দই

পূজা: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 রাতে দই খাওয়া কি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*রাত* *দই* *লাইফস্টাইলটিপস*
খবর

ফাহিম মাশরুর: একটি খবর জানাচ্ছে

দশ মিনিটে তৈরি করুন টক দই!
http://bhorerkhobor.com/archives/1706
টক দি তৈরির রেসিপি ...বিস্তারিত
*ঝটপটরান্না* *দই* *রেসিপি*
৩৬৯ বার দেখা হয়েছে

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ঐতিহ্যগত কারনেই বিভিন্ন এলাকার নানা রকমের খাবার বিভিন্ন কারণে বিখ্যাত। যেমন- ময়মনসিংহের মালাইকারি, নেত্রকোনার বালিশ মিষ্টি, কুমিল্লার রসমালাই আর পোড়া সন্দেশ, পোড়াবাড়ির চমচম, নাটোরের কাঁচাগোল্লাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের প্রসিদ্ধ সব খাবারের মতো বগুড়ার দই বাংলাদেশের জনপ্রিয় ও প্রসিদ্ধ একটি মিষ্টান্নত। দেশের যে কোনো প্রান্তে এক নামে যে কেউ বগুড়ার দই চেনেন। যারা খেয়েছেন তারাই বুঝেছেন, আসলে কতটা সুস্বাদু। প্রতিটি এলাকার প্রসিদ্ধ খাবারগুলোএত সুনাম অর্জনের কারণ কি তা খুঁজতে গিয়ে দেখা গেছে, ওই সব প্রসিদ্ধ খাবারের যত কাঁচামাল তা ওই জায়গায় সহজ লভ্য এবং ও জায়গাতেই ভালো হয়। বগুড়াতেও বেশ কয়েক পদের দই পাওয়া যায়। যেমন: বগুড়ার শাহী দই , বগুড়ার বিখ্যাত ক্ষিরসা দই, বগুড়ার স্পেশাল দইইত্যাদি।

যেভাবে এলো বগুড়ার দই
বাংলাদেশের অন্যান্য জেলা কিংবা অঞ্চলে উৎপাদিত হলেও কিছু বিশেষত্বের কারণে ‘বগুড়ার দই’-এর খ্যাতি দেশজুড়ে। উৎপাদন ব্যবস্থার প্রতিটি পর্যায়ে কারিগরদের (উৎপাদক) বিশেষ পদ্ধতি অনুসরণের পাশাপাশি মান নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে তারা যত্নবান হওয়ায় বগুড়ার দই স্বাদে-গুণে তুলনাহীন। প্রায় দেড়শ’ বছর আগে বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ঘোষ পরিবারের হাত ধরে বগুড়ায় দইয়ের উৎপাদন শুরু। পরবর্তী সময়ে বগুড়ার নওয়াব আলতাফ আলী চৌধুরীর (পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ আলীর বাবা) পৃষ্ঠপোষকতায় শেরপুরের ঘোষ পরিবারের অন্যতম সদস্য গৌর গোপাল বগুড়া শহরে দই উৎপাদন শুরু করেন।

বগুড়ার দইয়ের সুনাম
বগুড়ার দই ও মিষ্টি স্বাদে ও গুনে অতুলনীয় হওয়ায় দেশ ও বিদেশে সকলের কাছে অতি প্রিয়। বগুড়ার দই এর স্বাদ এখন সকলের মুখে মুখে।এখন যেকোন অনুষ্ঠানাদিতে খাওয়ার শেষে বগুড়ার দই না হলে তৃপ্তি হয়না। অনেকেই আছেন যারা শুধুমাত্র বগুড়ার দই খাবার জন্য বগুড়াতে বেড়াতে যান। অনেকে আবার অর্ডার করে বগুড়া থেকে দই নিয়ে আসেন। বিদেশে বগুড়ার দইয়ের খ্যাতি সর্বপ্রথম ১৯৩৮ সালে ইংল্যান্ডে ছড়িয়ে পড়ে। ওই বছরের গোড়ার দিকে তৎকালীন বাংলার ব্রিটিশ গভর্নর স্যার জন এন্ডারসন বগুড়া নওয়াববাড়ি বেড়াতে এসে প্রথম দইয়ের স্বাদ গ্রহণ করেন। এছাড়াও বগুড়ার দই ব্রিটেনের রানী ভিক্টোরিয়া, রানী এলিজাবেথ থেকে শুরু করে মার্কিন মুল্লুকে অনেকেই খেয়েছেন যা বগুড়ার জন্য গর্বের বিষয়।

কোথায় থেকে কিনবেন
দই বাংলাদেশের সব জায়গায় পাওয়া যায়। কিন্তু বিখ্যাত বগুড়ার দই তো আর চাইলেই সব জায়গায় পাবেন না।  এজন্য আপনাকে হয় বগুড়া যেতে হবে নতুবা যার বিশ্বস্থতার সাথে দই সরবারহ করে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। এজন্য আপনারা যারা বাড়তি কষ্ট না করে বাড়িতে বসে বগুড়ার দইয়ের স্বাদ নিতে চান তারা দেশের জনপ্রিয় অনলাইন শপ আজকের ডিলের ওয়েবসাইটে নক করতে পারেন। আমার জানা তারা সরাসরি বগুড়া থেকে দই নিয়ে ক্রেতাদের সরবারহ করে। দই কেনার সুবিধার্থে আপনার  জন্য নিচের লিংকটি শেয়ার করলাম। এখান থেকে অর্ডার করে আপনি দই কিনতে পারবেন।
*দই* *মিষ্টান্ন* *বগুড়ারদই* *কেনাকাটা* *শপিং*

পরী: দইয়ের মধ্যে সমৃদ্ধ প্রোটিন, ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন এ ই ও সি ছাড়াও শরীরের জন্য উপকারী বিভিন্ন উপাদান থাকে। দই শরীরের ক্যালসিয়ামের অভাব পূরণ করে। দই মানুষের বার্ধক্যকে বিলম্বিত করতে পারে। আর দই খাওয়ার সবচে ভালো সময় হচ্ছে রাতের খাবারের আধ ঘন্টা থেকে দুই ঘন্টার মধ্যে। অতএব নিয়ম করে প্রতিদিন দই খান।

*দই* *হেলদিফুড*

★ছায়াবতী★: একটি টিপস পোস্ট করেছে

ধরন অনুযায়ী নির্ভর করে দইয়ের উপকারিতা
http://www.deshebideshe.com/news/details/54307
গরুর দুধের দই বাজারের বেশিরভাগ দই গরুর দুধ দিয়ে তৈরি। সাধারণত এ ধরনের দইয়ে ফ্লেভার বা চিনি থাকে না। ব্রিটেনের ডায়েটেশিয়ান ডক্টর সারা সেনকার জানান, চিনিবিহীন প্রাকৃতিক দই খাওয়ার পরামর্শই আমি দেই। আপনি চাইলে আলাদা চিনি, মধু বা ফল মিশিয়ে খেতে পারেন। ফ্যাট সমৃদ্ধ ১০০ গ্রাম দইয়ে রয়েছে প্রায় ৮২ কিলোক্যালরি, লো ফ্যাট দইয়ে রয়েছে ৫৬ কিলোক্যালরি ও ফ্যাটবিহীন দইয়ে রয়েছে ৫৪ কিলোক্যালরি। এই তিন ধরনের দইয়ের প্রতি ১০০ গ্রামে রয়েছে পাঁচ গ্রাম প্রোটিন। ফ্যাট সমৃদ্ধ দইয়ে রয়েছে মাত্র ৩ শতাংশ ফ্যাট। এটি দীর্ঘ সময় ক্ষুধা নিবারণ করে ও ধীর গতিতে খাবার হজম করে। ...বিস্তারিত
*দই* *হেলথটিপস*
১৪৪ বার দেখা হয়েছে
ছবি

★ছায়াবতী★: ফটো পোস্ট করেছে

যেকোন দাওয়াতের ডেজার্ট আইটেমে থাকে দই

(পেটুক)(পেটুক) আই লাভ টক দই (ইয়েয়ে)

*দই*

ইমরান নাজির লিপু: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দেশীয় প্রোডাক্টগুলো ব্র্যান্ডিং এর মডার্ন থিওরীগুলোকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে টিকে আছে
টিকেই থাকবে বছরের পর বছর।
টিকে থাকবে ততদিন... যতদিন না আমরা নিজেরা মুখে মুখে এদের প্রসার থামিয়ে না দেই
... ছোটবেলা থেকে নাম শুনে আসা... আর নেট ঘেঁটে পাওয়া এভাবেই বিখ্যাত হয়ে উঠা বিভিন্ন অঞ্চলের কিছু প্রোডাক্টের নাম দিলাম;

  • নাটোরের...কাঁচাগোল্লা
  • চট্রগ্রামের...মেজবান, শুটকি
  • টাঙ্গাইলের...পোড়াবাড়ির-চমচম, তাতের-শাড়ি
  • দিনাজপুরের...লিচু, কাটারিভোগ চাল, চিড়া, পাপড়
  • বগুড়ার...দই
  • ঢাকার...বেনারসী-শাড়ি, বাকরখানি
  • কুমিল্লার...রসমালাই, খদ্দর
  • খাগড়াছড়ির...হলুদ
  • বরিশালের...আমড়া
  • খুলনার...মধু, সন্দেশ, নারিকেল, গলদা-চিংড়ি
  • সিলেটের...কমলালেবু, চা, সাতকড়া
  • নোয়াখালীর...নারকেল, নাড়ু, ম্যাড়া-পিঠা
  • গাইবান্ধার...রসমঞ্জরী
  • চাঁপাইনবাবগঞ্জের...আম, শিবগঞ্জের-চমচম, কলাইয়ের-রুটি
  • পাবনার...ঘি
  • সিরাজগঞ্জের...পানতোয়া, ধানসিড়িঁর-দই
  • ময়মনসিংহের...মুক্তাগাছার-মন্ডা, খিরমোহন-মিষ্টি
  • জামালপুরের...ছানার-পোলাও
  • নেত্রকোনার...বালিশ মিষ্টি
  • ফরিদপুরের...খেজুরের গুড়
  • রাজবাড়ীর...চমচম
  • সাতক্ষীরার...সন্দেশ
  • বাগেরহাটের...চিংড়ি, সুপারি
  • যশোরের...খই, জামতলার-মিষ্টি
  • কুষ্টিয়ার...তিলের খাজা
  • মেহেরপুরের...রসকদম্ব
  • ভোলার...নারিকেল, মহিষের দুধের দই
  • কুড়িগ্রামের...খিরমোহন
  • নরসিংদীর...সাগর কলা
  • নারায়নগঞ্জের...শামিম ওসমান (দুষ্টামি করলাম আর কি, মনোযোগ দিয়ে পড়ছেন নাকি দেখলাম)
  • নওগাঁর...চাল
  • রাঙ্গামাটির...আনারস, কাঠাল
  • ফেনীর...মহিশের দুধের ঘি, সেগুনকাঠ, খন্ডলের-মিষ্টি
  • লক্ষীপুরের...সুপারি
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ার...তালের-বড়া, ছানামুখী

সুত্র: অারিফ আর হোসাইনের ওয়াল থেকে নেয়া। 
*মিষ্টি* *প্রসিদ্ধখাবার* *বিখ্যাতখাবার* *মজারখাবার* *দই* *রসমালাই*

আফ্রোদিতির যুবরাজ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ঘরে বসে দই তৈরীর সহজতম পদ্ধতি কোনটি এবং কিভাবে?

উত্তর দাও (৪ টি উত্তর আছে )

.
*দই* *টকদইপাতানো*

শাওন: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 দই দিয়ে মাছ (যে কোন) রান্না করার পদ্ধতি কি?

উত্তর দাও (৪ টি উত্তর আছে )

*দই* *মাছেররেসিপি* *রেসিপি* *রন্ধনটিপস*

মো: রুবেল হুসাইন: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 কিভাবে মিষ্টি দই বানানো যায় ?

উত্তর দাও (৫ টি উত্তর আছে )

.
*দই*
৪/৫

মাসুম: বাগেরহাটে @ronepa ভাইয়ের আমন্ত্রণে গিয়েছিলাম আমি, @Vabna21 ও @Bodmas88 ! খান জাহান আলীর মাজার, দীঘির কুমির, *ষাটগম্বুজ* সব ঘুরে দেখলাম! দুপুরে *শুটকি* *বেগুনভাজি* *ইলিশ* মাছ *ভাজা* *ডাল* *মাংস* *সালাদ* হিসেবে *টমেটো**ধনিয়াপাতা* *পুদিনাপাতা* *গাজর* *শসা* *দই* *পিয়াজ* *কাচামরিচ*! *ভাত* আর পানির কথা কিন্তু বললাম না(চুপ২) অনেক ধন্যবাদ ইসমাইল ভাই!

*গেটটুগেদার* *বেশতো-গেট-টুগেদার* *বাগেরহাট* *ভ্রমন* *দীঘি* *ষাটগম্বুজ* *শুটকি* *বেগুনভাজি* *ইলিশ* *ভাজা* *ডাল* *মাংস* *সালাদ* *টমেটো**ধনিয়াপাতা* *পুদিনাপাতা* *গাজর* *শসা* *দই* *পিয়াজ* *ভাত*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আমি প্রতিদিন নিয়ম করে টক দই খাই। সকালের নাস্তা হিসেবে দই-চিড়া খাই আর অনান্য খাবারেও চেষ্টা করি টক দই ব্যবহার করতে, এমনকি জুস বা শরবত জাতীয় খাবার বানাতেও আমি এই টক দই ব্যবহার করি কারণ এতে শুধু খাবারের স্বাদ বাড়ে না বরং স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়। প্রতিদিন কিছু স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললেই কিন্তু নীরোগ ও কর্মঠ শরীর নিয়ে দীর্ঘদিন বেঁচে থাকা যায়। আর এ জন্য প্রয়োজন নিজের প্রতি সচেতন হওয়া এবং ইচ্ছাশক্তির প্রয়োগ। হয়ত ভাবছেন আমার মুখের কোথায় কেন এই অভ্যেস গড়ে তুলবেন? তাহলে একবার পড়ে দেখুন এর উপকারিতাগুলো l 


টক দই একটি দুগ্ধ যাত খাবার ও দুধের সমান পুষ্টিকর খাবার। টক দই অত্যন্ত পুষ্টিকর, এতে আছে দরকারী ভিটামিন, মিনারেল, আমিষ ইত্যাদি । টক দইতে দুধের চাইতে বেশি ভিটামিন ‘বি’ , ক্যালসিয়াম ও পটাশ আছে।। এতে কারবোহাইড্রেট,চিনি ও ফ্যাট নেই।এটি রোগ প্রতিরোধ করতে ও রোগ সারাতে সাহায্য করে।

টক দই খাওয়ার উপকারিতা :

  • টক দইতে ল্যাটিক এসিড থাকার কারণে এটি কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়া ও কোলন ক্যানসার কমায়।
  • এটি হজমে সহায়তা করে।
  • টক দইতে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ‘ডি’ আছে যা হাড় ও দাঁতের গঠনে ও মজবুত করতে সাহায্য করে ।
  • কম ফ্যাট যুক্ত টক দই রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল এলডিএল কমায়।
  • আমিষ দুধের চেয়ে সহজে হজম হয়, এটি দুধের চেয়ে অনেক কম সময়ে হজম হয়| তাই যাদের দুধের হজমে সমস্যা তারা দুধের পরিবর্তে এটি খেতে পারেন ।
  • টক দই রক্ত পরিশোধন করেতে সাহায্য করে।
  • উচ্চ রক্ত চাপের রোগীরা নিয়মিত টক দই খেলে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন ।
  • ডায়বেটিস, হার্টের অসুখ এর রোগীরা নিয়মিত টক দই খেলে এসব অসুখ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।
  • টক দই শরীরে টক্সিন জমতে বাধা দেয়। তাই অন্ত্রনালী পরিষ্কার রেখে শরীরকে সুস্থ রাখে ও বুড়িয়ে যাওয়া রোধ বা অকাল বার্ধক্য করে। শরীরে টক্সিন কমার কারণে ত্বকের সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পায়।

ওজন কমাতে কম ফ্যাট যুক্ত ও চিনি ছাড়া টক দই খাবেন ও নিচের জিনিসগুলো লক্ষ্য রাখুন :

  • টক জাতীয় খাবার গরম অবস্থায় এবং রাতে খাওয়া একেবারেই ঠিক নয়।
  • দই, পেয়ারা, শসা, ক্ষীরা, কলা, শাক ইত্যাদি রাতে কখনই খাওয়া ঠিক নয়।
  • দইয়ের পর কোন সফ্ট ড্রিঙ্কস পান না করাই উচিত। কারণ এতে দইয়ের উপকারিতা নষ্ট হয়ে যায়।
*হেলদিফুড* *স্বাস্থ্যতথ্য* *দই*

নাফিসা আনজুম রাফা: একটি বেশব্লগ লিখেছে


১.দইতে ল্যাকটিক অ্যাসিড থাকার কারণে এটি কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়া ও কোলন ক্যান্সার কমায়।
২.দই হজমে সহায়তা করে।
৩.টক দইতে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ‘ডি’ আছে যা হাঁড় ও দাঁতের গঠন ঠিক রাখতে ও মজবুত করতে সাহায্য করে।
৪.কম ফ্যাটযুক্ত টক দই রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল ‘এলডিএল’ কমায়।
৫.দইয়ের আমিষ দুধের চেয়ে সহজে ও কম সময়ে হজম হয়। তাই যাদের দুধের হজমে সমস্যা তারা দুধের পরিবর্তে এটি খেতে পারেন।
৬.টক দই রক্ত পরিশোধন করতে সাহায্য করে।
৭.উচ্চ রক্তচাপের রোগীরা নিয়মিত টক দই খেয়ে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।
৮.ডায়বেটিস, হার্টের অসুখের রোগীরা নিয়মিত টক দই খেয়ে এসব অসুখ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।
৯.টক দই শরীরে টক্সিন জমতে বাধা দেয়। তাই অন্ত্রনালী পরিষ্কার রেখে শরীরকে সুস্থ রাখে ও বুড়িয়ে যাওয়া বা অকাল বার্ধক্য রোধ করে। শরীরে টক্সিন কমার কারণে ত্বকের সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পায়।
১০.ওজন কমাতে কম ফ্যাটযুক্ত ও চিনি ছাড়া টক দই খেতে পারেন।(সংগ্রহে)
*টিপস* *দই* *স্বাস্থ্যকথা*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বাসায় বোরহানি কিভাবে বানানো যায় ? বোরহানি বানাতে কি কি লাগে ?

উত্তর দাও (১১ টি উত্তর আছে )

.
*বোরহানি* *রেসিপি* *ঈদরেসিপি* *শরবত* *দই*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★