বিজয়ের পোশাক

বিজয়েরপোশাক নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ডিসেম্বর, বাঙালির অহংকারের মাস। কারণ এই ডিসেম্বরের ১৬ তারিখটা এনে দিয়েছে বিজয়, তাই পুরো ডিসেম্বর মাস্টার যেন বিজয়ের গৌরবে মেতে ওঠার উপলক্ষ্য। আর তাই তো, আজন্ম সৃজনশীল বাঙালির এই উদযাপন কেবল গল্প, গান কিংবা কবিতায় আর সীমাবোধ নয়, বরং বসনেও হয়েছে  তার প্রকাশ। বিজয়ের মাসজুড়ে লাল-সবুজকে নিয়েই শুরু হয়েছে বিজয় উল্লাস ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের যত আয়োজন। শাড়ি, ফতুয়া, পাঞ্জাবি, কুর্তা, টি-শার্ট ইত্যাদিতে তুলে ধরা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের নানা স্লোগান এবং লাল-সবুজ রং। মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত করতে অন্য অনেক উপাদানের সঙ্গে ছিল মুক্তির গান। তাই বিজয়ের বিভিন্ন পোশাকেও দেখা মেলে মুক্তির গানের জলছাপ। প্রচলিত পোশাকেই সাজানো হয়ে থাকে বিজয় দিবসের সংগ্রহ। বিশেষ করে স্ক্রিনপ্রিন্ট করা শাড়ি আর পাঞ্জাবি বিজয় দিবসের ফ্যাশনের মূল আকর্ষণ। 

বড়দের পোশাকের পাশাপাশি ছোটদের পোশাকেও একই ধরনের ডিজাইন করা হয়েছে। ডিজাইনের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে পতাকার রং। ব্যবহার করা হয়েছে একটু ভারী কাপড়। এবার বিজয়দিবস উপলক্ষ্যে ইতিমধ্যে জমে উঠেছে কেনাকাটা। শাড়ি, পাঞ্জাবি, সালোয়ার-কামিজ, ফতুয়া, টি-শার্ট, শার্ট প্রভৃতি পোশাকে কাজ করা হয়েছে এমব্রয়ডারি, অ্যাপ্লিক, ব্লক, হাতের কাজ, সপ্রে, হ্যান্ডপেইন্ট, টাইডাই প্রভৃতি। লাল-সবুজের পাশাপাশি পোশাকে ব্যবহার করা হয়েছে আকাশি, মেরুন, ধূসর প্রভৃতি রং। কাপড়ের পোশাকে তুলে ধরা হয়েছে দেশাত্মবোধক নানা লাইন। কাজের মাধ্যম হিসেবে টাইডাই, ব্লক, বাটিক, অ্যাপলিক, ক্যাটওয়াক, স্ক্রিনপ্রিন্ট ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

শীত শীত আবহাওয়ার জন্য একটু মোটা কাপড়ে পোশাকগুলো তৈরি করা হয়েছে এবং পোশাকে রং নির্বাচনের ক্ষেত্রে বিজয়ের প্রচলিত লাল-সবুজের পাশাপাশি অন্যান্য রংগুলো এসেছে পোশাক ও বিজয় দিবসের মর্যাদার সঙ্গে সমন্বয় রেখে। ফ্যাশন হাউজগুলোতে বিজয়ের স্মারক হিসেবে উপহার সামগ্রীর আয়োজন রাখছে। এর মধ্যে রয়েছে জেনুইন লেদারের ওয়ালেট, কার্ড হোল্ডার এবং সুতি কাপড়ের ব্যানডেনা, রিস্টব্যান্ড, মগ  ইত্যাদি।বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ ১০ ফ্যাশন হাউজের সম্মিলিত প্ল্যাটফর্ম ‘দেশীদশ 'য়ে শুরু হয়েছে বিজয় উৎসব।অংশীদার ১০ ফ্যাশন ঘরগুলো হল- নিপুণ, কে ক্র্যাফট, অঞ্জন’স, রঙ বাংলাদেশ, বাংলার মেলা, সাদাকালো, বিবিআনা, দেশাল, নগরদোলা ও সৃষ্টি। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সুতরাং দেশীদশ থেকে সংগ্রহ করতে পারেন আপনার পচনের বিজয় পোশাকটি আর বসনে প্রকাশ করুন আপনার বিজয়ের উল্লাস। ফ্যাশান হাউজ ছাড়াও বিজয়ের লাল সবুজ পোশাক কিনতে যেতে পারেন রাজধানীর নিউমার্কেট, আজিজ সুপার মার্কেট, বেইলী স্টার মার্কেট, বসুন্ধরা শপিং মলসহ বিভিন্ন মার্কেটে। এসব মার্কেট থেকে পোশাকগুলো পাওয়া যাবে ৩৫০ থেকে ২ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে। আর নানা ধরনের ব্যান্ডানা পাওয়া যাবে ২০ টাকা থেকে ৫০ টাকা এবং ব্রেসলেট পাওয়া যাবে ২০ টাকা থেকে ১৫০ টাকার মধ্যে। আর অনলাইনে কিনতে চাইলে আজকেরডিল হচ্ছে বেস্ট মার্কেটপ্লেস। আজকেরডিল থেকে বিজয়ের পোশাক কিনতে ছবি ও নিম্নের লিংকগুলোতে ক্লিক করুন।

বিজয়ের পোশাক (Alvina) 

বিজয়ের পোশাক (Everythingbd) 

*বিজয়েরপোশাক* *বিজয়দিবসেরফ্যাশন*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★