বুবু

সাদাত সাদ: [বইমেলা-প্রেমেরউপন্যাস] ছোটবেলা প্রেমের উপন্যাস পড়া ছিল দণ্ডনীয় অপরাধ। একদিন বাজার থেকে ৪০ টাকা দিয়ে একটা উপন্যাস নিয়ে আসার পর, বুবু সেটা দেখে ফেলল। বুবু মাকে সেই কথাটা বলেছিল অতি কষ্টে (মাইরালা) কথা গুলো ছিল এরকম : তোমার ছেলে খারাপ হয়ে যাচ্ছে গো। এই কথা আমি প্রায়ই বুবুকে বলতাম, ছেলেটা খারাপ হয়ে যাচ্ছে গো (শয়তানিহাসি) এখনও মাঝে মাঝে বলি সে কথা। পরে অবশ্য উপন্যাস টা আমার পড়ায় হয়নি (ফুঁপিয়েকান্না) ঐ আমার বয়স ছিল ১৪, এই বয়সে উপন্যাস পড়া কোনো পাপ কি না জানিনা। হয়তো বড়দের চোখে এটা খারাপ কিছু ছিল ...(খুকখুকহাসি) বুবু i love you (ভালবাসি)

*বুবু*
ছবি

সাদাত সাদ: ফটো পোস্ট করেছে

ছবি

সাদাত সাদ: ফটো পোস্ট করেছে

বুবু তুমি ............

@dipty @rashida4 @saadiia (খুশী২)

*বুবু*

সাদাত সাদ: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

ঈদে নতুন জামা না হলে, ঈদ টা বড়ই বেমানান মনে হয়।
বুবু দের ঘরের আলনা ভর্তি, বাহারি ড্রেস থাকার পরে ও ঈদে নতুন ড্রেস যেমন "পাখি "কিরনমালা " হাতির মালা " এসব ড্রেস তারা ঈদে কিনবেই। এক কথায় তাদের নতুন ড্রেস চাইই চাই। এই দৌড়ে সবার উপরে আছে যে বুবুরা @dipty @rashida4 @saadiia ওনাদের ড্রেস কিনে দিতে দিতে আমি ফকির হয়ে গেলাম (আম্মুউউউ) (আম্মুউউউ)(আম্মুউউউ)
*বুবু*
ছবি

সাদাত সাদ: ফটো পোস্ট করেছে

দেয়ালে টাঙ্গানো সেই ছবিটা

বুবু এখন অনেক বড়। সদা হাসিখুশিতে ভরে থাক তোমার প্রতিটি দিন। তোমায় ভালবাসি

*শিশুকাল* *আমারছবি* *সাদ* *বুবু*

সাদাত সাদ: আমার বয়স তখন ১৫ বছর। তন্ময় আর রাফসানের সহযোগিতায় ফেসবুকে একটি একাউন্ট করলাম। দিন কাল ভালই চলছিল। ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারির কথা, একদিন তামান্না বুবুর ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পেলাম। একসেপ্ট করতে দেরি করিনি, একদিন রাতে বুবু আমাকে মেসেজ দি,, কেমন আছ লিখে। আমি সহজ ভাষায় বললা,, ভাল তুমি কেমন আ? বুবু উত্তর দেয়নি পরদিন আবার চ্যাটিং হল। হল নানান কথা দেখতে দেখতে ওনার সাথে কেটে গেল ৩ বছর ভাইবোনের সম্পর্ক তাই হয়তো এতদিন টিকে ছিল একদিন তিনি আমাকে আনফ্রেন্ড করলেন কোন কারণ ছাড়াই। সেই সাথে হারিয়ে গেল সুন্দর একটি সম্পর্ক। (এই ব্যাপারে আরও কিছু লিখবো কোন এক বেশব্লগে) চলবে

*বুবু*

সাদাত সাদ: রাত যখন গভির হয় তখন আমিও শান্ত হই রাতের যখন অবসান হয় তখন আমার যুদ্ধের ময়দানে একজন সৈনিকের মত যুদ্ধ করতে হয়। এটা জীবন যুদ্ধ

*আমারকথা* *আষাঢ়েগল্প* *বুবু*

সাদাত সাদ: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দেশান্তরী হবার আগে অনেকে অনেক কথা বলেছে। কেউ কেউ মনে করতো এই ছোট্ট ছেলেটা হয়তো দুদিনের মধ্যেই ফিরে আসবে আপন ঘরে। শেষ পর্যন্ত কারও কথায় সত্যি হলনা, দেখতে দেখতে কেটে গেল আমার ৭ টি বছর। কিভাবে কাটলো আমার এতটা বছর সে আমি ছাড়া আর কেউ জানেনা।  বাড়ী থেকে আসার সময় খুবই ছোট্ট ছিলাম। বয়স মাত্র ১৬, কলেজে কিছুদিন গিয়েছিলাম কিন্তু কেন জানি আর পড়তে ইচ্ছে হলনা। তাইতো চলে আসলাম অনেক দূরে। প্রথম প্রথম খুবই খারাপ লাগতো কিন্তু কিছুদিন যাবার পর সব সহ্য হয়ে গিয়েছিল। সেই পূরনো বন্ধুদের আড্ডা রাত্রি বেলা দুষ্টুমির ছলে চুরি করতে যাওয়া অতপর সকাল বেলা চুরির দায়ে আম্মুর 'বকা শুনা এইসব কিছু ভূলতে অনেক সময় লেগেছে আমার। তবে পূরনো স্মৃতি গুলো মন থেকে একদম মুছে ফেলতে পারিনি। মাঝেমধ্যে সপ্নে সেই দিনে ফিরে যেতাম ক্লান্ত দেহ নিয়ে ঘুমুনোর পরে।

রাতের বেলা সবার কথায় মনে পড়তো। তবে ভিশন মনে পড়তো বুবুর কথা। আসার সময় বুবুর সেকি কান্না, কাদঁতে কাদঁতে বলেছিল : ঠিক মত খাওয়া দাওয়া করবি, বেশিরাত. জেগে থাকবি না, সব সময় নিজের যত্ন নিবি। ইত্যাদি ইত্যাদি আর ও কত কথা। সেদিন মনে হয়েছিল বুবু যেন আমার সাথে এই শেষ কথা বলছে, যার ফলে এক সাথে তার ভাইটার সব কথা বলে দিচ্ছে, আসলে বুবু সত্যিই খুব খারাপ।

৫ বছর পর
সবাই অস্থির হয়ে আছে আমাকে দেখবে বলে, তখন তো আর এখনকার মত এত এত ভিডিও কলিং সিস্টেম ইমো লাইন ভাইবার ছিলনা তাই তাদের কে দূর থেকে দেখার কোন সুযোগ ও ছিলনা। মোবাইল দিয়ে কল করলে সে অনেক খরচ ঠিক তাই তেমন কথাও বলা হতনা। এইভাবেই কেটে গেল আমার আরও বেশ দিন।
.
৬ বছর পর হঠাৎ একদিন আব্বুর মৃত্যু সংবাদ পেলাম। যা ছিল আমার জন্যে অভিশাপ স্বরূপ। কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছিলাম না, যে বাবা আর নেই কারণ মনে হল এইতো সেদিন আব্বু আর আমি সাইকেল সাইকেল চালিয়ে ছিলাম বিকেল বেলা 
*জীবন* *বুবু* *কষ্ট* *সাদ* *বাবা*

সাদাত সাদ: একবার বুবুর কানের একটা সোনার দুল হারিয়ে যাবার পর বুবুর সেই কি কান্না। বুবুর দিকে তাকিয়ে আমার ও খুব কান্না পাচ্ছিল, কানের দুল টার জন্যে না, বুবুর মুখ দেখে। তখন আমাদের পরিবারের অবস্থা তেমন ভাল ছিলনা। তাই বুবুর জন্যে নতুন দুল কেনা হয়নি। আমি বড় হবার পর যখন পয়সার মুখ দেখলাম তখন বুবুকে কানের ঝুমকা কিনে দিয়েছিলাম। সেই ঝুমকো পড়ে বুবু সেই আগের মতোই কেঁদেছে

*আমারকথা* *বুবু*

সাদাত সাদ: নীল ধরিয়ার মা " নামে একজন বুবু ছিল বেশতোতে হঠাৎ করে তিনি পরীর মত পেত্নীদের মত কোথায় যেন চিরতরে হারিয়ে গেলেন। আজ কেন জানি সেই বুবু টাকে খুব মনে পড়ছে (ফুঁপিয়েকান্না)(শয়তানিহাসি)(ফুঁপিয়েকান্না)(নাআআআ)(চিন্তাকরি)(আম্মুউউউ)(প্লিইইজ)(হার্ট)(ঘটনাটাকি)(এদিকেআসো)

*পরী* *বুবু* *পেত্নী*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★