কোম্পানি

কোম্পানি নিয়ে কি ভাবছো?

HumanLab777: একটি বেশব্লগ লিখেছে


কোম্পানীকে ধারণ না করাঃ

একটি কোম্পানির কর্মীদের উপর রিসার্চ করলে দেখা যাবে, শতকরা ১৩% থেকে সর্বোচ্চ ২৭% পর্যন্ত কর্মী সেই কোম্পানিকে 'ধারন' করে। 'ধারন' করে বলতে যারা বিশ্বাস করে, উক্ত কোম্পানিতে শেখার সুযোগ আছে এবং সেখানে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ রয়েছে।

এখন আপনার প্রতিষ্ঠান মুনাফা অর্জনের দিক থেকে যত বিশালাকারই হোক না কেন, আপনার প্রতিষ্ঠানের কর্মীগনের মধ্যে যদি প্রতিষ্ঠানকে 'ধারন' করার বিষয়টি না কাজ করে তাহলে তারা এটিকে নিছক দিন-মজুরি টাইপের পেশা ধরে নিবে যেখানে তারা তাদের মেন্টাল-শ্রম নয় বরং (দৈনিক অফিসে/কর্মক্ষেত্রে আসা-যাওয়া ইত্যাদি) ফিজিক্যাল-শ্রম কেই কাজের মানদন্ড হিসেবে ধরে নিয়েছে।

ধরে নিলাম, আপনার ব্যাবসাটি অনেক লাভজনক একটি ব্যাবসায় এবং এখানে যে কারও দীর্ঘস্থায়ি ক্যারিয়ারের সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। তারপরেও কোম্পানীকে কর্মীগনের ধারন না করার পেছনে কারন হতে পারে, তাদের বিজনেসের ন্যাচার না বুঝতে পারা।
.

প্রসেসহীনতাঃ
আরজেন্ট এবং ইমিডিয়েট কাজের সংখ্যা অত্যধিক বেশি হয়ে গেলে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসেস (SOP) গড়ে উঠে না। ফলে সমগ্র সিস্টেমটাই তখন প্রসেসনির্ভর না হয়ে পারসননির্ভর হয়ে যায়। এতে করে এক বা একাধিক ব্যক্তি চাকরি ছেড়ে দিলে প্রতিষ্ঠান বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে; নতুন যে আসে তাকে শূন্য থেকে শুরু করতে হয়।

কিন্তু বিভিন্ন কাজের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা যদি তাদের কাজগুলোর প্রসেস ডকুমেন্টেশন এবং প্রজেক্ট আর্কাইভ করে রাখে, সেটা একটা লেগাসি রক্ষার মতো হয়। আরজেন্ট আর ইমিডিয়েট কাজের কালচার দাঁড়িয়ে যাওয়ায়, কর্মীরা নিজেদের ডেভেলপ করার আগ্রহ বা অবকাশও পায় না। 
.
.

অপরিকল্পিত_রিক্রুটমেন্টঃ
বিশ্বের বেস্ট সেলার যতগুলো বিজনেস ফ্যাবল আছে, প্রতিটিতেই সবচাইতে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে রাইট হায়ারিং এবং সিস্টেমেটিক ফায়ারিংয়ে। কারণ যত যা-ই করা হোক, যদি একজন ভুল ব্যক্তিকে বাছাই করা হয়, সেখান থেকে আর কখনোই কাঙ্ক্ষিত ফলাফল আসবে না। যে কারণে, বিজনেস ব্রেক থ্রু আনার প্রধান কথাই হলো, রাইট পারসন হায়ার করা।

কিন্তু বাংলাদেশের কোম্পানীগুলোতে হায়ারিংকে তেমন গুরুত্বপূর্ণ কিছু মনে করা হয় কিনা এ সংক্রান্ত প্রশ্ন থেকেই যায়। 
.

সিংহভাগ স্মল এবং মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজগুলোতে ধরে নেয়া হয় পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকা কাউকে নিয়োগ দিলেই সব কিছু ঠিকঠাক। কিন্তু আপনি যদি প্রথম থেকে ভুল মাইন্ডসেট নিয়ে ক্যারিয়ার চালান, দিন যত আগাবে ভুল আরো পরিপক্বতা পাবে। ফলে অভিজ্ঞ কর্মীর বিল্ড আপ প্রসেস কীরকম হয়েছে এটা নিয়ে নিবিড় পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন।
.

আমাদের দেশের প্রতিষ্ঠানগুলো সেটাকে বাহুল্য এবং বিলাসিতা মনে করে। ফলে প্রতিষ্ঠানগুলোতে যাবতীয় বিশৃঙ্খলা পরিলক্ষিত হয়, কিন্তু এর উৎসমূল যে অপরিকল্পিত রিক্রুটমেন্ট সেটা মাথায়ই আসে না। 
...........................................................................................................................................................
.

পরিশেষে,
> আরেকবার ভেবে দেখুন যে আপনার প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ প্রক্রিয়াও কি চিরায়ত বাংলাদেশী মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজ গুলোর মত?

> আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রতিটা কর্মী কি বিশদভাবে জানে যে সে কেন নিয়োগ পেয়েছে ? অথবা,

> প্রতিষ্ঠানের প্রতি কি তাদের কোন মেন্টাল এটাচমেন্ট তৈরি হয়েছে ?
.......................................................................................................................................................

আপনার যেকোন রকমের ব্যাবসায় সংক্রান্ত জিজ্ঞাসা গুলো আমাদের ইমেইল করুন।
আমাদের ইমেইলঃ himalay777@gmail.com

*বিজনেস* *বিজনেস_ডেভলপমেন্ট* *ব্যাবসায়* *রিক্রুটমেন্ট* *কর্মী_নিয়োগ* *নিয়োগ_প্রকৃয়া* *কোম্পানি* *এন্টারপ্রাইজ*

Muftikhar: একটি বেশব্লগ লিখেছে


- ম্যানেজিং বা গভর্নিং বডি যা প্রত্যেক কো
ম্পানীতেই থাকা উচিত যারা টপ ম্যানেজমেন্টের স্পোকসম্যান হিসেবে কাজ করে। কেতাবি ভাষায় একে বলা হয় মিডলেভেল ম্যানেজমেন্ট।

ইন্টারেস্টিং তথ্য হচ্ছে বাংলাদেশের বেশিরভাগ কোম্পানি গুলোতে মিডলেভেল ম্যানেজম্যান্ট থাকে না।

এখন,
অন্যান্য এরূপ যে কোনো কোম্পানীর মতো হয়ত আপনার কোম্পানিতেও মিডলেভেল ম্যানেজমেন্ট গড়ে উঠেনি।

আপনি এখন বলতে পারেন যে, আপনার কোম্পানিতে মিডলেভেল ম্যানেজমেন্ট রয়েছে। কিন্তু লক্ষ্য করুন, আমরা বলতে চাইছি (as a system) "মিডলেভেল ম্যানেজমেন্ট" গড়ে ওঠার কথা, (ফিজিক্যালি) এর অস্তিত্বের থাকা না থাকা বিষয় নয়।
.

ফিজিক্যালি থাকার পরেও এটি একটি 'সিস্ট্যাম' না হওয়ার পেছনে প্রধান কারণ হচ্ছে, আপনি মিড লেভেল ম্যানেজমেন্টে হয়ত লোক বসিয়েছেন ঠিকই, তবে একটু খেয়াল করে দেখেন তাদের আপনি রেসপনসিবিলিটি দিয়েছেন কিন্তু (প্রকৃত)অথরিটিশিপ দেননি।

যে রেসপনসিবিলিটর সাথে অথরিটি থাকে না, সেখান থেকে আশানুরূপ ফলাফল আসে না। অথরিটিশিপ বলতে বোঝানো হচ্ছে ডিসিশন টেকিং স্কোপ এবং এবিলিটি।

উদাহরনস্বরুপ, আপনার কোম্পানীর যে কজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য আছে তাদের সাথে কিছুক্ষণ কথা বললেই প্রকৃত চিত্রটি বের হয়ে যাবে।
.

উল্লেখ্য,
আমাদের দেশের কোম্পানি গুলোর গুরুত্বপুর্ন পদে থাকা ব্যাক্তিবর্গের (অর্থাৎ, তথাকথিত মিডলেভেল ম্যানেজমেন্টের) যদি বৈশিষ্ট তুলে ধরা হয়, তাহলে পুরো চিত্রটি হবে খুব হতাশাজনক। যেখানে 'পেশাগত রেশারেশি', 'অফিসে কোরাম/গ্রুপিং', '' ইত্যাদি স্থান পাবে প্রথমদিকে।

ফলে, নিচের লেভেলে প্রতিশ্রুতিশীল কোনো কর্মী থাকলেও তারা বিকশিত হতে না পেরে চাকরি বদলের সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে।

(চলবে...)

*গভর্নিং_বডি* *মিডলেভেল_ম্যানেজমেন্ট* *কোম্পানি* *ম্যানেজিং_বডি* *বিজনেস_গ্রোথ*

Sahiful Islam: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 কোম্পানির নামের শেষে "লিমিটেড" শব্দ কেন ব্যবহার করা হয় কেন ? বিস্তারিত

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*কোম্পানি* *লিমিটেড* *প্রাইভেটলিমিটেডকোম্পানি* *পাবলিকলিমিটেডকোম্পানি*

Risingbd.com: যে সব কোম্পানিতে কাজ করে আরাম রাইজিংবিডির পাঠকদের জন্য সেরা পাঁচ এরকম আরমপ্রিয় কোম্পানির তথ্য... বিস্তারিত পড়ুন- http://bit.ly/1UpMaBG

*রাইজিংবিডি* *অফিস* *আরাম* *কোম্পানি* *আড্ডা* *জানাঅজানা*

নাহিয়ান সেজান: ভাবতিছি এই নামে @Bodmas88 (খুশী২) একটা কোম্পানি কোথায় যেন দেখেছিলাম! (চিন্তাকরি) আপনি কি সেই কোম্পানির চেয়ারম্যান? (ভেঙ্গানো) (খিকখিক) (হাসি২)

*বদমাশ* *কোম্পানি* *চেয়ারম্যান*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★