বর্ষাকাল
বর্ষাকাল নিয়ে কি ভাবছো?

nazrul islam : *বর্ষাকাল* সকালের প্রথম রোদে বেশ উজ্জল ছিল ওই লাল রঙা ফুল সকলের দৃস্টি পড়েছিল তার গর্বিত সৌন্দর্যে কেমন যেন কুঁচকিয়ে যাচ্ছে যৌবনের টনটনে সুন্দর ত্বক আহ্ যৌবন,উচ্ছল,উদ্যাম! হারিয়ে যায় নীরবে; যায় কোথায়? - কোথায়?

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বর্ষাকালে চোখের সংক্রমণ রোধে কি করা যেতে পারে?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*বর্ষাকাল* *চোখেরসংক্রমণ* *স্বাস্থ্যতথ্য* *হেলথটিপস*

উদয়: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বর্ষার বৃষ্টিতে ভিজলেই সর্দি-কাশি হয় --- বর্ষাকালে রোগ বালাইয়ের হাত থেকে রক্ষা পেতে কি করণীয়?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*বর্ষা* *বৃষ্টি* *সর্দি-কাশি* *স্বাস্থ্যতথ্য* *বর্ষাকাল* *হেলথটিপস*

Jesmin jahan Mhona TV: *বর্ষাকাল* কোমেনের প্রভাব কাটিয়ে গত সোমবার থেকে রাজধানীর আকাশে দেখা মিলেছিল রোদ্দুরের। কিন্তু কয়েক দিন যেতে না যেতেই আবার রাজধানীতে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে হঠাৎ করেই বৃষ্টি শুরু হয়ে। তবে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে এটা কোনো হঠাৎ বৃষ্টি নয়। এটি ব(খুকখুকহাসি)

সুমন (দুষ্ট পাখির বাবা): ভেবেছিলাম *বর্ষাকাল* শেষ হলে *বিছানাকান্দি* যেয়ে *আষাঢ়েগল্প* শুনবো আর *খিচুড়ি* খাব কিন্তু হায়রে কপাল আপুর *শখেরবাগান* *বৃষ্টি*র কারণে নষ্ট হলে বাসার *পরিস্থিতি**গরম* হয়ে উঠে তাই *গ্যাঞ্জাম* থেকে বাঁচতে *টঙের-দোকান* বসে আছি.....

*বর্ষাকাল* *বিছানাকান্দি* *আষাঢ়েগল্প* *খিচুড়ি* *শখেরবাগান* *পরিস্থিতি**গরম* *গ্যাঞ্জাম*

3niR: *বর্ষাকাল* মাথায় উপর ছাদ থাকলে সুখই বটে...(চাখাই)

ঈশরাত জাহান ঈশিতা: *বর্ষাকাল* বৃষ্টি স্কুল থেকে ফিরছি রিকশা নাই, আমি আর আমার বান্ধবী এক ছাতার নিচে ভিজে শেষ ছাতা টানাটানি করছি পেছনে ২টা ছেলেও একই ছাতার নিচে কান্ড দেখে হেসে ফেললবান্ধবী রেগে একগাল শুনিয়ে দিল আমি পিছনেতাকিয়ে দেখি মহল্লার বড় ভাই বহুদিন কথাই বলি নি...(লজ্জা২)

সৌরভ আহমেদ: *বর্ষাকাল* পদ্মা নদীর মাঝখানে ছোট একটা ডিঙি নৌকায় বসে দোল খাচ্ছিলাম আর সুর্যাস্ত দেখছিলাম গোধূলি বেলায়। হঠাৎ আকাশ কালো করে বৃষ্টি এল। ছোট লঞ্চটা দুলছে; বৃষ্টির সাদা পর্দা ভেদ করে ১০ হাত দূরে দেখা যায় না। আর কোনো ঘটনা নেই।(খুশী২)

জুবায়ের নাইম: *বর্ষাকাল* ---- কারো সুখ আবার কারো দুখ ---- (মনখারাপ)

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

নারীদের সৌন্দর্য্যর অন্যতম একটি উপকরনণ হল গহনা। গহনা পরতে ভালবাসেনা এমন নারীদের সংখ্যা হাতে গোনা। গহনা যে ধরনের হোক না কেন নিয়মিত যত্ন নিতে হয় এর। বিভিন্ন ধরনের গহনার যত্নের ধরনটাও কিন্তু ভিন্ন ৷সোনা,রুপা,হীরা,মুক্তা গহনার উপকরণ হিসেবে বেশ জনপ্রিয়।তবে বর্তমানে স্বর্ণ, রুপা, হীরার বা রুপার গহনার পাশাপাশি নারীদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে অ্যান্টিক, মাটির গয়না, কাঠের গয়নাসহ বিভিন্ন ধরনের গহনা। তবে গহনা পরলেই হবেনা, নিতে হবে এসবের বিশেষ যত্ন। বর্ষায় গহনার বিশেষ যত্ন নেওয়া প্রয়োজন ৷গহনা এইসময় বিশেষ বাক্সে রাখবেন এবং তা পরিষ্কার করার জন্য কোনও পেপার টিস্যু ব্যবহার করা উচিত নয় ৷

থাকছে গহনার যত্ন নিয়ে বিশেষ কিছু টিপস।

সোনার গহনা: সোনা অনেক দিন পুরোনো হয়ে গেলে এর উজ্জ্বলতা কমে যায়। উজ্জ্বলতা বাড়াতে একটি পাত্রে পানির মধ্যে একটু ডিটারজেন্ট পাউডার মিশিয়ে তার মধ্যে স্বর্ণের গয়না একটু টুথপেস্ট লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে, টুথব্রাশ দিয়ে সাবধানে হালকাভাবে ঘষে নিন। দেখবেন আপনার স্বর্ণের গহনা আবার নতুনভাবে উজ্জ্বলতা ফিরে পেয়েছে। এরপরও যদি কালচে ভাব থেকে যায়, তাহলে স্বর্ণের দোকানে নিয়ে পলিশ করাতে পারেন। কিন্তু বারবার পলিশের ফলে স্বর্ণের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারিয়ে যায়। সোনার গহনা সামান্য আঘাতে বেঁকে যায়। তাই এ দিকটি বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। 

পাথরের গহনা: ভারী কুন্দন, পাথর বসানো গহনা গরম পানিতে নরম কাপড় ভিজিয়ে ঘষে পরিষ্কার করলে গয়না ঝকঝকে হয়ে উঠবে। দামি পাথর বসানো গয়না পড়ে খেলাধুলা বা ভারী কাজ করা ঠিক না।

গোল্ড প্লেটের গহনা: স্বর্ণের দাম বেড়ে যাওয়ায় বর্তমানে গোল্ড প্লেটের গহনার ব্যবহার বাড়ছে। এই গহনা ব্যবহার শেষে টিস্যু দিয়ে মুড়িয়ে যত্ন করে রাখতে হবে। গোল্ডপ্লেটের গয়না ব্যবহারের সুবিধা হচ্ছে কালো হয়ে গেলে স্বর্ণের দোকানে নিয়ে গেলে আবার রং করিয়ে নেওয়া যায়। রং করার পর নতুনের মতো দেখাবে।

অ্যান্টিক মেটালের গহনা: অ্যান্টিকের গহনা ব্যবহার না করলে বর্ণহীন দেখায়, তবে একফালি লেবু নিয়ে গয়না ঘষে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে গয়না ঝকঝক করবে।

হীরার গহনা: হীরার গহনা পরিষ্কার করতে হলে একটু টুথপেস্ট ব্রাশে নিয়ে ঘষে, পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। তারপর পরিষ্কার করে টিস্যু দিয়ে মুড়িয়ে রাখতে হবে। হীরার গহনার যত্ন নিলে নতুনের মতো দেখায়। স্বর্ণ, রুপা, হীরা ও মেটালের গহনা একই বাক্সে রাখা উচিত না। আলাদা আলাদা বক্সে টিস্যু দিয়ে মুড়িয়ে রাখতে হবে।

রুপার গহনা: রুপার গহনা তার ভৌত কারণে এমনিতেই ক্ষয়প্রবণ,তাই এর দরকার সময়ে সময়ে পরিস্কার করার৷রুপো আবহাওয়ার আদ্রতার কারণে অন্যান্য ধাতুর তুলনায় খুব তাড়াতাড়ি জেল্লা হারিয়ে ফেলে ৷ তাই রুপোকে সবসময় আদ্রতা প্রতিরোধকারী পাত্র বা কন্টেনারে মধ্যে রাখা উচিত ৷

প্রবাল ও মুক্তার গহনা: প্রবাল ও মুক্তার গহনার বিশেষ যত্নের দরকার হয়৷ হেয়ার স্প্রে ও পারফিউম থেকে প্রবাল ও মুক্তোর গহনাকে দূরে রাখবেন ৷ কারণ এইগুলোর স্প্রে এই গহনায় লাগলে তার জৌলুস নষ্ট হয়ে যায়,অনেকক্ষেত্রে গহনাটাও নষ্ট হয়ে যায় ৷ মুক্ত এমনিতেই খুব ডেলিকেট হয়, তাই এর ঠিকমতো দেখাশোনা করা না হলে খুব সহজেই এটার স্ক্যাচ পরে যায়৷ তাই মুক্তার গহনা ব্যবহার করার পর আপনারা নরম প্যাকেট বা প্ল্যাস্টিকের ব্যাগে যত্ন-সহকারে রাখবেন ৷


তবে সবচেয়ে ভালো হয় যদি আপনারা গহনার ধরণ অনুযায়ী বাক্স বাছাই করেন ৷ রপো, সোনা, হিরে, মুক্তার গহনা এক জায়গাতে না রাখাই ভালো ৷ এতে গহনাগুলির পরস্পর ঘষাঘষিতে উজ্জ্বলতা কমে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি ৷গহনা ব্যবহারের পর ভালভাবে পরিস্কার করে রাখুন। মেক আপ করার পর গহনা পরিধান করুন। যেন মেক আপের উপকরণ গহনায় না লাগতে পারে। একটু যত্ন নিলেই আপনার গহনা উজ্জল থাকবে অনেক দিন।

*বর্ষাকাল* *গহনা* *গয়না* *গহনারযত্ন*

আজি ঝর ঝর, মুখর বাদল দিনে

৬০৪ টি পোস্ট আছে

এত্ত গরম, আবহাওয়া দেখে মনে হচ্ছে দেশটা মরুভূমি হয়ে যাবে নাকি!

২৯৩ টি পোস্ট আছে

উদ্ভট গল্পের সমাহার

১২২ টি পোস্ট আছে

আয় বৃষ্টি ঝেঁপে, ধান দিবো মেপে

১১৬ টি পোস্ট আছে

দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা

৯৮ টি পোস্ট আছে

বৃষ্টির দিনে, শীতকালে কিংবা সারা বছর

৫২ টি পোস্ট আছে

ইট-পাথরে শখের বাগান!

৩৩ টি পোস্ট আছে

গ্যাঞ্জাম ছাড়া আমাদের লাইফ- অসম্ভব!

২৭ টি পোস্ট আছে

সবসময় হিট

২৬ টি পোস্ট আছে

১৩ টি পোস্ট আছে