ফোন কেনা

ফোনকেনা নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

 দিনে দিনে বেড়েই চলেছে স্মার্টফোনের জনপ্রিয়তা। প্রযুক্তির সিংহভাগই যেন এই স্মার্টফোনের দখলে। কিছুদিন আগেও মোবাইলফোন বলতে আমরা শুধুমাত্র কথা বলা যায় এরকম একটি যন্ত্র চিনতাম। কিন্তু এখন যেন এই মোবাইলফোন ছোট-খাট একটা কম্পিউটারই হয়ে গেছে। আশেপাশে এতো এতো স্মার্টফোন দেখে হয়তো আপনার মনে হচ্ছে আপনারও এখন একটা স্মার্টফোন দরকার। কিন্তু কেনার পরে যাতে বিড়ম্বনায় না পড়েন সেজন্য ফোনটি কেনার আগে নিচের বিষয়গুলো যাচাই করে কিনবেন।
 
স্মার্টফোন কেনার পূর্বে জেনে নিন এর কিছু জরুরী বিষয় সম্পর্কে।
 
সিপিইউঃ সিপিইউ বলতে স্মার্টফোনের প্রসেসরকে বোঝায়। সিঙ্গেলকোর থেকে শুরু করে অক্টাকোর প্রসেসরের স্মার্টফোন আছে বাজারে। প্রসেসর যত ভাল হবে মোবাইলের কাজের মান তত ভাল হবে। স্মার্টফোনের প্রসেসর সাধারণত ডুয়েল কোর, কোয়াড কোর, অক্টা কোরের হয়ে থাকে। ডুয়েল কোর প্রসেসর এর কাজের মান যতটুকু, কোয়াড কোর প্রসেসরের কাজের মান তার থেকে আরেকটু ভালো। আবার কোয়াড কোর এর কাজের মান অপেক্ষা অক্টা কোর প্রসেসরের কাজের মান আরেকটু উন্নত।
 
 
র‍্যামঃ র‍্যাম মূলত কাজের গতি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। ৫১২ মেগাবাইট থেকে শুরু করে ৩ গিগাবাইট র‍্যাম এরও স্মার্টফোন  রয়েছে বাজারে।
র‍্যাম এর  পরিমান যত বেশি হবে কাজের গতিও তত ভাল থাকবে।
তাছাড়া মোবাইল-এ এইচডি গেমিং করতে র‍্যাম এর বিকল্প নেই।
তাই র‍্যাম এর পরিমান একটু বেশি এরকম স্মার্টফোন কেনার চেষ্টা করুন।
 
 
 
 
মেমোরিঃ স্মার্টফোনের ইন্টারনাল মেমোরি যত বেশি তত ভাল। তাছাড়া যারা গেমিং এর জন্য স্মার্টফোন কিনতে আগ্রহী তাদের জন্য ইন্টারনাল মেমোরি বেশি হওয়া দরকার। কারণ অনেক বড় বড় গেম আছে যেগুলো ইন্টারনাল মেমোরিতে ফাইল রেখে খেলতে হয়। এছাড়াও অনেক সময় দেখা যায় যে ইন্টারনাল মেমোরি ৮ জিবি হলেও ইউজেবল থাকে ৫ জিবি কিংবা ৪ জিবি। এক্ষেত্রে আপনার স্মার্টফোনের ইউজেবল মেমোরি কত দেখে নিন। এক্সটারনাল মেমোরি কার্ড কত জিবি পর্যন্ত সাপোর্ট করে এটাও দেখে নিন। এতে করে প্রয়োজনে আপনি আলাদা মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন।
 
 
অন্যান্যঃ ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, ইউএসবি এবং এনএফসি সংযোগ  আছে কিনা দেখে নিন। ওয়াই-ফাই ব্যাবহারের মাধ্যমে আপনি সিমছাড়া ইন্টারনেট ব্যাবহার করতে পারবেন। ব্লুটুথ ব্যাবহার করে আপনি অন্য ডিভাইস এর সাথে বিভিন্ন ধরনের ফাইল শেয়ার করতে পারবেন। আর ইউএসবি কেব্‌ল এর মাধ্যমে আপনি আপনার কম্পিউটার এর সাথে ফাইল শেয়ার করতে পারবেন।
 
 
অরিজিনাল স্মার্টফোন কোথায় পাবেন ? 
স্মার্টফোনটি কেনার পরে যদি দেখেন পারফরমেন্স খারাপ কিংবা কপি প্রডাক্ট গছিয়ে দিয়েছে অরিজিনালের নামে তাহলে তো পুরাই ধরা। তাই স্মার্টফোন কেনার সময় খেয়াল রাখবেন যেন দোকানী আপনাকে ক্লোন সেট গছিয়ে দিতে না পারে। ব্রান্ড শপ থেকে হ্যান্ডসেট কিনলে ধরা খাওয়ার সম্ভাবনা থাকেনা । তবে আনঅথোরাইজড কোন শোরুম থেকে কম দামে সেট কিনে অনেকেই ঝামেলাই পড়েন। তবে অরিজিনাল ব্রান্ডের হ্যান্ডসেট চিনতে অসুবিধা মনে করছেন যারা তারা পুরোপুরি নির্ভর করতে পারেন দেশের সবথেকে বিশ্বস্ত অনলাইন শপিং হাউজ আজকেরডিল এর উপরে। তাদের বিশাল হ্যান্ডসেটের কালেকশন থেকে অরিজিনাল মোবাইল ফেনটি কিনতে এখানে ক্লিক করুন। 
 
*স্মার্টফোন* *ফোনকেনা* *স্মার্টশপিং*

রাসেল আহমেদ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ১০০০০ থেকে ১৫০০০ টাকার মর্ধে কোন মোবাইল ফোন কিনব ?

উত্তর দাও (৬ টি উত্তর আছে )

*মোবাইলফোন* *ফোনকেনা*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★