ছিনতাই

ছিনতাই নিয়ে কি ভাবছো?
জোকস

হাফিজ উল্লাহ: একটি জোকস পোস্ট করেছে

[বাঘমামা-সর্বনাশ] ঢাকা শহরের রাস্তার কি অবস্থা দেখেছেন! যেখানে দাড়াবেন সেখানেই শতশত, হাজার হাজার মানুষ। খালি মানুষ আর মানুষ। - আমি চাই মানুষ আরো বাড়ুক। দিনে রাতে সবসময় ভিড় লেগে থাকুক। সেকি! কেন? - এই জন্যে যে, ভিড়ের মধ্যে ছিনতাইকারী ছিনতাইয়ের সুযোগই পাবে না!
*ছিনতাই* *কমেডিয়ানহাফিজ*
ছবি

মিজানুর রহমান (মামুন): ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

ছিনতাইকারীরা লুটপাট পর salfi তুলছে.

*ছিনতাই*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

মন খারাপ করে আছ তুমি? আমারও খুব কষ্ট হচ্ছে জানো তো ! কি জানি এক চাপা কষ্টে বুকটা আমার প্রতিনিয়ত চেপে আসছে সেই তখন থেকে থেকে, কিছুতেই দমছে না আমার ভেতরকার কষ্টটা, নিঃশ্বাস এতটাই অবরুদ্ধ হয়ে আসছে মনে হচ্ছে এই বুঝি আমার শেষ অক্সিজেন গ্রহণ l জানি একই কষ্ট তোমারও হচ্ছে, কিন্তু তখন তুমি আমাকে শান্ত করেছ, এখনো তুমি আমাকে তোমার কষ্ট বুঝতে দিবে না l আমরা আমাদের সাথে ৯ বছর ধরে আছি, কিন্তু আমাদের ভালোবাসার একছিটেফোটাও এদিক ওদিক যেতে দেয় নি আমরা l প্রথমে দুরে থেকে প্রেম, তারপর কাছে থেকে প্রেম, প্রেম থেকে বিয়ে lসারাজীবনের সঙ্গী আমরা, সুখে দুখের সাথী আমরা l  তোমার সাথে বাড়তি একটা মিনিট বেশি থাকার নেশা আমার সেই পুরনো, কখনো বুঝি নি এটা আমাদের বিপদের একটা কারণ হতে পারে l  সকালে ঘটনাটা ঘটার পর থেকেই জানো তো, মনে হচ্ছে এটা যদি না করতাম, আর একটু আগে যদি বেড়াতাম বা আর একটু পরে বা তুমি তোমার মত আর আর আমি আমার মত! আমার অফিস কারওয়ানবাজার আর তোমার গুলশান ২ তবুও এই হরতালের দিনগুলোতে আমার বায়না থাকে তুমি আর আমি রিকশাতে গল্প করতে করতে ফার্মগেট পর্যন্ত আসব, তারপর আমি কারওয়ানবাজার আর তুমি বাস ধরবে গুলশানের l তুমি আমাকে খুশি করতে মেনে নিয়েছ l কখনো না বলো নি, আমি জানি বুঝি এতে হয়ত তোমার বাস পেতে অসুবিধা হতে পারে, কিন্তু ওই আর একটু বেশি সময় তোমার সাথে থাকার প্রয়াস l এই প্রথমবার মনে হচ্ছে, তুমি আমাকে না বলো নি কেন? তাহলে আজ এমন ঘটনা ঘটত না l গল্পের অন্তরালে হুট করে ঝড়ের বেগে চার দিন আগে শখ করে কেনা তোমার অফিস ব্যাগটার এমনভাবে ছিনিয়ে নিয়ে যেতে পারত না l আমাকে চিত্কার করে আর্তনাত করতে হতো না l তোমার ব্যাগটা নিয়ে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাওয়া মোটরসাইকেলটির সেই ভদ্র পোশাক পরিহিত ছেলে দুটোর পেছন ফিরে অট্টহাসি দেখতে হতো না l কত স্মৃতি বলো আমাদের এই ব্যাগটা কেনা নিয়ে! অফিস থেকে দুজনে মার্কেট গিয়েছিলাম তোমার ব্যাগ কিনতে, বুঝি নি এত সময় লাগবে আর মাথাতেও ছিল না আমাদের যে দেশের অবস্থ্যা খারাপ তাই বাসায় একটু জানিয়ে দেই যে আমাদের আসতে দেরী হবে l পুরো মার্কেট ঘুরেছি আমরা যাতে তুমি তোমার পছন্দসই ব্যাগ কিনতে পারো l ব্যাগ কেনার পর তোমার চোখে যে খুশি দেখেছিলাম সেটা আমার পরম সুখ l মনে পরে তুমি বুঝতে পারো নি তোমার ফোন সুইচড অফ হয়ে গেছিল আর আমার ফোন সাইলেন্ট ছিল বলে আমরা কারো ফোন ধরতে পারি নি আর সবার কত চিন্তা l ছায়ানীড় থেকে শর্মা খাওয়া, নান গ্রিল চিকেন খাওয়া তারপর বাসায় ফিরে বাবা, দুই মায়ের, ছোট ভাইয়ের বকা শোনা, কি দুশ্চিন্তায় পড়েছিল ওরা l কিন্তু স্বস্তি একটাই ছিল তোমার খুবই পছন্দ হয়েছিল ব্যাগটা l তুমি সারাজীবন আমার শখ আহ্লাদ পূরণ করার চেষ্টা করেছ কিন্তু নিজে কখনো নিজের জন্য বাড়তি কিছু করো নি, তোমার মত ভালো মানুষ আমি খুব কম দেখেছি, তুমি সবার জন্য ভাবো, তুমি সবাইকে খুশি করার চেষ্টা করো এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেটা নিজের সাথে কম্প্রমাইজ করে l এই প্রথমবার মনে হয় তুমি নিজের জন্য একটা কিছু করতে রাজি হয়েছিলে ব্যাগটা কিনে l কেনার পর প্রথম দুদিন আমার জন্য তোমার ব্যবহার করা হলো না ব্যাগটা, আমি তোমাকে সোমবার বের করে দিলাম, তোমাকে ব্যাগটা পিকে স্টাইলে পরিয়ে মজা করলাম, দুজনে মিলে প্রাণ খুলে হাসলাম, তুমি তোমার ব্যাগে জিনিসপত্র কত সুন্দর গুছিয়ে নিলে তিন দিন, ফিরে আমি ব্যাগটা কত যত্নে উঠিয়ে রাখতাম, তুমি একটু হেলাফেলা করলে তোমাকে বকতাম, আজ সকালেও তো ব্যাগ চেপে জিনিস ঢুকাচ্ছ বলে তোমাকে বকা দিলাম, ব্যাগে ধুলা লেগেছে বলে তোমাকে বললাম ব্যাগটা রাতে এসে পরিস্কার করে নিতে হবে l ব্যাগেই লাঞ্চ বাক্স ঢুকলে বলে আমি রাগ করলাম l কাল রাতে তুমি বললে ভাপা ইলিশ রাধতে, মা আজ সেই ইলিশ লাঞ্চে দিয়েছিল আমাদের, মাছের বড় পেটি তোমার জন্য ছিল, নিশ্চয়ই ছিনতাইকারি এতক্ষণে তোমার জন্য তোলা সেই মাছটি গোগ্রাসে খেয়েছে, খেয়েছে মার বানাও রুটি, ডিম ভাজি l আমার লাঞ্চ ব্যাগটা তোমাকে দিতে চাইলাম, তুমি নিলে না l কি করে খাই আমি বলো তো? আমি এখন কারওয়ান বাজারে, অফিসে, আজ আমার রাজ্যের কাজ, সপ্তাহ শেষ, অনেক ডেডলাইন, কথা বলতে হচ্ছে আমাকে, প্রয়োজনে মুখ বাকিয়ে হাসতে হচ্ছে, অভিনয় করছি আমি l কি বোর্ড চাপিয়ে কাজ করছি আমি, আমাকে আজ কি-বোর্ড চাপাতে হবে আরো অনেক বেশি, আজ একটু চুপচাপ বসে থাকার সময় নেই আমার l গুলশান ২ এ তুমি আর আমি কারওয়ানবাজারে l জানি তুমি আমাকে চাইছ আর আমি তোমাকে কিন্তু জানো তো সময় আজ ধীরগতিতে আগাবে, তুমি আমি আজ আমাদের ঘরের জিনিস কিনতে মার্কেট যেতে চেয়েছিলাম, জানি আজ যাব না আমরা l  তুমি বলবে আমাকে যেতে, কিন্তু আমি যাব না সোনা l আমি আর এক মুহূর্ত বেশি করে পেতে চাই না, তুমি তো আমারই l অপেক্ষায় আছি ৫ টা বাজবার, আমি ফিরব, তুমি ফিরবে হয়ত দেখা হতে হতে ৭ টা l ভাপা ইলিশটা আর এক টুকরো আছে, রাতে আমরা দুজনে সেটা ভাগ করে খাবো l তোমার প্রয়োজনীয় যেসব কাগজ দরকার, যেগুলো হারিয়ে গেল সেগুলো হয়ত আমি তোমাকে ফিরিয়ে দিতে পারব না, সেগুলো তুমি আবার করে নিও কষ্ট করে, আমরা আবার ব্যাগ কিনব সোনা, তোমার যা যা হারালো সব কিনব l তুমি কষ্ট পেও না, জানি তুমিও আমার মত অফিসে জোর করে ভালো থাকার চেষ্টা করছ, অভিনয় করছ l প্লিজ কষ্টটাকে এগোতে দিও না l আমাদের ভাগ্য অনেক ভালো, তাই খালি ব্যাগের উপর দিয়েই বিপদ কেটে গেছে, আমরা ভালো আছি l একবার মনে করো তো যদি আমার কিছু হতো বা তোমার l আমরা ভালো আছি, অক্ষত আছি l সব ঠিক হয়ে যাবে l আমাদের বড় শক্তি কি বলো তো, তুমিই তো বলো আমাদের ভালোবাসা, কেউ সেটা কোনদিন ছিনতাই করতে পারবে না l এই সম্পদ যার আছে, তার শখের জিনিস চুরি করে কার কি লাভ হলো আমি জানি না, তবে আমাদের কোনো ক্ষতি হয় নি l আমি তোমাকে খুব বেশি ভালবাসি, তুমি আর কষ্ট পেও না l এই দেখো, আমি তোমার পাশে l 
*জীবনেরগল্প* *আবেগ* *অনুভূতি* *ভালোবাসা* *সম্র্পক* *ছিনতাই* *কষ্ট* *সম্পর্ক*
জোকস

হাফিজ উল্লাহ: একটি জোকস পোস্ট করেছে

জিসান @mxesun ভাই গার্লফ্রেন্ড নিয়া ডেটিং এ গেছিলো। ডেটিং থেকে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর খপ্পরে পড়লো। বিস্তর ধস্তাধস্তির পর ছিনতাইকারীরা জিসুর মানিব্যাগটা কেড়ে নিল। ছিনতাইকারীঃ এই ব্যাটা, তোর মানিব্যাগেতো মাত্র দুই টাকা! এই দুই টাকার জন্য এতক্ষণ ঝামেলা করলি? ব্যাটা কঞ্জুস! জিসু: না না! আমি আসলে ভয়ে ভয়ে ছিলাম, না জানি তোমরা আমার জুতার ভেতর লুকানো দুই হাজার টাকাও কেড়ে নাও! (অবাক) (মামাকিদেখলাম)(মাইরালা)
*রসিকতা* *ছিনতাই* *কঞ্জুস*

রানা মাসুদ: *ছিনতাই* হচ্ছে অহরহ। কিন্তু এর প্রতিকার নেই। ফুটবলে যেমন ফাউল করলে রেডকার্ড থেতে হয়। তেমনি ছিনতাই করলে দৃষ্টান্ত মূলক শ্বাস্তি হওয়া উচিৎ।(রাগী) রাতের চেয়ে ঢাকাতে দিনেই বেশী ছিনতাই হচ্ছে। প্রশাসনের টনক নড়া উচিৎ(এদিকেআসো)র তা না হলে জনগণ সাফার করবে।(চিন্তাকরি)

পথিক: এখন যেমন বাস , সি এন জি আগে ঢাকা শহরে আগে *বেবিট্যাক্সি* আর রিক্সাই ছিল আমাদের মত সাধারণ মানুষের যাত্রার উপকরণ | এখনও ঢাকা শহর থেকে বাইরে গেলে দেখতে পাওয়া যায় | *বেবিট্যাক্সি* থাকতে কয়েকবার *ছিনতাই* এর সম্মুখীন হয়েছিলাম ...(রাগী)(মন্দ)(ভেঙ্গানো২)

শেষ হলো না!: রাস্তায় অপরিচিত কেউ ডাকলে গাড়ি বা রিকশা থামাবেন না.বিশেষ করে সামনে আগত হরতাল মৌশুমটাতে.কিছুদিন আগে এরকম হরতাল এর দিনে আমি ছিনতাই এর শিকার হয়েছি.জীবন এ প্রথম অভিজ্ঞতা.টাকা আর মোবাইল গেছে খারাপ লাগেনি,কিন্তু বেশি খারপ লেগেছে আমার এতদিনকার রেকর্ডটা শেষ!

*ছিনতাই*

fyezzbd: ছিন্তাই হোয়েছি গত কাল আনুমানিক রাত ১২:৩০ মিনি্টে একটি galaxy y duos মোবাইল ফোন ও ২২২৫ টাকা সহ আমাকে ছিন্তাই করা হয়ছে

হাফিজ উল্লাহ: *বয়স* যত বাড়ছে *দুশ্চিন্তা* ও ততো বাড়ছে *ছিনতাই* এর ভয়ে l বিয়ের আগ পর্যন্ত মনডা নিজের কাছে রাখতে পারব তো? নাকি কোনো ললনার ছিনতাই এর কবলে পরে *জীবন* টা উলট পালট হয়ে যাবে (চিন্তাকরি)(ব্যাপকটেনশনেআসি)

সুফী ম্যাভেরিক: *ছিনতাই* এর কবলে পড়েও কিছুই হারাইনি একবার; পকেট এ জিপার ছিল, আর কোথা থেকে RAB এর গাড়ি চলে এসেছিল. ২০০৮ এ উত্তরা সেক্টর ১৪ তে. তবে বাঁশ এর বাড়ি পিঠে পড়েছিল যেটা অনেকদিন ভুগিয়েছে.

তির্থক আহসান রুবেল: *ছিনতাই* কারী তার জীবনের সবচেয়ে বড় ভুলটি করে বসে। সে আমার সাথে গপ্প শুরু করে। ফলাফল, ৩০ মিনিট পর আমার মোবাইল, মানিব্যাগ সব আমার পকেটে ফেরত দিয়ে.... বলে: 'যা, আজকের জন্য ছেড়ে দিলাম.....' একদমে চোখমুখ খিচে মহাখালি থেকে হেটে কখন যেন বনানী পৌছে গেলাম....

হাফিজ উল্লাহ: রাস্তায় হাঁটলে বাসে-ট্রাকে চাপাদিবে, সীমান্তে থাকলে বি.এস.এফ মারবে, হলে-ক্যাম্পাসে থাকলে ছাত্রলীগ মারবে, ঘুরতে বের হলে ছিনতাই কারী ধরবে, ..... বাঁচবো কিভাবে......কেউ আমারে (মাইরালা)(মাইরালা)(মাইরালা)

মোঃ শাওন কবীর সিকদার: *ছিনতাই* এখন পর্যন্ত কোনো ছিনতাইকারীর কবলে পড়িনি।। পড়ার ইচ্ছাও নাই, সবাই দোয়া করবেন(খুকখুকহাসি)

মারগুব: *ছিনতাই* থেকে বাঁচার প্রথম নিয়ম - সাবধানতা - যেখানেই যাবেন, নিজের চারিদিকের পরিবেশ ও অবস্থা নিয়ে সচেতন থাকবেন | দ্বিতীয় নিয়ম - আত্মবিশ্বাস! মাথা উচু করে, দৃঢ় পদক্ষেপে হাটবেন, যারা শার্টের নিচে বন্দুক থাকার ভয় দেখাতে চায় তারা সহজে আসবে না |

মারগুব: আল্লাহর অশেষ রহমতে জীবনেও *ছিনতাই* হয় নাই | একবার বেবিট্যাক্সির বাহির থেকে একজন আমার Casio ঘড়িটি ক্লিক করে খুলে দৌড় দিয়েছিল কিন্তু সেটিকে আমি ছিনতাই না বলে চুরি করা বলব | কিছু সাবধানতা অবলম্বন করলে ৯০% ক্ষেত্রে ছিনতাই এড়ানো যায় বলে আমি মনে করি

জান্নাতুল ফেরদৌস মিতুল: *ছিনতাই* একবার না বহুবার. মনে আসলেই ভয় করে.(ফুঁপিয়েকান্না)(ফুঁপিয়েকান্না)

জয়তী নাথ: না রে ভাই *ছিনতাই* এর অভিজ্ঞতা আমার এখনও হয় নাই (কান্না)(কান্না)

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★