ঈদ রেসিপি

ঈদরেসিপি নিয়ে কি ভাবছো?

পূজা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ঈদ স্পেশাল রেসিপি : মোরগ পোলাও 

উপকরণ

হাড়সহ মোরগের মাংস (বড় টুকরা করা) ২ কেজি, দুধ ২ কাপ, আদাবাটা ১ টেবিল-চামচ, রসুনবাটা ১ চা-চামচ, কাঁচা মরিচবাটা ১ টেবিল-চামচ, কাঁচা মরিচ (আস্ত) ৫-৬টি, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, গরম মসলার গুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল ১ কাপ, টক দই ৪ টেবিল-চামচ।

মসলা ও মোরগের স্টক

পানি দেড় লিটার, মোরগের হাড় ৪-৫ টুকরা, শাহি জিরা আধা চা-চামচ, এলাচ (থেঁতো করা) ৪টি, লবঙ্গ ১০-১২টি, গোল মরিচ ১২-১৪টি, তেজপাতা ২টি, দারচিনি ৪ টুকরা। সব উপকরণ জ্বাল দিয়ে পানি দেড় লিটার থেকে ১ লিটার করে ছেঁকে নিতে হবে।

পোলাও

পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ, গুঁড়ো দুধ ১ কাপ, কিশমিশ ও বাদামের কুচি ১ টেবিল-চামচ, আলুবোখারা ৭-৮টি, ঘি ১ কাপ, লবণ স্বাদমতো, মাওয়া (গুঁড়া করা) আধা কাপ।

প্রণালী
মাংস ধুয়ে দই ও বাটা মসলা মাখিয়ে ১ ঘণ্টা মেরিনেট করে রাখতে হবে। সসপ্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজের কুচি একটু ভেজে মাখানো মাংস দিয়ে ভালো করে কষিয়ে সেদ্ধ করতে হবে এবং অন্য একটি পাত্রে তুলে রাখতে হবে।

চাল ধুয়ে পানি ঝরাতে হবে। মাংস রান্না করার সসপ্যানে মুরগির স্টক দিয়ে তাতে গুঁড়ো দুধ, গরম মসলা ও চাল দিয়ে নাড়তে হবে, যেন সব দিকের চাল সমান তাপ পায়। চাল ফুটে উঠলে কিশমিশ, বাদাম কুচি, আলুবোখারা, লবণ, পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে ঢেকে দমে রাখতে হবে। ১০ মিনিট পর ঢাকনা খুলে রান্না করা মাংস সাজিয়ে নিচ থেকে কিছু পোলাও ও মাওয়া দিয়ে ঢেকে আরও ১৫ মিনিট দমে রাখতে হবে।

সবশেষে সার্ভিং ডিশে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মোরগ পোলাও।

*ঈদরেসিপি* *রেসিপি* *মোরগপোলাও*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ঈদের দিনে বিরিয়ানি, প্লেইন পোলাওয়ের সাথে মচমচে চিকেন পাকোড়া খাবারে এনে দেয় ভিন্নতা l চলুন শিখে নেই রেসিপিটি :) 

উপকরণ: একটি মুরগির অর্ধেক বুকের মাংস। আলু মিহিকুচি বড় ১টি। পেঁয়াজকুচি ২,৩টি। কাঁচামরিচ-কুচি ৪,৫টি। আদা ও রসুনবাটা ১ টেবিল-চামচ করে। হলুদগুঁড়া আধা চা-চামচ। জিরাগুঁড়া ১ চা-চামচ। গোলমরিচ-গুঁড়া স্বাদ মতো। কালিজিরা ১ চা-চামচ বেসন অথবা টেম্পুরা পরিমাণ মতো। তেল পরিমাণ মতো। লবণ স্বাদ মতো। শুধু বেসন দিলে, সঙ্গে ১ চা-চামচ বেইকিং পাউডার মিশিয়ে দিতে হবে। টেম্পুরা দিলে বেইকিং পাউডারের প্রয়োজন নেই।


পদ্ধতি: মুরগির মাংস যতদূর পারেন পাতলা ও ছোট করে কেটে নিন। একটি বাটিতে পরিমাণ মতো বেসন অথবা টেম্পুরাসহ অন্য সব উপকরণ দিয়ে ভালোভাবে মাখিয়ে নিন। মাঝারি আঁচে তেল গরম হতে দিন। ছোট ছোট পাকোড়ার আকারে বানিয়ে গরম ডুবো তেলে সোনালি করে ভেজে নিন।

 

*ঈদরেসিপি* *চিকেনপাকোড়া* *পাকোড়া* *চিকেনরেসিপি*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি, ঈদের দিনে সবাই চেষ্টা করে বিশেষ কিছু খাবার তৈরি করার। তার মধ্যে মিষ্টি, সেমাই আর পায়েসের পাশাপাশি ঝাল কিছু আর মাংস জাতীয় হলে আরো দারুন জমে যায়। সেরকম একটি মজার রেসিপি আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করব, কলিজার দো-পেঁয়াজা, এটা পরোটা বা রুটির সাথে খেতে দারুন মজা। 

চলুন শিখে নেয়া যাক রেসিপিটি:

উপকরণ : খাসির কলিজা ৫০০ গ্রাম, আলু ৪টি (মাঝারি), পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল-চামচ, আদাবাটা ১ চা-চামচ, রসুনবাটা ১ চা-চামচ, হলুদের গুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, এলাচ ৪টি (থেঁতো করা) দারচিনি ৩ টুকরা, তেজপাতা ২টি, দুধ আধা কাপ, ভাজা জিরারগুঁড়া ১ চা-চামচ, কাঁচামরিচ ৪-৫টি, লবণ স্বাদমতো, তেল প্রয়োজনমতো।


প্রণালি : প্রথমে কলিজা ডুমো করে কেটে ভালো করে ধুয়ে দুধ, লবণ, আদা-রসুনবাটা দিয়ে মাখিয়ে রাখতে হবে ১০ মিনিট। আলু ডুমো করে কেটে হলুদ ও লবণ মাখিয়ে লাল করে ভেজে তুলে রাখতে হবে। ১ কাপ পেঁয়াজ বেরেস্তা করে নিতে হবে। এবার ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে ভাজা জিরারগুঁড়া ছাড়া বাকি সব মসলা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে। মসলা কষানো হলে দুধসহ কলিজা মসলায় দিয়ে একটু নাড়াচাড়া করে ঢেকে দিতে হবে পাঁচ মিনিট। সেদ্ধ হলে পেঁয়াজ বেরেস্তা দিতে হবে। ভাজা জিরারগুঁড়া ও ধনে পাতা ছড়িয়ে দিয়ে পরিবেশন করা যায়।

*ঈদরেসিপি* *কলিজারদোপেঁয়াজা* *সকালেরনাস্তা*
ছবি

দীপ্তি: ফটো পোস্ট করেছে

কাশ্মীরি ঈদ রেসিপি : খুবানি কা মিঠাই

খানদানি ঈদ মানেই বিরিয়ানি, সেমাই, ফিরনির পাশাপাশি থাকবেই খুবানি কা মিঠা। কাশ্মীরে এই পদ ছাড়া ঈদ ভাবাই যায় না। আপনিও ট্রাই করে দেখুন (খুকখুকহাসি) যা যা লাগবে: শুকনো আখরোট(খুবানি)- ১/২ কেজি চিনি- ৩/৪ কাপ ফ্রেশ ক্রিম- ১/৪ কাপ প্রস্তুত প্রণালী: আখরোট ৩ কাপ জলে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। জল থেকে তুলে বীজ বের করে নিন। যেই জলে আখরোট ভিজিয়ে ছিলেন সেই জলেই আখরোট সিদ্ধ করে নিন। ১০ মিনিট পর চিনি দিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নিন যতক্ষণ না চিনি গলে ঘন হয়ে যায়। আগুন থেকে নামিয়ে কিছু আখরোট সরিয়ে রেখে বাকিটা পেস্ট করে ফেলুন। আখরোট পেস্ট আর বাকি আখরোট একসঙ্গে হালকা আঁচে ফুটিয়ে নিন। ঘন হয়ে গেলে ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে গার্নিশ করে পরিবেশন করুন।

*খুবানি-কা-মিঠা* *ডেজার্ট* *ঈদরেসিপি* *রেসিপি* *কাশ্মীরিমেন্যু*
খবর

ফাহিম মাশরুর: একটি খবর জানাচ্ছে

ঈদ রেসিপিঃ চিকেন সাতে
http://www.urboshi.com/625/ঈদ-রেসিপিঃ-চিকেন-সাতে
এবার ঈদে তৈরী করুন মজাদার চিকেন সাতে ...বিস্তারিত
*সাতে* *নতুনরেসিপি* *ঈদরেসিপি*
১৩০ বার দেখা হয়েছে

জোবায়ের রহমান: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দুধ সেমাই

উপকরণ : 
সেমাই ১ প্যাকেট
দুধ ২ লিটার
এলাচ ৩ টুকরা
বাদাম ১ টেবিল চামচ 
কিশমিশ ১ টেবিল চামচ 
চিনি ২ কাপ (পরিমাণমতো) 
ঘি ২ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন
১. সেমাই ভেঙে নিন। ঘি গরম হলে এলাচ দিন।
২. সেমাই দিয়ে হাল্কা বাদামি করে ভেজে নিন।
৩. দুধ অল্প আঁচে জ্বালিয়ে ১ লিটার করুন। দুধের মধ্যে ভেজে রাখা সেমাই দিয়ে নেড়ে চিনি দিন।
৪. ১০ মিনিট অল্প আঁচে রেখে নামিয়ে ফেলুন।
৫. পরিবেশনের পাত্রে ঢেলে বাদাম কুচি ও কিশমিশ ছড়িয়ে দিন।
৬. ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।
*রেসিপি* *ডেজার্ট* *মিষ্টি* *ঈদরেসিপি*

বেশতো Buzz: বন্ধুরা কেমন কাটলো আপনাদের ঈদ ও পূজা। ঈদ ও পূজার ছুটিতে কোথায় কোথায় ঘুরলেন আর ভিন্ন ভিন্ন রেসিপির কে কি খাবার খেলেন? ঝটপট লিখে আমাদের বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন। লিখুন *ঈদেবেড়ানো* *কোরবানীঈদ* *পূজারখাবার* *ঈদরেসিপি* *ছুটিতেভ্রমন* *ঈদেরখাওয়া* দিয়ে।

*ঈদেবেড়ানো* *কোরবানীঈদ* *পূজারখাবার* *ঈদরেসিপি* *ছুটিতেভ্রমন* *ট্যুরপ্যাকেজ* *অল্পতেভ্রমন* *বিদেশভ্রমন* *অতিভোজ* *পূজারসাজ* *ঈদেরখাওয়া* *ঈদফিস্ট* *ঈদেবেড়ানো* *কোরবানীঈদ* *পূজারখাবার* *ঈদরেসিপি* *ছুটিতেভ্রমন* *ঈদেরখাওয়া*

ফাহিম মাশরুর: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 হান্টার বিফ তৈরী করার পুরা রেসিপি কেও জানেন? অল্প সময়ে কিভাবে এটি তৈরী করা যায়?

উত্তর দাও (৪ টি উত্তর আছে )

*মাংসেররেসিপি* *ঈদরেসিপি* *রেসিপি* *বিফরেসিপি* *গরুরমাংসেররেসিপি*

★ছায়াবতী★: একটি বেশব্লগ লিখেছে

উপকরণ
গরু বা খাসির মাংস ঝুরি করে কাটা ৫০০ গ্রাম। ক্যাপ্সিকাম সবুজ এবং লাল রংয়ের ২টি। টমেটোকুচি ২টি। শুকনামরিচ ৮টি। পেঁয়াজবাটা ১ টেবিল–চামচ ও কিউব করে কাটা ১ কাপ। আদাবাটা ২ টেবিল– চামচ। রসুনবাটা ২ টেবিল-চামচ। সয়া সস ১ টেবিল-চামচ। লেবুর রস বা সিরকা ১ টেবিল–চামচ। টমেটো সস ১ টেবিল–চামচ। গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ। লবণ স্বাদমতো। তেল ও পানি পরিমাণ মতো।
পদ্ধতি
মাংসের ঝুরিগুলো অর্ধেক আদা আর রসুন বাটা, সয়া সস, লেবুর রস, টমেটো সস, গোলমরিচের গুঁড়া আর লবণ দিয়ে মাখিয়ে ৫ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন।
এবার কড়াইয়ে তেল গরম করে মেরিটেইট করা মাংসগুলো তেলে ভাজা ভাজা করে রান্না করুন প্রায় ২০ মিনিট। চাইলে এক কাপ পানিও দিতে পারেন ভাজার সময়।
ভাজামাংস রেখে দিন এক পাশে। প্যানে আবার তেল নিন। এতে বাকি আদা ও রসুনবাটা, পেঁয়াজবাটা, শুকনামরিচ দিয়ে ২ মিনিটের জন্য ভাজুন। এসময় একটু পানি দিন। এবার কাটা-টমেটো, পেঁয়াজ আর ক্যপাসিকাম দিয়ে আরও ৩ মিনিটের জন্য রান্না করুন। তবে এই সময় জ্বাল অনেক বাড়িয়ে দেবেন। ঢাকবেন না।
এখন রান্না করা মাংস দিয়ে আরও আধা কাপ পানিসহ অল্প জ্বালে ৫ মিনিটের জন্য রান্না করুন। রান্নার সময় লবণ দিতে যেন ভুলবেন না। হয়ে গেল মজাদার ঝাল ফ্রাই।
এটা পরোটা, লুচি কিংবা নান-রুটির সঙ্গে খেতে বেশ মজা লাগে। সকালের নাস্তায় কিংবা রাতের খাবারে খেতে পারেন দারুন এই পদ।
রেসিপি: আতিয়া আমজাদ
*ঈদরেসিপি* *মাংসেররেসিপি*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★