বউনি অফার

বউনিঅফার নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

হুডি ফ্যাশন এখন টিনএজদের মধ্যে জনপ্রিয় একটি পোশাক ও স্টাইল হয়ে উঠেছে। হালকা শীতের মধ্যে এ পোশাকটির চাহিদা সবচেয়ে বেশি থাকে। একেক সময় একেক রকম তাপমাত্রা থাকে শীতে। তাই শীতের সহনীয় আঁচ গায়ে অনুভূত হওয়ামাত্রই তরুণদের মতো আজকাল তরুণীরা গায়ে জড়ান তাদের প্রিয় হুডি পোশাক। তরুণ তরুণীরা হালের ফ্যাশন হিসেবে হুডির ট্রেন্ডটা লুফে নিয়েছেন।শীতে হুডি বেশ কমফ্যের্টেবল এবং বেশ ফ্যাশনেবল। হুডি পরলে মাফলার পরার ঝামেলা নেই। বাসা হোক কিংবা বাইরে, যে কোনো জায়গাতেই হুডি বেশ মানানসই। হুডির ব্যবহার মূলত শুরু হয় পাশ্চাত্যের শীতপ্রধান দেশ থেকে। শীত বেশি হওয়ার কারণে সেসব শীতপ্রধান এলাকার মানুষ নানা ধরনের হুডি পরতেন। সেই হুডি আস্তে আস্তে ফ্যাশন হিসেবে প্রবেশ করে। পরবর্তীকালে আমাদের দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো হুডির প্রচলন শুরু করে এবং ব্যাপক সাফল্য অর্জন করে। 

 

US POLO হুডি জ্যাকেট ফর মেনজেন্টস ফুল স্লীভ হুডি

সেই থেকে এখন পর্যন্ত চলছে তো চলছেই। এখন জ্যাকেট, শর্ট-শার্ট, টি-শার্ট, ব্লেজার এবং সোয়েটারে হুডির ব্যবহার এসেছে। এ বছরে হুডির বেশি পরিবর্তন এসেছে একরঙা চেক শার্টের ওপর। টি-শার্টের মধ্যে এমব্রয়ডারি, কটন, হ্যান্ড স্টিচ, চেইন, বাটন, অ্যাপলিক, টাইডাই ও বাটিকের কাজের ওপর বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। আর রঙ হিসেবে প্রাধান্য পেয়েছে কালো, অ্যাশ, বাদামি, নীল, মেরুনসহ আরও কয়েকটি রঙ। হুডির পকেটের কাটিংয়ে এসেছে ভিন্নতা।

 

 ফুল স্লীভ জেন্টস ইয়েলো কালার হুডিANGEL লেডিজ ফুল-স্লিভ উইন্টার হুডি

কোথায় পাবেন : রাজধানীতে  নামিদামি ফ্যাশন হাউস ছাড়াও বাজারে রেডিমেড হুডি প্রচুর পাওয়া যাচ্ছে। এদের মধ্যে আছে ইজি, পল্গাস পয়েন্ট, এক্সট্যাসি, ক্যাটস আই, ট্রেন্ডজ, ইয়েলো, প্লেয়ার, সেইলর ওয়েসটেক্স। গেঞ্জি উলের হুডি সোয়েটার পাওয়া গেলেও হুডি শার্ট ও হুডি গেঞ্জির বেচাকেনা বেশি হচ্ছে বলে জানান বিক্রেতারা। ডিজাইনাররা বিভিন্ন কটন, কলারের হ্যান্ডস্টিচ, এমব্রয়ডারি, হাতের কাজ, চেইন ও বোতামের বৈচিত্র্য, টু-ইন ওয়ানসহ অসংখ্য ডিজাইনে ব্যবহার করছেন কালো, মেরুন, অ্যাশ, গাঢ় নীলসহ তারুণ্যের সব রঙ। মেয়েদের ফ্যাশনেবল হুডিগুলো সাধারণত কিছুটা শর্ট কাটিং হয়ে থাকে। মেয়েদের হুডিগুলো সাধারণত বিভিন্ন রকম স্ট্রাইপের রঙবেরঙের। তবে জিন্সের সঙ্গে এসব হুডি বেশি জুতসই।

 

 NIKE হুডি জ্যাকেট ANGEL লেডিজ ফুল স্লীভ হুডি

শুধু ফ্যাশন হাউসগুলোই না, রাজধানীর নিউমার্কেট, বঙ্গবাজার, ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেটসহ নগরীর অভিজাত শপিং মলগুলোতেও খুঁজে পাবেন আপনার সঙ্গে মানানসই হরেক রকম হুডির কালেকশন। তবে বাজারে গেঞ্জির কাপড়ের সামনে পকেটওয়ালা হুডির চাহিদা তুলনামূলক বেশি। টু-ইন গেঞ্জির হুডিগুলোর চাহিদা অন্য ডিজাইনের হুডির চেয়ে অনেক বেশি। কম দামে বৈচিত্র্যময় ডিজাইনের হুডি কিনতে চাইলে চলে যেতে পারেন বঙ্গবাজার, বদরুদ্দোজা সুপার মার্কেট, নিউমার্কেটে। বাংলাদেশের বড় অনলাইন শপিংমল আজকের ডিলে ফ্যাশনেবল সব ধরনের হুডি পাবেন।ফুরফুরে মেজাজে শীতকে উপভোগ করতে সেইসঙ্গে শীতে স্মার্ট থাকতে আজই কিনে নিন আপনার পছন্দের হুডি আজকের দিল থেকে। এই লিংকে ও ছবিতে ক্লিক করলে পেয়ে যাবেন আজকের ডিলের লেডিজ হুডির যাবতীয় তথ্য।

 

জেন্টস ফুল স্লীভ ব্ল্যাক হুডিলেডিজ হুডি জ্যাকেট

দামদর : ব্র্যান্ডের হুডিগুলোর দাম পড়বে ৭০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত। তবে নিউমার্কেট, বঙ্গবাজার হকার্স মার্কেটে হুডির দাম পড়বে ২৫০ থেকে ১৫০০ টাকা পর্যন্ত। তাই ফ্যাশনসচেতন তরুণীরা বেছে নিতে পারেন আপনার পচ্ছন্দমতো হরেক ডিজাইনের ট্রেন্ডি হুডি।

*বউনিঅফার* *লেডিজহুডি* *শীতেরফ্যাশন* *হালফ্যাশন*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দেশি ব্যবসা-বাণিজ্য সংস্কৃতিতে 'বউনি' খুবই পরিচিত একটি শব্দ। বউনি মানে উদ্বোধন; দোকান খোলার পর প্রথম বিক্রি। দিনের প্রথম ক্রেতা তাই দোকানদারদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেই এ ক্রেতাকে লক্ষ্মী মনে করেন, হোক সে পরিচিত বা অপরিচিত। ব্যবসায়ীদের ধারণা, প্রথম বিক্রীটি যদি ভালো ভাবে হয়, তাহলে সারাদিনের ব্যবসাও হবে লাভজনক ও সুন্দর। 

আধুনিক এই সময়ে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্য বউনি প্রথা আবারো ফিরে আসছে ই-কমার্স সাইট আজকের ডিলের (AjkerDeal.com) হাত ধরে। আগামী শনিবার (২৬ নভেম্বর) শুরু হচ্ছে এই বউনির আয়োজন। 'শনিবারের বউনি অফার' নামে এক দিনের এই আয়োজন শনিবার সকাল ৮টা থেকে রাট ১২টা পর্যন্ত চলবে। এখন থেকে প্রতি শনিবার থাকবে এই বউনির আয়োজনI বউনি অফারের আওতায় আজকের ডিলের বাছাই করা ২০ হাজারের বেশি পণ্য ২০-৫০ শতাংশ ছাড়ে কেনা যাবে। ইলেক্ট্রনিক্স, মোবাইল, পোশাক, জুতা, ঘড়ি, গ্যাজেট  আইটেম, ঘর সাজানোর জিনিস সহ আরোও নানা ধরণের পণ্যের সমারোহে থাকছে এই অফারI 

*বউনিঅফার* *আজকেরডিল* *অফার* *শনিবার*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★