পূজোর সাজ

পূজোরসাজ নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ছেলেদের পূজা ফ্যাশনফ্যাশনে লেগেছে নতুন হাওয়া। বিশেষ করে শারদীয় দূর্গাপূজাকে ঘিরে ফ্যশন হাউজ গুলোতে চলছে সাজ সাজ ভাব। সাজসজ্জার ধারাও অবশ্য পাল্টেছে। মেয়েদের তুলনায় ছেলেরাও ফ্যাশনে একদম পিছিয়ে নেই। তাইতো এবার পূজায় মেয়েদের চেয়ে ছেলেদের পোশাক আশাকেই বেশি ভিন্নতা দেখা যাচ্ছে। অন্যান্য দিনের চাইতে কিছুটা ফিটফাট থাকতে হয় পূজার সময়। আর সেকারণেই কিছুটা আলাদা সাজগোজ। ছেলেদের তো আর মেয়েদের মতো ত্বকের দিকে খুব বেশি লক্ষ্য করতে হয় না এবং মেকআপের ঝামেলায় যেতে হয় না। ছেলেদের ক্ষেত্রে শুধু পোশাক আশাক ও অন্যান্য এক্সেসরিজের দিকে লক্ষ্য রাখলেই চলে। চলুন ছেলেদের কিছু পোশাক দেখে নেই।


পূজায় ছেলেদের পোশাক ফ্যাশন

কিনতে ক্লিক করুন

পূজায় সব ফ্যাশন হাউজগুলোই ছেলেদের পোশাকের বেশ সমরাহ দেখা যাচ্ছে। পূজার ক্ষেত্রে ধুতি-পাঞ্জাবি-উত্তরীয় সাধারণত পুরুষদের জন্য ঐতিহ্যবাহী পোশাক হলেও তরুণরা ধুতি পাঞ্জাবী একটু কমই পড়েন। তরুণ বয়েসী ছেলেরা টি-শার্ট, শার্ট, প্যান্ট, ফতুয়া পড়তেই বেশি আগ্রহী।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুনতবে পূজায় এখনও পাঞ্জাবি আর ধুতির আবেদনটাই একেবারে আলাদা। তবে অনেকেই আজকাল স্টাইলে জিন্স ও টিশার্ট  ব্যবহার করছে। দেশের বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজে ইতোমধ্যেই উঠে গিয়েছে নানান স্টাইলের পাঞ্জাবি। তবে পূজার পাঞ্জাবির ক্ষেত্রে সাদার রঙই পছন্দ সকলের। এর পাশাপাশি চলে ঘিয়া রঙের পাঞ্জাবীও। পাঞ্জাবীর জন্য এন্ডি সিল্ক, সিল্ক, জামদানি, মসলিন , সিল্ক , জামদানি, মসলিন, রেশমী কটন, ধুপিয়ান কাপড় পছন্দ অনেকের। তবে এক্ষেত্রে দিনের বেলা হালকা রঙের পাঞ্জাবিই প্রাধান্য দেন ছেলেরা। সাদা, ঘিয়ার পাশাপাশি শরতের স্নিগ্ধতা বজায় রাখতে নীল রঙও অনেকে ব্যবহার করেন পাঞ্জাবীর জন্য। এবং রাতের জন্য গাঢ় রঙের পাঞ্জাবী নির্বাচন করাই ভালো। লাল, কালো, সবুজ, চকলেট, মেরুন ইত্যাদি রঙের পাঞ্জাবী নির্বাচন করতে পারেন।

এক্সেসরিজঃ  

কিনতে ক্লিক করুন

পূজায় পোশাকের পাশাপাশি এক্সেসরিজের দিকে লক্ষ্য রাখার প্রয়োজন রয়েছে। পূজার সময় মণ্ডপের আশেপাশে থাকতেই বেশি আনন্দ। সে আনন্দ দ্বিগুণ করে দিতে পারে সঠিক এক্সেসরিজ নির্বাচন।

জুতো ও স্যান্ডেলঃ

   কিনতে ক্লিক করুন     
পূজায় অনেক হাঁটতে হয় এবং মন্দিরে প্রবেশের সময় জুতো খুলে ঢুকতে হয়। তাই এইসময় জুতো পরার কোনো প্রয়োজন নেই। স্যান্ডেল জাতীয় জুতো পড়ুন যা পড়ে আপনি আরামে হাঁটতে পারবেন এবং দ্রুত খুলে ফেলতে পারবেন। এছাড়া পাঞ্জাবীর সাথে স্যান্ডেলই মানাবে। অন্যান্য পোশাকের মধ্যে ফতুয়া বা টী-শার্ট পরলেও স্যান্ডেল পড়তে পারবেন। আর একটু ট্র্যাডিশনাল সাজে থাকতে চাইলে কোলাপুরি স্যান্ডেল তো রয়েছেই।

সানগ্লাসঃ

কিনতে ক্লিক করুন
দিনের বেলা রোদের কারণে এবং ধুলোবালি থেকে বাঁচতে হাতের কাছে অবশ্যই রাখবেন সানগ্লাস।

আর পূজোর সাজ পোশাকে নিজেকে বদলে নিতে আজই ঢুঁ মারুন আজকের ডিল ডটকমে

*পূজোরসাজ* *পূজারসাজ* *কেনাকাটা* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

লেটেস্ট জিন্স প্যান্ট কালেকশন  আর ক’দিন বাদে শারদীয় দূর্গা উৎসব। এই উৎসবেও ছেলেদের সেরা পছন্দ ভিন্ন ধমী জিন্স প্যান্ট। তবে মেয়েরাও ফ্যাশনে স্টাইলিশ জিন্স প্যান্ট ব্যবহার করছেন। পূজা ফ্যাশনে জিন্সের ধারণা খুব একটা নুতন নয়। আর পোশাকের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে জিন্সের চলন শুরু বহু আগে থেকে। সর্বপ্রথম উনিশ শতকের দিকে জিন্সের উদ্ভোবন। এর পর থেকে সেই স্টাইল সারা দুনিয়া জুড়ে বিখ্যাত হয়ে উঠে, যার চলন আজো অমলিন। ছেলে মেয়ে উভয়ের জন্য জিন্সের বিভিন্ন স্টাইল জনপ্রিয়। চলুন পূজা উপলক্ষ্যে আকর্ষণীয় এই পোশাকের লেটেস্টে কালেকশন গুলো দেখে নেই।

মেনজ ফ্যাশনে জিন্স

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন

সামনে পূজা তাই পূজোর উৎসবকে সামনে রেখে জিন্স প্যান্টের বাজার বেশ নড়ে চড়ে বসেছে। স্টাইলিশ সব জিন্সের পশরা সাজিয়ে পসেছে ফ্যাশন হাউজ গুলো। এবারে বিভিন্ন বয়সের লোকেরা পছন্দের পোশাকের তালিকায় একটি বড় জায়গা দখল করে আছে আঁটসাঁট-প্রকৃতির জিন্স। অনেকেই আবার একটু ঢিলেঢালা প্যান্ট পরতেই বেশি পছন্দ করে। কেউ বা আবার গ্যাবাটিন প্যান্টের দিকে ঝোঁক দিচ্ছে।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন
একটা সময়ে জিন্স মানেই ছিল অনেক মোটা কাপড় আর শীতের সময়ে আরামদায়ক এমন পোশাক। কিন্তু এখন সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলে গেছে জিন্স। যেহেতু তরুণ-তরুণীরা দিনের অনেকটা সময় বাইরে থাকে, তাই তাদের আরামের কথা ভেবেই এখন জিন্সের প্যান্ট তৈরি করা হয়।
এখন জিন্সের প্যান্ট অনেক পাতলা ও নরম কাপড়ের হওয়ায় এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে অনেক। রং ও সুতার ব্যবহারে এখন মাথায় রাখা হয়। তাই শীত-গ্রীষ্ম সব সময়ই জিন্স আরামদায়ক।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন
যেমন চলছে এ সময়ের ট্রেন্ড মূলত হালকা কাপড়ের জিন্স। ন্যারো কাটের প্যান্টগুলো বেশি চলছে। কেউ কেউ আবার স্কিন ফিটিং নিচ্ছে। যাদের বয়স ত্রিশের ওপরে, এমন লোকেরা স্লিম ফিট পছন্দ করছেন বেশি।
ন্যারো কাট থেকে লো-রাইজ জিনস। স্লিম থেকে স্কিনি জিনস। বদলে যাওয়া সময়ের ফ্যাশনের সঙ্গে সঙ্গে পাল্টেছে জিনসের প্যাটান। কিন্তু ফ্যাশন ট্রেন্ডে কমেনি জিনসের জনপ্রিয়তা। এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া কঠিন যিনি কখনো জিনস পরেননি।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন
সব বয়সী মানুষের পছন্দের তালিকায় জিনস জায়গা করে নিলেও দিনে তরুণ-তরুণীদের মধ্যে এর আকর্ষণ আর আবেদনটা সবচেয়ে বেশি। অন্য অনেক কিছুর মতোই পাশ্চাত্য থেকে আসা জিনসের প্যান্ট একটা সময় ছিল কেবল পুরষদের জন্য।
কোনো মেয়ে জিনস পরে বাইরে বেরোনোর কথা ভাবতেই পারত না। সময় বদলেছে, পাল্টে গেছে দৃষ্টিভঙ্গি।জিনস এখন হয়ে ওঠেছে তরুণীদের নিত্যসঙ্গী।এটা এখন ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে পরে।
মেয়েরা স্কিন টাইট জিন্সের সঙ্গে টপস, শার্ট, ফতুয়া, শর্ট কামিজ পরছে। এটা পরে চলাফেরা করা সহজ।মেয়েদের জিনস আর ছেলেদের জিনসে কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে।


কোথায় থেকে কিনবেন:

কিনতে ক্লিক করুন

রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসগুলো থেকেই আপনার পছন্দের জিন্সপ্যান্ট কিনে নিতে পারবেন। তবে বর্তমানে জিন্স কেনার জন্য অনেকেই অনলাইন শপিংমলের উপর আস্থা রাখছে। আপনিও আপনার পছন্দের প্যান্ট অনলাইন শপিংমল থেকে কিনে নিতে পারেন। কমদামে জিন্স প্যান্টের লেটেস্ট কালেকশন কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*পূজোরসাজ* *স্মার্টশপিং* *ফ্যাশন*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

পূজোর পাঞ্জাবি কিনুনবাতাসে পূজোর গন্ধ। যতদূর চোখ যায়, কেবল কাশফুল আর কাশফুল। দিনের দিগন্তজোড়া চনমনে রোদ, আকাশজুড়ে পেঁজা তুলার সাদা মেঘের মানচিত্র, মাঝে মধ্যে বৃষ্টির তোড়জোড় এই হলো শরৎকাল। শরৎকালে প্রকৃতির এই অপরূপ মোহনীয় রূপের সঙ্গে বাতাসে এখন ভেসে বেড়াচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসবের আমেজ। কেমন হবে দুর্গোৎসবে ছেলেদের সাজপোশাক? চলুন দেখে নেই।

পাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুনপাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুনচারদিকে চলছে এখন পুজোর প্রস্তুতি। আর পুজোর প্রস্তুতির মধ্যে অন্যতম ছেলেদের সাজপোশাক। ছেলেদের পুজোর সাজে এখনে এগিয়ে রয়েছে বাহারি পাঞ্জাবি। সকালে ম-পে অঞ্জলি দিতে যাওয়ার সময় সুতি কাপড়ের পাঞ্জাবি-পাজামা কিংবা ট্রাউজার, ফতুয়া পরতে পারেন। অষ্টমী জাঁকজমকপূর্ণ হয়। তাই অষ্টমীর রাতের অনুষ্ঠানে তসর, বলাকা সিল্ক, অ্যান্ডি সিল্ক, অ্যান্ডি সুতি পাঞ্জাবি মানাবে বেশ।

পাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুনআবার পুজোর পাঁচ দিন পাঁচ রকম পোশাকেও সেজে উঠতে পারেন। এ ক্ষেত্রে ষষ্ঠী ও সপ্তমীতে সিম্পল ফতুয়া, জিন্স, শার্ট পরুন। অষ্টমী যেহেতু গর্জিয়াস তাই এ দিনটিতে পরতে পারেন পাজামা-পাঞ্জাবি, সঙ্গে ট্রেডিশনাল লুক আনতে গায়ে রাখতে পারেন উত্তরীয়। নবমীর রাতেও পাঞ্জাবি পরতে পারেন। তবে এদিনটিতে পাজামার বদলে ধুতি কিংবা প্যান্ট পরলে লুক চেঞ্জ হবে। দশমীতে রঙ খেলা হয়। এদিন সাদা-লাল পাঞ্জাবিতে বেশ জমকালো লাগবে। আর রাতের বেলা ফরমাল শার্ট-প্যান্ট, একরঙা পাঞ্জাবির সঙ্গে প্রিন্স কোট পরে বাজিমাত করতে পারেন। ধুতি পরার ইচ্ছা থাকে অনেকের কিন্তু ঝামেলার কারণে পরতে চান না। এ কারণে ফ্যাশন হাউসগুলো এখন এনেছে প্যান্ট ধুতি অর্থাৎ সেলাই করা ধুতি। এতে ধুতি বাঁধার ঝামেলা নেই। ধুতির সঙ্গে মিলিয়ে পরতে পারেন রাজকীয় মোটিফের পাঞ্জাবি।

পাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুনপাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুনফ্যাশন হাউস ঘুরে দেখা যায়, পাঞ্জাবির গলায় এবার ব্যান্ড কলার, শার্টের কলার ছাড়াও সাদামাটা কাট বেশ চলছে। তরুণদের জন্য পকেটসহ পাঞ্জাবিতে কাঁধের ওপর জুড়ে দেওয়া হয়েছে বেল্ট। কোনো কোনো পাঞ্জাবির কনুই ও কাঁধে কাজ করা হয়েছে। সুতার কাজ ছাড়াও ভিন্ন কাপড়ের প্যাচওয়ার্ক, মেশিন এম্ব্রয়ডারি, ব্লক বেশ চলছে। রাতের অনুষ্ঠান উপযোগী খাদি সিল্ক, তসরের ওপর ভারী এম্ব্রয়ডারি পাঞ্জাবি নজর কাড়বে।

দাম কেমন?

 পাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুন

সাধারণ নকশার অ্যান্ডি, সুতির লিলেন পাঞ্জাবি কিনতে পারবেন ৭০০ থেকে ১২০০ টাকায়, ভারী নকশার সুতি পাঞ্জাবি ১২০০ থেকে ২২০০ টাকা, তসর, সিল্কের এম্ব্রয়ডারি পাঞ্জাবি ২৫০০ থেকে ৮০০০ টাকা, সাধারণ অলিগড়ি ও চুড়িদার পাজামা ৩০০ থেকে ১০০০ টাকা, ধুতি ৪০০ থেকে ২০০০ টাকা, ধুতি সেট পাঞ্জাবি ২০০০ থেকে ৩৫০০ টাকা, ফতুয়া ৪০০ থেকে ৮০০ টাকা, শার্ট ৪০০ থেকে ১০০০ টাকা, টি-শার্ট ৪০০ থেকে ১৫০০ টাকা।

কোথায় থেকে কিনবেন?

 পাঞ্জাবি কিনতে ক্লিক করুন

ঢাকার অন্যতম বড় পাঞ্জাবির বাজার পীর ইয়ামেনি মার্কেট। এ ছাড়া পুরান ঢাকার ইসলামপুর, নিউ মার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড মার্কেট, মালিবাগ, মৌচাক, সদরঘাট, গুলিস্তানসহ সারাদেশের নানা ব্র্যান্ডের ফ্যাশন হাউসগুলোতে এসব পাঞ্জাবি কিনতে পাবেন। তবে এবারে অফলাইন মার্কেট গুলোর চাইতে অনলাইনে পূজোর পোশাক বেশি বিক্রি হচ্ছে। আপনিও অনলাইন থেকে কিনতে পারবেন আপনার পছন্দের পাঞ্জাবিটি। অনলাইন শপ থেকে ভালো মানের পোশাক কিনতে আস্থা রাখতে পারেন দেশের সেরা অনলাইন শপিংমল আজকের ডিলের উপর। আজকের ডিলের পূজোর পাঞ্চাবি কালেকশন দেখতে এখানে ক্লিক করুন

*পাঞ্জাবি* *পূজোরসাজ* *স্মার্টশপিং*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★