ফাইনাল

ফাইনাল নিয়ে কি ভাবছো?
ছবি

খেলাধুলা: ফটো পোস্ট করেছে

শিরোপা লড়াইয়ে মাঠে নামছে রিয়াল-অ্যাতলেতিকো

এক দলের সামনে প্রতিশোধ নেওয়ার হাতছানি! আরেক দল অপেক্ষায় আরেকটি শিরোপা উল্লাসে মাতার। এমনই এক স্নায়ুক্ষয়ী, রুদ্ধশ্বাস ও উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচের সামনে দাঁড়িয়ে দুই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। তিন মৌসুমের মধ্যে যে দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল রূপ নিয়েছে ‘মাদ্রিদ ডার্বি’ ম্যাচে। শনিবার (২৮ মে) মিলানের সান সিরো স্টেডিয়ামে ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত পৌনে ১টায়। ইউরোপিয়ান ক্লাব প্রতিযোগিতার সবচেয়ে বড় ম্যাচে শেষ হাসি কে হাসবে সেটিই এখন দেখার অপেক্ষা! জিনেদিন জিদান কী পারবেন খেলোয়াড় ও কোচ হিসেবে রিয়ালকে শিরোপা এনে দিতে? নাকি দিয়েগো সিমিওন নিজেকে আরো অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবেন? সব প্রশ্নেরই উত্তর মিলবে সান সিরোর ফাইনাল শেষে। ২০১৪ সালে অ্যাতলেতিকোকে হারিয়েই গ্যালাকটিকোদের বহুল প্রতীক্ষিত ‘লা ডেসিমা’র (দশম চ্যাম্পিয়নস লিগ) অপেক্ষার অবসান ঘটে। এবার জিদানের রিয়ালের ১১তম ইউরোপিয়ান কাপ উঁচিয়ে ধরার চ্যালেঞ্জ। অন্যদিকে, নিজেদের ক্লাব ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগ জয় থেকে আর মাত্র এক ম্যাচ দূরে অ্যাতলেতিকো।

*চ্যাম্পিয়ন্স* *লিগ* *ফাইনাল* *ফুটবল*
ছবি

খেলাধুলা: ফটো পোস্ট করেছে

আল্লাহর রহমতে এতদূর যেহেতু আসতে পেরেছি,ইনশাল্লাহ শেষটাও ভালো হবে। চলো বাংলাদেশ ! খেলা শুরু হবে সন্ধ্যা ৭:০০

*এশিয়া* *কাপ* *ফাইনাল* *ক্রিকেট*

Risingbd.com: এ কেমন কাকতাল! বাংলাদেশের নারী ও পুরুষ ফুটবল দল সেমিফাইনালে উঠেছে। আজ ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে.... বিস্তারিত- http://bit.ly/1QxE8TQ

*খেলাধুলা* *ফুটবল* *ফাইনাল* *আড্ডা* *ভাগ্য*

অনি: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

*বিপিএল২০১৫* কে সেরা হবে জানি (না), তবে ফাইনালে দেশীয় খেলোয়াড়দের পারফর্মেন্স হোক আকাশচুম্বী! এই প্রার্থনা!
*বিপিএল২০১৫* *ফাইনাল*
ছবি

খেলার খবর: ফটো পোস্ট করেছে

রবিন: অবশেষে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠল ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাস!!

*ফাইনাল* *ফুটবল*

অর্ঘ্য কাব্যিক শূন্য: দুর্দান্ত একটা বিশ্বকাপের এমন একটা ফাইনাল... ! ! ! অনেকটা পোলাও, মুরগীর রোস্ট, খাসির রেজালা, গরুর কালো ভুনা দিয়ে অ্যাপায়ন শেষে পচা জর্দা ভাত পরিবেশনের মতো... (বমি) (রাগী-৩) (ঘৃণা) (রাগী-৩) (বমি)

*বিশ্বকাপক্রিকেট* *ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫* *অস্ট্রেলিয়া-না-নিউজিল্যান্ড* *ফাইনাল*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 অস্ট্রেলিয়ার পঞ্চম নাকি নিউ জিল্যান্ডের প্রথম? নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং বিপর্যয় আসলে কিসের ইঙ্গিত দিচ্ছে? কার কি মনে হচ্ছে?

উত্তর দাও (৮ টি উত্তর আছে )

*অস্ট্রেলিয়া-না-নিউজিল্যান্ড* *ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫* *খেলাধুলা* *ফাইনাল*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

খেলার শেষ পর্যন্ত টান-টান উত্তেজনা। কারা খেলবে এবারের বিশ্বকাপের ফাইনাল হতাশায় দুই দলের খেলোয়াড় ও সমর্থকরা। নিউজিল্যান্ডের দুই বলে দরকার ছিল ৫ রান কিন্তু একবল বাঁকী থাকতেই ছক্কা হাকিয়ে স্বপ্নের ফাইনালে পৌঁছে গেল কিউইরা। এটিই নিউজিল্যান্ড দলের ১ম ফাইনাল এর আগে তারা বেশ কয়েকবার সেমিফাইনাল খেললেও একবারও ফাইনালে উঠতে পারেনি। আজকের এই জয়ের মাধ্যমে তাদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ হলো। বেশতোর পক্ষ থেকে  নিউজিল্যান্ড দলের জন্য রইলো অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।

সেমিফাইনালের তালা ভেঙ্গে নিজেদের বিশ্বকাপ ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠেছে নিউজিল্যান্ড। ১১তম আসরে প্রথম সেমিফাইনালের বৃষ্টিবিঘ্নিত উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪ উইকেটে হারিয়ে স্বপ্নের ফাইনালে পা রেখেছেন কিউইরা। তাও আবার ৪৩ ওভারে ২৯৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করে! অপরদিকে চতুর্থবারের মতো সেমিফাইনালে উঠেও বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলার স্বপ্ন অধরাই রয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকার।

মঙ্গলবার অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে টস জিতে আগে ব্যাট করে বৃষ্টির কারণে ৪৩ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে ৫ উইকেটে ২৮১ রান সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৪৩ ওভারে নিউজিল্যান্ডের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৯৮ রান। তবে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, কোরি অ্যান্ডারসন ও গ্র্যান্ট ইলিয়টের দারুণ ফিফটিতে ৪ উইকেট ও ১ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় নিউজিল্যান্ড।

দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের জয়ী দলের বিপক্ষে আগামী ২৯ মার্চ মেলবোর্নে ফাইনাল খেলবে ব্রেন্ডন ম্যাককালামের দল।

লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ডকে ঝোড়ো সূচনা এনে দেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। প্রকৃতির বৃষ্টিতে ভেজা ইডেন পার্কে চার-ছক্কার বৃষ্টি নামান কিউই অধিনায়ক। মাত্র ২২ বলে ঝোড়ো ফিফটি তুলে নেন তিনি। তবে দলীয় ৭১ রানে মরনে মরকেলের বলে বিদায় নেন ম্যাককালাম। ডেল স্টেইনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। ২৬ বলে ৮ চার ও ৪ ছক্কায় ৫৯ রান করেন ম্যাককালাম।

এরপর স্কোরবোর্ডে আর ১০ রান জমা হতেই বিদায় নেন কেন উইলিয়ামসন (৬)। ওই মরকেলের বলে বোল্ড হন তিনি। তৃতীয় উইকেটে প্রতিরোধ গড়েন মার্টিন গাপটিল ও রস টেলর। তবে দলীয় ১২৮ রানে ইমরান তাহিরের ওভারে রানআউটের শিকার হয়ে ফেরেন গাপটিল। ৩৮ বল খেলে তার সংগ্রহ ৩৪ রান। দলীয় ১৪৯ রানে রস টেলরও ফিরে যান। জেপি ডুমিনির বলে কুইন্টন ডি ককের গ্লাভসবন্দি হন ৩০ রান করা টেলর।

১৪৯ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরেন গ্র্যান্ট ইলিয়ট ও কোরি অ্যান্ডারসন। পঞ্চম উইকেটে ফিফটি রানের জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন দুজন। দলীয় ২০৪ ও ব্যক্তিগত ৩৪ রানে জীবন ফিরে পান অ্যান্ডারসন। সহজ রান আউট মিস করেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। স্টেইনের বলে ননস্ট্রাইকার প্রান্ত থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন অ্যান্ডারসন। তিনি ক্রিজে ফেরার আগেই বল পেয়ে যান ডি ভিলিয়ার্স। কিন্তু বলের আগে হাত দিয়ে স্ট্যাম্প ফেলে দেন প্রোটিয়া অধিনায়ক। এরপর অ্যান্ডারসন-ইলিয়ট দুজনই ফিফটি তুলে নেন।

শেষ ৪২ বলে নিউজিল্যান্ডের জয়ের জন্য প্রয়োজন পড়ে ৪৭ রান। তবে ইনিংসের ৩৮তম ওভারে মরকেলের শেষ বলে ফিরে যান অ্যান্ডারসন। ৫৭ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৫৮ রান করেন তিনি। দলীয় ২৬৯ রানে সাজঘরে ফেরেন লুক রনকি। তখন নিউজিল্যান্ডের জয়ের জন্য প্রয়োজন পড়ে ১৭ বলে ২৯ রান।

এরপর নিউজিল্যান্ডের জয়ের জন্য শেষ ৬ বলে প্রয়োজন পড়ে ১২ রান। স্টেইনের করা ওভারের তৃতীয় বলে ড্যানিয়েল ভেট্রোরি চার মেরে এবং পঞ্চম বলে ইলিয়ট ছক্কা হাঁকিয়ে নিউজিল্যান্ডকে রুদ্ধশ্বাস জয় এনে দেন। ৭৩ বলে ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ৮৪ রানে অপরাজিত থাকেন ইলিয়ট। ম্যাচসেরার পুরস্কারও জেতেন তিনি।

এর আগে টস জিতে আগে ব্যাট করে বৃষ্টির কারণে ৪৩ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে ৫ উইকেটে ২৮১ রান সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৪৩ ওভারে নিউজিল্যান্ডের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৯৮ রান। 

দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৮২ রান করেন ফাফ ডু প্লেসিস। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৫ রানে অপরাজিত থাকেন এবি ডি ভিলিয়ার্স।

টস জিতে ব্যাট করতে নামা প্রোটিয়াদের শুরুতেই বিপদে ফেলে দেন নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে দলীয় ২১ রানে ওপেনার হাশিম আমলাকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান বোল্ট। ১৪ বল মোকাবিলা করে ২ চারে ১০ রান করেন আমলা। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে প্রোটিয়া ‍শিবিরে আবার অাঘাত হানেন বোল্ট। এবার আরেক ওপেনার কুইন্টন ডি কককে টিম সাউদির ক্যাচে পরিণত করেন এই কিউই পেসার। ডি ককের সংগ্রহ ১৪ রান।

ডি ককের উইকেট নিয়ে রেকর্ড বুকে নাম লেখান বোল্ট। বিশ্বকাপের এক আসরে নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ শিকারের রেকর্ড করেন তিনি। ডি ককের উইকেট নিয়ে অাসরে বোল্টের উইকেটসংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১টি। এর আগে ১৯৯৯ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের হয়ে ২০ উইকেট নিয়েছিলেন জিওফ অ্যালট।

৩১ রানেই ২ উইকেট হারানোর পর তৃতীয় উইকেটে প্রতিরোধ গড়েন ফাফ ডু প্লেসিস ও রিলে রুশো। ফিফটি রানের জুটি গড়ে দলকে ভালোই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন দুজন। তবে রুশোকে ফিরিয়ে ৮৩ রানের জুটি ভাঙেন কোরি অ্যান্ডারসন। রুশোকে মার্টিন গাপটিলের ক্যাচে পরিণত করেন তিনি। ৫৩ বলে ২ চার ও এক ছক্কায় রুশোর সংগ্রহ ৩৯ রান।

চতুর্থ উইকেটে এবি ডি ভিলিয়ার্সকে সঙ্গে নিয়ে বড় জুটি গড়ে তোলেন ফাফ ডু প্লেসিস। দুজনই ফিফটি তুলে নেন। ৩৮ ওভার শেষে দলের সংগ্রহ যখন ৩ উইকেটে ২১৬ রান তখন বৃষ্টি হানা দেয় অকল্যান্ডে। বৃষ্টির কারণে ২ ঘন্টা খেলা বন্ধ থাকায় ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমে ৪৩ ওভারে নেমে আসে।

খেলা আবার শুরু হলে বিদায় নেন ডু প্লেসিস। কোরি অ্যান্ডারসনের বলে উইকেটরক্ষক লুক রনকির গ্লাভসবন্দি হন তিনি। ১০৭ বলে ৭ চার ও এক ছক্কায় ৮২ রান করেন ডু প্লেসিস। ডি ভিলিয়ার্স-ডু প্লেসিস জুটিতে আসে ১০৩ রান। এরপর দলীয় ২৭২ রানে ডেভিড মিলার বিদায় নেন ব্যক্তিগত ৪৯ রান করে। তার মাত্র ১৮ বলের ঝোড়ো ইনিংসে ছিল ৬টি চার ও ৩টি ছক্কার মার। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ডি ভিলিয়ার্স (৬৫) ও জেপি ডুমিনি (৮)।


*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *বিশ্বকাপ২০১৫* *ফাইনাল* *সেমিফাইনাল* *নিউজিল্যান্ড*
ছবি

আমানুল্লাহ সরকার: ফটো পোস্ট করেছে

৪/৫

নিউজিল্যান্ড ১ম বারের মত বিশ্বকাপের ফাইনালে

দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪ উইকেটে হারিয়ে ১১তম বিশ্বকাপে প্রথম বারের মত ফাইনাল খেলার গৌরব অর্জন করলো নিউজিল্যান্ড।

*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *বিশ্বকাপ২০১৫* *সেমিফাইনাল* *ফাইনাল*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বাংলাদেশ ইংল্যান্ড ম্যাচের আগের দিন সাকিব আল হাসান ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছিলেন: “উষ্ণ এবার মঞ্চ! উদ্দীপনায় সিক্ত সকল ভক্ত, আর নৈপুণ্যতায় সম্ভার টাইগাররা। আর একটি মাত্র জয়, সেই সঙ্গে পৌছে যাব আমরা কোয়ার্টার ফাইনালে। ‘১১ এর বিশ্বকাপের পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে আবারো দমিয়ে দিবো ইংলিশদের, সেই অপেক্ষায় আছি। সবার ভালবাসা, দোয়া আর মাঠে সেরাটা দিতে পারলে, জয় আমাদেরই হবে”।

আর ম্যাচ শেষ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনি ফের তার স্ট্যাটাস আপডেট করে বলেন, “জাস্ট থ্রি স্টেপস অ্যাওয়ে ফ্রম দি চ্যাম্পিয়ান্স। কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল অ্যান্ড ফাইনাল। ওয়েল, ইট হ্যাজ বিন আ গ্রেট ডে ফর দি টাইগার্স ইন ক্রিকেট হিস্টরি। থ্যাংকস টু অল ফর সাপোর্ট আস অ্যান্ড মেক ইওর নাইট উইথ পার্টি। চিয়ার্স!!! লাভ – সাকিব”।

তার মানে এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন দেখছে টাইগাররা। নিশ্চিত করে বলা যায়, এই জয়ের আনন্দে মেতেছে পুরো বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেড, সিডনি, মেলবোর্ন – সব জায়গায় যেখানে বাংলাদেশীরা আছেন, তারা জয়ের আনন্দে রাস্তায় নেমে মিছিল করেছেন। সিডনি’র লাকেম্বায় প্রায় তিনশ বাংলাদেশী ম্যাচ শেষে রাতের বেলা রাস্তায় নেমে পড়েন। তাদের মিছিল সামাল দিতে পুলিশকে গাড়ি থামাতে হয়েছে। মেলবোর্ন ও অ্যাডিলেডেও বাংলাদেশীরা সমান আনন্দে মেতেছিলেন।

আগামী ১৩ই মার্চ নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ভারমুক্ত হয়েই খেলবে বাংলাদেশ। পুল ‘এ’র বাকি ম্যাচগুলোর ফল যাই হোক না কেন, বাংলাদেশ- ইংল্যান্ড ম্যাচের পরপরই নিশ্চিত হয়ে গেছে, কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা।

*সাকিব* *কোয়ার্টারফাইনাল* *ফাইনাল* *বিজয়উল্লাস* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *বিশ্বকাপ২০১৫*
৫/৫

Mahbubul Alam: স্বপ্নের ফাইনালে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলের ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ।

*ফাইনাল*

প্যাঁচা : [বিশ্বকাপ২০১৪-মেসি]শুরু হইয়া গেল কামড়া কামড়ি...

*ফাইনাল* *বিশ্বকাপ-ফাইনাল*

শাকিল আহমেদ: একটা বিষয় আমার কাছে বেশ অদ্ভুত লাগছে, জার্মানির কাছে ব্রাজিল হারার পর থেকেই যেন *বেশতোটিয়া* সব উড়ে চলে গেছে। সব যেন গা ঢাকা দিয়েছে! (হাইতুলি) সব একেবারে পানসে লাগছে (মাইরালা) আরে ভাই ব্রাজিল নাই তো কি হইসে? ম্যাচ নিয়ে ভবিষ্যৎবানী করতে মানা নাকি?(চিন্তাকরি) ম্যাচ নিয়ে খুনসুটি না করলে মজা আছে নাকি (শয়তানিহাসি)।

*বিশ্বকাপ* *ফিফাবিশ্বকাপ* *ফাইনাল* *বেশতোটিয়া*
খবর

অভ্র মেঘ: একটি খবর জানাচ্ছে

Daily Manab Zamin | টাইব্রেকারে ফাইনালে আর্জেন্টিনা
http://mzamin.com/details.php?mzamin=MzE2MzI=&s=MTg=
সাও পাওলোর অ্যারিনা কোরিনথিয়ান্স স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ডসের মধ্যে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় সেমিফাইনালে প্রথমার্ধের ২০ মিনিটে গোলে দেখা পায়নি কোনো দল। শুরু থেকেই বল দখলের লড়াইয়ের চেষ্ঠা করে উভয় দল। যার ফলে মাঝমাঠেই সীমাবদ্ধ থাকে দু’দলের আক্রমন।  ম্যাচের ১৩ মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। বল ডিয়ে পোস্টে ডোকার আগ মুহুর্তে লাভেসসিকে ফেলে দেন ভার। মেসির নেয়া ফ্রিকিক অসাধারন দক্ষতায় রক্ষা করেন ডাচ গোলরক্ষ জেসপার সিলেসেন। রোবেন স্নাইডারের কল্যানে আক্রমনে যাচ্ছে নেদারল্যান্ডসও। তাবে আর্জেন্টিনার শক্ত ডিফেন্সের কারনে সুবিধা করতে পারছিলেন পার্সি। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে মেসির নেয়া ফ্রিকিক কাজে না লাগাতে পারায় গোলশূণ্য অবস্থাতেই দ্বিতীয় সেমিফাইনালে প্রথমার্ধ শেষ করে দু’দল। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে লাভেসসির ক্রসে হিগুয়েনের হেড লক্ষ্য ভ্রষ্ট হলে গোল বঞ্চিত হয় আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কয়েকবার পার্সিকে অফসাইডের ফাদে ফেলেন আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডাররা। ৭৫ মিনিটে অফসাইডের ফাদে পড়ে গোল বঞ্চিত হয় আর্জেন্টিনাও। পেরেসের ক্রসে বাতিল হওয়া গোলটি করেছিলেন হিগুয়েন। ৮৩ মিনিটে দুটি পরিবর্তন আনেন সাবেলা। হিগুয়েনের যায়গায় আগুয়েরা আর পেরেসের যায়গায় মাঠে নামেন পেলাসো। ৮৪ মিনিটে রোকোর শট অসাধারন দক্ষতায় রক্ষা করেন ডাচ গোলরক্ষক সিলেসেন। যোগ করা সময়ে গোল্ডেন চান্স মিস করেন রোবেন। ওয়ান টু ওয়ান পজিশনে তার নেয়া শট কর্ণার রক্ষা করেন মাসচেরানো। আর্জেন্টিনা একাদশসার্জিও রোমেরো (গোলরক্ষক) মার্টিন ডেমিচেলিস ইজিকুয়েল গারাই পাবলো জাবেলেতা লুকাস বিলয়া এনজো পেরেস রোকো হাভিয়ের মাসচেরানো গঞ্জালো হিগুয়েন ইজিকুয়েস লাভেসসি লিওনেল মেসি কোচ: আলেসান্দ্রো সাবেলা।নেদারল্যান্ডসের একাদশজেসপার সিলেসেন গোলরক্ষক রন ভার স্টেফেন ডি ভ্রি  ব্রুনো মার্টিন্স ইন্ডি ডালি ব্লিড ওয়েসলি স্নাইডার অ্যারিয়েন রোবেন রবিন ফন পার্সি ডির্ক কুয়েট জেওরজিনিও উইনালডাম ডি জংকোচ: লুই ফন গাল (নেদারল্যান্ডস) ...বিস্তারিত
*মেসি* *ফাইনাল* *ফুটবল* *ওয়ার্ল্ডকাপ* *খেলা* *আর্জেন্টিনা*
১৩২ বার দেখা হয়েছে

ষাইফ ঋাষেল: কি মুশকিল প্রিয় দুইটা দলই ফাইনালে (রাগী) এখন কারে সাপোর্ট করুম !!

*ষাইফ* *বিশ্বকাপ* *আর্জেন্টিনা* *জার্মানি* *ফাইনাল*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★