পাপ

পাগলা হাওয়া: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 পাপ থেকে মুক্তি লাভের উপায় কি?

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

.
*পাপ* *বিদাআত*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

এলাকার মান্যগণ্য সকলের আলোচনার ভিত্তিতে সিমিনের নতুন নাম দেয়া হলো ধর্ষিতা। তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে এই নতুন নাম দেয়া হলো। নামটা যদিও নতুন নয়, এর আগেও অনেককে এমন নাম দেয়া হয়েছিলো। তাদের সবাই ছিলো নারী । ব্যাকরণ এবং মানব সমাজের ভাষায় এ নাম শুধুমাত্র স্ত্রীলিঙ্গের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য । এই ঘটনার উপর ভিত্তি করে হঠাৎ এলাকায় বুদ্ধিজীবীদের সংখ্যা বেড়ে গেলো । ধর্ষণের কারণ এবং ধর্ষণের পেছনে ধর্ষিতার কী কী উপসর্গ এবং অনুসর্গ ছিলো তা নিয়ে চলছে অলিতে গলিতে চুলচেরা আলোচনা । যাবতীয় জ্ঞানগর্ব উক্তি এবং উদাহরণ দিয়ে একে অপরকে বুঝাচ্ছে সিমিনের শারীরিক অঙ্গভঙ্গি, পোষাক পরিচ্ছদ এবং চারিত্রিকগতভাবে কতটুকু ইন্ধন জুগিয়েছিল এই ধর্ষণের পেছনে । এ সুবাদে সুরজের চায়ের ব্যবসা হয়ে গেল চাঙ্গা, সে চা বানাতে বানাতে বারবার একটা দ্বন্ধের মধ্যে পড়ে যায় সিমিন মেয়েটার দোষ কোথায় তা ভেবে । সে যতটুকু সিমিনকে দেখেছে বা জানে তাতে সিমিন ভদ্র পরিবারের একজন নম্র ভদ্র এবং শালীন পোশাক পরেই চলাফেরা করা একটা মেয়ে। সিমিনকে দেখে সিরাজও মাঝে মাঝে ভাবতো তার ছোট্ট মেয়েটাকে সিমিনের মত বানাবে।

এলাকার এই উত্তাপের মধ্যে হঠাৎ পানি ঢেলে দিলো কুদ্দুস পাগলা, সে বলে বেড়াচ্ছে এই ধর্ষণের পেঁছনে সিমিনের কোন দোষ নাই, তোরা যারা সিমিনের দোষ দিচ্ছিস সবাই নরকে পুড়বি । এ কথা শুনে সবাই একটু ঘাবড়ে গেলো। কারণ কুদ্দুস পাগলাও একসময়ের ধর্ষক ছিল । এরপর থেকেই সে পাগল । সেই রাতে এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটলো । যারা যারা সিমিনের দোষ দিয়েছিলো তারা স্বপ্ন দেখলো, ফুলসজ্জার নরম বিছানায় তাদেরকে ধর্ষণ করছে একদল পুলিঙ্গধারী নারী। রক্তে লাল হয়ে যাচ্ছে বিছানা। আর সিমিন তা দেখে হো হো করে হাসছে। পরদিন সকালে পাগলের বেশে একদল পুরুষ ধর্ষিতা কুদ্দুস পাগলের পেঁছন পেঁছন এলাকা থেকে বের হয়ে গেল, সিরাজ তাদের দিকে তাকিয়ে আছে।

*ধর্ষন* *সমাজ* *পাগল* *পাপ*

বিম্ববতী: গতকাল রাত থেকে মনটা ভীষণ অন্যরকম একটা কষ্টে ডুবে আছে,,,একটা চোখের কি তীব্র প্রশ্ন আমাকে কিছুতেই শান্ত থাকতে দিচ্ছে না,,,,,সেই চাহনির কোনো উত্তর কি আমাদের আছে ওই নতুন প্রজন্মকে দেয়ার !!,,,কিসের আশায় এই রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে আমরা মুনাফাভোগী অপ-দেবতাদের সমর্থন দিয়ে যাচ্ছি আজন্ম অপ-ব্যবহৃত হয়ে???,,,(বৃষ্টি),, 'ফিরাক' একটি সিনেমা'র নাম,,https://goo.gl/oBfNtI

*ধর্ম* *সাম্প্রদায়িকতা* *অপ-দেবতা* *বাজারজাতকরণ* *যুদ্ধ* *পাপ* *কষ্ট* *নতুন-প্রজন্ম* *শিশু* *মুনাফাভোগী* *সিনেমা* *মুভি*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আজকাল বিভিন্ন ইসলামিক নাম আমাদের হাসি তামাশার খোরাক হয়ে উঠেছে। একজন মুসলিম হয়েও
অজ্ঞতার বশবর্তী হয়ে এই গোনাহর কাজ করে চলেছি। আসুন দেখি এর কিছু উদাহরণ -
.
১) মোখলেস: টিভি-রেডিওতে ‘প্রাণ ম্যাঙ্গো ক্যান্ডির কল্যাণে’, এই নামটিকে ফান হিসেবেই দেখা হয়। এমনকি যাদের নাম মোখলেস, তারাও এই নাম নিয়ে
বেশ বিপাকে পড়েন আমরা কি কখনো চিন্তা করে দেখেছি, এই নামটির অর্থ কী ? মোখলেস নামটি
আরবি ‘এখলাস’ শব্দ থেকে এসেছে। যার অর্থ,একনিষ্ঠভাবে এবাদত করা। আল্লাহর নিকট ইখলাস ছাড়া কোনো আমলই গ্রহণযোগ্য নয়। আর সেই
নামকেই আমরা ফান বানিয়েছি?
.
২) মফিজ: এটি একটি আরবি নাম, যার অর্থ সফলকাম হওয়া। সাধারণত পরকালের সফলতা বুঝাতেই শব্দটি
ব্যবহৃত হয়। আমরা কে না চাই পরকালে সফল হতে ? তবে কেন ‘ম্যাজিক টুথ পাওডারের কল্যাণে’ এই নাম নিয়ে ঠাট্টা করি। পরকালের সফলতা নিয়ে যদি
ঠাট্টা করি, তবে কি আসলেই আমরা পরকালে সফল হতে পারবো?
.
৩) আবুল: এই নাম নিয়ে সবচেয়ে বেশি ফান করা হয়। আমরা কি এই নামের মাহাত্ম্য জানি ? আমাদের
নবীর (স.) এর উপনাম আবুল কাসেম। যার অর্থ হল "কাশেমের পিতা" ভাবুন, কি নিয়ে ফাজলামি করছি।
যেখানে তার নামকে সন্মান করা দরকার ছিলো, সেখানে আমরা তাঁকে নিয়ে ব্যঙ্গ করছি ! হায়রে মুসলিম !
.
৪) কুদ্দুস: সর্বাধিক ফান করা হয় এই নামটি নিয়ে। অথচ আল্লাহর একটি গুনবাচক নাম। যার অর্থ ‘মহাপবিত্র’।
কেউ যদি কাউকে শুধু কুদ্দুস বলে, তবে তার পাপ হবে। কারণ এটি আল্লাহর সিফাতী নাম। বলতে হবে আব্দুল
কুদ্দুস। চিন্তা করে দেখুন, আমরা আল্লাহর নাম নিয়েও রসিকতা করছি। আমাদের ঈমানের অবস্থা কেমন?
.
৫) মমিন: আসলে এর শুদ্ধ উচ্চারণ হবে মুমিন। একজন পূর্ণাঙ্গ ঈমানদারকেই মুমিন বলে। কিন্তু দেখুন, ফেসবুকসহ বিভিন্ন স্থানে "কস কি মমিন" বলে
নামটিকে ব্যঙ্গ করা হচ্ছে। এবার বলুন, আর কী নিয়ে আমাদের ফান করা বাকী আছে? আমরা কী একটু সচেতন হতে পারি না? কবে আমরা আমাদের
ইতিহাস জেনে নিবো?
.
আমরা মুসলমান হয়েও ইসলামকে কতোটুকু মর্যাদায়
রেখেছি?
,
আর সবশেষে কোরআন মাজীদের একটি আয়াত দিয়ে শেষ করতে চাই-"একে অপরকে মন্দ নামে ডেকো না।
কেউ বিশ্বাস স্হাপন করলে তাকে মন্দ নামে ডাকা গোনাহ। যারা এহেন কাজ থেকে তওবা না করে
তারাই জালেম।" [সূরা হুজরাত-
আয়াতঃ১১]
*সংগৃহীত* *ইসলাম* *নাম* *পাপ*
*ইসলাম* *নাম* *পাপ*

♦ মমিতা ♦: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

আল্লাহ কাউকে শাস্তি দিতে চান না মানুষ নিজেই তাঁর পাপের ফল ভোগ করে
*পাপ*

সমুদ্র তীর: আল-খাতীব আল-জামী'(২/৩৮৭) গ্রন্থে বর্ণনা করেন যে ইয়াহইয়া বিন ইয়াহইয়া বলেনঃ এক ব্যক্তি মালিক ইবনে আনাসকে প্রশ্ন করেছিলেন, আল্লাহ, আমার স্মৃতিশক্তিকে শক্তিশালী করে দিতে পারে এমন কোন কিছু কি আছে? তিনি বলেন, যদি কোন কিছু স্মৃতিকে শক্তিশালী করতে পারে তা হলো পাপ করা ছেড়ে দেয়া।

*স্মৃতিশক্তি* *পাপ*

দস্যু বনহুর: [কাকতাড়ুয়া-হায়রেকপাল] মানুষের পাপ করার প্রবনতা এবং পাপ করে ক্ষমা চাওয়ার প্রবনতা দুটোই মারাত্মক পাপ।

*পাপ*

রুবেল: সমস্ত পাপের উৎস হ'ল তিনটি- ১.অহংকার,যা ইবলীসের পতন ঘটিয়েছিল ২.লোভ,যা জান্নাত থেকে আদম-কে বের করে দিয়েছিল ৩.হিংসা,যা আদম (আ:)-এর এক সন্তানের বিরুদ্ধে অপর সন্তানকে প্রতিশোধপরায়ণ করে তুলেছিল যে ব্যক্তি উক্ত তিনটি বস্তুর অনিষ্ট হ'তে বেঁচে থাকতে পারবে সে যাবতীয় অনিষ্ট হ'তে বাঁচতে পারবে। কেননা কুফরীর মূল উৎস হ'ল "অহংকার"। আল-ফাওয়ায়েদ,পৃ:৫৮

*আলহাদিস* *পাপ*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: রাসূল (সাঃ) বলেনঃ হারানো সন্তান ফিরে পেলে মা বাবা যেমন খুশি হয়, তেমনি আল্লাহর কোনো পাপি বান্দা তওবা করলে আল্লাহ তার চেয়ে বেশি খুশি হন। ______আল হাদীস *আল-হাদীস* *পাপ*

*পাপ*
৪/৫

হাফিজ উল্লাহ: [বাঘমামা-প্যাচখায়াগেলাম] মানুষের উপর বিশ্বাস হারানো পাপ আবার অতিরিক্ত বিশ্বাস করা বোকামি.....!

*বিশ্বাস* *অতিরিক্ত* *বোকামি* *পাপ*

jayed জায়েদ: "...অনুশোচনা হচ্ছে পাপ, দুঃখের এক নিপুণ ছদ্মবেশ । তোমাকে বাঁচাতে পারে আনন্দ । তুমি তার হাত ধরো, তার হাত ধরে নাচো, গাও, বাঁচো, ফুর্তি করো । দুঃখকে স্বীকার করো না, মরে যাবে, ঠিক মরে যাবে।...." ----নির্মলেন্দু গুণ

*পাপ* *দুঃখ*

পাগলী: পাপ কোনো অন্যায় নয়, অপরাধ অন্যায়। পাপ ব্যক্তিগত, তাতে সমাজের বা অন্যের, এমনকি পাপীর নিজেরও কোনো ক্ষতি হয় না; কিন্তু অপরাধ সামাজিক, তাতে উপকার হয় অপরাধীর, আর ক্ষতি হয় অন্যের বা সমাজের। -হুমায়ূন আজাদ

*পাপ* *অপরাধ* *সমাজ*

★ছায়াবতী★: [পিরিতি-হৃদয়েআমারআগুনজ্বলে]] *জন্ম* ই আমার আজন্মের *পাপ* ।

*পাপ*

কাকতাড়ুয়া: আমি নিসিদ্ধ পাপে জর্জরিত ভ্রমর। কুমারী গোলাপের কুমারিত্ত হরণ করার পাপে পাপিষ্ঠ আমি। ইচ্ছে করে প্রজাপতির মত- বিষ শুষে নিয়ে গোলাপকে করি বিষমুক্ত। কিন্তু রক্ত পিপাসু পিশাচের মত শিরায় শিরায় নেশা জেগে ওঠে; গোলাপ হারায় তার কুমারিত্ত আর আমি হয়ে উঠি পাপি।।

*পাপ*

সুফী ম্যাভেরিক: *পাপ* নিয়ে যতটা মাথা ঘামাই আমরা ছোট বেলা থেকে - *ন্যায়* এবং *অন্যায়* নিয়ে অতটা মাথা ঘামাইনি আমরা কখনোই. তাই সব পাপ এখানে *অপরাধ* নয়, যদিও সব অপরাধেই পাপ হবার কথা.

গোলাম মুক্তাদির: জীবনের লক্ষ্য যদি হয় *মৃত্যু* তাহলে জীবনের বাকে বাকে *পাপ* গ্রাস করতে পারবে না !

*মৃত্যু* *পাপ*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★