আমার রান্না

আমাররান্না নিয়ে কি ভাবছো?

আড়াল থেকেই বলছি: [রাজামশাই-এইডাকিহইলো]মাথায় ছিল আজ খুব তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়বো, ৭৫০ গ্রাম সিমের বীচি আর ৫০০ গ্রাম চিংড়ি স্কিনলেস করলাম, রান্না করবো এমন মুহুর্তে এক মুরগির বেপারী হর্ন দিলো,গিয়ে দেখলাম লেয়ার, নিয়ে নিলাম ৪ টি,২১০ টাকা প্রতিটি,মন চাইলো লেয়ার খেতে,চটপট একটা রান্নার জন্য রেডি, বাকি তিনটে ডীপ এ,অফিস থেকে বের হয়েই আড়াই থেকে ৩ ঘন্টা লাগিয়ে কষ্ট করলাম কিন্তু রান্না করলাম উল্টোটা

*ব্যাচেলরলাইফ* *আমাররান্না* *আবোল-তাবোল-রান্না*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আমাদের বাড়িতে পূজার পাচ দিন সকালে লুচি, পায়েস, আলুর দম, লাবড়া, মিষ্টি, নাড়ু, মোয়া, মুড়কি, সন্দেশ, বরফি, দোসা, ইডলি, পাপড়ি চাট সহ হরেক রকম খাবারের বাহার থাকে l তবে লুচি আর আলুর দম তো প্রতিদিন থাকা চাই ই চাই l দারুন অনবদ্য খাবার এটি l আপনাদের সাথে লুচি আলুর দমের রেসিপি শেয়ার করছি l 


ফুলকো লুচি বেলতে অনেকেই মনে করেন লুচির ময়দায় বেশি করে তেল বা ঘি এর খামির দিলে লুচি ফুলবে ভালো। অনেকেই ভাবেন খামিরকে বুঝি আধ ঘণ্টা ভেজা কাপড়ে ঢেকে রাখলে লুচি ফুলকো হবে। সত্যি বলতে কি, করতে হবে না এই সব কিছুই। আপনার চট করে বানানো লুচিই হবে ফুলকো আর নরম। কেবল অনুসরণ করুন এই পদ্ধতি। 

উপকরণ- আটা/ময়দা ২ কাপ, তরল ঘি ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মত, চিনি এক চা চামচ, বেকিং পাউডার ১/২ চা চামচ (না দিলেও চলবে), পানি প্রয়োজনমত, তেল ভাজার জন্য। 

প্রণালী- ময়দার মাঝে ঘি, চিনি, সামান্য তেল, বেকিং পাওডার ও লবণ দিয়ে ময়ান দিন। প্রয়োজনমত পানি দিয়ে একটু নরম মোলায়েম খামির করুন। খামির বেশ ভালো করে হাত দিয়ে ডলে ডলে মাখান। রেখে দেয়ার প্রয়োজন নেই মোটেও। তেল গরম হতে দিন, এবং সেই ফাঁকেই ছোট ছোট লুচি বেলে গরম তেলে লাল করে ভেজে নিন। মনে রাখবেন, লুচি যেন খুব পাতলা না হয়। আবার একেবারে মোটাও না হয়। ব্যাস, রেডি হয়ে যাবে আপনার ফুলকো লুচি l 


এবার আসুন জেনে নেই, আলুর দমের রেসিপি 

উপকরণ   
আলু     ৫০০ গ্রাম
সয়াবিন তেল/ সাদা তেল  ১ টেবিল-চামচ
তেজপাতা     ১টা
চিনি     ১ চা-চামচ
লবন     স্বাদমতো
হলুদ     এক চিমটে
আমচুর (শুকনা আমের গুড়ো)   আধ চা-চামচ (না দিলেও চলবে)
গরম মশলা গোটা অথবা গুড়ো 
গাওয়া ঘি     আধ চা-চামচ
টমেটো এক কাপ 
ধনে পাতা কুচি আধ কাপ 
সেদ্ধ করে রাখা মটরসুটি

প্রণালী 
মশলার জন্য ৪টে শুকনো মরিচ, ১ টেবিল-চামচ করে গোটা সাদা জিরে, গোটা ধনে, পাঁচ গ্রাম গরম মশলা (দারচিনি, লবঙ্গ, ছোট এলাচ) চাই। আগেভাগে শুকনো খোলায় ভেজে গুঁড়িয়ে রাখতে হবে। এবার আলু আধা সিদ্ধ করে নিন। পানি ঝরিয়ে নিন। কড়াইতে তেল দিয়ে আলু লাল করে ভেজে তুলুন, এবার আদা ও পেয়াজ বাটা দিয়ে একটু ভাজুন। হলুদ, মরিচ, ধনিয়া ও লবণ দিন। অল্প পানি দিয়ে ভালো করে কশান। আলু দিয়ে দিন, অল্প একটু পানি দিন। ফুতে উঠলে পিঁয়াজ বেরেস্তা ও শুকনো খোলায় ভেজে রাখা মশলা গুঁড়া দিয়ে দিন। ঢাকনা দিয়ে রান্না করুন। পানি টেনে আসলে ভালো করে নেড়ে আলু গুলো একটু ভাঙ্গা ভাঙ্গা করে দিন। এবার চিনি ও ঘি ছিটিয়ে আর একটু দমে রাখুন l এবার টমেটো, ধনে পাতা কুচি আর সেদ্ধ করে রাখা মটরসুটি দিয়ে নেড়ে ছেড়ে নামিয়ে নিন l 

*লুচি* *আলুরদম* *পূজারখাবার* *রেসিপি* *আমাররান্না*

habibur rahaman: *আমাররান্না* পোলাও বিরিয়ানি,শাহি মোরগ পোলাও,গরুর মাংস,মাছ ভাত ডাল সবই পারি। ছেলে হলেও রান্না করতে ভাল লাগে,তবে সব সময় না

habibur rahaman: *আমাররান্না* পোলাও বিরিয়ানি,শাহি মোরগ পোলাও,গরুর মাংস,মাছ ভাত ডাল সবই পারি। ছেলে হলেও রান্না করতে ভাল লাগে,তবে সব সময় না

habibur rahaman: *আমাররান্না* পোলাও বিরিয়ানি,শাহি মোরগ পোলাও,গরুর মাংস,মাছ ভাত ডাল সবই পারি। ছেলে হলেও রান্না করতে ভাল লাগে,তবে সব সময় না

habibur rahaman: *আমাররান্না* পোলাও বিরিয়ানি,শাহি মোরগ পোলাও,গরুর মাংস,মাছ ভাত ডাল সবই পারি। ছেলে হলেও রান্না করতে ভাল লাগে,তবে সব সময় না

অনিল অয়ন : আমার রান্নাবান্না তেমন কিছুই শেখা হয়নি। মাঝেমধ্যে রান্না ঘরে গেলেও আম্মু বলে, এখানে এসেছ কেনো? রোমে যাও। ইত্যাদি ইত্যাদি। তবে রান্নাবান্না যে করিনি তাও নয়। কখনো আম্মুর অসুখ হলে, আমি রান্না করে যায়। ডিম ভাজি করতে, এখন রান্নাবান্না বলতে শুধুমাত্র এই ডিম বাজি করা শিখেছি। আর কোনো রান্না পারিনা (মনখারাপ)

*আমাররান্না*
ছবি

আশিকুর রাসেল: ফটো পোস্ট করেছে

ছবি

আশিকুর রাসেল: ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

আই লাব রান্নাবান্না মাঝেমইদ্দে :D :D

মিক্সড ভেজিটেবলস এবং সুইট এন্ড স্যুর চিলি চিকেন। (ভেঙ্গানো২)

*আমাররান্না* *শখেররান্না* *ব্যাচেলররান্না* *সর্বভুক*

রশিদা আফরোজ: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বাচ্চাবেলা থেকে আমি রান্নায় আগ্রহী। ফেনীতে গ্যাস এসেছে সম্ভবত ১৯৮৫ সালে তখন আমি কাস থ্রিতে পড়ি। কাস টুতে পড়ার সময়ের কথা মনে আছে। তখন আমাদের বাসায় রান্নার কয়েকরকম ব্যবস্থা ছিল। দিনে মাটির চুলা, রাতে সিলিন্ডার গ্যাস, কেরোসিন কুকার। শীতকালে ঘরের বাইরে উঠানের এককোণায় ঘেরাও দিয়ে মাটির চুলা বসানো হতো, ১২টার পর স্কুল থেকে ফিরে দেখতাম বড় ভাবী রান্না করছেন। চুলার পাশে ছোট গর্ত করে ইট দিয়ে ছোট হাঁড়ি বসিয়ে দেয়া হতো। আম্মা আর ভাবীই সব ব্যবস্থা করে দিতেন, আমি চামচ দিয়ে নড়াচড়া করতাম। একদিনের কথা মনে আছে। ভাবী হাঁড়িতে তেল দিলেন, আমি মুলার শাক ছেড়ে দিলাম, ওমা কী কাণ্ড পুড়ে গেল। আম্মা হাসতে হাসতে বললেন, মুলার শাক আগে সেদ্ধ করে নিতে হয়। ব্যাপারটাতে আমি চমৎকৃত হয়েছিলাম।

হাইস্কুলে উঠার পর আমার কিছু সঙ্গী জুটে গেল। আমার ভাতিজিরা, বাল্যসখী স্বর্ণ (আমরা ৭দিন আগে-পরে জন্মেছি), পাশের বাসার রুবিনা সবাই মিলে প্রতি শুক্রবারে উঠানে রান্না করতাম। চুলার পাশে নারকেলের মালায় কেরোসিন থাকতো, কেরোসিনে লাকড়ি চুবিয়ে আগুন ধরানো হতো। রান্না শেষে সঙ্গী-সাথী এবং বাসার সবাইকে একটু একটু করে পরিবেশন করা হতো। কেন জানি রান্নায় সবসময় কেমন যেন ধোঁয়াটে গন্ধ থাকতো। কিন্তু বাসার কেউ সেটা বলতেন না; বরং প্রশংসা করতেন। আব্বা বলতেন, মাশাল্লাহ আমার ছোট মেয়েটা খিচুড়ি বেশ ভালো রাধে। অনেক বছর পরে আমার বন্ধু নিঝুমের জন্মদিনে ওকে বাসায় নিমন্ত্রণ করেছিলাম। সেদিন প্রথম ভুনা খিচুড়ি ঠিকঠাক মতো রানতে শিখেছিলাম। তার আগ পর্যন্ত রানতাম ঘুটা/ ল্যাটকা খিচুড়ি।

আমার রান্নাবান্নার আরেক গুরু হুমায়ূন আহমেদ। উনার প্রায় সব বইতে কোনো না কোনো রান্নার কথা থাকবেই। একটা ছাড়া বাকি সব মোটামুটি রেধেছি। যেটা করতে পারিনি তা আম্মার কারণে। আমার আম্মা হুমায়ূন আহমেদের উপর বিশেষ খুশি নন। কারণ আম্মার ধারণা আমার চোখে চশমা ওঠার জন্য দায়ী হুমায়ূন আহমেদ এবং আমার ভেতর যেসব পাগলামীর লক্ষণ আছে তার জন্যও দায়ী হু.আ। যেদিন বড়াপু ডাক্তারের কাছ থেকে এসে জানালেন, ডাক্তার আমাকে চশমা দিয়েছেন, আম্মা বললেন, ঐ লোকটার না শুনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, তাহলে আবার বই লিখে বেড়ায় কেন? খেয়ে-দেয়ে কাজ নেই, আমার মেয়ের চোখ গেল! ঐ সময় আমরা তুমুলভাবে হুমায়ূন আহমেদ পড়ি, পড়ি মানে গোগ্রাসে গিলি! যাই হোক, যা বলছিলাম, রেসিপিটা হলো শিউলি ফুলের পাতা ভাজা। শিউলি ফুলের কচি পাতা শুকনো মরিচ আর বেশি করে রসুন দিয়ে ভাজতে হবে। আম্মা শুনেটুনে বললেন, সারাদেশের এতো অঞ্চলে গেলাম, কোনদিন এই পাতা ভাজি করে কাউকে খেতে দেখিনি। একটা পাগল মানুষ মন চাইলো একটা কিছু লিখেছে, সেজন্য সেটা রান্না করে খেতে হবে নাকি?


*আমাররান্না*

শ্রীলা উমা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করি একদমই আমার তৈরী একটি ইউনিক রেসিপি । এটি আপনি লুচি,পরোটা,নান রুটি,তন্দুরী রুটি বা ঘরে বানানো নিতান্তই সাধারণ আটা বা চালের রুটির সাথে আপনার পরিবেশিত অন্যান্য আইটেমের সাথে একটি ডীপ হিসাবে পরিবেশন করতে পারবেন । এটা যে খাবারের মজা বাড়িয়ে দেবেই এটা আমি ১০০% হলফ করে বলতে পারি ।

উপকরণ- টক দই ৫০০ গ্রাম,মিষ্টি দই ২৫০ গ্রাম,ভাজা জিরা গুড়ো ২ চা চামচ,কাঁচা মরিচ বাটা ১ চা চামচ,বিট লবন ১/২ চা চামচ,লবন পরিমান মত,চিনি ৩ চা চামচ,৭/৮ টা পুদিনা পাতা বাটা/কুচানো (ইচ্ছা) ।

প্রস্তুত প্রনালী- পুদিনা পাতা বাদে সব উপকরণ ভালো মত মিশিয়ে নিন,ব্লেন্ডারে দিলে আরো ভালো হয় । একটি কাঁচের বাটিতে করে ফ্রীজে রেখে ঠান্ডা করে নিন । পরিবেশনের আগে পুদিনা পাতা মিশিয়ে পরিবেশন করুন ।

**** উপকরণগুলো পরিমাণে কম-বেশি আপনার ইচ্ছা মত করলে বাকি উপকরণগুলো সেই অনুপাতে ঠিক করে নিবেন । চিনি মিশানো্র আগে দইয়ের টক বা মিষ্টিটা একটু দেখে নেবেন । কাঁচা মরিচ ও বিট লবন আপনার স্বাদমত মিশাতে পারেন,তবে এটা বলে রাখি চাটনির স্বাদটা বেশ চটপটে হবে (ভেঙ্গানো২)
*আমাররেসিপি* *আমাররান্না* *নতুনরেসিপি* *পূজারখাবার* *হেলদিরেসিপি* *চাটনিররেসিপি* *উতসবেরখাবার*

সাবরিনা সুলতানা ইতি: *আমাররান্না* আমি রান্না করতে ভাল পারি না (লজ্জা)

ছবি

শ্রীলা উমা: ফটো পোস্ট করেছে

আমার বানানো গাজরের লাড্ডু (ভেঙ্গানো২)

*আমাররান্না* *লাড্ডু*

আশিকুর রাসেল: ছিঃ ছিঃ দিয়া লাভ নাই (খুশী২)

*আমাররান্না*

খেয়ালি পাঠক: *আমাররান্না* নিয়ে আর কি বলব ? আমি শুধু পানিই গরম করতে পারি তা ছাড়া আর কিছুই পারিনা | ডিমটা ভাজতে পারি কিন্তু ফাটাতে পারিনা.......|

যাযাবর পথিক হিমাদ্রী: প্রায় চলার মত মোটামুটি ভালই রান্না করতে পারি। আমার মা আমাকে রান্না করা শিখিয়েছেন রুটি, ভাত, ডাল, যে কোন মাংসের তরকারি , সবজি, মাছের কাবাব, মাংসের কাবাব, খিচুড়ি । আরও কত কি *আমাররান্না*

দীপ মজুমদার: *আমাররান্না* রাঁধতে পারিনা।তবে ডিম ভাজি,নুডুলস,আর আলু ভর্তা ভালোই পারি।তবে মাঝে মাঝে মামনি বলে রান্না শিখতে।আমি বলি কি দরকার।।তুমি তো আছোই।আর তুমি না পারলে তখন আমার বউ রান্না করবে।।ঝামেলা শেষ।।কেন শিখবো তাহলে?অবশ্য বউ এখনও পাইনি।আশা করি পাবো। হিহিহি

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★