ব্যাড

ব্যাড নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ব্যাডমিন্টন খেলার মৌসুম চলে এসেছে। শীতের দাপটকে কুপকাত করতে দেশের সর্বত্র ফ্লাড লাইটের মত আলো জ্বালিয়ে তরুণ যুবারা ব্যাডমিন্টনে মেতে উঠবে। শীত যত বাড়বে, খেলাও তত জমবে। যদিও এক সময় ব্যাডমিন্টন ছিল উচ্চবিত্তের খেলা। এখন সে গণ্ডির প্রাচীর পেরিয়ে ব্যাডমিন্টন চলে এসেছে উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত এমনকি নিম্নবৃত্ত সহ সমাজের নানা মানুষের ভিড়ে। তারপরেও ব্যাডমিন্টন সরঞ্জামাদির খরচাপাতির একটা ব্যাপার থেকেই যায়। আবার সব সরঞ্জাম একসাথে পাওয়াও যায় না। তাই কিছুটা হলেও পূর্বপ্রস্তুতি দরকার। চলুন জেনে নেই কি ধরনের সরঞ্জাম লাগবে এই খেলায়...

র‌্যাকেট/ব্যাডঃ
ব্যাডমিন্টন খেলায় হস্তচালিত যে উপকরনটি প্রয়োজন হয় তার নাম র‌্যাকেট। যেহেতু খেলার সময় এটিকে এক হাত দ্বারা অতি দ্রুত চালনা করার প্রয়োজন হয় তাই র‌্যাকেট যত ওজনে হালকা হয় ততই সুবিধা। বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের র‌্যাকেট পাওয়া যায়। ১০টি দেখে পছন্দমত একটি নিয়ে নিন।


শাটলককঃ
শাটলকক ব্যাডমিন্টন খেলার দ্বিতীয় প্রধান উপকরণ। আমেরিকানরা একে (Bird অথবা Birdie) শব্দ দ্বারা উপস্থাপন করে থাকে। এটি এক প্রকার কোনক আকৃতির নিক্ষিপ্ত বস্তু যাকে র‌্যাকেটের সাহায্যে সজোড়ে পিটিয়ে প্রতিপক্ষের দিকে নিক্ষেপ করা হয়। শাটলকক দুই ধরণের বস্তু দ্বারা তৈরী করা হয় (১) রাজহাঁস অথবা অন্য কোন পাখির পালক দ্বারা (২) সিনথেটিক/নাইলনের পাতলা বস্তু দ্বারা। বাজারে বক্স ধরে এগুলো কিনতে পাওয়া যায়। দামও খুব একটা বেশি নয়। 


জালঃ
ব্যাডমিন্টন জাল শক্ত সুতা দিয়ে বোনা এক প্রকার জাল, যার পূর্ন দৈর্ঘ্য ২০ ফুট হতে ২২ ফুটের মধ্যে হয়ে থাকে এবং প্রস্থ ২ ফুট ৬ ইঞ্চি হতে ৩ ফুটের মধ্যে হয়ে থাকে। জালের দৈর্ঘ্য বরাবর একটি শক্ত দড়ি প্রবেশ করিয়ে নেট পোস্টের সাথে বাঁধা হয়। জাল কেনার সময় দেখে শুনে একটু লাইলনের শক্ত টাইপের টা নেওয়া ভাল। এটি বেশ টেকসই হয়। 


পোষাকঃ
ব্যাডমিন্টন খেলাতে প্রচুর পরিমান মাতামাতি করার প্রয়োজন হয় ফলে শরীর খুব তাড়াতাড়ি উত্তপ্ত হয়ে প্রচুর ঘাম নির্গত হয় তাই যথা সম্ভব হালকা জার্সি, ট্রাওজার পরে খেলা উচিত। হাতের কনুইতে ও বাহুতে ব্যাথা হলে রবারের তৈরী বেল্ট হাতে লাগালে কিছুটা আরামদায়ক হতে পারে। পায়ে পাতলা ও নরম সুকতলা বিশিষ্ট কেডস ব্যবহার করলে তা আরামদায়ক হতে পারে। 


আলোক উৎসঃ
দিবালোকে খেললে কৃত্তিম আলাকের উৎসের প্রয়োজন নেই তবে রাত্রিকালীন ম্যাচ খেললে উভয় নেটপোষ্টের পাশে দুটি বৈদ্যূতিক আলোক উৎস লাগিয়ে আলোক সৃষ্টি করা যেতে পারে। ইনডোর ষ্টেডিয়ামে খেললে ষ্টেডিয়ামের বৈদ্যূতিক আলোক উৎস দ্বারা মাঠ আলোকিত করা হয়। 


কোথায় থেকে কিনবেনঃ
র‌্যাকেড, শাটলকক এবং জাল একসাথে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের বিভিন্ন খেলাঘর থেকে কিনতে পারবেন। লোকাল মার্কেটেও র‌্যাকেট ব্যাট পাওয়া যায়। তবে অনলাইনে ঘরে বসেও আপনি কিনে নিতে পারে আপনার পছন্দরটি। 
এক ক্লিকে ব্যাডমিন্টনে খেলার সব গুলো উপকরণ দেখে নিন-
*ব্যাডমিন্টন* *খেলাধুলা* *ব্যাড* *শাটলকক* *শপিং* *কেনাকাটা* *স্মার্টশপিং* *অনলাইনশপিং*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★