জাপান

জাপান নিয়ে কি ভাবছো?

NatunSomoy : [বেশবচন-ওরেবাবা]জাপানে ছুরি চালিয়ে ১৯ জনকে হত্যা প্রায় ২৫ মাইল দক্ষিণপশ্চিমে কানাগাওয়া প্রদেশের সাগামিহারা এলাকায় ওই হামলায় আরো ৪৫ জন আহত হয়েছেন বলে দেশটির জাতীয় টেলিভিশন এনএইচকের খবরে বলা হয়.... বিস্তারিত পড়ুন - http://bit.ly/2a29YLx

*আড্ডা* *জাপান* *হত্যা* *বেশম্ভব* *সারাবিশ্বে*
ছবি

আন্তর্জাতিক খবর: ফটো পোস্ট করেছে

উত্তর কোরিয়ার বোমা পরীক্ষার তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে জাপান

উত্তর কোরিয়ার হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষার ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। এই বোমা পরীক্ষাকে জাপানের নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে আখ্যায়িত করেন। বুধবার বাংলাদেশ সময় সাড়ে নয়টার দিকে টেলিভিশনে দেয়া এক ঘোষণায় উত্তর কোরিয়া জানায়, তারা সফলভাবে হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষা পরিচালনা করেছে। এই ঘোষণার পরেই জাপানের প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, জাপান কোনোভাবেই উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক পরীক্ষার এই কর্মকাণ্ড সহ্য করবে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া, রাশিয়া ও জাতিসংঘ সহ সবাইকে সঙ্গে নিয়ে এই ধরণের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলেন তিনি।-ইত্তেফাক

*আর্ন্তজাতিক* *বোমা* *জাপান* *উত্তরকোরিয়া* *চটখবর*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

গতকাল শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা সেতুর মূল কাজের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শত বাধাবিঘ্ন অতিক্রম করে বাংলাদেশিরা আজ প্রমাণ করেছে যে বাংলাদেশিরাও পারে।

হুম..... আসলেই বাংলাদেশিরা পারে। ভালোটাও পারে আবার খারাপটাও পারে।

তো পদ্মাসেতুর মাধ্যমে আওয়ামী সরকার(বাংলাদেশিরা নয়) কি পেরেছে সেটা সেই বহু আগেই দেখিয়েছেন সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী আবুল হোসেন সাহেব। আরো অনেকেই দেখিয়েছেন। গতকাল আবার দেখালো তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক সাহেব।

সেতুর কাজ উদ্বোধনের পর খুব উৎসাহের সাথেই জননেত্রীর দু লাইন উক্তিসহ সেতুর নকশা পোষ্ট করেছেন তার ব্যাক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে।


অবাক করা ব্যপার হলো, তিনি পদ্মাসেতুর যেই নকশাটি পোষ্ট করেছেন, সেটি হুবহু জাপানের টোকিও বে একুয়া লাইন সেতুর ফটোকপি!! অর্থাৎ পদ্মাসেতুর নকশা জাপানের উক্ত সেতুর নকশা থেকে হুবহু চুরি করা।

উইকিপিডিয়া থেকে প্রাপ্ত জাপানের বে একুয়া লাইন সেতুর ছবি হচ্ছে এটি-


উইকিপিডিয়া থেকে প্রাপ্ত জাপানি এই সেতুর নকশার সাথে প্রতিমন্ত্রী পলকের পোষ্ট করা পদ্মাসেতুর নকশার বিন্দুমাত্র পার্থক্য নেই। হুবহু ফটোকপি। এখানে ভিডিওতেও দেখুন

যে কোনো সেতু বা অন্য যে কোনো প্রকল্পের নকশা তৈরির জন্যই বিশাল একটি এমাউন্ট বরাদ্ধ থাকে। পদ্মাসেতুর মত এত বিগ বাজেটের বিশাল একটি প্রকল্পের নকশার জন্যও অবশ্যই বিশাল একটি এমাউন্ট বরাদ্ধ ছিলো। এখন প্রশ্ন হলো পদ্মাসেতুর নকশার জন্য বরাদ্ধ সেই টাকা গেলো কোথায়? নিশ্চই এমপি মন্ত্রী কিংবা সরকার দলীয়রা লুটেপুটে ভাগ বাটোয়ারা করে খেয়েছে!!

জনাব পলক সাহেবের পোষ্টে উদ্ধৃত করা জননেত্রীর দুই লাইক উক্তি ছিলো- “আমি জাতির পিতার সন্তান। সব হারিয়ে আমি জনগণের কাজ করছি। আমি দুর্নীতি করি নাই। আমার পরিবারের সদস্যরা দুর্নীতি করে না।” - মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রতিমন্ত্রীর এই তেল মারা উক্তির জবাবে আমি নতুন করে কিছু বলতে চাইনা। শুধু ওনার পোষ্টের দুটি কমেন্টের স্ক্রীনসটই তুলে ধরতে চাই-


ফেসবুক খুলে দেয়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রী পুত্র জয়কে নিয়েও তেলমারা পোষ্ট দিয়েছিলেন তিনি। ভেবেছিলাম ঐ পোষ্টে আমজনতার মন্তব্যগুলো পড়ার পর তিনি হয়তো আর লজ্জায় ফেসবুকেই আসবেন না। কিন্তু আমাকে ভুল প্রমান করে তিনি তো আসলেনই এমনকি তেল মারাও অব্যাহত রাখলেন।

তেল মারাটাই তো একপ্রকার দূর্নীতি। দূর্নীতির সাগরে নিমজ্জিত মানুষরাই কেবল তার উর্ধ্বতনকে একের পর এক তেল মেরে নিজের নম নম ভাব প্রকাশ করে থাকে। আওয়ামী লীগের মন্ত্রী এমপিদের অবস্থা তার চাইতে একটুও ব্যতিক্রম নয়।

আমজনতার কমেন্টগুলো থেকে যদি এরা শিক্ষা নিতো....। কতোই না ভালো হতো..।

*পদ্মাসেতু* *প্রকল্প* *চুরি* *জাপান* *সরকার* *আওয়ামিলীগ*
*প্রকল্প* *চুরি* *জাপান* *সরকার* *আওয়ামিলীগ*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

জাপানের একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে একজন প্রফেসর এবং একটি ফেইথফুল কুকুরের বিষাদময় ভালোবাসার গল্পের নাম ” হাচি- অ্যা ডগস ট্যাল”।


◆প্রথমেই মুভিটা সম্পর্কে নিজের কিছু অনুভূতির কথা বলি। আইএমডিবি এর টপ ২৫০ লিস্টে মুভিটির নাম এবং রেটিং ৮.২ দেখে মুভিটি দেখার আগ্রহ জাগলো। ভাবলাম কুকুর আর মানুষের কোন এক বন্ধন এর গল্প হবে,কুকুর লালন-পালন করবে ,মালিক এর কথা শুনবে ইত্যাদি ইত্যাদি।
কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন।
মুভিটি দেখার পর থেকে মনটা কেমন যেন ভারী হয়ে ছিল। এক দু ফোটা চোখের জলও পরেছে।

✦প্লট সামারিঃ
প্রফেসর পার্কার উইলসন প্রতিদিন ট্রেনে যাতায়ত করেন। একদিন ট্রেন ষ্টেশনে হারিয়ে যাওয়া একটি কুকুর দেখতে পান। প্রফেসর কুকুরটির প্রকৃত মালিক কে খোঁজার চেষ্টা করেন কিন্তু ব্যর্থ হোন। প্রফেসরের কুকুরটিকে পোষার ইচ্ছে থাকলেও তার স্ত্রীর দ্বিমত এর কারনে কাউকে পোষার দায়িত্ব দেয়ার চিন্তা ভাবনা করে বাট কিছুদিন পরে তার স্ত্রী বুঝতে পারেন যে তার স্বামী কুকুরটিকে খুব পছন্দ করেছেন। তারপর থেকে প্রফেসর কুকুরটিকে নিজের কাছে রেখে দেন এবং তার এক বন্ধু জাপানি প্রফেসরের মাধ্যমে নাম দেয় ” হাচি”।
বাকিটা মুভিতেই দেখে নিবেন, গ্যারান্টি দিচ্ছি অনেক অনেক ভালো লাগবে মুভিটি।
মুভির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক এর প্রশংসা না করলে এক প্রকার অন্যায় হয়ে যাবে, অসাধারণ ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক ছিলো পুরো মুভিতে।


✦কিছু ট্রিভিয়াঃ
▧১৯২৪ সালে জাপানের প্রফেসর Hidesaburō Ueno এর সত্য ঘটনা অবলম্বনে মুভিটি করা।

▧১৯৮৭ সালের জাপানি ফিল্ম “The Tale of Hachiko” এর অফিসিয়ালি রিমেক “Hachi: A Dog’s Tale”

▧প্রফেসর আর কুকুরের ঘটনাটি এতোই জনপ্রিয় যে অত্র ট্রেন স্টেশন এর সামনে “হাচি” কুকুরটির ব্রোঞ্জের মূর্তি রয়েছে এবং প্রতি বছর অনেক দর্শনার্থী সেটা দেখতে যান।

▧জাপানে হাচি “faithful dog” হিসেবে পরিচিত।

➨আর মুভিটি দেখা শেষ হলে এই আর্টিকেলটি মাস্ট পড়ে দেখবেনঃ
http://bit.ly/1cTeNQu

*মুভিরিভিউ* *জাপান* *ভিনদেশী* *কুকুর* *সাসপেন্স*
*জাপান* *ভিনদেশী* *কুকুর* *সাসপেন্স*
ছবি

যারিন তাসনিম: ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

(তালি) জাপানের কিছু সুন্দর জায়গা (তালি)

(খুকখুকহাসি) নয়নাভিরাম জাপান (নতুনদিন)

*জাপান*
ছবি

যারিন তাসনিম: ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

(তালি) জাপানের কিছু সুন্দর জায়গা (তালি)

(জোস)

*জাপান*

গাজী আজিজ: Hitsujiyama Park, Japan: হিৎসুজিয়ামা নামক এই পার্কটি জাপানে অবস্থিত। প্রতি বছর এপ্রিল-মে মাসে এই পার্কটিতে প্রায় ৪০ হাজারেরও বেশি গোলাপি ফুল ফুটে থাকে যেগুলো দেখতে অপার্থিব এক জগতের মতো লাগে।

*জাপান* *হিট্সুজিয়ামা* *ফুল*

তিথি মনি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সুকুবা বিশ্ববিদ্যালয় জাপানের প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর মধ্যে অন্যতম। সম্প্রতি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকোনমিক এন্ড পাবলিক পলিসি বিষয়ে মাস্টার্স প্রোগ্রামে স্কলারশিপ প্রদানের জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। এজন্য বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের থেকে আবেদন পত্র আহবান করা হয়েছে। আবেদন করার শেষ তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৫।

আবেদন কারীর  যোগ্যতাঃ
    ১. আবেদনকারীর যে কোন ব্যাচেলর ডিগ্রি থাকতে হবে ।
    ২. অর্থনীতি, অ্যালজেবরা, ক্যালকুলাস ও বেসিক স্ট্যাটিস্টিক্স এর ওপর দখল থাকতে হবে ।
    ৩. মৌখিক ও লিখিত উভয় ক্ষেত্রে ইংরেজীতে দক্ষ হতে হবে ।
   ৪.আবেদনকারীর ইংরেজী শব্দভান্ডার সমৃদ্ধ থাকতে হবে ।এ গ্রাজুয়েট রেকর্ড এক্সামিনেশন (জিআরই) তে ন্যুনতম স্কোর থাকতে হবে ।
    ৫. আবেদনকারীকে সুস্বাস্থের অধিকারী হতে হবে।
    ৬.যারা ইতিমধ্যেই কোন গবেষণা কাজে অংশগ্রহণ করেছে তাদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে ।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ
    ১. সকল মূল কাগজপত্র
    ২. কারিকুলাম ভিটা
    ৩. টোফেল এর নম্বর পত্র
    ৪. জিআরই নম্বরপত্র
    ৫.  মেডিকেল সার্টিফিকেট
    ৬. ৪০/৩০ মিমি সাইজের ছবি
    ৭. রেফারেন্স লেটার

আবেদনের নিয়মঃ 
আগ্রহী প্রার্থীকে সরাসরি বাংলাদেশস্থ জাপানী দূতাবাস থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করে পূরণকৃত আবেদনপত্র প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র সহ জমা দিতে হবে ।
(সংকলিত)
*লেখাপড়া* *উচ্চশিক্ষা* *উচ্চতরশিক্ষা* *বিদেশেউচ্চশিক্ষা* *পড়াশুনা* *জাপান*

আজমি ইতু: এটি একটি বাস স্টপেজ এর ছবি। ফলের আকৃতির অসাধারণ এসব বাস স্টপেজ জাপানে দেখা যায়।

*জাপান*
ছবি

শফিক ইসলাম: ফটো পোস্ট করেছে

শীতের পর বসন্তের শুরুতে কেউ যদি জাপানে বেড়াতে যান তাহলে ভুলবেন না ওয়েস্টেরিয়া ফুলের মনোরম টানেল দিয়ে হাঁটতে।

স্বর্গীয় অনুভূতির সঙ্গে সবসময় আমরা মিল পাই ফুলের। ফুলের মতোই সুন্দর, নিষ্পাপ, পবিত্র স্বর্গ-এমনটা ধারণা সবার। দূর সে স্বর্গের অস্তিত্ব থাকুক বা না-ই থাকুক পৃথিবীতে স্বর্গীয় স্থানের দেখা মেলে অনেক। এমনই একটি স্থান জাপানের লাইট টানেল।

*প্রবাস* *জাপান* *ফুল* *প্রকৃতি*
জোকস

পাগলী: একটি জোকস পোস্ট করেছে

ব্যাকরণে একটু কি ভুল হলো? (চিন্তাকরি)(খিকখিক)
*জোকস* *আমেরিকা* *জাপান* *বাংলাদেশ* *গাধা*

পাগলী: জাপানের একটি বাসস্ট্যান্ড। ইশ আমাদের *বাংলাদেশ* এও যদি এমন থাকত! (মনখারাপ)

*বাংলাদেশ* *বাসস্ট্যান্ড* *জাপান* *বইপড়া* *বাংলাদেশ* *বাঙালি* *সভ্য*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★