আলভিনা’স ফ্যাশনওয়ার্ল্ড

আলভিনা’সফ্যাশনওয়ার্ল্ড নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আলভিনা আক্তার, আলভিনা'স ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড এর প্রতিষ্ঠাতা এবং ইন্টারনেট ফ্যাশন সেলারের নতুন একজন উদ্দ্যোক্তা। যখন তিনি অনলাইন শপ খুলতে চাচ্ছিলেন তখন পৃথিবী ব্যাপী ইন্টারনেটে কিভাবে পণ্য বিক্রি হয় এসম্পর্কে তার তেমন কোন ধারণাই ছিলনা। তিনি অন্যরকম গুপের ৩ মাস ইর্ন্টানশীপ করার সময় প্রথম জানতে পারে কিভাবে মানুষ ফেসবুক এবং আজকেরডিলের মত অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অনলাইনে পণ্য বিক্রি করে। সেখান থেকে তিনি ব্যবসা শুরু করার অনুপ্রেরণা পান।

কনটেন্টটি স্পন্সরড করেছে আজকেরডিল


আলভিনা ব্যবসায়িক পরিবার থেকেই উঠে আসা একজন উদ্দ্যোমী নারী। তার পরিবার প্রায় ২৫ বছর ধরে পোশাকের ব্যবসার সাথে জড়িত আর সে কারনেই তার এসম্পর্কে কিছুটা ধারণা আগে থেকেই ছিলই। অনেক চিন্তা ভাবনার পরে তিনি ডিজিটাল কমার্সের সিদ্ধান্ত নিলেন, প্রথমে তিনি ধারণা নেওয়ার জন্য অনলাইন থেকে পণ্য কিনতেন, কিভাবে তারা এগুলো বিক্রি করে সে সম্পর্কে অভিজ্ঞতা অর্জন করেন। তার নিজের ফেসবুক পেজ খোলার আগে তিনি অনেকগুলো ফেসবুক পেজ থেকে এফ কমার্স সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিয়েছেন।

বর্তমানে আলভিনা'স ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড এর ফেসবুক পেজে প্রায় ১ লাখের উপরে ফলোয়ার। সে তার পণ্যগুলো আজকেরডিলের মাধ্যমেও বিক্রি করে। আমরা সম্প্রতি আলভিনা আক্তারের সাথে কথা বলেছি, তার ব্যবসায়িক পথচলা সম্পর্কে আরও জানতে চেয়েছি। ব্যবসা এবং ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা নিয়ে তিনি কি ভাবছেন সে কথাগুলোই আমাদের বলেছেন।


আলভিনার জন্ম ও বেড়ে উঠা ঢাকায়। তিনি বদরুন্নেসা সরকারি গালর্স কলেজ থেকে অনার্স শেষ করার পর মাস্টার্সে অধ্যায়নরত। কিছুটা অপ্রত্যাশী ভাবেই তিনি অনলাইন ব্যবসা শুরু করেন। তার অনার্স ডিগ্রির অংশ হিসাবে 'অন্যরকম' গ্রুপে তিন মাসের ইন্টার্নশিপ করেন, যেখান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে আলভিনা'স ফ্যাশান ওয়ার্ল্ডের অনলাইন অপারেশন শুরু করেন। তিনি বিভিন্ন অনলাইন ইকমার্স সাইট ও ফেসবুক পেজ থেকে ধারনা নিয়ে তারপর তার বিজনেস পেজ ওপেন করেন। ২০১২ সালে ফেসবুক পেজ ওপেন করার পর ব্যপক সাড় পেলে তিনি এ ব্যবসায় আরও আগ্রহী হয়ে ওঠেন। খুব অল্প সময়ে তার পেজে ৪০০০ লাইক পেয়েছিলেন। বুস্টিং এবং ফেসবুক মার্কেটিং সম্পর্কে আস্তে আস্তে তিনি ব্যপক ভাবে জানতে পারে।

শুরুতে তার উচ্চ লাভের আশা ছিলনা। চেষ্টা ছিল কিভাবে ভালো মানের পন্য গ্রাহকদের কাছে পৌঁছানো যায়। এই চেষ্টাটাই তাকে সফল করে তুলতে সাোয্য করেছিল। ২০১২ সালে ঈদের সময়ে তার পেজ থেকে প্রচুর পণ্য বিক্রি হয়। যেহেতু, তার পরিবার কাপড়ের ব্যবসা করে এজন্যই সে অন্য সাই্টগুলোর থেকে কম দামে পণ্য গ্রাহকদের কাছে তুলে দিতে পারে। বর্তমানে আজকেরডিলের মাধ্যমেও তার পণ্য বিক্রি করছে। আলভিনা আজকেরডিলের একজন সফল মার্চেন্ট।

পারিবারিক ভাবে পোশাক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কারণে এই ব্যবসাটি তার কাছে খুবই সহজ ছিল। এটার জন্য খুব বড় বিনিয়োগ প্রয়োজন হয়নি। আলভিনা’স ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড নিজেরাই ডিজাইন করে শাড়ি বিক্রি করে। ২১ ফেব্রয়ারিতে তার ডিজাইন করা শাড়ি দেশ ও দেশের বাইরে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। পরবর্তীতে ঈদ-উল-ফিতরে তারা ৫৬ রকমের শাড়ি বের করেছিলে।

কনটেন্টটি স্পন্সরড করেছে আজকেরডিল


বর্তমানে যাত্রাবাড়ী, নারায়ণগঞ্জ ও ধানমন্ডিতে তাদের ৩ টি কারখানা রয়েছে, যেখানে ১৫ জন লোক কাজ করে। এ ছাড়াও, আমরা অফিসে ৯ জন রয়েছে যারা অপারেশন পরিচালনা করে থাকে এবং ২ জন কাস্টমার রিলেশন অফিসার রয়েছে যারা লজিস্টিক হেল্প করে।

বিভিন্ন উৎসবে তারা প্রতিমাসে প্রায় ২০০০ থেকে ২৫০০ পিছ পণ্য বিক্রি করে এবং অন্য সময়ে মাসে গড়ে ৪০০ থেকে ৫০০ কপি পন্য বিক্রি করে। গ্রাহকদের ধরে রাখার জন্য তারা তাদের পণ্যে খুব একটা লাভ করে না।

আলভিনাস ফ্যাশন ওয়ার্ল্ডের এখনো কোন ওয়েবসাইট নেই। তারা ফেসবুক পেজ এবং আজকেরডিলের মাধ্যমে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। আজকেরডিলের সাথে তাদের ব্যবসায়িক অভিজ্ঞতা বেশ ভালো। গত দুই বছর ধরে তারা আজকেরডিলের মাধ্যমে ব্যবসা করে যাছে। ফেসবুকের পর থার্ড পার্টি মার্কেটপ্লেস হিসেব আজকেরডিল অন্যতম।

কাস্টমারদের আস্থা ধরে রাখাই আলভিনা’স ফ্যাশন ওয়ার্ল্ডের একমাত্র গোল এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা। তারা বিশ্বাস করেন, গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করলেই ইকমার্স ব্যবসায় প্রসার লাভ করা সম্ভব।


আলভিনার পরামর্শঃ
যখন কেউ আমার কাছে আসে তখন আমি যতটা সম্ভব সাহায্য করার চেষ্টা করি। একটি সমস্যা, ব্যবসা শুরুর ২-৩ মাসের মধ্যে পণ্য কম বিক্রি হওয়ায় অনেকেই তিরস্কার তাচ্ছিল্য করে কিন্তু একটি ব্যবসা দাঁড় করানোর জন্য ২-৩ মাস খুব কম সময়। একটি টিপস, ব্যবসা শুরু করার সময় অবশ্যই দীর্ঘসময় টিকে থাকার মাইন্ডসেট আগে থেকেই রাখতে হবে। দীর্ঘদিন ধরে আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। এজন্য ধৈর্য্য ধরতে হবে। মনে রাখবেন, কিছুই রাতারাতি হবে না। প্রতিটি ব্যবসাই সফল হবে না। আপনার ধৈর্য আপনাকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করবে।

*আলভিনা’সফ্যাশনওয়ার্ল্ড* *ফিউচারস্টারটআপ* *উদ্দ্যোক্তা* *স্পন্সরডকনটেন্ট* *বেশতো*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★