ইমেইল

ইমেইল নিয়ে কি ভাবছো?

উদয়: একটি বেশব্লগ লিখেছে

পেশাদার কাজ বা ব্যক্তিগত, যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ই-মেইল। কার কাছে কি বিষয়ে লিখছেন তার ওপর ভিত্তি করে ই-মেইলে ভাষার ব্যবহার বেশ গুরুত্বপূর্ণ। শুধুমাত্র ভাষার ভুল প্রয়োগে উদ্দেশ্য সাধন নাও হতে পারে। বিশেষ করে পেশাক্ষেত্রে ই-মেইলে কাউকে সম্বোধনের ক্ষেত্রে কিছু শিষ্টাচার রয়েছে। বিশেষজ্ঞ বারবারা প্যাচার এ বিষয়ে পরামর্শ তুলে ধরেছেন। তার মতে, ই-মেইলের শুরুটাতেই অনেক বিষয় জড়িত। পেশাগত বা ব্যক্তিগত খুব সাধারণ ভুলগুলো সংশোধন করা জরুরি। জেনে নিন স্মার্ট ও কার্যকর ই-মেইল পাঠানোর ক্ষেত্রে সঠিক সম্বোধনগুলো : 

♠ 'Hi (তারপর নাম)...' : এর মাধ্যমে প্রথমেই প্রাপকের প্রতি বন্ধুত্বপূর্ণ উষ্ণতা প্রকাশ করা হয়। অনেকের কাছে এই সম্বোধন বেশ প্রিয়। যেকোনো বয়সের মানুষকে বন্ধুভাবাপন্ন মানসিকতা দিয়ে আন্তরিক করে তোলা যায়। শুরুতে মনের মতো কিছু খুঁজে না পেলে এটি অনায়াসে ব্যবহার করতে পারেন।

♠ 'Greetings',... : যদি প্রাপকের নাম না জেনে থাকেন, তবে এ শব্দের প্রয়োগে বক্তব্য শুরু করতে পারেন।

♠ 'Hey!' : বন্ধুদের সঙ্গে এভাবে শুরু করতে পারেন। তবে পেশাক্ষেত্রে এর ব্যবহার বেমানান। অনানুষ্ঠানিক যোগাযোগ বা যোগাযোগে বেশ ভালো শুরু হতে পারে। তবে এ শব্দের পর যাকে লিখছেন তার নাম লিখতে ভুল করবেন না।

♠ 'Dear Mr./Mrs./Ms. (এরপর নামের শেষ অংশ)' : প্রিয় শব্দটি বেশ কৌশলী যার ব্যবহারে কেউ নাখোশ হবে না। ই-মেইল লেখার প্রারম্ভে এটা ভুল শব্দপ্রয়োগ নয়। তবে এটা অতিমাত্রায় প্রথাগত বলে বিবেচিত হয়।

♠ 'Dear (এরপর নামের প্রথম অংশ), ...' : আধুনিক যুগেও খুব বেশি খারাপ বলে বিবেচিত হবে না। তবে অনেকের চোখে পুরনো ধাঁচের প্রয়োগ।

♠ 'Dear friend, ...' : নাম না জানলে এবং বক্তব্য বন্ধুসুলভ হলেও শুরুটা ভিন্ন হওয়া উত্তম। কারণ প্রাপক এখন পর্যন্ত আপনার বন্ধু নন।

♠ 'Dear Sir or Madam, ...' : শুরুটা এমন হলে বোঝা যায়, যার কাছে লিখছেন তার সম্পর্কে আপনার কোনো ধারণা নেই। কাজেই আপনার ই-মেইল পড়ার প্রতি তার কি কোনো আগ্রহ থাকবে?

♠ 'To whom it may concern, ...' : ধরুন, পড়তে গিয়েই প্রাপক ভাবলেন, নাহ শুরুটা আমাকে আগ্রহী করেনি। কাজেই পরেরটুকু পড়ার কোনো প্রয়োজনই তার নেই।

♠ 'Hello, ...' : বিশেষজ্ঞের মতে, এই শুরুটা খারাপ নয়। তবে অনেকের কাছে বেশি ঘরোয়া সম্বোধন হয়ে গেছে।

♠ 'Good morning/afternoon/evening, ...' : দেশের বাইরের কারো কাছে পাঠালে বিষয়টি ঝুঁকিপূর্ণ। আপনি সকালে পাঠাচ্ছেন। হয়তো তার ওখানে বিকাল। তা ছাড়া সময় বুঝে শুভেচ্ছা পাঠানোর বিষয়টি এড়িয়ে যেতে পারেন।

♠ 'নামের প্রথম অংশ...' : এভাবে শুরু অনেকের কাছ অপ্রত্যাশিত হতে পারে। কাজেই বিরক্ত হওয়া বিচিত্র নয়। শুধুমাত্র নামের প্রথম অংশ দিয়ে সম্বোধন করা এড়িয়ে যান।

♠ 'Yo!' : এটা কোনোভাবেই ই-মেইলের প্রারম্ভ হতে পারে না।

♠ ভুল বানানে নাম লেখা : এটা খুবই বিরক্তিকর। প্রাপক রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে উঠতে পারেন। তাই কারো নাম লেখার আগে অবশ্যই তার ব্যবহৃত বানান সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে।

♠ 'Gentlemen, ...' : এ সম্বোধনের লিঙ্গ বৈষম্যের ধারণা মাথাচাড়া দেয়। এক দল মানুষকে যদি সম্বোধন করতে হয়, তবে 'Hi, everyone' মন্দ নয়।

♠ 'Hi (ডাক নাম), ...' : কারো নামকে নিজের মতো করে 'ডাকনাম' বানিয়ে নিতে পারেন না। অন্তত প্রাপক যদি সেই নামে আপনার সঙ্গে পরিচিত হয়ে থাকেন। অথবা তার পাঠানো ই-মেইলে যদি সেই নামের ব্যবহার করেন, তবে আপনিও তা নির্দ্বিধায় লিখতে পারেন।

♠ 'Mr./Mrs./Ms. (এরপর নামের প্রথম অংশ), ...' : প্যাচার জানান, এভাবে স্কুলপড়ুয়া বাচ্চারা তাদের শিক্ষকদের সম্বোধন করতে পারেন। পেশাক্ষেত্রে এর ব্যবহার অনেকের কাছে হাস্যকর।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

*ইমেইল* *ই-মেইল* *সম্বোধন* *লাইফস্টাইলটিপস*

খুশি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ইমেইল স্পুফিং কি?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

*ইমেইল* *স্পুফিং*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ইমেইল এর আবিষ্কারক রে টমলিনসন সমন্ধে বিস্তারিত জানতে ইচ্ছুক l

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

.
*রে-টমলিনসন* *ইমেইল* *আবিষ্কারক* *আবিষ্কার* *টমলিনসন*

খুশি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

এবার সাধারণ মেসেজের মতো করেই মেইল ব্যবহারের সুযোগ করে দিচ্ছে সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট। ই-মেইলের জন্য সেন্ড নামে নতুন অ্যাপ চালু করার মধ্য দিয়ে গ্রাহকরা এই সেবাটি উপভোগ করতে পারবেন।

সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ইন্সট্যান্ট মেসেজিং সেবার কারণে ই-মেইল লেনদেন অনেকাংশে কমে গেছে। অধিকাংশই এখন মেইলের পরিবর্তে সামাজিক যোগাযোগ বা ইন্সট্যান্ট মেসেজিংয়ে বার্তা পাঠাতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন। এ প্রবণতার কারণে ই-মেইল ব্যবস্থা হুমকির মুখে পড়তে পারে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা। ফলে নিজেদের সেবায় ভিন্নতা আনার চেষ্টা করে যাচ্ছে ই-মেইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো।

সম্প্রতি মাইক্রোসফট সেন্ড নামের একটি বিশেষ অ্যাপ চালু করেছে। অ্যাপটি ব্যবহার করলে মেইল পাঠাতে সাবজেক্ট লাইন আর ব্যবহার করতে হয় না গ্রাহককে। মেইল লেখার সময় সাবজেক্ট লাইনই পাবেন না গ্রাহক। সরাসরি কন্টাক্ট লিস্ট ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। এর মাধ্যমে গ্রাহক সাধারণ মেসেজিংয়ের মতো করেই ই-মেইল লেনদেন করতে পারবেন।

আপাতত অ্যাপটি আইওএসচালিত ডিভাইসগুলোর জন্য বাজারে ছাড়া হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ও উইন্ডোজ ফোন সমর্থিত সেন্ড অ্যাপ শিগগিরই বাজারে ছাড়া হবে বলে প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানানো হয়।
তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট
*অ্যাপস* *তথ্যপ্রযুক্তি* *ইমেইল*

খুশি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ইয়াহু মেইল ব্যবহারকারীদের জন্য ‘অন ডিমান্ড’ পাসওয়ার্ড সিস্টেম চালু করেছে ইয়াহু কর্তৃপক্ষ। এই উন্নত নিরাপত্তা ব্যবস্থার ফলে ইয়াহু মেইল ব্যবহারে আর ব্যবহাকারীদের নিজস্ব পাসওয়ার্ড মনে রাখার প্রয়োজন পড়বে না এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহারেরও প্রয়োজন পড়বে না। ফলে ব্যবহারকারীদের ইয়াহু মেইল হ্যাকিংয়ের ঘটনা অনেকাংশেই কমে যাবে।

ব্যবসা ও প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট বিজনেস ইনসাইডারের খবরে বলা হয়েছে, ইয়াহুর প্রধান তথ্য নিরাপত্তা কর্মকর্তা অ্যালেক্স স্ট্যামস ১৫ মার্চ রোববার ‘অন ডিমান্ড’ সেবাটির উন্মোচন করেন। এই সেবা পেতে ব্যবহারকারীদের প্রথমে তার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করে সেটিংস থেকে ‘অন ডিমান্ড পাসওয়ার্ড’ ফিচারটি চালু করতে হবে। আর এক্ষেত্রে মোবাইল নম্বর দিতে হবে।

এরপর ইয়াহু মেইলের গ্রাহকরা প্রতিবার তার মেইলে প্রবেশ করতে গেলে মোবাইল নম্বরটিতে প্রতিবার বিশেষ কোড নম্বর পাঠাবে ইয়াহু। আর সে কোড দিয়েই অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেন গ্রাহক।
 
নতুন এই পদ্ধতিটি একটু সময় সাপেক্ষ মনে হলেও এর মাধ্যমে গ্রাহকের ই-মেইলে নিরাপত্তা বজায় থাকবে।
 
ইতিমধ্যে এ পদ্ধতিটি নির্দিষ্ট দেশে চালু করা হলেও, খুব শিগগিরি বিশ্বব্যাপী সকল ইয়াহু মেইল ব্যবহারকারী তাদের মেইলের সেটিংস অপশন থেকে এই সেবাটি ব্যবহার করতে পারবেন বলে জানিয়েছে ইয়াহু কর্তৃপক্ষ।
সূত্রঃ ইন্টারনেট
*ইয়াহু* *ইমেইল* *পাসওয়ার্ড* *তথ্যপ্রযুক্তি* *বেশটেক* *টেকনোলজি*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★