আমার বেশতো স্মৃতি

আমারবেশতোস্মৃতি নিয়ে কি ভাবছো?

হাফিজ উল্লাহ: *আমারবেশতোস্মৃতি* অনেক জমেছে ... প্রথমটা বেশতো ইফতার পার্টিতে; চুপ-চাপ বসে ছিলাম কাউকেই চিনি না তেমন, পরে যখন পরিচিতির পালা আসল- আমি মাইক হাতে নিয়ে দাড়িয়ে বললাম chena PATHIK দেখি সবাই দাড়িয়ে আমায় অভিনন্দন জানাচ্ছে আর বলছে উনি সেই চেনা পথিক! (খুশী২)

লীনা জাম্বিল: *আমারবেশতোস্মৃতি* তেমন নেই -- আসি আর যাই আবার থাকি আর বের হই । *আমারবেশতোস্মৃতি* নিয়ে তেমন চিন্তা করিনা তাই হয়তোবা তবে এটুকু বলতে পারি বেশতো তে ভাল লাগে মজা পাই -- আনন্দ করি -- একাও হাসি-- রাগ করি আবার পরিকল্পনাও করি -- কি আজব *আমারবেশতোস্মৃতি* (শয়তানিহাসি)(খিকখিক)

ইসরাত: *আমারবেশতোস্মৃতি* প্রাপ্তি অনেক পাশাপাশি হারিয়েছিও অনেক | পেয়েছি সালাম অপূর্বর নিপু এদের মত ছোট ভাই | বেরিয়ে আসতে পেরেছি বোকার বাক্সের মোহ থেকে | নিসংকোচে বলতে পেরেছি মনের যত কথা | তবে এটাও সত্যি বেশতর পাল্লায় পড়ে হয়েছি অনেক অসামাজিক | থাঙ্কস বেশতো

আফ্রোদিতির যুবরাজ: *আমারবেশতোস্মৃতি* খুব একটা খারাপও না আবার খুব একটা ভালও বলতে পারব না। তবে বেশতো আমার কাছে মজার একটা জায়গা। বেশতো সবার মাঝে ছড়িয়ে যাক এই শুভ কামনাই করি।

রোমেল বড়ুয়া: একটি বেশব্লগ লিখেছে

প্রথম বেশতোতে আসি ২০১২ এর ফেব্রুআরি-মার্চ মাসের কোন এক দিনে। সকালে ঘুম থেকে উঠে নিউ এইজের এক্সট্রা ম্যাগাজিনে চোখ বুলাচ্ছিলাম । এমন সময় দেখি বেশতো এর উপর একটি আর্টিকেল পড়ে ভালই লাগল। ভাবলাম ঘুরেই দেখি। সাইন আপ করার পরে ইন্টারফেসটা দেখেই বেশতোর প্রেমে পড়ে গেলাম। এরপর রিমি আপু,(@rimi) রনি রহমান(@ronyrahman) ভাই, মারগুব ভাই,(@nishchup) দীপ্তিদি,(@dipty) উমাদি,(@srilauma) সুমনা,(@sumona007) মারিয়া,(@mariaakter) সুপ্ত ফারহা,(@suptofarha) নয়ন ভাই,(@kadamati) শুভ্র ভাই,(@shuvrocom) নওশিন আপু,(@catqueen) জিশান ভাই,(@mxesun) পলাশ ভাই,(@polash) শাওন আপু সহ আরো অনেকের সাথে পরিচয় আর আড্ডা । বেশ ভালই লাগতো। বেশি ভাল লেগেছিল যখন দেখলাম, ফেসবুকের ছ্যাঁচড়ামি গুলো এখানে তেমন কেউ করেওনা আবার কেউ সহ্যও করেনা। সেটাই বেশি ভাল লেগেছিল। যার কারণে এখনো কেউ যদি বেশতোতে এসে ফেসবুকের মতো পার্সোনাল চ্যাট অপশন খুঁজে,গ্রুপ খুঁজে,বেহায়া পেজগুলোর মতো লাইক খুঁজে, তখন আমি ক্ষেপে উঠি। আমার মতে, বেশতোতে যদি আমরা ওসব পাই তবে অন্যান্য সোশ্যাল সাইটের সাথে বেশতোর তফাৎ আর কি রইলো? বেশতো হচ্ছে বেশতো। 
এরপর বেশতো এর সাথে সম্পর্কটা আরো জোরালো হয় বেশতো এর ইফতার পার্টিতে যেয়ে। সবার সাথে সামনাসামনি দেখাসাক্ষাৎ, আড্ডা, মতামত বিনিময়। অনেক ভাল একটা দিন কেটেছিল সেদিন। এরপর আরো বেশি বেশি বেশতোবাজি শুরু করলাম। বন্ধুবান্ধব ছোটভাইদের ধরে ধরে বেশতোতে আনতে লাগলাম। এরপর...............পড়ালেখা, আড্ডা, লেখালেখি, আঁকাআঁকি চলছে আর চলছে বেশতোবাজি...... এরপর কিছুদিন আগে বেশতোর বর্ষপূর্তির প্রোগ্রামে উপস্থিত হলাম। বেশ কেটেছিল সেদিনও। নতুন অনেকের সাথে পরিচয়, আড্ডা, নতুন বন্ধু, নতুন আড্ডা।  অবশেষে, বেশতোকে ভালবাসি। আর বেশতো সম্পর্কে আমার অভিযোগ একটাইঃ প্রশ্ন সেকশন ছাড়া অন্য সেকশনগুলোতে পয়েন্ট সিস্টেমটা না থাকলে মনে হয় আরো অনেক ভাল হতো আর ছোটখাটো ভুল বুঝাবুঝিগুলোও এড়ানো যেতো। ধন্যবাদ সবাইকে 
*আমারবেশতোস্মৃতি* *আমারবেশতো* *বেশতোবাজি* *বেশতো*

অভী আহমেদ খান: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আমি অনেক আগে থেকেই বাংলা ফেইসবুক টাইপের কিছু চাচ্ছিলাম। যেখানে সবাই বাংলায় লিখবে এবং সবাই থাকবে বাঙ্গালী। যেখানে ফেক আইডি জাতীয় কিছুর ঠাই হবে না। এমন কিছু এর মধ্যে যখন ফেইসবুক বাংলা ভাষা যুক্ত করলো, আমি বাংলাতেই ব্যাবহার করা শুরু করি, কিন্তু সব পোস্ট বাংলায় লিখতে গিয়ে আরেক প্রব্লেমে পড়লাম। আমার সকল ফ্রেন্ড তো আর পিসিতে ইউজ করে না, অনেকে আবার বাংলায় লিখতে পারে না। কারন তাদের মোবাইল ডিভাইসে সাপোর্ট করে না। আবার ফেইসবুকের মতো লুক নিয়ে কয়েকটা সাইট এলো, যেগুলোতে আইডিও বানিয়েছিলাম কিন্তু সব সাইটগুলো আস্তে আস্তে গায়েব হয়ে গেছে। ২০১৩ সালের ৪ এপ্রিল মানে আজকের দিনে ফেসবুকে একটা এড দেখলাম, নিজেদের মতো নিজেদের বেশতো, ভাবলাম একটা একাউন্ট বানিয়ে রাখি, হয়তো কাজে লেগে যেতেও পারে। তবে এমনভাবে কাজে লাগবে ভাবতে পারিনি। আমি আগে পিসি অন করেই ফেইসবুক অপেন করতাম। কিন্তু এখন সবার আগে আমি বেশতো অপেন করি। বেশতো আমাকে দিয়েছে অসম্ভব ভালো কিছু বড় ভাই, বড় বোন আর অনেক অনেক বন্ধু-বান্ধব, আমি তো আমার ফ্যামিলি বানিয়ে ফেলেছি বেশতো'তে। আমারা প্রায় বেশতো ইউজারেরা মিটআপ করি। সর্বপ্রথম, বেশতো ইউজারদের সাথে সরাসরি দেখা হয়, বেশতো ইফতার পার্টি গত বছরে। সত্যিই সকলের ব্যাবহার আমাকে মুগ্ধ করেছে।
এক বছরে বেশতো আইডিতে যুক্ত হয়েছেঃ স্টার ইউজার ব্যাচ, ১৬৫২টি পোস্ট , আমি ১৫৮ জনকে ফলো করছি , ৮০২জন আমাকে ফলো করছে, আমার ২২৯টি পোস্ট শেয়ার হয়েছে।
বেশতো'র আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় ২৮ শে ফেব্রুয়ারি ২০১৩ থেকে। এইতো কিছু দিন আগেই গেলো প্রথম বেশতোবার্ষিকী। সেইদিম আমরা অনেক বেশতো ইউজার মিলে আড্ডা দিয়েছি, আবার আমাদের ইউজারদের মধ্যে কেউ কেউ গান পরিবেশন করেছে, কেউ কৌতুক বলেছে। আমি নিজের লেখা আর সুর করা একটা গান গেয়েছিলাম।
তবে চিন্তার বিষয় হলো বেশতোতেও এখন ফেইক আইডি দিয়ে স্ক্যাম ছড়ানো হচ্ছে। ব্লক অপশন একটা আছে তবে এখনো ততোটা শক্ত না। তবে কেউ আপত্তিকর কিছু লিখলে এডমিন সাথে সাথে তার আইডি রিমুভ করে দেয়। সেই আপত্তিকর পোস্টটি আমরা বেশতো ইউজাররাই এডমিনকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেই।
যেহেতু অনেক ভালোবাসি এই সাইটটিকে তাই প্রত্যাশা ক্রমাগত বেড়েই চলেছে। দোয়া করি আমার নাতী-পুতিরাও এই বেশতো ইউজ করতে পারে। হয়তো তখন আরো আপডেট হবে -বেশতো ডট কম 
*আমারবেশতোস্মৃতি*

মনুষ্য: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ঠিক কিভাবে বেশতোতে এসেছিলাম সেটা মনে নেই... দিনটা ছিল ২০১৩ সালের ২৩ শে জুন.. আসার পরে ঠিক বুঝতে পারছিলাম না এখানে কি করব.. তাই বেশকিছুক্ষন এটাসেটা দেখে ঘুর ঘুর করে চলে যাই..(মাইরালা) এরপর অনেক দিন আসা হয়নি.. মাঝে মাঝে বেশতো থেকে ইমেইল পেতাম... সেগুলো আর খুলে দেখা হত না.. একদিন কি মনে করে যেন মেইল গুলো চেক করলাম.. তারপর ভাবলাম আবার একটু ঘুরে দেখে আসি তো!(ঘটনাটাকি) বেশতোতে লগইন দিতে গিয়ে দেখি পাসওয়ার্ডটাই ভুলে বসে আছি...(ব্যাপকটেনশনেআসি৩) এরপর পাসওয়ার্ড রিকভার করে আসলাম আমার ভালোলাগার বেশতোতে.. অথচ তখনো বুঝতে পারিনি যে এই বেশতো আমার এতটা আপন হয়ে যাবে...(ভালবাসি) এখানে আমার পরিচিত কেউ বা ফেসবুকের কোনো বন্ধুও ছিল না... কিন্তু এখানকার পরিবেশ এতো বেশি বন্ধুভাবাপন্ন ছিল যে আমার মনেই হয়নি আমি এখানে নতুন কেউ.. এখানে এসে নিজের মত করে পোস্ট দিতাম, যাদের পোস্ট ভালো লাগত তাদেরকে ফলো করতে শুরু করলাম... এখানকার আন্তরিকতা দেখে মনে হত, বাহ! সবাই কত ভালো.. কত চমত্কার! (খুশীতেআউলা) 
আমার ভালো লাগা, মন খারাপ, অভিমান আর হতাশার সময়গুলোতে বেশতোকে সবসময় পাশে পেয়েছি... সেজন্য বেশতো পরিবারের সবার কাছে আমি অনেক অনেক কৃতজ্ঞ... আর এখানে প্রাণ খুলে বাংলায় লিখতে পারছি, তার চেয়ে আনন্দের আর কি আছে??..(হার্ট) অন্যদিকে এখানকার বেশটুন আর ইমোগুলোর কথা আলাদা করে না বললেই নয়..(খুবকিউটলাগছে)(আদর) এগুলো এত্তো বেশি কিউট যে আমি সত্যিই এদের প্রেমে পরে গেছি...(চুম্মা)(চুম্মা) 
ইদানিং বেশতোতে খুব কম আসা হয়...(মনখারাপ) কিন্তু তাই বলে আমি বেশতোকে ভুলে যাইনি... সবসময় অনেক মিস করি আমাদের ভালবাসার, আন্তরিকতার আর বন্ধনের প্লাটফর্মটিকে...(খুকখুকহাসি)(হার্ট) বেশতো আসলেই যুক্ত করে দেশের ভিতরের এবং বাইরের সব বাংলাদেশির হৃদয়কে...(হার্ট) এটা একদম প্রমানিত...(খুকখুকহাসি) কিছু দুষ্টু লোকের জন্য এই বাঁধন যেনো কখনো হালকা হয়ে না যায়...(খুকখুকহাসি)
বেশতোর জন্য অনেক অনেক ভালবাসা...(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)
*আমারবেশতোস্মৃতি* *আমাদেরবেশতো*

হাসানুর রহমান: *আমারবেশতোস্মৃতি* অনেকদিন হয়ে গেল , তাই না ?? এক বছর :) খারাপ ছিল না যাত্রাটা । সামনে আরও ভাল কিছু আশা করি ।

আশিকুর রাসেল: *আমারবেশতোস্মৃতি* কীভাবে বলবো ? (চিন্তাকরি) স্মৃতি তখনই মনে করা হয় যখন সেই বিষয়টা অতীত হয়ে যায়। আর বেশতো? সে তো প্রতিদিনই বর্তমান অতীত হবার নয় (চুম্মা)

মারিয়া আক্তার অর্পিতা: *আমারবেশতোস্মৃতি* বলে শেষ করা যাবে না ...(খুশী২)অনেক স্মৃতি আছে...(হার্ট)বই মেলার স্মৃতি সব থেকে আনন্দের,অচেনা সবাই আবার কেউই অচেনা (না)

সুমি রহমান: *আমারবেশতোস্মৃতি* আমার কাছে বেশতো মানে অনেকটা পথ তপ্ত রৌদে হেটে যাওয়ার পথে একটু ছায়ায় জিরিয়ে নেয়া কোনো বৃক্ষতলে! সাথে প্রকৃতির শীতল হওয়ার ঝাপটা! আমার জীবনের ঝন্ঝাটময় সময়ে এই অনুভুতিটুকুর, যেন কোথাও হারিয়ে যাওয়ার দরকার ছিল! (হার্ট)

জেবু: *আমারবেশতোস্মৃতি* নুতন আমি তাই স্মৃতি খাতা শূন্য ।তবে খুব ভালো লাগছে।অনুভতি প্রকাশ করে আর অন্য সবার অনুভুতি পড়ে ।ধন্যবাদ বেশ তো ,তোমাকে, (জোস)(হার্ট)(ভালো)

হাবিবুর রাহমান রওনক: *আমারবেশতোস্মৃতি* নিউজ পেপার থেকে জেনেছি বেশতোর কথা । জেনেই সাথে সাথে ১ মিনিটো দেরি না করে একাউন্ট করে নেই । তারপর আস্তে আস্তে সব কিছু বুঝার চেষ্ট করে ভালোই কাটছে সময় বেশতোকে নিয়ে । আমারো ইচ্ছে ছিলো বাংলদেশে এই রকম একটা স্ট্যাজ তৈরি হোক ।

ভালবাসা কবি..!!!: *আমারবেশতোস্মৃতি* বেশতোতে আড্ডা আর পোস্ট সাথে টাইম পাস করে ভালই লাগে... কিন্তু এক্তা কষ্ট রয়ে গেছে তা হল বই মেলার সেই দিনটির... পরীক্ষার মাঝেও গেলাম কিন্তু কারও দেখা আর পেলাম না... দুর্ভাগ্য ক্রমে কারও নাম্বার ও নেইনি তাই ক্লান্ত মন নিয়ে ফিরেছিলাম(মাইরালা)

ইভান: *আমারবেশতোস্মৃতি* সেই ইফতারি পার্টি টা . (খুকখুকহাসি)

মাহনূর তাবাসসুম মীম: আমি যখন প্রথম বেশতো তে আসি, তখন বেশতো মহাগুরু ছিলেন মাত্র ৩ জন। @rubel ভাইয়া, @monsur ভাইয়া এবং @SufiMaverick ভাইয়া... আজ মহাগুরু ১০ জনের ও বেশি!! খুব ভালো লাগে আমার পরিবারের বৃদ্ধি দেখে! বেশতো এগিয়ে চলুক আরো! উচ্চতার সীমায় গিয়ে আগলে রাখুক আমাদের!

*বেশতোরপথচলা* *আমারবেশতোস্মৃতি* *আমারবেশতোবার্ষিকী*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★