ক্ষত

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 শিশুর কোথাও কেটে গেলে প্রাথমিক অবস্থায় কি করণীয়?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*কাটাছেঁড়া* *ক্ষত* *প্রাথমিকচিকৎিসা* *স্বাস্থ্যতথ্য* *হেলথটিপস*

প্যাঁচা : একটি বেশব্লগ লিখেছে

প্রথম কথা, নিজ দায়িত্ব নিজের হাতে তুলে নেবার ক্ষমতা আমাদের আছেই কিন্তু সময় বা ধৈর্য্যের অভাবে আমরা দায়িত্ব অন্যদের হাতে অর্পণ করি এবং আশা করি সে কাজটিকে সিরিয়াসলি নেবে।

যাই হোক, আসল কথায় চলে আসি। যেহেতু আমি ব্যাথা পাইছি এবং একটা সামান্য ক্ষত  নিয়া বেড়াছেড়া লাগছে তাই নিজেই নানা জিনিস ঘেটে দেখার চেষ্টা করেছি। তাই যে কোন কাটা স্থানের প্রাথমিক কিছু ঘটনা নিয়ে আমাদের মাঝের যেসকল ভুল ধারণা আসলে প্রোফেশনালদের কাজ বাড়ায় সেসব কিছু কথাই এখানে বলব এবং কিছুতেই আমার কথা বিশ্বাস করতে না করব,তার চেয়ে নিজে বরং একটু চেক করে দেখুন।


১) যে কোন ক্ষত  জীবাণূমক্ত করতে ডেটল   বা সেভলন    বা রাবিং-এলকোহল    ব্যবহার করার যে প্রবণতা তা থেকে মুক্ত হোন। এতে অনেক সময়ই ক্ষতের হেলদি টিস্যু নষ্ট হয়। 
মনে রাখবেন যে কোন ক্ষত  আমাদের শরীর  স্বয়ংক্রিয়ভাবেই সারিয়ে তোলে।আপনার বা প্রফেশনালের দায়িত্ব হচ্ছে যাতে থার্ড- পার্সন-সিংগুলার-নাম্বার    মিঃজীবাণু   এই ক্ষত  নামক ওপেনিং দিয়ে আপনার ব্লাড বা ইনটেরিওর-এ প্রবেশ করতে না পারে সেটাকে নিশ্চিত করা। আর সেজন্য আপনার শরীরও স্বয়ংক্রিয় ভাবেই কাজ করে। আপনি কেবল সাপোর্টিং রোল প্লে করবেন।হাহাহা...
তাই ক্ষত পরিষ্কার করতে ০.৯% সোডিয়াম ক্লোরাইড সলিউশান যুক্ত স্যালাইন   পানি ব্যবহার করুণ। যদি তা না থাকে, ওয়াসা র পানি ছাড়া অন্য পানি দিয়ে পরিষ্কার করলেও ভাল ফল হবে,তবে স্থির পানি যেমন পুকুরের পানি এড়িয়ে যান। সিদ্ধ পানি ঠান্ডা করা থাকলে ব্যবহার করতে পারেন।

২)আমার মত অধিকাংশ  সাধারণ মানুষ বিশ্বাস করেন ক্ষত শুকালেই বুঝি খুব খুশির কথা, যা মোটেও ঠিক না বরং উলটা। ক্ষত ময়েশ্চারাইজড রাখাটাই শ্রেয়, এতে তাড়াতাড়ি ক্ষত সেরে উঠবে। আর তাই অয়েন্টমেন্ট  ব্যবহার করা এবং ব্যান্ডেজ  করে রাখা শ্রেয়। তবে অতিরিক্ত ময়েশ্চারাইজড রাখাও নিরাপদ না। ক্ষতের কিনারায় যদি সাদা রিঙয়ের মত দেখা দেয় তাহলে বুঝতে হবে ক্ষতটি অতিরিক্ত ময়েশ্চারাইজড আর এর ফলে ক্ষতটি ইনফেকশানের ঝুকির মধ্যে পড়ে।

৩) ব্যান্ড-এইড   কেবলই ব্যান্ডেজের এইড বা সহায়ক হিসাবে কাজ করে। তবে যদি ব্যান্ড এইডের ভেতরের হলুদ অংশ দেখে আমার মত অবাক হন তাহলে জানুন তা কেবলই  ক্ষতের সাথে যেন ব্যান্ডেজ স্টিকি পেপারের মত আটকে না যায় সেজন্য দেয়া। তবে ক্ষতের ধরণ অনুযারী ব্যান্ডেজের উপকরণ ব্যবহার করার কথা, যদিও তা কেউ করে বলে মনে হয় না, যদি না মেজর কোন সার্জারী    হয়ে না থাকে।

৪) বাসায় বাচ্চা এবং মায়েরাই বেশি ক্ষতের সৃষ্টী করে। বাচ্চাদের চামড়া র উপর দিয়েই যায় বেশিরভাগ , মূলত সার্ফেস লেয়ার এ সীমিত ও মাথা ফাটা টাইপ এবং মেয়েদের কেবল চামড়ার ইন্ট্যাগ্রিটি নষ্ট হয়, যাকে পাংকচার্ড ক্ষত বলে, অর্থাৎ বটি বা ছুরিতে হাত কাটা বা পেরেকে পা ফুটলে। তবে আজকাল ফুড-স্লাইসার   ব্যবহার করতে গিয়ে অনেকেই আঙ্গুলের মাথার চামড়া  স্লাইস করে ফেলেন। তাই এসব ক্ষতের কথা মাথায় রেখে,একটি ভাল ফার্স্টএইড  কন্টেইনার বাসায় রাখুন এবং রাবিং এলকোহল। রাবিং-এলকোহল    দিয়ে যিনি ক্ষত পরিষ্কার করবেন বা যে হাতে ক্ষত পরিষ্কার করবেন এবং যে কাপড় বা তুলা দিয়ে ক্ষত পরিষ্কার করবেন তা জীবাণুমুক্ত  করতে সহায়তা করবে,ক্ষতটি না। আর মনে রাখবেন অপরিষ্কার কিছুই জীবাণু মুক্ত করা যায় না,এবার হোক ক্ষত বা ব্যান্ডেজ।

চামড়ার লেভেল সম্পর্কে জানুন। ওপেন উন্ড,  ফ্যাট লেভেলে চলে গেলে কেবল রক্তটা ধুয়ে, স্টেরিলাইজড ব্যান্ডেজ দিয়ে চেপে ধরে হাসপাতাল  এ দৌড়ান। তবে সাধারণ ছিলে যাওয়া, রোড র‍্যাশ এর প্রাথমিক-চিকিৎসা  দেবার জন্য প্রয়োজনীয় জ্ঞান সবারই যেন থাকে আর তাই কিছুটা পড়াশোনাই যথেষ্ট। তবে সবকিছুতে নাপা  খাবেন না।হাহাহা...মনে রাখুন, জ্বললেই ভাল ওষুধ বা কার্যকর ওষুধ তা কিন্তু না।

৫) যে কোন ক্ষতই ইনফেকটেড হতে পারে তাই ইনফেকটেড ক্ষতের চিহ্ন সম্পর্কে জানুন। বাচ্চাদের দ্রুত ক্ষত সারিয়ে তুলতে সহায়তা করুন, আবারো বলছি "সহায়তা করুণ" যেন তারা আবার ব্যাথা পাইতে পারে।হাহাহা...পরীক্ষা নীরিক্ষা নিজের উপর করূন...হাহাহা...

ক্ষত থেকে সাধারণ নিয়মেই একধরনের ফ্লুইড বা ডিসচার্জ বের হতে পারে। তাই ড্রেনেজ দেখে ভয় পাবেন না।তবে স্মেল একটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার তাই সেদিকে খেয়াল রাখুন।  ক্ষত থেকে বের হওয়া ফ্লুইডের রং দেখে প্রফেশনাল -রা ক্ষতের ডায়াগনোসিস   করেন,তাই প্রফেশনালদের থেকে জিজ্ঞেস করে নিতে পারেন আপনার ক্ষতটির বর্তমান কন্ডিশান কি এবং কেন? এতে রোগী নিজেও স্বস্তি পাবে।মনে রাখবেন, মানসিক শক্তি যে কোন ক্ষত বা রোগ সারাবার প্রথম ধাপ।

এসব ছাড়াও জানুন কিভাবে যে কোন সার্জারী যন্ত্রপাতি স্টেরিলাইজ  করা হয় যাতে আপনি বা আপনার পরিচিত কারো সার্জারি করার আগে ডাক্তার  এর পরীক্ষা নিতে পারেন,যদি তিনি প্রফেশনাল হোন তাহলে আপনার এই আচরণে তিনি খুশি হবেন এবং আপনাকে সকল ইনফরমেশান দেবেন বিনা দ্বিধায়, তবে যদি আমার মত ফাকিবাজ কেউ হন তাহলে ৭+৫=১৪ বলবেন...হাহাহাহাহা...

যদি আপনি নেচারাল বা ভেষজ ওষুধের প্রতি দূর্বল হোন, তাহলে  এলোভেরা, নারিকেল তেল, রসুন, হলুদের গুড়া সাধারণ ক্ষতের জন্যই ব্যবহার করা স্বাস্থ্যসম্মত।

ভাল থাকবেন...

বিশেষ-দ্রষ্টব্য  - ডাক্তার হয়ে নিজের রোগ ডায়াগনোসিস করতে যাওয়ার মত কাজ করবেন না যতটুকু সম্ভব,যদি আপনি নিজের প্রতি উদাসীন হোন। আর আমার এই লেখাটি কেবল প্রাথমিক সেবাদানের জন্যই লেখা,কাউকে ডাক্তার বা প্রফেশনাল করার উদ্দেশ্যে নয়।তাই যে কোন শারিরীক সমস্যায় প্রফেশনালের সরণাপন্ন হোন আর আমি ডাক্তার না,তাই নিজের প্রয়োজনে নিজেই ঘেটে দেখুন।

সোর্স মেটারিয়ালঃ
১) http://www.advancedtissue.com/exploring-various-types-wound-drainage/
২) http://www.advancedtissue.com/how-to-properly-remove-advanced-wound-care-products/

৩) https://www.drugs.com/cg/wound-infection.html

৪) https://www.youtube.com/watch?v=iRJu9A8o43o

*ক্ষত* *ডায়াগনোসিস* *স্টেরিলাইজ* *হাসপাতাল* *ব্যান্ড-এইড* *অয়েন্টমেন্ট* *ডেটল* *সেভলন* *রাবিং-এলকোহল* *জীবানুনাশক* *প্রাথমিক-চিকিৎসা* *ফার্স্টএইড*

বিম্ববতী: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কিছুতেই কোথাও মন বসাতে পারছি না,,,কিছুতেই নাহ,,,,অস্ত্রের মুখে যে ছিল সে আমার অতিথি,,বন্ধু,,,আমার স্বজন,,,আর অস্ত্র যে ধরে রেখেছিলো সে কিছুদিন আগেও আমার কষ্টে বুক ভাসিয়েছিল,,,আমার বন্ধু আমার ভাই আমার সন্তান,,,,কিসের ক্ষোভকে পুঞ্জীভূত করলে এতটা মানুষহীন হওয়া যায়,,,???,,কতটা মানসিক অস্থিরতা থাকলে নিজের ব্রেইনটা এভাবে ওয়াশ করতে দেয়া যায়????,,,,আমি বুঝিনা,,,জানিনা,,,রাস্তায় যখন নামছি মাথা আপনি আপনি হেট হয়ে যাচ্ছে,,,কার কাছে? কেন? জানিনা,,,নিজের ভিতর কিসের অস্তিত্ব যেন মৃদু কেঁপে কেঁপে উঠছে,,,বুকের গভীরে নীরবে কাকে লালন করছি আমি,,,হু??,,,,এই নষ্ট ব্যবস্থা আমাদের বুকের গভীরে কেমন ক্ষত  যুগের পর যুগ ধরে সৃষ্টি করলে আমরা এতো হিংস্র হয়ে উঠতে পারি,,,?,,,আমরা কি?,,,,অস্ত্র যারা ধরে রেখেছে সেকি আমরা নই???,,,,,হিংস্রতাকে অন্যায়ভাবে কাজে লাগাতে কেন দ্বিধা করছি না???,,,,,অস্ত্র চালিয়ে দিচ্ছি ভাই বোন বন্ধুর  বুকে কি নির্দ্বিধায়!!,,,,যে অস্ত্র একদিন গর্জে উঠতো অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায়সঙ্গতভাবে,,,,!!,,

"যে পিতা সন্তানের লাশ সনাক্ত করতে ভয় পায় 
আমি তাকে ঘৃণা করি- 
যে ভাই এখনও নির্লজ্জ স্বাভাবিক হয়ে আছে 
আমি তাকে ঘৃণা করি- 
যে শিক্ষক বুদ্ধিজীবী কবি ও কেরাণী 
প্রকাশ্য পথে এই হত্যার প্রতিশোধ চায় না 
আমি তাকে ঘৃণা করি-" 

কোন হত্যার প্রতিশোধ?,,,,আমাদের ভিতরের মানবিকতা হত্যার প্রতিশোধ নেবো না?,,,,,,,(বৃষ্টি),,,

"কিসের নেশায় কেমন করে মরছে যে বীর লাখে লাখে!",,,কে বীর আর কে বীর না?,,,,(বৃষ্টি),,,,,,

কে অন্যায় করছে আর কে অপ-ব্যবহৃত হচ্ছে???,,,,,,(বৃষ্টি),,,,

এমন দুর্দিনেও কেন আমরা একতাবদ্ধ হতে পারছি না,,? ,,,,,,,,,,,,,(বৃষ্টি),,,,,,,,

যে পুলিশ অভিযানে মারা গেছে সে ভালো না খারাপ সে তর্ক এখন কেন? এখন তো সে শহীদ হয়েছে! যখন অন্যায় করেছিল তখন তো দিব্যি পদে বহাল রেখে অপকর্ম করতে দেয়া হয়েছিল! এইসব তর্ক কিসের ইঙ্গিত করে? হত্যার জাস্টিফিকেশন?,,,,(বৃষ্টি),,,,

কে সূরা পড়তে পেরে বের হয়ে এলো এইসব সংবাদের পিছনের সত্য কি?,,মানুষের মানসিকতায় কি বীজ বপন করতে চাইছে এরা নীরবে? কে এই আসল সন্ত্রাস?,,,যখন সরকারি উচ্চ পদে থেকে নির্দ্বিধায় বলে ফেলেন- ধর্ম নিয়ে কিছু বলে যদি কেউ হত্যা হয় সে দায়ভার আমরা নেবো নাহ!!!,,,কি ব্যবস্থাকে নীরবে অঙ্কুরোদ্গম করছে তারা??,,,,,,,(বৃষ্টি),,,

"আটজন মৃতদেহ 
চেতনার পথ জুড়ে শুয়ে আছে 
আমি অপ্রকৃতিস্থ হয়ে যাচ্ছি 
আট জোড়া খোলা চোখ আমাকে ঘুমের মধ্যে দেখে 
আমি চীৎকার করে উঠি 
আমাকে তারা ডাকছে অবেলায় উদ্যানে সকল সময় 
আমি উন্মাদ হয়ে যাব 
আত্মহ্ত্যা করব 
যা ইচ্ছা চায় তাই করব।"

নবারুণের মতো চিৎকার করে বলতে ইচ্ছে করছে-

"এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ না 
এই জল্লাদের উল্লাসমঞ্চ আমার দেশ না 
এই বিস্তীর্ণ শ্মশান আমার দেশ না 
এই রক্তস্নাত কসাইখানা আমার দেশ না"

এই নষ্ট দুর্গন্ধ পঁচে যাওয়া দগদগে ক্ষত আমার শরীর না-
আমার পৃথিবী না,,,,,,,,,(বৃষ্টি),,,,মানি না,,,,,,(বৃষ্টি),,,,,,,,,,

"আমি আমার দেশকে ফিরে কেড়ে নেব 
বুকের মধ্যে টেনে নেব কুয়াশায় ভেজা কাশ বিকেল ও ভাসান 
সমস্ত শরীর ঘিরে জোনাকি না পাহাড়ে পাহাড়ে জুম 
অগণিত হৃদয় শস্য, রূপকথা ফুল নারী নদী 
প্রতিটি শহীদের নামে এক একটি তারকার নাম দেব ইচ্ছে মতো 
ডেকে নেব টলমলে হাওয়া রৌদ্রের ছায়ায় মাছের চোখের মত দীঘি 
ভালোবাসা-যার থেকে আলোকবর্ষ দুরে জন্মাবধি অচ্ছুৎ হয়ে আছি- 
তাকেও ডেকে নেব কাছে বিপ্লবের উৎসবের দিন।"

,,,,পারছি না,,,,,পারছি না,,,,বুকের মধ্যে কুয়াশায় ভেজা কিছুই টেনে নিতে পারছি না,,,,পা দুটো বড্ড টলে যাচ্ছে বারবার,,,,প্রতিবার,,,,,,মৌলিক প্রশ্নরা এসে পথ রুদ্ধ করে,,,,কোথায় দাঁড়াবো আমি???,,,আমরা??????,,,,(বৃষ্টি),,,,,,(বৃষ্টি),,,,,,,,,,,,,,,,,,,,(বৃষ্টি),,,,,,

*আমি* *আমরা* *মানুষ* *সমাজ* *রাষ্ট্র* *সমাজ-ব্যবস্থা* *তরুণ* *তারুণ্য* *হত্যা* *জঙ্গি* *বন্ধু* *ক্ষত* *হিংস্রতা* *অন্যায়*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★