ইফতার রেসিপি

ইফতাররেসিপি নিয়ে কি ভাবছো?

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ইতালির খাবারের নাম মনে করলে অনায়াসে চলে আসে “পাস্তা” নামটি। মজার বিষয় হলো, পাস্তা কিন্তু প্রাচীন চাইনিজ নুডুলসের একটি ইতালিয়ান সংস্করণ। পাস্তার ইতালিতে আগমন ঘটে ১৩শ শতাব্দীর দিকে,
বিখ্যাৎ ইতালিয়ান সওদাগর মারকো পোলো’র হাত ধরে। 

এই গরমে সারাদিন রোজা রেখে সুস্থ থাকতে হলে ইফতারে চাই পুষ্টিকর ও সুস্বাদু খাবার। ইফতারে ভেজিটেবল পাস্তা হতে পারে তেমনই একটি আইটেম। বেশি পরিমাণ সস, চিজ দিয়ে ভরপুর ইটালিয়ান পাস্তা ছোট থেকে শুরু করে সব বয়সী মানুষের খুব পছন্দের। তাই ইফতারের আয়োজনে পাস্তা আইটেম রাখলে মন্দ হয় না। এটা স্বাস্থ্যসম্মত ও প্রচুর কার্বোহাইড্রেড সম্মৃদ্ধ।

তাই বাইরের ভাজাপোড়া না খেয়ে পরিবারের সবার স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে ঝটপট বানিয়ে ফেলুন মজাদার ইটালিয়ান পাস্তা।

 

চলুন শিখে নেই চিকেন চিজ পাস্তার রেসিপি


উপকরণ: পাস্তা ২৫০ গ্রাম, হাড় ছাড়া মুরগির বুকের মাংস ১ কাপ (সেদ্ধ করা), টমেটো দেড় কাপ, তেল ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, মোজারেলা চিজ ১ কাপ ও চিনি আধা চামচ।

প্রনালী: পাস্তা লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে পানি ছেঁকে নিন। একটা ফ্রাই প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ আর রসুন দিয়ে অল্প নেড়ে একে একে মাংস, টমেটো পিউরি, চিনি, অল্প লবণ দিয়ে নাড়ুন ২ মিনিট। এবার সেদ্ধ পাস্তা আর কিউব টমেটো দিয়ে আরও ১ মিনিট নাড়ুন। এবার বেকিং ডিশে পাস্তা ঢেলে তার ওপর চিজ, পাপরিকা মরিচ আর গোলমরিচ গুঁড়া, সয়া সস, টমেটো সস ও ম্যাগি মশলা দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে, নামিয়ে ওভেন প্রুফ পাত্রে পাস্তা ও চিজ লেয়ার করে দিয়ে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে ১ মিনিট বেক করুন। চিজ গলে গেলে বের করে গরম-গরম পরিবেশন করুন চিজ পাস্তা।

*ইফতাররেসিপি* *চিকেনচিজপাস্তা* *চিজপাস্তা* *পাস্তা* *নাস্তা* *স্ন্যাকস* *ইতালিয়ানখাবার*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

চিকেন আমরা সবাই বিশেষ করে বাচ্চারা খেতে ভালোবাসি, পরিবারের সকলের জন্য সুষম খাবার নিশ্চিত করা ভীষণ জরুরি। তাছাড়া সবাই একটু মুখরোচক খাবার চায়। সে মুখরোচক খাবারে যদি চিকেনের লোভনীয় স্বাদ যুক্ত থাকে তো মন্দ কি? টেবিলে স্বাস্থ্যকর উপায়ে প্রোটিনের চাহিদা মেটানোর সহজ পদ্ধতি সুস্বাদু চিকেন মোমো উপস্থাপন। আপনার পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যের যত্ন নিতে চিকেন মোমোর জুড়ি মেলা ভার। খাবারের মান এবং স্বাদ দুটো মিলিয়ে এখানে পুরো ষোল আনাই পূর্ণ। খুব সহজেই তৈরি করা যায় চিকেনের এই পদ। শিখে নিতে পারেন মুখরোচক স্বাদের চিকেন মোমো।

উপকরণ:
চিকেন কিমা বা ছোট ছোট করে কুচি করা চিকেন ৪০০ গ্রাম
মিহি করে কুচানো পেঁয়াজ ৪ টেবল চামচ 
ধনে পাতা কুচি ২ টেবল চামচ 
লবন ও গোলমরিচ পরিমানমত
সামান্য সয়াবিন তেল ময়ান দেবার মতো
আদা-রসুন বাটা মিলিয়ে ২ টেবল চামচ
ময়দা ৫০০ গ্রাম
কাঁচা মরিচ কুচানো ১ টেবল চামচ 
চিকেন স্টক ৪ কাপ ( মাংস সেদ্ধ করা পানি)

মোমো সস্ তৈরীর জন্য:
টমেটো ২ টি
রসুন ৬টি
লাল মরিচ ৪টি (গরম জলে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে)
সয়া সস্ ১/২ চামচ
ভিনিগার ১ চামচ
চিনি ১ চামচ
সয়াবিন তেল ১/২ চামচ
লবন পরিমাণমতো


সস্ তৈরীর প্রনালী: প্রথমে টমেটো গরম জলে ভাপিয়ে ঠান্ডা করে নিন। টমেটোর খোসা ছাড়িয়ে লঙ্কা, রসুন, একসাথে বেটে নিন। তারপর পাত্রে তেল গরম করে টমেটোর মিশ্রণ, সস্ , ভিনিগার, চিনি, নুন, ও ১/২ কাপ মতো জল দিয়ে একটু ফুটিয়ে নামিয়ে নিন।এর সাথে ধনে পাতা বাটাও দিতে পারেন।


স্যুপ তৈরীর প্রনালী: চিকেন স্টকটার মধ্যে লবন, সেদ্ধ কিমা, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, ধনেপাতা, কাঁচামরিচ কুচি, লবন ও গোলমরিচ (সব সামান্য করে) দিয়ে একটু ফুটিয়ে নিয়ে আলাদা করে রাখুন।


মোমো তৈরির প্রণালী:
প্রথমে ময়দা তেল ও লবন দিয়ে আধ ঘন্টা মেখে রাখুন। পুরের জন্য সেদ্ধ কিমা, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, ধনেপাতা, কাঁচালঙ্কা কুচি, নুন ও গোলমরিচ সব একসঙ্গে মেখে নিন। ময়দা থেকে লেচি কেটে নিয়ে ছোট ছোট লুচির মতো বেলে নিন। তার মধ্যে একটু করে চিকেন পুর ভরে মোমোর আকারে গড়ে নিন। স্টিমারে ২০ মিনিট স্টিম করে সস্ ও স্যুপ দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

 

*চিকেনমোমো* *মোমো* *ইফতাররেসিপি* *স্ন্যাকস* *রেসিপি* *নাস্তা*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

যতই আমরা বলি না কেন যে, ইফতারে ভাজাপোড়া খাবার এড়িয়ে চলবে আসলে ইফতারিতে মুখোরোচক খাবারের চাহিদা সবসময়। তবে সুস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে নিজ হাতে বানানো পরিচ্ছন্ন খাবারই বেশি গ্রহণযোগ্য। মুচমুচে নুডুলস পাকোড়া হতে পারে তেমনি একটি উপাদেয় খাবার। বাসাতেই অল্প উপকরণে ঝটপট বানিয়ে নিতেও নুডুলস পাকোড়ার তুলনা নেই। খুব সহজে এমন একটি মজার খাবার বানানোর সহজ উপায় চলুন শিখে নেই।


উপকরণ: 
নুডলস আধা প্যাকেট (স্টিক বা ইনস্ট্যান্ট যেটা আপনার পছন্দ, তবে স্টিক হলে ভালো হয়), লবণ পরিমাণমতো, কাঁচা মরিচ কুটি আধা চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, চালের গুঁড়া বা ময়দা ২ টেবিল চামচ, ডিম ১ টা, সয়াসস ১ চা চামচ, টেস্টিং সল্ট আধা চা চামচ, তেল ভাজার জন্য।


প্রণালী:
প্রথমে নুডলস ভালো করে সেদ্ধ করে নিন। সেদ্ধ নুডলসের সঙ্গে একে একে পেঁয়াজ কুচি, গোলমরিচ গুড়া, কাঁচামরিচ কুচি, সয়াসস, টেস্টিং সল্ট এবং লবণ দিয়ে একটু মেখে এর সাথে চালের গুঁড়া অথবা ময়দা মেশান। এবার একটি ডিম দিয়ে ভালো করে মাখতে হবে। মাখানো হলে চপের আকৃতিতে গরম তেলে ছেড়ে দুই পাশ লাল করে ভেজে নিন। সবগুলো পাকোড়া ভাজা শেষ হলে পছন্দের সসের সঙ্গে পরিবেশন করুন মজাদার নুডুলস পাকোড়া।

 

*ইফতার* *ইফতাররেসিপি* *পাকোড়া* *নুডুলসপাকোড়া* *রেসিপি*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সারাদিন রোজা রেখে ইফতারে শরবতের যেন কোনো বিকল্প নেই, তবে আজকাল আমরা দোকানের কেনা জুস বাদ দিয়ে নিজেরাই বাসায় নানা ধরনের মৌসুমী ফলের শরবত বানিয়ে ফেলি, বানিয়ে ফেলি মিল্ক শেক। চিরাচরিত ফলের জুস অনেক তো বানালেন, এইবার তৈরি করুন মজাদার খেজুরের মিল্কশেক, আর ইফ্তারে অন্যতম আরেকটি পদ খেজুর, তাই দুয়ে মিলে যেন এক জমজমাটি ব্যাপার। এই মিল্কশেকটি অল্প কিছু উপাদান দিয়ে তৈরি করা সম্ভব, আর খেতে হয়ে মজাদার। ইফতারিতে ঝটপট তৈরি করুন খেজুর মিল্কশেক, চলুন শিখিয়ে দেই রেসিপি।

উপকরণ:

১০ থেকে ১৫টি খেজুর, ৩ থেকে ৪ কাপ দুধ, দারুচিনি গুঁড়ো, বরফের টুকরো 

প্রণালী:

♦ প্রথমে খেজুরের ভিতর থেকে বীচি আলাদা করে নিন। এলাচের খোসা ছাড়িয়ে গুঁড়ো করে নিন।

♦ এইবার ব্লেন্ডারে খেজুর, এলাচ গুঁড়ো, দুধ এবং বরফের টুকরো দিয়ে ব্লেন্ড করুন।

♦ খেজুর, দুধ ভাল করে ব্লেন্ড না হওয়া পর্যন্ত ব্লেন্ড করতে থাকুন।

♦ পরিবেশন পাত্রে ঢেলে বাদাম কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন ভিন্ন স্বাদের মজাদার খেজুরের মিল্কশেক। এটি মিল্কশেকের স্বাদ বৃদ্ধির সাথে সাথে এর পুষ্টিগুণ করে দেবে দ্বিগুণ।

*ইফতার* *ইফতাররেসিপি* *শরবত* *মিল্কশেক* *খেজুরমিল্কশেক*

সাদাত সাদ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ইফতারে কোন ধরনের জুস সারাদিনের ক্লান্তভাব দূর করতে পারে

উত্তর দাও (৭ টি উত্তর আছে )

.
*ইফতার* *রেসিপি* *ইফতাররেসিপি* *শরবত* *রোজা*

মোঃ সামিরুল আলম: *ইফতাররেসিপি* মজাদার পাকা আমের লাস্যি রেসিপি - পাঁকা আম-১টা চিনি-১ টেবিল চামচ মিষ্টি দই-১ কাপ পেস্তা বাদাম- ২/৩টা (কুচি করা) এলাচ গুঁড়ো-১চিমটি আম ভাল করে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে আঁটি বের করে নিন। ব্লেন্ডারে আম ব্লেন্ড করে নিয়ে কাঁচের বা

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

রমজানে প্রতিদিনের ইফতারিতে সবাই ভিন্ন ভিন্ন আইটেম রাখতেই বেশি পছন্দ করে। কিন্তু ইফতারিতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহারিত হয় মুড়ি। দেশি মুড়ির স্বাদ আর সাথে যদি মচমচা জিলাপী থাকে তাহলে তো কথাই নেই। এ যেন এক ভিন্ন স্বাদ। শুধু মজা আর মজা।মুড়ি সহজ লভ্য হলেও বাইরের ভাজাপোড়া জিলাপী খুবই অস্বাস্থ্যকর। তাই জিলাপী বাইরে থেকে কিনে না এনে ঘরেই তৈরি করুন। 
কিভাবে জিলাপী তৈরী করবেন রেসিপিটা জেনে নিন

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ
ময়দা ২ কাপ, চালের গুঁড়া আধাকাপ, বেকিং পাউডার ২ চা চামচ, চিনি ৩ কাপ, পানি ৫ কাপ, দারচিনি ২ টুকরো, এলাচ ২টি, তেল পরিমাণ মতো, গোলাপজল ২ টেবিল চামচ, জাফরান-সামান্য।

প্রস্তুত প্রণালিঃ
একটি পাত্রে ময়দা, চালের গুঁড়া, বেকিং পাউডার, জাফরান, গোলাপজল এবং পরিমাণ মতো পানি দিয়ে খামির তৈরি করে ১২ ঘণ্টা রেখে দিন।

নির্দিষ্ট সময় পরে খামির জিলাপী তৈরির জন্য প্রস্তুত হবে। এবার পাত্রে তেল গরম করে একটুকরো শক্ত কাপড়ে খামির নিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে জিলাপীর আকারে ছাড়ুন। জিলাপী মচমচে করে ভেজে তুলুন।

অন্য পাত্রে চিনি, পানি ও দারচিনি, এলাচ দিয়ে জ্বালিয়ে ঘন সিরা তৈরি করুন। মচমচে জিলাপীগুলো সিরায় কিছুক্ষণ রেখে তুলে নিন। হয়ে গেল আপনার দারুণ মজার মচমচে জিলাপী। 

*ইফতার* *ইফতাররেসিপি* *জিলাপী*

আরেফিন রাব্বী: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৫/৫
*ইফতাররেসিপি*
তোমার আমার *ইফতাররেসিপি* -
গরম গরম জিলাপি
*ইফতাররেসিপি*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ব্যাচেলরের ইফতার মানেই দোকানের খোলা ভাজাভুজি। প্রতিদিন একই ধরনের ভাজাভুজি খেলে রুচির পরিমান একেবারেই কমে যায়। তাই চাইলে অল্প পরিশ্রমে ব্যাচেলরা ইফতারিতে একটু ভিন্নতা নিয়ে আসতে পারেন। এই রমজানে সতেজ থাকতে আপনাদের জন্য সহজে তৈরি করা যায় এবং সুস্বাদু ও পুষ্টিকর কিছু ইফতার রেসিপি তুলে ধরছি।

ফল চিড়াঃ
উপকরণ:
লাল চাড়ি ১ কাপ, কাঠবাদাম ১ টেবিল চামচ, কিশমিশ ১ টেবিল চামচ, খেজুর ২-৩টি, সবরি কলা ও আম কিউব করে কাটা ১ কাপ।


প্রস্তুতি:
চিড়া ঝেড়ে তাতে কাঠবাদাম ও কিশমিশ দিয়ে চাল ধোয়ার মতো করে ধুয়ে নিয়ে নিন। কাঠবাদাম আলাদা রাখুন। খেজুর পানিতে ভিজিয়ে রেখে বিচি ফেলে দিন। আলাদা বাটিতে কলা ও আম-দুধ দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। একটা স্যুপের বাটিতে অর্ধেক চিড়া নিয়ে তাতে আম+কলা+দুধ ঢেলে নিন। শেষে কাঠবাদাম ও খেজুর ছোট ছোট করে কেটে ছেড়ে দিন।


ছোলার সালাদঃ
উপকরণ:
ছোলা সেদ্ধ ১ কাপ, গাজর কিউব করে কাটা আধা কাপ, বরবটি কুঁচি আধা কাপ, ছোট একটা পেঁয়াজের কুঁচি, কাঁচা মরিচ ৩-৪টি, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, সরিষার তেল ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা কুঁচি ১ টেবিল চামচ, চিনি ১ চা চামচ, লবণ পরিমাণ মতো।


প্রস্তুতি:
গাজর ও বরবটি সামান্য লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে, ভালো করে পানি ঝরিয়ে বাকি সব উপকরণের সঙ্গে মিশিয়ে তৈরি করতে হবে ছোলার সালাদ।


আমের কিউব শরবতঃ
উপকরণ:
পানি একটি গ্লাসের ৪ ভাগের ৩ ভাগ, চিনি ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ চা চামচ (চাইলে বেশিও দেওয়া যাবে), আম ছোট ছোট কিউব করে কাটা আধা কাপ।


প্রস্তুতি:
গ্লাসে পানি, চিনি ও লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে তার ওপর আমের ছোট ছোট কিউবগুলো দিয়ে দিতে হবে। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল আমের কিউব শরবত।


আনারসের শরবতঃ

উপকরণ:
আনারসের রস এক গ্লাসের ৩ ভাগের ২ ভাগ, পানি ৩ ভাগের ১ ভাগ, লেবুর রস ১ চা চামচ, চিনি ২ চা চামচ।


প্রস্তুতি:
আনারস ছিলে খাবার পানিতে ধুয়ে ব্লেন্ডারে রস করে নিতে পারেন। কিংবা দুই ফালি করে কেটে চার টুকরো করে নিন, প্রতিটা টুকরো ভালো করে কাটা চামচ দিয়ে থেঁতলে রস বের করতে হবে। গ্লাসে রস ঢেলে তার সাথে একটু লেবুর রস, পরিমাণ মতো চিনি ও পানি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। ব্যাস তৈরি আনারসের শরবত।
কন্টেন্ট সহযোগিতায়ঃ
রান্না-বিশেষজ্ঞ নাজমুন নাহার

*ব্যাচেলরের-রমজান* *ইফতাররেসিপি* *রেসিপি*
৫/৫

Dipti: *ইফতাররেসিপি* আধা কাপ করে দুধ, ময়দা, চিনি, আমের কাদ (আশ ছাড়া), ভালো করে মিশিয়ে অল্প তেলে তাওয়ায় দুইপাশ ভালো করে ভেজে নিন | ভাজ করে উপরে ঘি বা মধু যেটা আপনার পছন্দ ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন ম্যাঙ্গো প্যানকেক | পাশে রাখুন ঠান্ডা আমের এক গ্লাস জুস |

Dipti: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আখনী পোলাও সিলেটে শুধু আখনী নামেই পরিচিত এবং খুবই জনপ্রিয়। রমজান মাসে ইফতারে এই আখনী একটি অপরিহার্য্য আইটেম। এটা না হলে সিলেটের ইফতার পার্টির ইজ্জতের ফালুদা হয়ে যাবে। শুক্রবারে মসজিদে বাচ্চাদের উপস্থিতি ব্যাপক ভাবে বাড়ার কারন নামাজ শেষে এই আখনী শিন্নী হিসেবে বিতরন করা হয় আজকাল মুরগী, খাসীর মাং দিয়েও আখনী রান্না করে। কিন্তু মূলত আখনী রান্না গরুর মাংশ দিয়েই হয়। 

উপকরনঃ

গরুর মাংশ কেজি, পোলাও চাল কেজি, আদা বাটা টেবিল চামচ, রসুন বাটা টেবিল চামচ, জিরা গুড়ো চা চামচ, চিনা বাদাম বাটা টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি কাপ, টক দই কাপ, কাঁচামরিচ /৬টি, দারচিনি, এলাচ, গোলমরিচ, লং, তেজপাতা, লবন পরিমান মত। তেল কাপ। কিউব করে কাটা আলু, গাজর, মটরশুটি সব মিলিয়ে কাপ।কিসমিস ও আলুবোখারাও দিতে পারেন। কেওড়া জল চা চামচ, দুধ কাপ

প্রনালীঃ

প্রথমে মাংশ ছোট টুকরো করে ধুয়ে আদা, রসুন, জিরা, টক দই, বাদাম বাটা, পেঁয়াজ, লবন, গরম মসলা, তেজপাতা আধ কাপ তেল দিয়ে কষিয়ে নিন। মাংস একটু শক্ত থাকতে নামিয়ে রাখুন

অন্য একটি হাড়িতে আধ কাপ তেল গরম করে চাল ভালো করে ভেজে কষানো মাংস আলু, গাজর, মটরশুটি, আলুবোখারা, কিসমিস কাঁচামরিচ দিয়ে নেড়েচেড়ে পরিমান মত গরম পানি দিন। চাল আধ সেদ্ধ হয়ে পানি শুখিয়ে এলে হাড়ির নিচে পুরোনো তাওয়া দিয়ে দমে রাখুন। চাল সেদ্ধ হয়ে ঝরঝরে হলে কাপ দুধে চা চামচ কেওড়া জল দিয়ে গুলে আখনীর উপর ছড়িয়ে মিনিট পাঁচেক চুলায় রেখে নামিয়ে নিন। পরিবেশনের আগে হাড়ির ঢাকনা খুলবেন না। যারা কেওড়ার গন্ধ পছন্দ করেন না, তারা দিবেন না উপরে পিয়াজ বেরেস্তা করে ছড়িয়ে দিতে পারেন।

*ইফতাররেসিপি*
৫/৫

আগন্তুক দখলদার: নিজের রান্নায় *সেহেরী* করেছি *ইফতাররেসিপি*র দায়িত্বটা গলির মাথার মামাকে দিয়েছি (খুশী২) দেখাযাক মামার রেসিপি কেমন হয়(খুকখুকহাসি) ইফতাররে সময় ঘনিয়ে আসছে সবাই জাগুন(ভেঙ্গানো) ইয়া আল্লাহ আমাদের সবাইকে সুস্থ শরীরে রোজা পালন করার তৌফিক দান করুক... আমীন...

*সেহেরী* *ইফতাররেসিপি* *সেহেরী*

জান্নাতুল মাওয়া রাইসা: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ইফতারির জন্য মুখরোচক একটি রেসিপি জানতে চাই ;

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

.
*ইফতাররেসিপি* *দইবড়া* *হালিম* *ফ্রুটসালাদ* *ফলেরসালাদ*
৪/৫

আসিফ আমিন: রমজান শুরু হতে আর মাত্র কয়েকদিন l এই পবিত্র মাহে রমজানে আপনাদের জন্য কিছু দারুন দারুন ইফতার রেসিপি নিয়ে আমাদের ইফতার রেসিপি এন্ড্রয়েড অ্যাপ(ইফতার রেসিপি : Iftar Recipe)। আশা করি সবার ভাল লাগবে । গুগল প্লেস্টোর লিঙ্ক ঃ https://play.google.com/store/apps/details?id=com.idroidstudio.iftarrecipes

*ইফতার* *রেসিপি* *ইফতাররেসিপি* *রোজা* *রমজান*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★