বিজয়

উদয়: একটি বেশব্লগ লিখেছে

পরাধীনতার গ্লানি মুছে স্বাধীন দেশ হিসেবে নিজস্ব ভূখণ্ড আর সবুজের বুকে লাল সূর্য খচিত নিজস্ব জাতীয় পতাকা অর্জনের আনন্দে যখন গোটা দেশ ভাসছে তখনো পরাধীন কিশোরগঞ্জবাসী। রেসকোর্স ময়দানে পাক হানাদার বাহিনী আত্মসমপর্ণের একদিন পর ১৭ ডিসেম্বর শত্রুমুক্ত হয়ে কিশোরগঞ্জ ও বাগেরহাট জেলায় উড়ে স্বাধীন দেশের পতাকা। ১৭ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৭টার দিকে শহরের পূর্ব দিক দিয়ে কিশোরগঞ্জে প্রবেশ করে একদল মুক্তিযোদ্ধা। এতে নেতৃত্ব দেন কবীর উদ্দিন আহমদ। শহরের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চল দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের আরেকটি দল আলবদরদের বাধা অতিক্রম করে কিশোরগঞ্জে প্রবেশ করে। এতে নেতৃত্ব দেন হান্নান মোল্লা, ছাব্বির আহমেদ মানিক ও আনোয়ার কামাল।

মিত্র বাহিনীর ক্যাপ্টেন চৌহানের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের আরেকটি দল কিশোরগঞ্জ শহরে প্রবেশ করে। এর পরই পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী আত্মসমর্পণ করে। পুরান থানা শহীদী মসজিদ সংলগ্ন ইসলামিয়া ছাত্রাবাস মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে অস্ত্র সমর্পণ করে পাকিস্তানি দোসররা। কিশোরগঞ্জের আকাশে ওড়ে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা। একই দিনে মুনিগঞ্জ এলাকা দিয়ে বাগেরহাট শহরে প্রবেশ করে মুক্তি ‘রফিক বাহিনী’। এতে নেতৃত্ব দেন রফিকুল ইসলাম খোকন।  শহরের উত্তর-পূর্ব দিক দিয়ে প্রবেশ করে ‘তাজুল বাহিনী’। যার নেতৃত্ব দেন ক্যাপ্টেন তাজুল ইসলাম। দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে বাগেরহাট শহরে প্রবেশ করে মেজর জিয়া উদ্দিনের নেতৃত্বে আরেকদল মুক্তিযোদ্ধা।

মুক্তিবাহিনীর অসামান্য প্রতিরোধে ১৭ ডিসেম্বর দুপুরে বাগেরহাট শত্রু মুক্ত হলে স্বাধীন দেশের পতাকা উত্তোলন করে বীর মুক্তিযোদ্ধারা। নিজস্ব সংস্কৃতি ও স্বতন্ত্র সত্তা অর্জনের আনন্দে মেতে উঠেন বাগেরহাটবাসী। ‘জয় বাংলা’ শ্লোগানে মুখরিত হয় বাগেরহাটের আকাশ বাতাস।

সূত্র : ইন্টারনেট

*বাগেরহাট* *বিজয়* *স্বাধীনতা* *১৬ডিসেম্বর*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

ত্রিশ লক্ষ মানুষকে যদি একের উপর এক শোয়ানো হয় তবে তার উচ্চতা হবে ৭২০ কিলোমিটার, যা মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতার ৮০ গুণ! ত্রিশ লক্ষ মানুষ যদি হাতে হাত ধরে দাঁড়ায় তবে তার দৈর্ঘ্য হবে ১১০০ কিলোমিটার, যা টেকনাফ হতে তেঁতুলিয়ার দূরত্বের চেয়েও বেশি!
ত্রিশ লক্ষ মানুষের শরীরে মোট রক্তের পরিমাণ ১.৫ কোটিলিটার, যা শুকনো মৌসুমে পদ্মা নদীতে প্রতি সেকেন্ডে প্রবাহিত পানির সমান! (সংগৃহীত) এতটা মূল্য দিয়ে অর্জিত আমাদের এই স্বাধীনতা নিয়ে এখনো চলছে ছেলেখেলা। এখনও নানা ষড়যন্ত্র। সবুজ আয়তক্ষেত্রের মাঝে লাল বৃত্তটা শুধুই কি বৃত্ত?
*বাংলাদেশ* *বিজয়* *স্বাধীনতা*

A1-Mamu9 রাসেল: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

বাংলাদেশ :
আজ আমরা জয়ী...
বেশতোর সকলকে...
*বিজয়* *বিজয়ের_মাস* *ডিসেম্বর*

দীপ্তি: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

শীত এসে গেছে , বিজয় এসে গেছে
ছোটবেলায় স্যারের ভয়ে রচনায় আমার প্রিয় ঋতু বসন্তকাল লিখলেও আসলে শীতকালটাই আমার প্রিয় ঋতু (শয়তানিহাসি)
বিজয় নিশান উড়ছে ঐ (খুকখুকহাসি)
*শীত* *বিজয়* *ডিসেম্বর*

শুভাশীষ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বিজয় কীবোর্ড দিয়ে স্বরবর্ণ ও যুক্তাক্ষর টাইপ করার নিয়ম কি?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*বিজয়* *বাংলাফন্ট* *কীবোর্ড* *যুক্তাক্ষর* *স্বরবর্ণ*

শুভাশীষ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বিজয় কীবোর্ডে বাংলা কিভাবে লিখতে হয়?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*বিজয়* *বাংলাফন্ট* *বাংলাটাইপ*

মাইরালা: [ক্রিকেটরঙ্গ-নেতোরাব্যাডমিন্টনখেল] ফাকিস্তান আজ ব্যাডমিন্টন খেলবে আজকের ম্যাচে আমরাই জিতব (খুশী২)

*বিজয়* *ক্রিকেট*

হাফিজ উল্লাহ: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

রাতের পর অবশ্যই দিন আসবে এটা যেমন চরম সত্য ঠিক তেমনি চরম সত্য অন্ধকার মাড়িয়ে আসবে বিজয়ের আলো l কিন্তু সেই আলো দেখার জন্যে তোমাকে রাতের অন্ধকার সহ্য করে টিকে থাকতে হবে।
*বিজয়* *অন্ধকার* *চরমসত্য*

জিসান জাকারিয়া: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

ইতিহাস সব সময় বিজয়ীরাই লেখে এবং সত্য সব সময় বিজয়ী হয় (চিন্তাকরি)
*ইতিহাস* *বিজয়* *সত্য* *বিজয়ী*

Mahi Rudro: [বিজয়-হত্যা] জন্মিলে মরিতে হবে রে, জানে তো সবাই তবু মরণে মরণে অনেক ফারাক আছে ভাই রে, সব মরণ নয় সমান....

*বিজয়* *আত্মদান*

মুখোশ: [বৈশাখ-আলপনা]

*বিজয়*

দস্যু বনহুর: [বিজয়-আমরাতোমাদের] এখনও মনে হলে আমার গা জ্বলে যায়! ১৯৭১ এর ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় দিবস অথচ পাকিস্তান সেনাবাহিনী আত্মসমর্পন করল ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে!! প্রধান রাজনৈতিক দলের একটুও সম্মানে বিঁধলো না! মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান, আত্মত্যাগ ধুলায় লুটিয়ে দিলো!! হাবিলদার, সৈনিক আর সাধারন মানুষ শহীদ হল অথচ কোন নেতার একটা পা'ও ভাঙ্গলো না!!!

*বিজয়* *লজ্জা*

দীপ্তি: [বিজয়-বিজয়েরঘুড়ি] দেশ স্বাধীন হওয়ার পর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে সুজেয় শ্যামের সুরে ‘বিজয় নিশান’ গানটা বেজেছিল সারা দিন (খুকখুকহাসি)

*বিজয়* *দেশস্বাধীন*

মনিরুল: সবকটা জানালা খুলে দাওনা আমি গাইব গাইব বিজয়েরই গান ওরা আসবে চুপি চুপি যারা এই দেশটাকে ভালোবেসে দিয়ে গেছে প্রাণ।। চোখ থেকে মুছে ফেল অশ্রুটুকু এমন খুশির দিনে কাঁদতে নেই হারানো স্মৃতি বেদনাতে একাকার করে মন ডাক দিলে ওরা আসবে চুপি চুপি যারা এই দেশটাকে ভালোবেসে দিয়ে গেছে প্রাণ। কেউ যেন ভুল করে গেয়ো নাকো মন ভাঙা গান।। আজ আমি সারানিশি থাকব জেগে ঘরের আলো সব আঁধার করে। তৈরি রাখব আতর গোলাপ এদেশের প্রতিটি ঘরে ঘরে ওরা আসবে চুপি চুপি যারা এই দেশটাকে ভালোবেসে দিয়ে গেছে প্রাণ। কেউ যেন ভুল করে গেয়ো নাকো মন ভাঙা গান।। সবকটা জানালা খুলে দাওনা আমি গাইব গাইব বিজয়েরই গান ওরা আসবে চুপি চুপি যারা এই দেশটাকে ভালোবেসে দিয়ে গেছে প্রাণ।। আমি গাইব গাইব বিজয়েরই গান।।।

*বিজয়* *১৯৭১* *ডিসেম্বর*
ছবি

সাদাত সাদ: ফটো পোস্ট করেছে

বিজয়ের মাসে বিজয়ের আনন্দে

টুকিটাকি একটু রং লাগানো (খুকখুকহাসি)

*বিজয়* *স্বাধীনতা* *ডিসেম্বর*

আমানুল্লাহ সরকার: [বিজয়-জিতছি] শুরু হল বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। বাঙ্গালি জাতির পরধীনতা থেকে মুক্তির মাস। আসুন বিজয়ের এই মাসে আমরা বেশতোর সাথে বিজয় উল্লাসে মেতে উঠি।

*বিজয়* *ডিসেম্বর* *মুক্তিযুদ্ধ*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★