্য আলাদা সুগন্ধি পাওয়া যায়। কেনার সময় বিষয়টি মাথায় রাখলেই হবে। পারফিউম বা কোলন—যেকোনোটি পুরুষরা বেছে নিতে পারেন। সাধারণত পারফিউমের গন্ধটা একটু কড়া হয়ে থাকে। তুলনামূলকভাবে মৃদু গন্ধের হয়ে থাকে কোলন। ফলে অনুষ্ঠান ছাড়া পুরুষরা সব সময়ের জন্য কোলনই বেছে নিতে পারেন।

উপরের আইটেম গুলো রাজধানী ঢাকাসহ দেশের সব ধরনের কসমেটিক্স শপে পেয়ে যাবেন। তবে র্নিঝামেলায় ঘরে বসে অনলাইন শপ থেকেও কিনতে পারেন আপনার পছন্দের এসব পণ্য। অনলাইনে থেকে কিনতে ঘুরে আসুন এই লিংক থেকে। 

*লাইফস্টাইল* *সুগন্ধি* *আফটারসেভ* *স্মার্টশপিং*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★