নতুন বই

নতুনবই নিয়ে কি ভাবছো?

আমানুল্লাহ সরকার: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৮ তে মোট কয়টি নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে?

উত্তর দাও (০ টি উত্তর আছে )

*বইমেলা* *বইমেলা২০১৮* *গ্রন্থমেলা* *নতুনবই*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সমকালীন লেখক ও কথা সাহিত্যিক ফাহিম হাসানের চতুর্থ বই ‘বোকা ভাল্লুকের ডায়েরী- ২’ প্রকাশিত হয়েছে ভাষাচিত্র প্রকাশন থেকে। বিষয়ভিত্তিক বই এবং সুখপাঠ্য বই প্রকাশের জন্যে ইতিমধ্যে মননশীল পাঠকদের কাছে এক সুপরিচিত নাম ‘ভাষাচিত্র’।


‘বোকা ভাল্লুকের ডায়েরী-২’ বইতে রয়েছে এক মুঠো গল্প, চিঠি এবং কবিতা যা ইতিমধ্যে তরুন পাঠক, পাঠিকাদের পছন্দের তালিকায় চলে এসেছে। ১৬০ পৃষ্ঠার এই বইটি পাওয়া যাচ্ছে একুশে বই মেলায় এবং অনলাইন বুকশপ রকমারিতে। অনলাইনে রকমারি থেকে কিনতে এখানে ক্লিক করুন


বইটি সম্পর্কে পাঠক অধরা আঞ্জুমান পৃথা তার ব্যাক্তিগত অভিমত প্রকাশ করেছেন অন্তরজালে -


রিভিউ:
একটি বোকা ভাল্লুকের গল্প। ঠিক গল্প না.. ভালোবাসার শহর ছেড়ে পালিয়ে এই স্মৃতিজড়িত শহরে হাহাকার নিয়ে বেঁচে থাকা একটি বোকা ভাল্লুকের ডায়েরি। ডায়েরি নম্বর-২।


যে ভাল্লুক আজও প্রিয়ার কপালের লাল টিপ নিয়ে রঙিন স্বপ্ন দেখে, প্রিয়ার স্বপ্নের যোগান দিয়ে হৃদয় দেশে বিশাল এক অরণ্য করে ফেলেছে.... স্বপ্নেরা সবুজ হয়ে হাতছানি দিচ্ছে বোকা ভাল্লুক কে। বোকা ভাল্লুক কোনো স্বপ্নই সে মানুষটি ছাড়া পূরণ করবে না।

কিছু বিচ্ছেদের গল্প, কিছু প্রতিশোধের গল্প, কিছু ছেড়ে যাওয়ার গল্প..যা পড়ার পর মগজে সেঁটে থাকবে.. সেঁটে থাকতেই হবে!
চোখ ঝাপসা করা কিছু চিঠি। প্রিয়াকে লেখা চিঠি..যে প্রিয়ার মালিকানা অন্যকারো।

যে প্রিয়ার নাম কখনো রাজকন্যা, কখনো দুপুর, কখনো তুষারকন্যা, কখনো আচ্ছা, কখনো চশমাওয়ালি.... যেসব চিঠি সে প্রিয়া কখনও পায়না। কিছু চিঠিকে আত্ম বিসর্জন দিতে হয় এলকোহলের অনলে... বোকা ভাল্লুক চিঠি লেখার পর পুড়িয়ে তৃপ্তির ঢেঁকুর তোলেন। অবহেলার চেয়ে আগুন ভালো কিনা!

ভালোবাসার শহরের সদরদরজায় ঠাঁই দাঁড়িয়ে থেকে থেকে অবহেলার পরিক্ষায় সর্বোচ্চ প্রাপ্ত নম্বর পাওয়া ছেলেটা রাজকন্যার জন্যে কিছু কবিতা লিখেছে.... বেলাইনের ছন্দ মেলানো কবিতা। ডায়েরি তো প্রিয় মানুষটাকে নিয়ে লেখা.. কবিতাগুলোও প্রিয় মানুষটার ভাতঘুমে উপহার দেয়ার জন্যে ডায়েরিতে রাখা..
যে কবিতা হয়তো চিরদিনই উপহারের উদ্দেশ্যে লেখা হবে। কিন্তু দেয়া হবেনা...

সবশেষে বলি,
বোকা ভাল্লুক খুব নিখুঁত করে টেলিস্কোপ বসিয়েছেন প্রতিটি পৃষ্ঠায়... প্রতিটি গল্পে, চিঠিতে, কবিতায়... তিনি নিশ্চয়ই সেই টেলিস্কোপ দিয়ে দুপুরকে খুঁজেছেন। অথবা তুষাকন্যা কে.... কে জানে। সঠিক হিসেব পাঠক করে নেবেন।

প্রেমিক হয়ে কয়েকটি শব্দে, বাক্যে কিংবা পুরো একটি বইতে ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে লেখা সম্ভবনা। কে জানে, হয়তো সম্ভব। বোকা ভাল্লুকও এই ডায়েরির ১৬০ নম্বর পৃষ্ঠা পর্যন্ত লিখে থেমে গেছেন.. চেষ্টা করেছেন হয়তো সবটা লিখতে। কিন্তু তিনি ব্যর্থ.. তাঁকে আরও একটি সাদা কাগজের ডায়েরি হাতে তুলতে হবে..
ডায়েরি নম্বর হবে ৩।

আমি সিক্ত চোখের আগ্রহ নিয়ে পরের পাতা উল্টেছি। পৃষ্ঠা নম্বর আর দেখা যায়নি.. ডায়েরি নং ৩ এ নিশ্চয়ই এ তৃষ্ণা মিটবে।

আজকের দিনটা মন খারাপ নিয়ে কাটাতে হলো। বোকা ভাল্লুকের করা মন খারাপ...’

*বইমেলা* *নতুনবই* *বইমেলা২০১৮* *একুশেবইমেলা* *ফাহিমহাসান*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৮ তে- বিশিষ্ঠ গীতিকার ও নতুন প্রজন্মের তরুণ লেখক টিম সাব্বিরের প্রথম বই 'নোটস এন্ড কফি' পাওয়া যাচ্ছে। বইটি প্রকাশ করেছে 'ভাষাচিত্র' প্রকাশনী। বইটি পাওয়া যাবে ২১ শে বইমেলার ভাষাচিত্র (BHASHACHITRA) প্রকাশনীতে, স্টল নাম্বার :৫৮৫-৮৬-৮৭। এছাড়াও রকমারি ডটকম থেকে অনলাইনে পাঠকরা অর্ডার করে বইটি কিনতে পারবেন। বইটির মূল্য ২০০ টাকা। বইটি রকমারি থেকে কিনতে এখানে ক্লিক করুন

বইটি সম্পর্কে  জানতে চাইলে লেখক তালুকদার মোহাম্মদ সাব্বির বলেন, “গুটিকতক গল্প,  অল্প কিছু ব্যাক্তিগত নোট এবং কুড়িখানেক কবিতা দিয়ে সাজানো হয়েছে বইটি। যদি জিজ্ঞেস করা হয় আমার এই লেখায় নতুনত্ব কি আছে?- তাহলে বলতে হয় তেমন কিছুই না, হয়ত গতানুগতিক ব্যাপারেরই পুনরাবৃত্তি। তারপরেও বইটি পাঠকদের ভাল লাগবে।”

লেখাগুলো গেল ৮/৯ বছরের নিজের কিছু লেখা থেকে বাছাই করা। লেখার ক্ষেত্রে ব্যাক্তিগত ভালোলাগাকে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে, এবং কারো যদি এর কিছু অংশও ভালো লেগে থাকে সেটা হবে লেখকের জন্যে সবচেয়ে বেশী আনন্দের।

বইটির প্রচ্ছদ করেছেন রহমান আজাদ আর সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ফাহিম হাসন।

বইটির প্রচ্ছদ শিল্পী রহমান আজাদ বইটি সম্পর্কে তার অনুভূতি জানিয়ে লিখেছেনঃ

“এই বইয়ের চরিত্রগুলো আমাদের আশেপাশেই দিব্যি হেসে খেলে বেড়াচ্ছে। কখনো আবার তারা নিয়ন আলোর হলুদ এই শহরে অনেক কষ্টে খুঁজে পাওয়া জোছনার আলোয় গোপন বিষাদে অবিরত পুড়ে যাচ্ছে একটা নতুন ভোরের আশায়। কেউ কেউ আবার হাল ছেড়ে পালাচ্ছে এই ইট কাঠের খাঁচা থেকে, কেউবা আবার প্রতিদিন নতুন নতুন অভিনয়ের পাঠের আড়ালে সবকিছু মেনে নিচ্ছে ভুলে যাবার ভানে। কিন্তু তাতে এই কনক্রিটের প্লাষ্টারে ঢাকা সবুজ শহরের কিছুই আসে যায় না। তারপরেও একদিন প্রচন্ড জ্যাম আর ধুলার এই অদ্ভুত শহরটাতে হয়ত খুব হঠাৎ করেই ঝুম বৃষ্টি চলে আসে,ডুবে যায় সবকিছু সব মান অভিমান, নস্টালজিক করে ফেলে নাগরিক ভোঁতা প্রেমগুলোকে যে অনুভুতির কিছু জন্ম নেয় গল্প হিসেবে, আর কিছু অনুভুতিগুলোকে আমরা জোর করে চালিয়ে দেই কবিতা নামে।


এক কাপ ধোঁয়া ওড়ানো কফির সাথে এমন কিছু শীতল অনুভুতির মিশেল হতে পারে হয়ত আপনার জোছনা দিনে বা বৃস্টিরাতের এক উপভোগ্য পাঠ্য।”

*বইমেলা* *নতুনবই* *টিএমসাব্বির* *একুশেবইমেলা* *বইমেলা২০১৮*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

এবারের একুশে বইমেলায় কথাসাহিত্যিক রণজিৎ সরকারের ছয়টি বই এসেছে। এর মধ্যে তিনটি কিশোর উপন্যাস ও একটি বড়দের মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস। এ ছাড়া এসেছে দুটি গল্পগ্রন্থ। পার্ল পাবলিকেশন্স থেকে এসেছে কিশোর উপন্যাস ‘ভূতের সেলফি ম্যাজিক’। বইটি পাওয়া যাবে পার্ল পাবলিকেশন্সের ৬ নম্বর প্যাভিলিয়নে। কিশোর উপ্যানস ‘স্কুলের বেস্ট স্টুডেন্ট’ এসেছে শিশুরাজ্য প্রকাশন থেকে। মেলায় ৫৫৩ নম্বর স্টল থেকে পাওয়া যাবে। শাহজী প্রকাশন থেকে এসেছে কিশোর উপন্যাস ‘পূজার পড়ালেখা’। স্টল নং ৩৫৩। মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাসটা এসেছে বেহুলাবাংলা থেকে। স্টল নং ১৭২-৭৩।


তাম্রলিপি থেকে এসেছে ভাষাশহিদ ও বীরশ্রেষ্ঠদের জীবনী নিয়ে গল্পের বই- ‘ভাষাশহিদ ও বীরশ্রেষ্ঠদের গল্প’। বইটি পাওয়া বইমেলার তাম্রলিপি ১২ নম্বর প্যাভিলিয়নে। এ ছাড়াও আরও একটি গল্পের বই এসেছে রিয়া প্রকাশনী থেকে নাম-‘বিকেল বেলা ক্রিকেট খেলা’ গল্পের বইটি ৬০৬ নম্বর স্টলে পাওয়া যাবে। এছাড়া পূর্বে প্রকাশিত বইগুলো পাওয়া যাচ্ছে মেলাতে।


এছাড়াও যারা ঘরে বসে বই সংগ্রহ করতে চান তারা রকমারি ডটকমে ১৬২৯৭ যোগাযোগ করতে পারেন।

*রণজিৎসরকার* *বইমেলা* *নতুনবই*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 তাম্রলিপি প্রকাশনী তে এবছর নতুন কি কি বই এসেছে?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*তাম্রলিপি* *তাম্রলিপিপ্রকাশনী* *বইমেলা* *নতুনবই*

উদয়: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 এবার বইমেলায় জাফর ইকবাল স্যারের কি কোনো নতুন বই এসেছে?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

*বইমেলা* *জাফরইকবাল* *নতুনবই* *বইমেলা২০১৭*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বঙ্গবন্ধুর শতাধিক ভাষণ থেকে বাছাই করে গুরুত্বপূর্ণ ৬৭টি ভাষণের শ্রুতিলিপি আকারে এ বইটি প্রকাশ করেছে প্রকাশনা সংস্থা ঐতিহ্য। বইটির শ্রুতিলিখন ও সম্পাদনা করেছেন তরুণ কথাসাহিত্যিক নির্ঝর নৈঃশব্দ্য।


ঐতিহ্য প্রকাশনীর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ জানানো হয়, ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১ থেকে ৮ মার্চ ১৯৭৫ পর্যন্ত বিভিন্ন সমাবেশে ও অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর দেয়া ভাষণগুলোই এই বইতে সংকলিত করা হয়েছে। এসব শ্রুতিলিপির বানান বঙ্গবন্ধুর মুখের উচ্চারণ অনুযায়ী রাখার চেষ্টা করা হয়েছে।


বইটির প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ। বইটি একুশের বইমেলায় ঐতিহ্য প্রকাশনির স্টলে পাওয়া যাবে। এছাড়াও ঐতিহ্যের বাংলাবাজার ও কাটাবন বিক্রয় কেন্দ্র এবং অভিজাত বইয়ের দোকানে বইটি পাওয়া যাবে। ৩৫০ পৃষ্ঠার রয়েল সাইজ এই বইয়ের মূল্য ধরা হয়েছে ৭৫০.০০ টাকা। রকমারি ডট কম ও ঐতিহ্য প্রকাশনের ফেসবুক পেজ এর মাধ্যমে ঘরে বসেও পাঠকরা বইটি সংগ্রহ করতে পারবেন।

*বইমেলা* *ওঙ্কারসমগ্র* *ভাষণ* *বঙ্গবন্ধু* *বইমেলা২০১৭* *নতুনবই*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

এবারের বইমেলায় আসছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নতুন বই। বাংলাদেশের সমকালীন রাজনীতির ওপর বিভিন্ন সময়ে প্রকাশিত তাঁর লেখা ১৩টি প্রবন্ধ নিয়ে প্রকাশিত হচ্ছে সংকলন গ্রন্থ ‘নির্বাচিত প্রবন্ধ’।

আগামী প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত এই নির্বাচিত প্রবন্ধের মূল্য ৩৫০ টাকা। এর প্রচ্ছদ এঁকেছেন আনওয়ার ফারুক। কাল বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৭। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেলা তিনটার দিকে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বইমেলার উদ্বোধন করবেন। প্রথম দিন থেকে মেলার ১৩ নম্বর প্যাভিলিয়নে বইটি পাওয়া যাবে। 

ইমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম এই বইয়ের ভূমিকায় লিখেছেন,  লেখক হিসেবে শেখ হাসিনা মূলত প্রাবন্ধিক, বিশেষভাবে বলতে গেলে রাজনৈতিক ভাষ্যকার। তাঁর “নির্বাচিত প্রবন্ধ” সংকলন গ্রন্থটি বর্তমান বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের চিন্তাচেতনা, মন-মানসিকতা ও দৃষ্টিভঙ্গির পরিচয় বহন করে। সে কারণেই এই গ্রন্থটির গুরুত্ব অপরিসীম।

সংকলনের প্রথম প্রবন্ধ ‘বাংলাদেশে স্বৈরতন্ত্রের জন্ম’। ১৯৯৩ সালে লিখিত এই প্রবন্ধে বাংলাদেশে স্বৈরাচারের উদ্ভব ও বিকাশ সম্পর্কে একজন রাজনীতিবিদের প্রত্যক্ষ পরিচয় ফুটে উঠেছে। ‘শিক্ষিত জনশক্তি অর্থনৈতিক উন্নয়নের পূর্বশর্ত’ প্রবন্ধে তিনি বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থার সমস্যাকে চিহ্নিত করেছেন। ১৯৯৩ সালে লিখিত ‘সবার উপরে মানুষ সত্য’ প্রবন্ধে শেখ হাসিনা ১৯৪৮ সালে জাতিসংঘের মানবাধিকার ঘোষণা সত্ত্বেও বিশ্বযুদ্ধোত্তর পৃথিবীতে দেশে দেশে মানুষে মানুষে এবং একই দেশে শ্রেণিবিভক্ত সমাজে মানবতার যে চরম অবমাননা, তার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

ভাষা আন্দোলনের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে লিখিত ‘ভালবাসি মাতৃভাষা’, ২০০২ সালে প্রকাশিত ‘বিপন্ন গণতন্ত্র লাঞ্ছিত মানবতা’, ১৯৯৮ সালে ৩২ নম্বর ধানমন্ডির বাড়ি নিয়ে লেখা ‘স্মৃতি বড় মধুর স্মৃতি বড় বেদনার’, বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলন নিয়ে ২০০১ সালে লেখা ‘সংগ্রামে আন্দোলনে গৌরব গাঁথায়’, ১৯৯৯ সালে লেখা ‘বৃহৎ জনগোষ্ঠীর জন্যে উন্নয়ন’, ‘সহে না মানবতার অবমাননা’, ‘প্লিজ, সাদাকে সাদা কালোকে কালো বলুন’, ‘একটি স্মরণীয় অভিজ্ঞতা’ এবং ১৪ আগস্ট ১৯৯১ সালে লেখা ‘অনর্জিত রয়ে গেছে স্বপ্নপূরণ’ প্রবন্ধ সংকলিত হয়েছে এই নির্বাচিত প্রবন্ধে।

বইয়ের সর্বশেষ প্রবন্ধ হাইকোর্টের একটি ঐতিহাসিক রায় নিয়ে লেখা ‘সত্যের জয়’। লেখক ২০০৫ সালে এটি রচনা করেন। অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মতে, এই প্রবন্ধে আইনের শাসনের প্রতি শেখ হাসিনার গভীর শ্রদ্ধা ও আনুগত্য প্রকাশ পেয়েছে।

বাংলাদেশের সমকালীন রাজনীতি নিয়ে আগামী প্রকাশনী থেকে এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আরও ১৩টি প্রবন্ধ সংকলন গ্রন্থ প্রকাশিত হয়। এর মধ্যে রয়েছে ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’, ‘সাদাকালো’, ‘বিপন্ন গণতন্ত্র, লাঞ্ছিত মানবতা’, ‘দারিদ্র্য দূরীকরণ: কিছু চিন্তাভাবনা’, ‘সহে না মানবতার অবমাননা’, ‘বাংলাদেশের স্বৈরতন্ত্রের জন্ম’, ‘ওরা টোকাই কেন’, ‘আমরা জনগণের কথা বলতে এসেছি (জাতীয় সংসদে ভাষণ ১৯৮৭-১৯৯৮)’ ‘লিভিং ইন টিয়ার্স’, ‘পিপল অ্যান্ড ডেমোক্রেসি’, ‘ডেমোক্রেসি পভার্টি এলিমিনেশন অ্যান্ড পিস’, ‘ডেমোক্রেসি ইন ডিসট্রেস ডিমান্ড হিউম্যানিটি’ এবং ‘জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’ (যৌথ সম্পাদনা)।

আগামী প্রকাশনীর কর্ণধার ওসমান গণি বাসসকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রচিত ২০১৫ সালের বইমেলায় প্রকাশিত ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’ বইয়ের পঞ্চম সংস্করণ প্রকাশিত হয়েছে। এটিও বইমেলার প্রথম দিন থেকেই আগামী প্রকাশনীর স্টলে পাওয়া যাবে। এ ছাড়া এবারের বইমেলা উপলক্ষে ‘লিভিং ইন টিয়ার্স’, ‘পিপল অ্যান্ড ডেমোক্রেসি’, ‘ডেমোক্রেসি পভার্টি এলিমিনেশন অ্যান্ড পিস’ এবং ‘ডেমোক্রেসি ইন ডিসট্রেস ডিমান্ড হিউম্যানিটি’ বই তিনটির পুনর্মুদ্রণ প্রকাশিত হয়েছে।

সূত্র : কালেরকণ্ঠ

*বইমেলা* *প্রধানমন্ত্রী* *শেখহাসিনা* *বইমেলা২০১৭* *নতুনবই*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বাংলা একাডেমির তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার মেলার নবম দিনে প্রকাশিত হয়েছে ১১০টি নতুন বই। এর মধ্যে গল্প ২০, উপন্যাস ১৫, প্রবন্ধ ৮, কবিতা ২৮, শিশু সাহিত্য ৩, ছড়া ৫,  জীবনী ৪, মুক্তিযুদ্ধ ১, নাটক ১, বিজ্ঞান ৫, ভ্রমণ ১, ইতিহাস ৩, স্বাস্থ্য ১,  রম্য/ধাধা ১, অনুবাদ ১, সায়েন্স ফিকশন ৩ ও অন্যান্য ১০টি বই। 
 
মেলায় আসা নতুন বইয়ের মধ্যে রয়েছে— সৈয়দ শামসুল হকের ‘বাবার সাথে যাওয়া ও অন্যান্য বিষয়ের গল্প’ (রাত্রি প্রকাশনী), মুনতাসীর মামুনের ‘ইতিহাসের খেরোখাতা সাত, ইমদাদুল হক মিলনের ‘গোস্টস্ স্টোরিজ ফর ইউ ও মোস্তফা কামালের ‘সায়েন্স ফিকশন সমগ্র ২’ (অনন্যা), অসীম সাহার ‘শ্মশান ঘাটের মাঝি’ (চন্দ্রদ্বীপ), মুহাম্মদ জাহাঙ্গীরের ‘মিডিয়ার নানা কথা’, আবদুল মওদুদ অনূদিত ‘দি ইন্ডিয়ার মুসলমানস’ (মাওলা ব্রাদার্স), বিচারপতি মো. গোলাম রব্বানীর ‘বাংলাদেশের সংবিধানের বিকাশ, বৈশিষ্ট্য ও বিচ্যুতি’, বুলবুল সরওয়ার অনূদিত ‘হূদয়ে আমার মির্জা গালিব’ ও পিয়াস মজিদের ‘এলামেলো ভাবনাবৃন্দ’ (ঐতিহ্য), রাজু আলাউদ্দিন অনূদিত ‘কথাসমগ্র’ (কথাপ্রকাশ), স্বকৃত নোমানের ‘তাজউদ্দীন আহমদ’ (উত্স), রাগিব হাসানের ‘বিদ্যাকৌশল : লেখাপড়ায় সাফল্যের সহজ ফরমুলা’ ও আসিফ সিবগাত ভূঞা ‘সহজ কুরআন’ (আদর্শ), অরণ্য পাশার ‘আনন্দ আশ্রম’ (দেশ পাবলিকেশন্স), মানিক মুনতাসীরের ‘খবরের কবর’ (মনের কথা প্রকাশনা)।
*বইমেলা* *বইমেলা-২০১৬* *নতুনবই*

বইমেলা: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বর্তমান সময়ের একজন জনপ্রিয় লেখকের নাম রণজিৎ সরকার। তরুণ এই কথাসাহিত্যিক তার লেখনী শক্তির মাধ্যমে অল্প সময়েই বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। নতুন প্রজন্মের সম্ভাবনাময় এই কলম সৈনিকের লেখা ৭টি বই এবারের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় পাওয়া যাচ্ছে। 
 
অমর একশে গ্রন্থমেলা ২০১৬ তে প্রকাশিত রণজিৎ সরকারের নতুন ৭টি বই
 
ভাষাশহীদদের গল্প 
ভাষা আন্দোলনে প্রাণ উৎসর্গকারী ভাষা শহীদদের জীবনের উপরে লেখা হয়েছে ‘ভাষাশহীদদের গল্প’। গল্পের এই বইটি শিশু-কিশোরদের উপযোগী করে লেখা হয়েছে। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন নিয়াজ চৌদুরী তুলি। এটি তাম্রলিপি থেকে প্রকাশিত হয়েছে। বইটির মূল্য ১৩৫ টাকা। পাওয়া যাচ্ছে বইমেলার তাম্রলিপির স্টলে। 
 
ক্লাসরুমে ভূতের তাণ্ডব
এটি একটি কিশোর উপন্যাস। স্কুলের ক্লাসরুমে অদ্ভুত সব ঘটনা নিয়ে বন্ধুদের মধ্যে একটা আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। ক্লাসের অজ্ঞাত এক ছাত্র তাণ্ডব করে আর দোষ হয় ভূতের।  এধরনের কাহিনী নিয়েই ক্লাসরুমে ভূতের তাণ্ডব বইটি লেখা হয়েছে। এর প্রচ্ছদ এঁকেছেন  নিয়াজ চৌধুরী তুলি। পাওয়া যাচ্ছে বইমেলার তাম্রলিপির স্টলে। মূল্য ২০০টাকা।
 
অর্পা ব্যস্ত পড়ালেখায়
শিশু-কিশোরদের শিক্ষমূলক গল্পর বই এটি। এই বইটিতে বেশ কয়েকটি গল্প আছে শিক্ষামূলক। শিশুদের মেধা বিকাশে ও পড়ালেখা মনোযোগ আকর্ষণ করবে। বইটি প্রকাশ করেছেন শব্দশৈলী। প্রচ্ছদ এঁকেছেন মামুন হোসাইন। মূল্য ১৩৫ টাকা।
 
স্কুলের বন্ধুরা
পার্ল পাবলিকেশন্স থেকে প্রকাশিত এই বইটিও একটি কিশোর উপন্যাস। শিশু নির্যাতন নিয়ে লেখা হয়েছে স্কুলের বন্ধুরা কিশোর উপন্যাসটি। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন নিয়াজ চৌধুরী তুলি। আর এটি পার্ল পাবলিকেশন্স প্রকাশ করেছে। বইটির মূল্য মাত্র ১৫০ টাকা। 
 
 
 
 
 
 
বীরশ্রেষ্ঠদের গল্প 
সাত বীরশ্রেষ্ঠদের জীবনী নিয়ে লেখা হয়েছে এই বইটি। একাত্তরে এই বীরশ্রেষ্ঠরা আমাদের স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনতে কীভাবে অবদান রেখেছিল তারই চিত্র। বইটিতে আমাদের জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের জীবন ও কর্ম সম্পর্কে জানতে পারা যাবে। এই বইটিরও প্রচ্ছদ এঁকেছেন নিয়াজ চৌধুরী তুলি। তাম্রলিপি থেকে বইটি বেরিয়েছে। বইটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৩৫ টাকা।
 
পথে পাওয়া
অনলাইনে বেশ আগে থেকেই সাড়া জাগিয়েছে রণজিৎ সরকারের পথে পাওয়া সিরিজ যা এখন বই আকারে এবারের বই মেলায় প্রকাশিত হল। পথে পাওয়া বইটি আমাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহ নিয়ে লেখা হয়েছে।  সাহস পাবলিকেশন্স জনপ্রিয় সিরিজ ‘পথে পাওয়া’ সাহসের সাথে প্রকাশ করেছে। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন-নিয়াজ চৌধুরী তুলি। বইমেলায় সাহস পাবলিকেশনের স্টলে এটি পাওয়া যাবে। 
 
নায়িকার প্রেমে পড়েছি
নায়ক-নায়িকাদের প্রেমে পড়ার কাহিনি নিয়ে লেখা রোমান্টিক উপন্যাস ‘নায়িকার প্রেমে পড়েছি’। যৌবনের শুরুতে যারা টিভি বা সিনেমা হলের পর্দায় নায়িকাদের ছবি দেখে প্রেমে পড়েছেন বইটি তাদের জন্য। উপন্যাসটি প্রকাশ করেছে: শব্দশৈলী, প্রচ্ছদ করেছেন- সোহেল আমান। 
 
 
 
 
 
 
লেখকের অন্যান্য বই সমূহ
তরুণ এই লেখক ইতিমধ্যে ২৭টি বই প্রকাশ করেছেন। তাঁর লেখা প্রথম গল্পের বই ‘স্কুল ছুটির পর’ ২০১২ সালের বইমেলায় প্রকাশ হয়। নবীন লেখকের বই হিসেবে ওই মেলাতেই বইটি দ্বিতীয় মুদ্রণ হয়েছিল। তার প্রকাশিত অন্য বইগুলো হল- ভূতের ফাঁসি, স্কুল ছুটির দিনগুলি, টিফিনের সময়, স্কুলে ভূতের আড্ডা, মায়ের সাথে স্কুলে, অল্প বয়সী মাস্টার মশাই, স্কুলে প্রতিদিন, চাঁদ বুড়ির বান্ধবী অনিন্দী, শিশুতোষ মুক্তিযুদ্ধের গল্প, রোল নাম্বার জিরো জিরো ওয়ান, দুষ্টু ভূতের আস্তানায়, সংগীতার আঁকাআঁকি, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ব, ক্লাসরুমে যত কাণ্ড, স্কুলে অনুপস্থিত, শিশুতোষ একুশের গল্প, ছোটদের মুক্তিযুদ্ধের অজানা গল্প, লালু বাহিনীর লাফিং ক্লাব ও প্রেমহীন ক্যাম্পাস। উপরের এই বইগুলোও এবারের বই মেলা থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়াও অনলাইনে রকমারি ডটকমের ওয়েবসাইট থেকেও বই কিনতে পারবেন। 
 
লেখক পরিচিতি
১৯৮৪ সালের ১২ মে পিতৃভূমি সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার সরাইদহ গ্রামে রণজিৎ সরকারের জন্ম। বাবা নারায়ণ সরকার, মা শোভা সরকার। দাদু, মা আর বাবার কাছ থেকে শিক্ষার হাতেখড়ি। ক্লাস নাইন থেকে ডেবিট-ক্রেডিট পড়তে পড়তে হিসাববিজ্ঞানে অনার্স-মাস্টার্স। বর্তমানে একটি জাতীয় পত্রিকায় সম্পাদকীয় বিভাগে কর্মরত আছেন। নিয়মিত লিখছেন জাতীয় দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক, ছোটকাগজ, অনলাইনে।
 
নতুন এই লেখক তাঁর লেখনীর মাধ্যমে জয় করুক সকলের মন। বাংলা সাহিত্যে তাঁর পথচলা হোক সুদীর্ঘ। অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো রণজিৎ সরকারের জন্য।
*বইমেলা-২০১৬* *নতুনবই* *বইমেলা* *বইমেলা২০১৬*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে সর্বকালের সর্বসেরা অধিনায়ক, নড়াইল এক্সপ্রেস ও ক্যাপ্টেন ম্যাশ খ্যাত কিংবদন্তী ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজার উপর বই লেখা হয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই অধিনায়কের জীবন কাহিনী নিয়ে ক্রীড়া বিষয়ক সাংবাদিক ‘দেবব্রত মুখোপাধ্যয়’ বইটি লিখেছেন। বইটির নাম দিয়েছেন ‘মাশরাফি’  বইটি প্রকাশ করেছে বিসিএসএ প্রকাশনী। বইটির বর্নাঢ্য উদ্বোধন হয়ে গেলো খুলনার সিটি ইন হোটেলে। সাকিব-তামিম-কোচ হাথুরুসিংহেসহ জাতীয় দলের সকল ক্রিকেটার এবং কর্মকতারা উপস্থিত ছিলেন ‘মাশরাফি’ প্রকাশ অনুষ্ঠানে।  

মাশরাফি
ছোট বেলাটা কেটেছে তার হই-হুল্লোড় আর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে। বর্তমান বাংলাদেশ ক্রিকেটের মধ্যমনি হলেও এক সময় ব্যাডমিন্টন খেলাটাকে সবচেয়ে বেশি পছন্দ তার। সুযোগ পেলেই বন্ধুদের সঙ্গে দল বেধে চিতা নদীতে সাঁতার কাটা ছাড়াও বই হাতে স্কুল পালাতে বেশি পছন্দ তার। বলছি ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মাশরিাফ বিন মর্তুজার কথা। যোগ্য নেতৃত্ব আর সর্তীথদের ভালোবাসায় তিনি এখন লাখো কোটি ভক্তের হৃদয়ের স্পন্দন ।

মাশরাফিকে পাওয়া যাচ্ছে আজকের ডিলে
বইটি বাজারে আসার আগেই বেশ সাড়া ফেলেছে। মাশরাফি ভক্তরা জানতে চান, কোথায় পাওয়া যাবে এই বইটি। ভক্তদের প্রত্যাশার কথা বিবেচনা করে বেশ কয়েকটি মাধ্যমে ‘মাশরাফি’ বইটি বিক্রির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট এর ওয়ান ডে এবং T-20 দলের সর্বকালের সফলতম ক্যাপ্টেন মাশরাফি বিন মর্তুজা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিল ডট কম এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর। এ জন্য আজকের ডিল থেকে বই কিনলে থাকছে থাকছে ২৬% ছাড়! এছাড়াও ২১শে বইমেলায় প্রকাশনী সংস্থা ঐতিহ্য’র স্টলে পাওয়া যাবে বইটি। 

*মাশরাফি* *বই* *নতুনবই* *বইকেনা* *স্মার্টশপিং* *আজকেরডিল*

আ গ ন্তু ক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বইয়ের নামঃ দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন
মূলঃ পলা হকিন্স
অনুবাদঃ কিশোর পাশা ইমন
.
কাহিনী সংক্ষেপঃ 
.
রাচেল প্রতিদিন একই কমিউটার ট্রেনে করে যাতায়াত করে আর চলতে চলতে 
কিংবা সিগন্যালে থেমে গেলে পথের দু-ধারে থাকা পথঘাট, বসতবাড়ি দেখে নানান 
স্মৃতিতে আক্রান্ত হয় সে। এমনই এক বাড়ির এক দম্পতিকে ছাদে কিংবা বারান্দায় 
বসে নাস্তা করতে দেখে রোজ রোজ। এসব দেখতে দেখতে তার মনে হয় সে ওদের 
চেনে। ওই দু-জনের নাম দেয় ‘জেস’ আর ‘জেসন’ হিসেবে। তার দৃষ্টিতে ওদের 
জীবন একদম নিখুঁত--যেটা তার বর্তমান জীবনের সাথে পুরোপুরি বেমানান।
.
তারপর একদিন সিগন্যালে থেমে থাকা ট্রেন থেকে মাত্র কয়েক সেকেন্ডের জন্যে 
একটা দৃশ্য দেখে ভড়কে যায় সে। বদলে যায় সব কিছু। তার ছোট্ট জগতের প্রতিটি 
মানুষের জীবন যে এর সঙ্গে জড়িত! ব্যাপারটা চেপে না গিয়ে পুলিশকে জানালে 
জড়িয়ে পড়ে ঘটনাটার সাথে। এক পর্যায়ে তার মনে হয়, ঘটনাটা পুলিশকে জানিয়ে 
ভুল করলো কি-না--ভালো চাইতে গিয়ে ক্ষতির কারণ হয়ে উঠলো না তো ?
.
বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় আর সমালোচকদের প্রশংসায় ধন্য একটি 
সাইকোলজিক্যাল-থৃলার দ্য গার্ল অন দি ট্রেন--মর্মস্পর্শি আবেগ আর হিচককীয় 
রোমাঞ্চ পাঠককে আবিষ্ট করে রাখবে।
.
পৃষ্ঠাঃ ২৭২
মূল্যঃ ২৬০ 
প্রকাশনীঃ বাতিঘর

*নতুনবই*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে সর্বকালের সর্বসেরা অধিনায়ক, নড়াইল এক্সপ্রেস ও ক্যাপ্টেন ম্যাশ খ্যাত কিংবদন্তী ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজার উপর বই লেখা হয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই অধিনায়কদের জীবন কাহিনী নিয়ে ক্রীড়া বিষয়ক সাংবাদিক ‘দেবব্রত মুখোপাধ্যয়’ লেখেছেন মাশরাফি নামে এক গ্রন্থ। বইটির প্রকাশনায় ছিলেন বিসিএসএ প্রকাশনী। জানা যায় এটি তাদের প্রথম প্রকাশনা।  বইটি আজকের ডিল থেকে কিনলে থাকছে ২৬% ছাড়!  থাকছে অটোগ্রাফ ও পুরস্কার জেতার সুযোগ। 

মাশরাফি
ছোট বেলাটা কেটেছে তার হই-হুল্লোড় আর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে। বর্তমান বাংলাদেশ ক্রিকেটের মধ্যমনি হলেও এক সময় ব্যাডমিন্টন খেলাটাকে সবচেয়ে বেশি পছন্দ তার। সুযোগ পেলেই বন্ধুদের সঙ্গে দল বেধে চিতা নদীতে সাঁতার কাটা ছাড়াও বই হাতে স্কুল পালাতে বেশি পছন্দ তার। বলছি ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মাশরিাফ বিন মর্তুজার কথা। যোগ্য নেতৃত্ব আর সর্তীথদের ভালোবাসায় তিনি এখন লাখো কোটি ভক্তের হৃদয়ের স্পন্দন ।


বইটি কিনলে যত ছাড়!
বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট এর ওয়ান ডে এবং T-20 দলের সর্বকালের সফলতম ক্যাপ্টেন মাশরাফি বিন মর্তুজা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিল ডট কম এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর। এ জন্য আজকের ডিল থেকে বই কিনলে থাকছে বিশেষ ছাড়!
*প্রখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক দেবব্রত মুখোপাধ্যায় এর  লেখা মাশরাফির এই জীবনীমূলক গ্রন্থপ্রি-বুকিং করে জিতে নিন মাশরাফি বিন মর্তুজার সাথে দেখা করে অটোগ্রাফ নেয়া ও ছবি তোলার সুবর্ণ সুযোগ। 
*প্রি-বুকিংকারীদের মধ্য থেকে লটারির দ্বারা নির্বাচিত ৩ জন বিজয়ীকে আমন্ত্রণ জানানো হবে খুলনায় অনুষ্ঠিতব্য মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে।
* থাকছে ২৬% মূল্যছাড়!! শুধুমাত্র আজকেরডিল ডট কম - এ
বিঃ দ্রঃ # ১৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ইং তারিখে মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের পর বই ডেলিভারি দেয়া হবে।
*মাশরাফি* *বই* *নতুনবই* *কেনাকাটা* *বইকেনা* *স্মার্টশপিং*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★