পরিবার

পরিবার নিয়ে কি ভাবছো?

Baijeet Khan: *পরিবার* বলতে বাচ্চারা বা উঠতি বয়সী কিশোর কিশোরীরা বুঝে স্মার্ট ফোন, ইন্টারন্যাট, সারাদিন ফোনে কথা বলা ইত্যাদি। আমাদের সময়ে পিতা মাতা ও অন্যান্যদের সাথে যেমন একটা হৃদরতা ছিল, এখন এটা নেই। আর এটা নিয়ে পরিবার।(রাগী)

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: পৃথিবীর সব থেকে ভয়াবহ অপরাধ, ঘৃনিত কিংবা লজ্জাজনক ঘটনা গুলো ঘটে চার দেয়ালের ভিতর এবং এগুলো ঘটায় পরিবারের কেউ, অতি আপন জন ও বিশ্বাসী মানুষ গুলো।

*বাস্তবতা* *পরিবার* *সম্পর্ক*

রবিন পথিক: একটা বিয়ের অনুষ্ঠানে যে পরিমান টাকা নষ্ট হয়, তা দিয়ে বিশটি পরিবার অনায়াসে এক সপ্তাহ পর্যন্ত পেট পুরে খেয়ে বাঁচতে পারবে।(মনখারাপ)

*বিয়ে* *বিয়েরখরচ* *সামাজিকতা* *লৌকিকতা* *প্রাচুর্য* *প্রতিযোগিতা* *পরিবার* *টাকা*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সেদিন বাসে উঠেছি, পাশের দুটি মেয়ের কথোপকথন কানে এলো, দুজনেই বুরকা পরিহিতা নিকাবি বোন।

১ম জন- “এই তুই কালকের কনসার্টে যাবি?”
২য় জন- “যাব না মানে!! অবশ্যই যাব”
১ম জন- “বাসায় বলসিশ? রাত হবে কিন্তু অনেক। কোন জামাটা পড়বি তুই?”
২য় জন- “আরে পাগল! বাসায় বললে যেতে দিবে নাকি?বলব পরীক্ষার কাজে যেতে দেরী হবে। আর কি পড়ব মানে? ঐ যে জিন্স আর টি শার্ট কিনলাম আমরা ওগুলোই পড়ব। ওপর দিয়ে বুরকা পড়ে নিব ওখানে যেয়েই খুলে ফেলব”
১ম জন-“দারুন মজা হবে রে! শোন ছবিগুলা কিন্তু ভুলেও আমার আগের অ্যাকাউন্ট টে দিবি না! ওখানে সব আত্নীয় আর পুরানো দিনের লোকজন! নতুন এফবি অ্যাকাউন্ট এ পোস্ট করবি, বুজছোস?”
২য়- “হ ভালা বলছিস। তুইও মনে রাখিস, আমারগুলাও ফেক অ্যাকাউন্টেই দিস দোস্ত, আগেরটা তে তো সবাই আমারে অন্য রকম মনে করে...হিহিহিহি”

বোন দুজনের কথাবার্তা শুনে ছোটবেলায় পড়া একটা শব্দই মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল আর আর তা হল-“মুনাফিক”

সংজ্ঞাটা বেশ সহজ -যার ভিতরের অবস্থা প্রকাশ্যের বিপরীত তাকে নিফাক বলে আর যার মধ্যে নিফাক রয়েছে সে ব্যক্তিই মুনাফিক।
তবে এর ব্যাখ্যাখানা মোটেও সহজ নয়।

প্রথমেই মুনাফিকদের সম্পর্কে একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার জানা থাকা দরকার। এনারা দুই ধরণের হয় – ১) যারা নিজেরা জানে যে তারা মুসলিম নয় এবং তারা মুসলিম সেজে গুপ্তচরের কাজ করে, ২) যারা মুসলিম, কিন্তু তারা নিজেরা বোঝে না যে তারা আসলে মুনাফিক।

দ্বিতীয় ধরণের মুনাফিকদের ব্যাপারে আপনি-আমি কখনই বলতে পারবো না তারা মুনাফিক কিনা। ইসলাম কাউকে অধিকার দেয় না অন্য কাউকে মুনাফিক ঘোষণা দেওয়ার। শুধুমাত্র গুপ্তচর ধরণের মুনাফিকরা যদি কখনও ধরা পড়ে যায়, শুধু তাদেরকেই তখন মুনাফিক ঘোষণা দেওয়া যাবে। কিন্তু যারা মুসলিম, যারা এই ধরণের গুপ্তচর নয়, তাদেরকে কখনই মুনাফিক বলার অধিকার ইসলাম আমাদেরকে দেয় না। কারণ এই দ্বিতীয় প্রকারের মুনাফিক কারা, সেটা কেউ বলতে পারে না। আমিও এই দ্বিতীয় প্রকারের মুনাফিক হতে পারি, আপনিও হতে পারেন। আল্লাহর দৃষ্টিতে আমাদের মধ্যে কে এই দ্বিতীয় ধরণের মুনাফিক সেটা জানার ক্ষমতা আমাদের কারো নেই। শুধুমাত্র আমাদের আল্লাহ্ যিনি আমাদের মনের ভিতরে কি আছে তা ঠিকভাবে জানেন, শুধু তিনিই বলতে পারেন কারা এই দ্বিতীয় ধরণের মুনাফিক। তবে কিনা যারাই মনে করেন যে তাদের পক্ষে মুনাফিক হওয়া কোনোভাবেই সম্ভব না, তারা একজন পাক্কা মুসল্লি, তারাই আসলে এক ধরণের মুনাফিক।

এধরণের মানুষ নিজেদেরকে সবসময় বোঝায় যে – তারা একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই কাজ করে যাচ্ছে – কিন্তু আসলে তাদের কাজের আসল উদ্দেশ্য থাকে অন্য কিছু। এধরণের মানুষরা প্রায়ই নিজেদের মনে মনে বলে, “আল্লাহ, আপনার জন্যই এটা করলাম কিন্তু। আমাকে আখিরাতে এর প্রতিদান দিয়েন।” শুধু তাই না, তারা মানুষকেও এধরণের কথা বলে বেড়ায়, “ভাই, আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য রোজা রেখেছি, নামাজ পড়েছি, হজ্জে যাচ্ছি কিংবা আল্লাহর ওয়াস্তে মসজিদে টাকা দান করলাম, আমার জন্য বেশি বেশি করে দোয়া করবেন, যেন আপনাদের আরও উপকার করতে পারি।”

এদের সম্পর্কে আল্লাহ্‌ বলেছেনঃ
“তাদের অন্তরে আছে এক অসুখ, তাই আল্লাহ তাদের অসুখকে বাড়তে দেন। এক অবিরাম কষ্টকর শাস্তি অপেক্ষা করছে তাদের জন্য, কারণ তারা এক নাগাড়ে মিথ্যা [অস্বীকার, প্রতারণা] বলতো”। [বাকারাহ-১০]

মুনাফেকি হচ্ছে এক কঠিন অন্তরের অসুখ। খুব সাবধানে লক্ষ করে দেখতে হবে আমার আপনার ভেতরেও এই অসুখের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে কীনা।
মুনাফেকি একজন মানুষের মধ্যে তখনি আসে, যখন সে কোনো কাজের জন্য আল্লাহ্‌র পাশাপাশি অন্য কারো কাছ থেকে প্রশংসা, সন্মান, বাহবা পাওয়ার চেষ্টা করে তথাপি সে লুকিয়ে বা গোপনে কিংবা অন্য কোন স্থানে প্রকাশ্যে আল্লাহ বিরোধী কাজকর্ম করে। সে নিজেকে বোঝানোর চেষ্টা করে যে, সে কাজটা করছে আসলে আল্লাহরই উদ্দেশ্যে । কিন্তু প্রকৃতপক্ষে তা শুধুই লোকদেখানো, আড়ালে সে অন্যকাজেই মশগুল।অথচ সে মনে মনে ভাবছে সে আদর্শ মুসলমান!
হায়রে! আপনি আমি একজন মুসলিম হওয়া তো অনেক দূরের ব্যাপার আগে একজন প্রতারক হওয়া থেকেই বিরত হই, একজন ভালো, সৎ মানুষ হয়েই দেখাইনা তারপর চিন্তা করি নাহয় আমরা মুসলিম কিনা!
মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আমাদের সকলকেই এই Self Delusion থেকে মুক্ত হতে সাহায্য করুন। আমীন।

*মেয়ে* *কনসার্ট* *মুনাফিক* *সংগৃহীত* *পরিবার* *ফেসবুক*

সাদাত সাদ: একটি পরিবারের দায়ভার যখন শুধুমাত্র একজনের উপর আসে তখন সেই মানুষটাই অনুধাবন করতে পারে আসলে দুনিয়া টা কি। মাসের শেষে সবার আবদার মেটাতে গিয়ে দেখা যায় সেই মানুষটার পকেটই ফাঁকা, হাহা হায়রে জীবন!! জীবন মানেই ধোকা - আর আমরা সবাই বোকা (ফুঁপিয়েকান্না)

*জীবন* *পরিবার* *জীবন_সংসার*

আড়াল থেকেই বলছি: [নান্টু-আইডিয়া]কিছু কিছু বাবা-মায়ের স্ট্রাকচার ছেলে-মেয়েরা ফলো করে, এতে করে চলে আসে বাবা-মা তথা ছেলে-মেয়েদের মধ্যে নিদারুন আধুনিকতা,আর এই আধুনিকতার করাল গ্রাস দূরে সরিয়ে দিচ্ছে একে অন্য কে

*পরিবার*

ইসরাত: *পরিবার* বিচ্ছিন্নতা গ্রাস করেছে এখনকার পরিবারগুলোকে | আমার রুম আমার অমুক আমার তমুক বাড়িয়ে দিচ্ছে একের সাথে অন্যের দূরত্ব |

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: শুভ সকাল বেশতো এর পরিবার এর সকল সদস্যকে ।। আসুন না সকাল বেলা শুরু হোক কোন একটা ভালো কাজ দিয়ে ।। *শুভসকাল* *বেশতো* *পরিবার*

*বেশতো* *পরিবার*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

সেই পরিবার সব চেয়ে উত্তম " যে পরিবারে ইন্ডিয়ান সিরিয়াল দেখার মতো কোন সদস্য নেই "" ------ইন্ডিয়ান বিদ্রোহী সাইকো ।।
*রসিকতা* *সমাজ* *ইন্ডিয়ান* *সিরিয়াল* *পরিবার* *জোকস*

♦ মমিতা ♦: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

(মনখারাপ) [বাঘমামা-সর্বনাশ]
নিজের খেয়াল রাখুন পরিবারের সবাইকে সময় দিতে চেষ্টা করু, টাকার পিছু ঘুরেফিরে আপনার মূল্যবান সময় একটু কম ব্যয় করুণ।
*পরিবার* *উপদেশ* *মমিতা* *মূল্যবানসময়*

কে এম মেজবাউল হক: একটি বেশব্লগ লিখেছে


সমাজে ৫০ ভাগ বিবাহিত নর-নারী সংসার জীবনের অশান্তির কারণ হচ্ছে পরিবারিক গোড়ামী।

এদের মধ্যে কেউ আত্মহত্যা করে
কেউ পরকিয়ায় জড়িয়ে পরে
কারো বিবাহ বিচ্ছেদ হয়
কেউ স্বামী কে ছেড়ে প্রেমিকের সাথে পালায়
কেউ স্বামী কে হত্যা করে টাকা পয়সা নিয়ে পালায়

বাবা মা রা ও তো একটা সময় যৌবন ছিলেন, যাদের কোলে মাথা রেখে যে ছেলে মেয়েরা নিশ্চিন্তে ঘুমিয়েছে এতোদিন তারা কিভাবে নিজের শরীরের একটা অংশ এভাবে অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দেয়। ভাবতেই অবাক লাগে।

আর যারা এই ধরণের সমস্যায় পরবেন দয়া করে বাবা মার রাগ জেদ এর কাছে হার না মেনে তাদের বোঝানোর চেষ্টা করুন। যে বাবা মা সন্তানের মুখের হাসির জন্য এক বেলা না খেয়ে একটা দামি খেলনা কিনে দিতে পারে তাদের নিশ্চই আপনার সারাজীবনের সুখের চেয়ে রাগ বা জেদ টা বড় হয়ে দাড়াবে না। মনে রাখবেন আপনার আজকে নিরবতা কাল আরেকটা পরিবারকে ধ্বংস করে দিতে পারে।
*জীবন* *ভালবাসা* *পরকিয়া* *বিবাহ* *বাবা-মা* *পরিবার* *স্বামী* *বিচ্ছেদ*

♦ মমিতা ♦: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

[ভাউ-অবাক]
সন্দেহ জিনিস টাই খারাপ, এই সন্দেহের ফলে ধ্বংস হয়ে হাজারো পরিবার
*পরিবার* *ধ্বংস*

সাদাত সাদ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 পরিবারের দেখাশুনা করেও কিভাবে সঞ্চয় করা যেতে পারে?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*সঞ্চয়* *পরিবার* *আয়রোজগার*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★