গরমের অসুখ

গরমেরঅসুখ নিয়ে কি ভাবছো?

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

গরম এলেই ডায়রিয়ার প্রকোপ বাড়ে। হাসপাতালগুলোতে ডায়রিয়া-আক্রান্ত নানা বয়সের রোগীর ভিড়। আর দুই বছরের নিচে শিশুদের ডায়রিয়ার প্রধান কারণ হলো, রোটা ভাইরাসজনিত সংক্রমণ। চারদিকে ভয়াবহ গরমে যখন গলা শুকিয়ে কাঠ হয়ে যায়, ঠিক এই সময় চোখের সামনে যে ঠান্ডা পানীয় পাক না কেন, তা দিয়ে গলা ভেজানোতেই মন পাগল হয়ে যায়। তখন অতকিছু বোঝার সময় থাকে না, মাথায় থাকে না তা বিশুদ্ধ বা দূষিত কি না? আর ঠিক এভাবেইএই খাদ্য ও পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে অনেকে। তবে একটু সচেতন হলে এটি এড়ানো যায়। এই যেমন হাত পরিষ্কার করে খাবার খেলে। বাসি, পচা খাবার না খেলে।

ডায়রিয়া কি
সাধারণত পরিপাকতন্ত্রে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া বা পরজীবী সংক্রমণের কারণেই ডায়রিয়া হয়ে থাকে। আমাদের দেশে এ সময় ব্যাপক হারে ডায়রিয়ার প্রধান কারণ রোটা ভাইরাস, কখনো কখনো নোরো ভাইরাস। তবে পাতলা পায়খানার সঙ্গে রক্ত গেলে বা প্রবল জ্বর দেখা দিলে তা ভাইরাস নয়, বরং ব্যাকটেরিয়া বা পরজীবী সংক্রমণের কারণে হয়েছে বলে ধরে নিতে হবে।

কেন এটি হয়
অস্বাস্থ্যকর ও অপরিচ্ছন্ন জীবনযাপন, যেখানে-সেখানে ও পানির উৎসের কাছে মলত্যাগ, সঠিক উপায়ে হাত না ধোয়া, অপরিচ্ছন্ন উপায়ে খাদ্য সংরক্ষণ এবং ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের কারণে এ সময় দোকান, রেস্তোরাঁ বা বাসায় ফ্রিজের খাবারে পচন ধরা ইত্যাদি ডায়রিয়ার অন্যতম কারণ।

ডায়রিয়া হলে কি করবেন

ডায়রিয়া হলে শরীর দ্রুত পানিশূন্য হয়ে যায় এবং রক্তে লবণের তারতম্য দেখা দেয়। এ দুটোকে রোধ করাই ডায়রিয়ার মূল চিকিৎসা।

প্রাথমিক পরিচর্যা
 প্রতিবার পাতলা পায়খানার পর বয়স অনুযায়ী পরিমাণমতো খাবার স্যালাইন পান করাতে হবে।
 জন্ম থেকে দুই বছর: ১০-২০ চা চামচ (৫০-১০০ মি.লি.)
 দুই বছর থেকে ১০ বছর: ২০-৪০ চা চামচ (১০০-২০০ মি.লি.)
 ১০ বছর বা তার বেশি বয়সে: যতটুকু খেতে পারে।
 খাবার স্যালাইন ছাড়াও ঘরে তৈরি তরল খাবার যেমন ডাবের পানি, ভাতের মাড়, চিড়ার পানি, তাজা ফলের রস ইত্যাদি দেওয়া যেতে পারে।
 স্বাভাবিক খাবারও পাশাপাশি চালিয়ে যেতে হবে।
 বুকের দুধ খাওয়া শিশুরা খাবার স্যালাইনের পাশাপাশি বুকের দুধও খাবে।
এ ছাড়া পাতলা পায়খানার সঙ্গে রক্ত, জ্বর, প্রচণ্ড পেটব্যথা বা কামড়ানো, পিচ্ছিল মল, মলত্যাগে ব্যথা ইত্যাদি থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী অ্যান্টিবায়োটিক সেবন করতে হবে। যথেষ্ট প্রস্রাব হচ্ছে কি না লক্ষ করতে হবে। প্রস্রাবের পরিমাণ কমে যাওয়া, চোখ গর্তে ঢুকে যাওয়া বা জিভ ও ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়া পানিশূন্যতার লক্ষণ। এসব লক্ষণ দেখা দিলে বা বমির কারণে পর্যাপ্ত স্যালাইন না খেতে পারলে হাসপাতালে যোগাযোগ করতে হবে।

ডায়রিয়া প্রতিরোধে করণীয়
 রাস্তাঘাটের শরবত, পানি, খাবার ইত্যাদি পান পরিহার করতে হবে।
 পচা-বাসি খাবার খাওয়া যাবে না।
 হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করে খাবার খেতে হবে।
 ছয় মাসের কম বয়সী শিশুকে শুধু মায়ের দুধ ও স্যালাইন খাওয়াতে হবে।
 যদি সম্ভব হয় তবে শিশুকে অসুস্থ লোক বা রোগী থেকে দূরে রাখতে হবে।
 খাবার তৈরির আগে, শিশুকে খাওয়ানোর আগে এবং পায়খানার পর সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার অভ্যাস করতে হবে।
 সব সময় সেদ্ধ ঠান্ডা পানি ব্যবহার করতে হবে।
 বোতলের দুধ পান করানো থেকে বিরত থাকতে হবে।
 ছোট বাচ্চাদের খাওয়ানোর সময় চামচ ব্যবহার করতে হবে।
 পাকা পায়খানা ব্যবহার করতে হবে।

*ডায়রিয়া* *গরমেরঅসুখ* *স্বাস্থ্যতথ্য* *হেলথটিপস*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 গরমে সুস্থ্যতা রক্ষায় কি ধরনের খাবার এড়িয়ে চলা উচিত?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

*গরম* *গরমেরসুস্থ্যতা* *গরমেরঅসুখ*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 গরমে শিশুদের ঘামাচি থেকে বাঁচাতে কি কি করণীয় আছে?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*ঘামাচি* *গরমেরঅসুখ* *চর্মরোগ*

Mahi Rudro: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 এই গরমে কী খেলে শরীর ভালো থাকবে?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*খাবার* *গরমেসুস্থতা* *গরমেরঅসুখ*

Mahi Rudro: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 গরমে শরীর ভালো রাখতে কোন ধরনের খাবার খাওয়া উচিৎ?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

*গরমেরখাবার* *গরমেরঅসুখ* *হেলথটিপস*

আড়াল থেকেই বলছি: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

গরমেরঅসুখ.. থেকে বাঁচতে চাইলে ..
এখন থেকেই বেশি বেশি পানি পান করার অভ্যাস করুন,বাহিরে বের হওয়ার সময় একটা হাত ছাতা নিয়ে বের হবেন,খোলা খাবার থেকে নিজেকে সামলিয়ে নেওয়া চেষ্টা করুন,সময় পেলেই চোখে মুখে ঠান্ডা পানি দিন
*গরমেরঅসুখ*

টিএম একরাম: *গরমেরঅসুখ* এটা খুবই মারাত্মক। বাইদাবে... এর জলন্ত প্রমান আমি নিজেই?

দীপ মজুমদার: *গরমেরঅসুখ* পেইনফুল।কয়দিন জ্বর এ আমি শেষ হয়ে গেছিলাম

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 অনেকের ক্ষেত্রেই গরম মানেই হিট র‍্যাশ l এই সমস্যার থেকে মুক্তি পাওয়ার কি কোনো ঘরোয়া উপায় কারো জানা আছে?

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

.
*গরমেরঅসুখ* *চর্মরোগ* *র‍্যাশ* *স্বাস্থ্যতথ্য* *হেলথটিপস* *ফিডব্যাক*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★