বন্ধু

বন্ধু নিয়ে কি ভাবছো?

বিম্ববতী: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

ফিরে এসো সুরঞ্জনা নক্ষত্রের রূপালি আগুন ভরা রাতে,,,, ব্বাইকে ীষণ হারাচ্ছি তো (ৃষ্টি),,,,,,,,,,
@RonyRahman @bappybd @amiarafat @nishchup @afislam @Firdous @srilauma @Frankenstein @RomelFrost @vabna21 @allinarzoo @chayashongi @isratnahar @Dukhomia @TheOwl00 @NeelNiloy @Tuktuki
@mbabane @Rashida4 @saptam @Meghbalika4 @Nipusen @MahiRudro @Faheema @zahidHq
*বন্ধু* *বেশতো*

বিম্ববতী: [পিরিতি-কলিজাখানখান] হারাচ্ছি ীষণ @mbabane দু'চোখ থেকে যায় একলা কোনো বাঁকে পৌছে রাস্তার নাম কে মনে রাখে জানি কেউ আসবে না আর দরজায় শব্দ হাওয়ার,,,,,,,,,,,, ,,,,,,,,,,,,,যে রূপকথায় কাঁদে চোখ ,,,,,,,,সে রাজা-রানীর ভালো হোক,,,,,,,,,,,,, https://gaana.com/song/raja-ranir-bhalo-hok-7

*বন্ধু*

প্যাঁচা : একটি বেশব্লগ লিখেছে

আমরা ২০/২১টা ছেলে একসাথে বড় হইছি। ছোট থেকেই একসাথে।,সবার বাসাই ছিল স্টোন থ্রো ডিসটেন্স। আমরা যখনই প্রতিদিন বিকালে পাহাড় থেকে নেমে আসতাম পুরি খাইতে, যারা প্রথম দেখতো তারাই অবাক হইতো, ভাবত, এত্তবড় গ্রুপ জানি কোনদলের? হাহাহা...
ঈদে একরকমের পাঞ্জাবি পরা থেকে শুরু করে, এক মেয়ের পেছনে দৌড়ানো, কারো ডেটিঙয়ের জন্য পাহারা দেয়া, রাতে বাসা খালি হলে সবাই মিলে বাড়ি মাথায় ওঠানো...কত কি-ই না করছি? 
আমরা তখন দোস্তরা মারামারি করতাম খেলা নিয়া কেবল, যা মাঠেই শেষ। খেলা শেষ করে একটা পেটিস ভাগাভাগি করে খাইছি আর আজকাল দেখি মেয়ে নিয়ে মারামারি করে...আবার ছোট কেউ সামনে সিগারেট খাইলে থাপড়ায়...আর আমাগো বড়ভাই যেই একজন আছিল, জীবনে এসব নিয়া কিছু কয়নাই...তবে ওপেন কার্ড খেলা নিয়া বেত দিয়া দৌড়াইয়া দৌড়াইয়া মারছে, পরে নিজের রুমের চাবি দিয়া কইছে এখানে বসে খেলবি মন চাইলে...
এতকিছুর মাঝে থেকেও দেখছি কেউ কোন খারাপ কিছু সেবন না করে থাকতে এমনকি বিরিটাও খাইতো না কিন্তু সবসময় হাজির থাকত সবার সাথে, হালায় আরো বেশি মজা লইত। হালারে আমরা আমাদের ঈমানদারীর সাক্ষি কইতাম। দেখছি খাইয়া পাগল হইয়া, কারেন্ট চলে যাবার পর হোগায় টর্চ লাইট মাইরা দৌড়াইতাছে...
আবার দেখছি একজনের কথায়, পরদিন থেকে সবাই সব ছেড়ে দিতে...হাহাহা...
কিন্তু এটা বন্ধুত্বের গল্প না কারণ সময়ের তাড়নায় এখন তিন চারজন ছাড়া সবাই-ই দল ছাড়া...হাহাহাহা...তবে বন্ধুত্ব হয় বিশ্বাস থেকে, আর যখন বিশ্বাসের এতই অভাব আজকাল সেখানে বন্ধুত্ব হবে কি করে? স্বার্থান্বেষিরা থাকবেই, আগেও ছিল, এখনো আছে, সামনেও থাকবে...তাই তাদের ভয়ে বিশ্বাস করার কথা ভুলে যাব নাকি?হাহাহাহা...
একজনই প্রথম হবে জেনেও, সবাই ক্লাসে প্রথম হতে চায় তাই বলে কি অসদাচরণ বা অস্বাস্থ্যকর প্রতিযোগীতায় নামাটা কি সমিচীন? আজকাল সবাই জিততে চায়...কম্পিটিটিভ হবার নামে নীতি বিসর্জন দেয় তাই শিক্ষিত হয়েও অশিক্ষিতর মত কাজ করে।
উন্নতির নামে অধপতনের সিড়ি বায় হাসি মুখে... 
গল্পটা আসলে এই প্রশ্নগুলোর ...কি করছি আমরা তার শুদ্ধ বিশ্লেষণ চাই আবার মিছিল বা চায়ের কাপে ঝড় তোলার জন্য বলছি না কেবলই নিজেকে নিজে বিচার করতে শিখুন। আরেকটা খারাপ কথা বলা বা মিথ্যা কথা বলা বা কারো ক্ষতি করার আগে আরেকবার ভাবুন...হাহাহাহা...
Happy whtever day becoz i felt like it...hahahahahaha...

*ইচ্ছা* *ক্লিকক্লিক-প্যাঁচা* *বন্ধু* *নৈতিকতা* *নীতি* *নৈতিক-অধপতন*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কয়েক বছর আগের কথা। সকালে এক বন্ধুর মেয়ে হয়েছে। এলাকার ঘনিষ্ঠ বন্ধু। বিয়ে হয়েছে ১০ মাসের বেশি হবে না। বিকেলে ক্লিনিকে গিয়ে দেখে আসলাম। মিষ্টি খেলাম, কিছুক্ষণ কাটালাম বন্ধুর সাথে। সন্ধ্যায় তখনকার চিরাচরিত আড্ডার স্থান জিইসির "কোটিপতি স্কয়ারে" চলে গেলাম, এটি ফ্লাইওভার এর আগের আমলের কথা। কলেজের পুরানো বন্ধু, অন্যান্য মিউচুয়াল বন্ধুরা মিলে উইকেন্ডে বা সময় পেলে আড্ডা দিতাম।

মাগরিবের একটু পরে, তখনও সবাই আসেনি। শুধু ২ জন এসেছে, এদের মধ্যে ১ জন খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তার সাথে সব খোলামেলাভাবে বলতাম। তাকে বলছিলাম, "আসিফের বিয়ে কয়দিন আগে খেলাম, আজ ওর বাচ্চাকে দেখে এলাম। তোর বিয়ের তো কয়েক বছর হয়ে গেল। ... ... " বন্ধু মুখে কি বলেছিল, মনে নেই। চেহারার বাকরুদ্ধ আর নিরুপায় চাহনিটা মনে আছে এখনো।

কয়দিন পরেই বুঝেছিলাম, ঝোঁকের বশে এরকম কথা এইভাবে জিজ্ঞেস করা আমার উচিত হয়নি। ওই বন্ধু আবার প্রচন্ড রকমের বউভক্ত, সমবয়সী কিনা। বাসায় গিয়ে দিনের আদ্যোপান্ত রিপোর্ট করত। সেদিনের পর থেকে ব্ল্যাক লিস্টেড হলাম। অন্যান্য কয়েকটি তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে এই বন্ধুত্ব বেশিদিন টিকেনি।

এরপর থেকে, আমি বন্ধুবান্ধবদের বাচ্চাকাচ্চার সম্পর্কে কথা বলার ব্যাপারে খুব সাবধান। যার সাথে বিয়ের আগে কি বলতাম না বলতাম হিসেব ছিল না, বিয়ের পর- মুখে কুলুপ! আর তাছাড়া, খুব কাছের না হলে, এবং প্রাইভেট স্পেইস ছাড়া, যে কাউকে, যেখানে সেখানে, দাম্পত্যজীবন সম্পর্কিত বা পারিবারিক কোন বিষয়ে, এইভাবে কথা বলা উচিত না।

গত পরশু, আরেক স্কুল ফ্রেন্ডের ওয়েডিং রিসেপশনে গিয়েছি। স্টেজে ছবি তুলছিলাম বন্ধুরা। ছবি তোলার শেষে আমার ডানপাশে বসা বান্ধবী বামে বসা বন্ধু/বরকে জিজ্ঞেস করছে, "বিয়ে তো হয়ে গেল, এখন হানিমুন কবে, কোথায়?" আমি ডানে-বামে তাকালাম, তারপরে সামনে ফটোগ্রাফারকে বললাম, "ভাই, আরেকটা!" ভাগ্যিস বদলে গিয়েছি আগের থেকে, নইলে আমিও বলতাম, "আজকাল সবাই মিষ্টি কিনে বাসায় আনার সময়েই প্যাকেট খুলে কয়েকটা গিলে ফেলে! (শয়তানিহাসি)(শয়তানিহাসি)(শয়তানিহাসি) কবেই খেল খতম!"(খিকখিক)(খিকখিক)

*রসিকতা* *বিয়ে* *বান্ধবী* *বন্ধু* *রসিকতা*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: বন্ধু ছোট্ট একটি শব্দ। যার আভিধানিক অর্থ সৌহার্দ্য বা কল্যাণকামী ব্যক্তি, কিন্তু এর ব্যাপকতা অনেক। আত্মীয়তার সম্পর্কের বাইরে যে সম্পর্কটি মানুষের সবচেয়ে কাছের সেটা হলো বন্ধুত্ব। জীবনের প্রতিটি পর্যায়ে নতুন নতুন সম্পর্ক আমাদের জীবনে এলেও একমাত্র বন্ধুত্ব শব্দটিই আমাদের জীবনে স্বমহিমায় ভাস্বর হয়ে থাকে। বন্ধু ছোট বড় সকলের সাথেই করা যায় শুধু মনের মিলটা থাকলেই হয় ।। আর বন্ধুত্ব হবার পরে " কোন বন্ধু কোন বন্ধুকে বলোনা বিদায়"

*বন্ধু* *আত্মা*
ছবি

এরশাদুল বারী সিদ্দিকী ফারাবী: ফটো পোস্ট করেছে

বন্ধুদের সাথে

*বন্ধু*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

শুনলাম বন্ধু নাকি accident করেছে ,তাও আবার রিকশা এর সাথে । জন্মদিনে  আমাদের রেখে girlfriend নিয়ে ঘোরার শাস্তি স্বরূপ টিটকারি মারতে ফোন দিলাম ।
ফোন রিসিভ করতে না করতেই
- ঐ বেটা , শুনলাম রিকাশার সাথে accident করছিস?ঠিক হয়েছি একদম, শুনে খুবই মজা পাইছি । হাজারবার বলছি হাঁটার সময় girlfriend এর দিকে না তাকায়ে থেকে রাস্তায় তাকায়ে চলবি । girlfriend সুন্দর হইছে তো কি হইছে ? btw রিকাশা তোরে মারছে না তুই রিকশারে মারছিস? তোর যে ভুরি !!! রিকশা ঠিক আছে তো ?
- হম !!
- কি হম ? আর তোর গলা এত মোটা হইল কিভাবে?রিকশা গলা দিয়ে চলে গেছে নাকি?
- আমার গলা এমনই ।
- থাবড়ায়ে দাঁত ফালায়ে দিমু,তোর ভয়েস আমি চিনব না? এত দিন ফাটা বাশের মত গলা ছিল ,এখন তৈলাক্ত ফাটা বাঁশ । মনে হচ্ছে তুই রনক না, অন্য কেউ ।
- ঠিকই ধরেছ ,আমি ওর বাবা বলছি ।ও ঘুমাচ্ছে ।
- খাইছে .........আসসালামু আলাইকুম আঙ্কেল ।
- হম !! রনক কার সাথে ছিল সেদিন? ও তো তোমাদের সাথে বেড়াবে বলে বের হয়েছিল ।
- না মানে আঙ্কেল.........হ্যালো , হ্যালো ...শোনা যাচ্ছে না ।

*বাবা* *রসিকতা* *বন্ধু* *গার্লফ্রেন্ড*

বিম্ববতী: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

মঙ্গলময় সুন্দরতম হোক জন্ম,,,,,(বৃষ্টি),,
(বৃষ্টি) তোর এক জন্মদিনে আমরা ক্যান্টনমেন্ট ট্রেন স্টেশন গিয়ে যে ট্রেন সামনে পেলাম উঠে পড়লাম, মনে আছে তোর?,,,বৃষ্টি হচ্ছিলো সেদিন আর আমরা ট্রেনের খোলা দরজায় দাঁড়িয়ে ছিলাম,,,কিযে অদ্ভুদ সুন্দর সেই দিনটা!! অনেক দিনের মাঝে এই দিনটা আমার জীবনের ভীষণ অসাধারণ একটা দিন বিবিধ প্রেক্ষাপটে!! পিউপি মনে আছে তোর-
আমরা কেমন একটা অদ্ভুদ স্টেশনে গিয়ে নেমেছিলাম? কেমন হত দরিদ্র একটা স্টেশন! একদিকে বাউল, কবিরাজের কারসাজি, গণক, প্লাস্টিকের খেলনার ফেরিওয়ালা আর অন্যদিকে অন্যরকম শুধু আমরা,,,মনে হচ্ছিলো ভিন্ন কোনো অজানা শহরে চলে এসেছি,, (বৃষ্টি) নয়তো  (বৃষ্টি) ওটা কোনো  ছোট গল্প,,,,,জীবনটা খন্ড খন্ড গল্পই, তাই না বল! শুধু একটাই ছোট গল্প হলেই বরং ভালো হতো, কি বলিস, হু?
*বন্ধু* *জন্ম*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সীমান্তে রোজ মরছে মানুষ
বিএসএফের গুলিতে
জানেনা কখনও যে কার
লাগবে মাথার খুলিতে ।
মানব মনের একটা গুনও
নাইরে তাদের ঝুলিতে
তবুও শুনি বন্ধু তারাই
নেতার মুখের বুলিতে ।
তোমরা যদি বন্ধু হবে
বছর বারো মাস
তোমার বুলেট ফেলছ কেন
আমার ভাইয়ের লাশ?
সত্যিকারের বন্ধু যদি হতে চাও
অস্ত্র ফেলে ভালোবাসার
হাত বাড়িয়ে দাও ।
ফেলানিকে ফিরিয়ে দাও
তার মায়ের কোলেতে ।।।i>।।।।।।

*বন্ধু* *ভারত* *ফোলানি* *ঘাতক* *বাস্তবতা*

পাগলা হাওয়া: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বউ কি বন্ধু হতে পারে?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

*বউ* *বন্ধু*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

প্রতি বছর আগস্ট মাসের প্রথম রোববারে সারা বিশ্বজুড়ে বন্ধু দিবস পালন করা হয় । কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না বন্ধু দিবস কিভাবে এলো।

১৯৩৫ সাল থেকেই বন্ধু দিবস পালনের প্রথা চলে আসছে আমেরিকাতে। জানা যায় ১৯৩৫ সালে আমেরিকার সরকার এক ব্যক্তিকে হত্যা করে। দিনটি ছিল আগস্টের প্রথম শনিবার। তার প্রতিবাদে পরের দিন ওই ব্যক্তির এক বন্ধু আত্মহত্যা করেন। এরপরই জীবনের নানা ক্ষেত্রে বন্ধুদের অবদান আরতাদের প্রতি সম্মান জানানোর লক্ষেই আমেরিকান কংগ্রেসে ১৯৩৫ সালে আগস্টের প্রথম রোববারকে বন্ধু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেন।

আর বর্তমানে এটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বিশ্বের বহু দেশেই। যাদের প্রতি মুহূর্তের সঙ্গী বন্ধু আর বন্ধুতা, তারা একমুহূর্তেও জন্যওমন থেকে আড়াল করতে পারেন না বন্ধুদের। জীবনের সংকটে এরা ছুটে যান বন্ধুদের কাছে। আবার আনন্দ, উল্লাস কিংবা দিন শেষের অবসরেও এরা ভালোবাসেন বন্ধুত্বের কলতান শুনতে। বন্ধুত্বের পরিপূরক সম্পর্কের মাঝে এরা খুঁজে পান জীবন যাপনের ভিন্ন রস।

বন্ধু দিবসে বিশ্বের সকল বন্ধুদের জানাই শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা।

*বন্ধু* *দিবস* *শুভেচ্ছা*

ফ্রেশ ফ্রজেন: [বাঘমামা-অত্যান্তখুশী]অনেক দিন কথা হয় না দেখাও হয় না ! হঠাৎ যদি এমন কোনো বন্ধু আপনার সামনে এসে দাঁড়ায় ! কেমন হবে আপনার অনুভূতি ! হা হা হা (হাসি২)(খুশী২) ! জানেন ভালো বন্ধু গুলো কখনো হারিয়ে যায় না ! (হার্ট) তারা হয়তো সময়ের প্রয়োজনে দূরে যায় ঠিকই কিন্তু বন্ধুর কাছে ঠিকই ফিরে আসে ! (ইয়েয়ে)(গ্যাংনাম)

*বন্ধু*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ম্যালা দিন আগের কতা ।
যহন পুরা বাসাআ খালি ।
লিটনের ফ্যালাট জিনিস ট্যা এভ্যা কইরা তহনো ছড়ায় নাই ।
রুমে শুয়ে আছি কাথা মুড়ো দিয়ে আর চাচাত ভাইয়ে রান্না ঘরে ভাত চরাইয়া দিছে ।
আরিফে খুজ পাইছে বাসায় কেউ নাই ।
অনেক দিন
ধরেই জ্বালাইতাছে কবে বাসার সবাই বাইরে যাবে আর বাসা ডা
দুই চার দিন এর জন্য খালি হইবো ।

 

আরিফ ফাজিলে তহন পড়ে কালাস এইট এ আর ঐর প্রেমিকা পড়ে কেলাস সিক্স এ ।

এমনি তেই শীত তার উপর মাথায়র উপর ফ্যান ঘুরতাছে
আর রুম ডা রে গ্রীনল্যান্ড এর মতন শীতল কইরা ঘুমাইতাছি
। এর মাঝে আরিফ তার প্রেমিকা কে নিয়ে একবারে বাসার
রুমের মাঝে ডুকে ডাকাডাকি শুরু করছে ।

 

চাচাতো ভায় ভয়ে রান্না ফালাইয়া আইয়া দেহে এক মাইয়া নিয়ে আরিফ রুমে দাড়াইয়া আছে ।

মাথা বের করে দেখার চেষ্টা করলাম ঘটনা কি ।
--ভাইয়া ভালো আছেন তো
হুম আমি ভালো
আপনি ভালো তো
এই মেয়ের সাথে এমন হরর পরিস্থিতিতে বাচ্চিত করতে ভয় ই লাগতাছে ।

 

কাথা গায়ে জড়িয়ে অন্য রুমে গেলাম কাপড় ঠিক করতে । এসে দেখি মেয়ে আমার রুমে পরিষ্কার করে দিছে যেটা দুই দিন ধরে আমাজান এর বন হয়ে আছিলো ।

 

আরিফে কইলো বাইরে গিয়া পাহারা দে আমাগো একটু একলা ঘরে থাকতে দে ।

 

নতুন কেনা ফোন নিয়া চাচাত ভাই রে নিয়া বাইরে গিয়া দরজার ফাক দিয়ে কি হয়ে দেখার বহুত চেষ্টা করলাম ।


উপায় না পেয়ে ঘরের বাইরে জানালার পাশে গিয়ে কান পেতে শুনার চেষ্টা করতাছিলাম আরিফে কি আলাপ পারে ।

 

চাচাত ভাই আইবার লইয়া ক্যাদায় পড়ে বিরিকিচ্ছিরি অবস্থায় পড়ে ফিরে গেলো ।

 

না সেই বার আরিফ তেমন কিছুইই করতে পারে নাই ললনার হাত খান ধরা ছাড়া ।
তাগোর বিদায় দিয়া আমরা রান্না করতে শুরু করতে করতে আলাপ জুড়ে দিলাম

আমাগোর কি হইবো সামনে ।

 

চাচাত ভাই সামিরে নতুন এক নাম্বার যোগার কইরা মিস কল দিতাছে এই ভরসায় যে মাইয়া কল করতে পারে ।

তহন অবশ্য সাত টেহা মিনিট ছিলো ফোন তাই মিস কল দিয়েই প্রেমের শুরু করন লাগতো ।
#ronykhan_ron

*রুমডেট* *ভালোবাসা* *আদিম* *আবেগ* *বন্ধু* *মেয়ে*

Mahi Rudro: . পড়া আমার হয়নি তো কী ! ভাবছি নাতো বিলকুল---- বন্ধুরা সব ভীষণ ভালো ওরা সবাই হেল্পফুল। (মাইরালা২)

*বন্ধু*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

তুমি আমার কেমন বন্ধু ? প্রকৃতির দান একটু পানি চাইলাম তাও তুমি দিলে না ?
*পানি* *বন্ধু* *প্রকৃতি*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: বন্ধুত্বের বুক জুড়ে ধুতুরার চাষ সীমান্তে ঝুলে বাঙালীর লাশ।

*লাশ* *বন্ধু* *বাস্তবতা*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সম্পর্ক গুলো বুঝতে হয়।।
কোন সম্পর্কের গভিরতা কত, সেটা যেমন বুঝতে হয়! সম্পর্ক গুলোর স্থায়িত্ব কত সেটাও বুঝতে হয়।

চায়ের দোকানে সিগারেট ধরাতে গিয়ে অপরিচিতি কোন মানুষকে সিগারেট ধরিয়ে দেয়ার ভিতর দিয়েও এক ধরনের সম্পর্কের সৃষ্টি হয়। তারপরে দুই জনে একসাথে চা খাওয়া আর চা খাওয়ার পরে পরস্পরের মাঝে চায়ের বিল দেয়া নিয়ে জোরাজুরি......।। এই ধরনের সম্পর্ক গুলোর সৃষ্টি যেমন চায়ের দোকানে, তেমন ইতিও হয় ওই চায়ের দোকানেই।।

বাবা-মা, ভাই-বোন সব কিছুকে ছাপিয়ে কিছু সম্পর্ক সৃষ্টি হয়। এই সম্পর্ক গুলো সৃষ্টি হয় এক সাথে পথ চলতে চলতে। এই সম্পর্ক গুলোর কোন সংজ্ঞা নেই। কিভাবে টিকে থাকে তাঁর কোন ব্যাখ্যা নেই। এই ধরনের সম্পর্কের শুধু শুরুর গল্প থাকে, শেষ বলে কিছু নাই বলেই হয়তো কিভাবে শেষ হয়, সেই গল্প কারও জানা থাকে নাহ!

এই ধরনের সম্পর্ক গুলো চিরকাল চলে নীরবে। অনেক দিন কোন কথা নাই, দেখা নাই, খোঁজ নেয়া নাই.........তাতে কি? যে দিন দেখা হবে ঠিক সেই দিন-ই ফিরে যাবে তাঁরা তাদের পুরনো সেই দিনে...।। সব দূরত্ব/ বাঁধা গুলোকে পাশ কাটিয়ে ফিরে যাবে তাঁরা তাদের পুরনো সেই আড্ডার আমেজে। মনে হবে, এইতো গতকাল-ই ঠিক এই ভাবে আড্ডা দিয়ে বাসা ফিরেছিলাম দুইজনে।।

যদি কখনও মনে হয় কোন দুইজনের, হোক সে বন্ধু, হোক সে বান্ধুবি, হোক সে গার্লফ্রেন্ড কিংবা বয়ফ্রেন্ড.........হোক যে কোন ধরনের-ই সম্পর্ক......।। যদি কখনও কেউ তাদের পথ চলার গল্পের শেষটা লিখতে পারে, তাহলে বুঝতে হবে তাদের মাঝে আসলে কোন সম্পর্ক সৃষ্টি- ই হয়নি।

ও দুঃখিত। হয়েছিলো............ তবে যা হয়েছিলো, তা ওই যে চায়ের দোকানে সৃষ্টি হওয়া সম্পর্কের চাইতে বেশি কিছু নাহ!

*সম্পর্ক* *ভালোবাসা* *বন্ধু* *বাবা* *মা* *আবেগ*বাস্তবতা**

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কিছু কিছু বন্ধু থাকে সবার জীবনে। যারা ভাব দেখায় এমন, জীবন সম্পর্কে তাদের ধারণা সবার থেকে বেশি। যারা শুধু বিপদে পড়লেই আপন সাজতে চায়। বন্ধু নামের এই কাপুরুষ গুলো ঘুরে বেড়ায় আপনার আমার সবার পাশ দিয়ে। এরা কখনও আপনার বিপদ দেখে নাহ। এরা শুধু ঝামেলা বাড়াইতে পারে। কথায় কথায় এরা বন্ধুত্ব নিয়ে কথা বলে কিন্তু 'বন্ধুত্ব' কি জিনিস এটা বোঝার ক্ষমতা ওদের নেই। ওরা মানুষিক ভারসাম্যহীন। ওরা মনে করে মানুষের সামনে বন্ধুকে পচায়ে বোধয় নিজে অনেক বড় হওয়া যায়। জীবনে অনেক ভাল বন্ধু পেয়েছি তাদের সম্মানে বলতে চাই "এমন বন্ধু থাকার চেয়ে না থাকাই ভাল"।

অবশ্যই বন্ধু নির্বাচনে আপনার ভাল আর খারাপ বিবেচনা করা উচিৎ। আপনার ভাল বন্ধুরা ঠিকই কাছে এসে আপনার বন্ধু হতে চাইবে যদি আপনি নিজের মত নিজেকে গড়ে তোলেন। আমার মনে হয় বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে বন্ধুদের নকল না করে আপনার ব্যক্তিগত ভালোলাগা আর স্বভাবের কদর করা উচিৎ। কারণ, নিশ্চয়ই আপনার গুন আর স্বভাবের কারনেই আপনার আসে পাশের মানুষ গুলো আপনার সাথে বন্ধুত্ব করেছিল। আর যদি আপনি লোকের কথা মত নিজেকে পরিবর্তন করতে চান তাহলে জেনে রাখা ভাল যে আপনি নিজেকে হারিয়ে ফেলতে বসেছেন!!

আপনি যতই ধনী হন, একটা কথা মনে রাখা ভাল সমাজে চলতে হলে সামান্য মুচি বন্ধুটি কেও আপনি ছোট করে দেখাতে পারেন না। কারণ, নিশ্চয়ই আপনি রাস্তায় খালি পায়ে হাঁটা পছন্দ করবেন নাহ! আরে ভাই বন্ধু হতে গেলে তো টাকা লাগে নাহ মনের মিল থাকা লাগে!

*বন্ধু* *ভালোবাসা* *মন* *খারাপ* *আবেগ* *বাস্তবতা*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: বন্ধুত্বে যদি সত্যিই প্রাণের টান থাকে তবে ৫০ বছর কোনও যোগাযোগ না থাকার পরে দেখা হলেও বন্ধুরা একে অপরকে ঠিক আগের মতোই জড়িয়ে ধরে। সত্যি বন্ধু সেই ক্লাশ ৫ এ লাষ্ট দেখা তারপর আবার হুট করে তোর দেখা পাওয়া সত্যি চোখের কোনে পানি নিয়ে আসলো ।। সেই পুরনো টান জড়িয়ে ধরে পিঠের মাঝে থাপ্পর দেয়া কি করে ভূলি বল ।। বন্ধু তো সবার কপালে থাকেনা ।। আমি ভাগ্যবান তর মত বন্ধু পেয়ে ।। ধন্যবাদ আল্লাহকে হুট করে যুগের শেষে তোকে মিলিয়ে দেয়ায় ।।

*বন্ধু* *আবেগ* *ভালোবাসা*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★