পূজারফ্যাশন

পূজারফ্যাশন নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

পূজোর বাকি হাতে গোনা আর মাত্র কয়েকটা দিন। শুরু হয়ে গেছে কাউন্টডাউন। প্রত্যেকেই ব্যস্ত পূজোর পরিকল্পনা নিয়ে। কেউ ব্যস্ত নিজেকে সাজাতে। আবার কেউ ব্যস্ত অপরকে সাজাতে। এই দুইয়ের মিশেলে চরম উন্মাদনায় চলছে পূজোর কেনাকাটা। সবখানেই ক্রেতাদের ভিড় থিকথিক করছে। বিশেষত শাড়ির দোকানগুলিতে একেবারে উপচে পড়ছে ভিড়। কারণ দুর্গাপূজোতে শাড়ি ছাড়া বাঙালি হিন্দুকে ঠিক মানায় না। তাই সবার একটাই লক্ষ্য, পছন্দের শাড়ি কিনে বাড়ি ফেরা! পূজো উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের সব থেকে বড় অনলাইন শপিং মল আজকের ডিলেও চলছে নানা আয়োজন, আছে হরেক রকমের শাড়ির কালেকশন। বছররের অন্য সময় যাই পরুন না কেন, পূজোর পাঁচটা দিন শাড়ি ছাড়া হবেনা...

এবার শারদ উৎসবে যাঁরা সাজতে চান বারো হাতে, তাদের জন্য আমাদের আজকের এই আয়োজন।  চলুন জানিয়ে দেই পূজোর পাঁচদিন শাড়িতে কিভাবে আপনি হয়ে উঠতে পারেন শারদ সুন্দরী।

 

 

 

 

 

 

 

 

ষষ্ঠী: ষষ্ঠীতে ব্লক, বাটিক বা ছবি আঁকা শাড়ি: এবার পূজোর ফিউশন ফ্যাশন বেশ আড়ম্বরের সাথে চলছে। তাই শুরুতেই চমকেদিন সবাইকে। ষষ্ঠীতে পরুন নানান ধরণের চিত্র আঁকা ব্লক প্রিন্টের শাড়ি। তবে ব্লকের জন্য প্রাকৃতির রং ব্যবহার করা হলেও পোশাকে কিন্তু ব্যবহার করা হয় ফেব্রিক।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সপ্তমী: হ্যান্ডলুমের শাড়ি এখন ট্রেন্ড চলছে। তাই সপ্তমীর সন্ধ্যায় বেছে নিতে পারেন চওড়া পার দেওয়া একরঙা হ্যান্ডলুমের শাড়ি। জানিয়ে রাখি ডার্ক কালার এবার মাতাবে পূজোর বাজার। তাই লালা, কমলা, গাঢ নীল, ডার্টি পিঙ্ক এগুলি বেছে নিন। এছাড়া এইদিন মটকা, জুটের শাড়িও বেছে নিতে পারেন। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

অষ্টমী: পূজোর আর চারটে দিন যে যাই পড়ুক না কেন অষ্টমীর দিন সকালটা কিন্তু শাড়ি মাস্ট। আর সেটা অবশ্যই ঢাকাই লাল পাড়ে সাদা শাড়ি। তবে এইদিন সকালে এক কালারের ঢাকাইও পরতে পারেন। যেক্ষেত্রে কচি কলাপাতা, ডিপ গ্রিন কিংবা হলুদ। অষ্ঠমী মানেই একটা ট্রেডিশনাল লুক। তাই ট্র্যাডিশনাল গাদোয়াল, বোমকাই, ঢাকাই শাড়ির সঙ্গেই ফ্যাশনে ফিরেছে সুতির শাড়ির ইন্টেলেকচুয়াল লুক। নানা উজ্জ্বল রঙে একেবারে প্লেন বোনা শাড়ির সঙ্গে পিঠখোলা বা ডিপ নেক সাহসী ব্লাউজে থাক লটকন বা ফিতের বাঁধন। এছাড়া আধুনিক ডিজাইনের সিল্ক ও সুতির কাঁথা শাড়ি, বাংলাদেশের কটন সিল্ক রাজশাহী শাড়ি, খাদির নীলাম্বরী জামদানি, সহজপাঠ আর জাতকের গল্পে সাজানো বাটিক এবং টাই অ্যান্ড ডাই শাড়িও।


 

 

 

 

 

 

 

নবমী: পূজোর শেষের রাত, তাই নবমীর দিন চাই জমকালো শাড়ি। এক্ষেত্রে কাঞ্জিভরম বা কাটান খুব ভাল। এছাড়া ভারি কাজ করা কোনও ডিজাইনার শাড়ি বেশ মানাবে। পূজোর শেষ রাতে নিজেকে রাঙিয়ে তুলুন শারদিয়ার রঙে। নেটের শাড়ি এবার আউট অব ফ্যাশন, তবুও ভালো কালেকশন পেলে কিনতেই পারেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

দশমী: মা-কাকিমারা এই দিনটি লাল পাড়ে সাদা শাড়ি ছাড়া বিশেষত কিছু পরেন না। তবে  যদি সাদা শাড়িতে দাগ লাগার ভয় থাকে তাহলে এইদিন গাঢ় রঙের কোন শাড়ি পরুন, তবে বেছে নিতে পারেন লাল রঙকে। সিঁথি ভর্তি সিঁদুর, কপালে লাল টিপস, শাখা-পলা আর লাল শাড়িতে আপনি হয়ে উঠুন সকলের মধ্যমনি,  তবে এইদিন সুতির চেয়ে সিল্ক বা গরদ পরাই বুদ্ধিমানের কাজ।

*পূজারফ্যাশন* *শাড়ি*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★