ঈদের কেনাকাটা

ঈদেরকেনাকাটা নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কমদামের লেটেস্ট জিন্স প্যান্টফ্যাশন স্টাইলে জিন্সের ধারণা খুব একটা নুতন নয়। পোশাকের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে জিন্সের চলন শুরু বহু আগে থেকে। সর্বপ্রথম উনিশ শতকের দিকে জিন্সের উদ্ভোবন। এর পর থেকে সেই স্টাইল সারা দুনিয়া জুড়ে বিখ্যাত হয়ে উঠে, যার চলন আজো অমলিন। ছেলে মেয়ে উভয়ের জন্য জিন্সের বিভিন্ন স্টাইল জনপ্রিয়। চলুন আকর্ষণীয় এই পোশাকের টপ ফ্যাশনেবল কালেকশন গুলো দেখে নেই।

মেনজ ফ্যাশনে জিন্স

জিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুনজিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুন

শীতকে সামনে রেখে জিন্স প্যান্টের বাজার বেশ নড়ে চড়ে বসেছে। স্টাইলিশ সব জিন্সের পশরা সাজিয়ে পসেছে ফ্যাশন হাউজ গুলো। এবারে বিভিন্ন বয়সের লোকেরা পছন্দের পোশাকের তালিকায় একটি বড় জায়গা দখল করে আছে আঁটসাঁট-প্রকৃতির জিন্স। অনেকেই আবার একটু ঢিলেঢালা প্যান্ট পরতেই বেশি পছন্দ করে। কেউ বা আবার গ্যাবাটিন প্যান্টের দিকে ঝোঁক দিচ্ছে।


জিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুনএকটা সময়ে জিন্স মানেই ছিল অনেক মোটা কাপড় আর শীতের সময়ে আরামদায়ক এমন পোশাক। কিন্তু এখন সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলে গেছে জিন্স। যেহেতু তরুণ-তরুণীরা দিনের অনেকটা সময় বাইরে থাকে, তাই তাদের আরামের কথা ভেবেই এখন জিন্সের প্যান্ট তৈরি করা হয়।

জিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুন
এখন জিন্সের প্যান্ট অনেক পাতলা ও নরম কাপড়ের হওয়ায় এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে অনেক। রং ও সুতার ব্যবহারে এখন মাথায় রাখা হয়। তাই শীত-গ্রীষ্ম সব সময়ই জিন্স আরামদায়ক।
যেমন চলছে এ সময়ের ট্রেন্ড মূলত একটু মোটা কাপড়ের জিন্স। ন্যারো কাটের প্যান্টগুলো বেশি চলছে। কেউ কেউ আবার স্কিন ফিটিং নিচ্ছে। যাদের বয়স ত্রিশের ওপরে, এমন লোকেরা স্লিম ফিট পছন্দ করছেন বেশি।
ন্যারো কাট থেকে লো-রাইজ জিনস। স্লিম থেকে স্কিনি জিনস। বদলে যাওয়া সময়ের ফ্যাশনের সঙ্গে সঙ্গে পাল্টেছে জিনসের প্যাটান। কিন্তু ফ্যাশন ট্রেন্ডে কমেনি জিনসের জনপ্রিয়তা। এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া কঠিন যিনি কখনো জিনস পরেননি।

জিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুন
সব বয়সী মানুষের পছন্দের তালিকায় জিনস জায়গা করে নিলেও দিনে তরুণ-তরুণীদের মধ্যে এর আকর্ষণ আর আবেদনটা সবচেয়ে বেশি। অন্য অনেক কিছুর মতোই পাশ্চাত্য থেকে আসা জিনসের প্যান্ট একটা সময় ছিল কেবল পুরষদের জন্য। কোনো মেয়ে জিনস পরে বাইরে বেরোনোর কথা ভাবতেই পারত না। সময় বদলেছে, পাল্টে গেছে দৃষ্টিভঙ্গি।জিনস এখন হয়ে ওঠেছে তরুণীদের নিত্যসঙ্গী।এটা এখন ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে পরে।
মেয়েরা স্কিন টাইট জিন্সের সঙ্গে টপস, শার্ট, ফতুয়া, শর্ট কামিজ পরছে। এটা পরে চলাফেরা করা সহজ।মেয়েদের জিনস আর ছেলেদের জিনসে কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে।

এবারে জেনে নেওয়া যাক আরও কিছু তথ্য :

 জিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুন

জিনসের যত্ন : জিনসের মূল কথাই হলো, রাফ অ্যান্ড টাফ। তাই খুব যত্নের সঙ্গে দেখভালের প্রয়োজন নেই। তবে ধোয়ার সময় ঠান্ডা পানিতে ধোয়া উচিত। রোদে শুকানোর সময় উল্টো করে শুকাতে দিন। রং যদি উঠে যায়, তবে ড্রাই ক্লিন করাতে পারেন।
বাজারদর : ব্র্যান্ড ভেদে জিন্সের দামের বেশ কিছুটা প্রার্থক্য রয়েছে। ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকা দামের প্যান্টও বাজারে রয়েছে। তবে এক্সক্লুসিভ স্কিনি জিনসগুলো দুই হাজার টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে।


কোথায় থেকে কিনবেন:

 জিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুনজিন্স প্যান্ট কিনতে ক্লিক করুন

রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসগুলো থেকেই আপনার পছন্দের জিন্সপ্যান্ট কিনে নিতে পারবেন। তবে বর্তমানে জিন্স কেনার জন্য অনেকেই অনলাইন শপিংমলের উপর আস্থা রাখছে। আপনিও আপনার পছন্দের প্যান্ট অনলাইন শপিংমল থেকে কিনে নিতে পারেন। কমদামে জিন্স প্যান্টের লেটেস্ট কালেকশন কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*জিন্সপ্যান্ট* *স্মার্টশপিং*

♦ মমিতা ♦: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

[ঈদ-কেনাকাটা]
ঈদের কেনাকাটা প্রায় শেষ করে ফেলেছি , এখন শুধুমাত্র ঈদের অপেক্ষা [বাঘমামা-হাহাহা]
*ঈদ* *ঈদেরকেনাকাটা*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুনরাজধানী ঢাকাসহ দেশের শপিংমল ‍গুলোর ভিন্নধর্মী কালেকশন এবং ক্রেতাদের ভিড়ই বলে দিচ্ছে ঈদ আসতে খুব একটা বেশি দেরি নেই। তবে গরেমের এই সময়টাতে রোজা রেখে মার্কেটে গিয়ে ঘাম ঝরাতে চাইছেননা কেউই। যত সহজ কেনাকাটা করা যায় সেটাই বেটার। এজন্য সবাই চায় ঘরে বসেই কেনাকাটাটা সেরে ফেলতে। ক্লিকেই যদি ঈদের কেনাকাটা শেষ করা যায় তাহলে কত সুবিধা! এজন্য ক্লিকেই ঈদের কেনাকাটা সেরে ফেলতে আগ্রহী হাজারও ক্রেতা।  দোকানপাট, বাজার কিংবা শপিং মলের পাশাপাশি ঈদের কেনাকাটা জমজমাট অনলাইনে ই-কমার্সের ওয়েবসাইটগুলো।

অনলাইনে কী কিনছেন, কেনইবা কিনছেন?

ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুন
অনেকেই গরম বা বৃষ্টির ভয়ে বাইরে বেরোতে চান না৷ কেউ আবার ঈদের আগে কাজের চাপে বাজারে ঘোরার ফুরসত পাচ্ছেন না৷ তাঁদের ভরসা তাই অনলাইন বাজার। এবারের ঈদে বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটের পণ্যতালিকা দেখে বোঝা গেল, তারা নানা পণ্যের পসরা সাজিয়েছে তরুণদের কথা ভেবেই। কেননা তাদের গ্রাহকদের মধ্যে বেশির ভাগই বয়সে তরুণ।


ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুনপোশাক-আশাক থেকে শুরু করে নানা রকম ঘড়ি, রোদচশমা, ওয়ালেটসহ সবই আছে। আরও আছে বিভিন্ন রকম মজার মজার ইলেকট্রনিক গ্যাজেট। চাল-ডাল থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যও আছে অনলাইন কেনাকাটার তালিকায়।


ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুনরাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা জানান, ‘কাজের ব্যস্ততা থাকে বলেই অনেক দিন ধরে অনলাইনে কেনাকাটা করছি৷ বিভিন্ন ই-কমার্স সাইট ছাড়াও দেশের অনেক নামী ব্র্যান্ডের ই-শপ রয়েছে৷ ঈদের দিন এবার যে থ্রিপিস পরব, সেটাও কিনেছি ফেসবুক পেজভিত্তিক উদ্যোগ ফ্যাশনিয়া থেকে৷’
ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুনশুধু নিজের না, পরিবারের অন্য সদস্যদের উপহার দিতেও তরুণেরা কেনাকাটা করছেন অনলাইনে৷ বাবা-মায়ের কাছে উপহার পাঠাতেও অনলাইনে দোকান বেছে নিচ্ছেন অনেকে৷ ভিড় এড়িয়ে ঈদের কেনাকাটা অনেক বেশি সহজ করে দিয়েছে অনলাইন সুবিধা। ‘অনলাইনের সুবিধা হলো ‘ক্যাশ-অন ডেলিভারি’। মানে পণ্য হাতে পেয়ে তারপর এর দাম পরিশোধ করা যায়।’


ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুনএখন দিন যাচ্ছে আর বাড়ছে ই-কমার্সের চাহিদা ও বাজার৷ রোদ-বৃষ্টি গায়ে না মেখে ঝামেলা ছাড়াই কেনাকাটা করা যায় বলে তরুণেরা বেশি আগ্রহী হচ্ছেন৷ তবে অনলাইনে কেনাকাটা করার আগে অবশ্যই সাইটটা যাচাই করে নিতে হবে৷ বিশ্বস্থতার সাথে অনলাইনে ঈদের কেনাকাটা করতে চাইলে ঢুঁ মারতে পারেন দেশের সেরা অনলাইন শপ আজকের ডিলের ওয়েব সাইটে।

অনলাইন শপ আজকের ডিলে ঈদের বাজার:

ঈদের কেনাকাটা করতে ক্লিক করুন
ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নানা রঙে-ঢঙে পুরো দেশকে সাজাতে পুরোপুরি প্রস্তুত দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইনশপ আজকের ডিল ডটকম। এই ঈদে আপনাকে আপনার আপন রঙে রাঙিয়ে তুলতে আজকের ডিল ডট কম নিয়ে এসেছে ৫০০০+ অনবদ্য সব কালার আর বাহারি ডিজাইনের পাজ্ঞাবী, টি-শার্ট, শাড়ি, লেহেঙ্গা, কুর্তি, ঘড়ি ও গহনা ও অন্যান্য অনেক আইটেম । গরমে গায়ের ঘাম না ঝরিয়ে আজকেরডিল থেকে শপিং করুন ঝড়ের গতিতে আর ডেলিভারী নিন তুফানের বেগে। বাজার যাচাই করে দাম বাড়ার আগে ঈদের লেটেস্ট ও স্টাইলিশ কালেকশন গুলো কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*ঈদেরকেনাকাটা* *অনলাইনশপ* *স্মার্টশপিং*
শপিং

যারিন তাসনিম: কেনাকাটা সংক্রান্ত একটি তথ্য দিচ্ছে

৳ 400.00
http://www.sheraponno.com/party-hand-bag

লিঙ্কটি সম্পর্কে তোমার কোন মতামত থাকলে তা এখানে লিখো

*ঈদেরকেনাকাটা* *ঈদফ্যাশন* *ব্যাগ* *হালেরফ্যাশন* *ফ্যাশন*
১,৫১৮বার দেখা হয়েছে

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★