ভ্যালেন্টাইন

ভ্যালেন্টাইন নিয়ে কি ভাবছো?

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

এ প্রজন্ম জানে না মধ্য ফেব্রুয়ারীর ইতিহাস।১৯৮৩ সালের ১৩ ও ১৪ ফেব্রুয়ারী কি ঘটেছিল? ১৩ ও ১৪ ফেব্রুয়ারি না এলে সামরিকতন্ত্র ও স্বৈরাচার এরশাদের বিরুদ্ধে প্রথম প্রতিরোধ গড়ে উঠতো না। আজ সেই রক্তঝরা দিন।

১৯৮৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ছিলো স্বৈরাচারবিরোধী ছাত্রদের প্রতিরোধ আন্দোলন ও মজিদ খানের কুখ্যাত শিক্ষানীতি প্রত্যাহার, বন্দী মুক্তি ও জনগণের মৌলিক গণতান্ত্রিক অধিকারের দাবিতে জমায়েত ছিলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে। সেটাই পরিণত হয়েছিল বুট ও বুলেটের দমনে পিষ্ট ছাত্র জনতার প্রথম বিরাট প্রতিরোধে। কে জানত বসন্তের আগুনরাঙা রঙের সঙ্গে মিশে যাবে ছাত্রদের রক্ত !স্বৈরাচারবিরোধী ছাত্রদের প্রতিরোধ আন্দোলনে প্রথম শহীদের নাম জয়নাল,দিপালী সাহা ,কাঞ্চন । সেদিন স্বৈরাচারের দোসর পুলিশ জয়নালকে গুলিবিদ্ধ করেই ক্ষান্ত হয়নি, তাঁর শরীর বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে। বেয়নেট ফলা আর জয়নালের শরীর থেকে চুইয়েপড়া রক্ত বাংলার পথ-প্রান্তর ভাসিয়ে দেয়। শুধু জয়নাল নয়, ছাত্রদের ওপর পুলিশি তাণ্ডবের সময় শিশু একাডেমীতে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসা দিপালী সাহা নামের এক শিশু গুলিবিদ্ধ হয়। তবে দিপালীর লাশ পুলিশ গুম করে ফেলে।পুলিশ সেদিন শুধু হত্যা করেই স্থির থাকেনি, বিকেলে ক্যাম্পাসে একটি যুদ্ধ-পরিস্থিতি তৈরি করে সেনাবাহিনী। তার সঙ্গে যোগ দেয় বিডিআর-পুলিশ। শাহবাগ, টিএসসি চত্বর, কলাভবনের সামনে, নীলক্ষেত, কাঁটাবনের রাস্তা ধরে পুরো অঞ্চল ঘেরাও করে ফেলে তারা। অপরাজেয় বাংলার সমাবেশে পুলিশ অতর্কিত লাঠিচার্জ শুরু করে এবং বহু ছাত্রনেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়।ভিসি কার্যালয়ে ঢুকে পুলিশ ছাত্রছাত্রীদের মেরে হাত-পা ভেঙে ট্রাকে উঠিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনার প্রতিবাদে তৎকালীন ভিসি পদত্যাগ করেন। গ্রেপ্তার করে দুই হাজার ছাত্র-জনতাকে। গ্রেপ্তার করে নেয়া হয় শাহবাগের পুলিশ কন্ট্রোল রুমে। পরে তাঁদের তুলে দেওয়া হয় আর্মির হাতে। বন্দি ছাত্র-জনতার ওপর চলে প্রথমে পুলিশ ও পরে আর্মির নিষ্ঠুর নির্যাতন।১৯৮৩ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারী কাঞ্চন চট্টগ্রাম শহরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।১৯৮৫ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি শহীদ হন রাউফুন বসুনিয়া। এরপর থেকেই স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন জোরদার হয়ে ওঠে।পশ্চিম থেকে আগত ভ্যালেন্টাইনের জোয়ারে ভেসে গেছে রক্তের অক্ষরে লেখা শহীদদের নাম।

এ প্রজন্ম ভুলে যাচ্ছে সেই সব শহীদের কথা। কি দূর্ভাগ্য অামাদের!

*ইতিহাস* *ভ্যালেন্টাইন* *প্রজন্ম*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আগ্রাবাদ স্টান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংকের হাসান ভাইকে দেখার জন্য মেয়ের বাবা ভাই আসছিলো ! মেয়ের বাবা ওখানে কর্মরত জাবেদ ভাইকে ডেকে জিজ্ঞেস করলো, ভাই হাসান সাহেব নামক এখানে কেউ চাকরি করে ?
.
ওনি বললো হাসান সাহেব একজন আছেন তবে দ্বিতীয় তলায় বসেন ! আপনি ওখানে গিয়ে দেখে আসুন !
.
দ্বিতীয় তলায় যাওয়ার সময় আরেকজনকে জিজ্ঞেস করলে, ভাই হাসান সাহেব নামক কেউ এখানে চাকরি করে ?
.
উনি বললেন, 'দূর ভাই ! এখানে হাসান টাসান তাহসান নামক কেউ নাই ! একজন ছিলো চলে গেছে বহুত আগে !'
.
চুরি করে দেখতে আসা হবু শ্বশুর মশাই এবার রেগে মেগে হবু জামাইকে ফোন দিয়ে বললেন, 'হাসান সাহেব আপনি মিথ্যে বলছেন কেনো ! ঐ ব্যাংকে হাসান নামে তো কেউ চাকরি করে না !'
.
হাসান সাহেব বললেন, আপনি উপরে আসেন আমি আছি ! বেচারা বিশ্বাস করছে না ! সে আগন্তুকের কথা সংবিধান মনে করে বসে আছে !
.
শ্বশুর মশাই এবার হুমকি দিয়ে হুংকার ছাড়লেন, 'মিথ্যুক জামাইয়ের কাছে সে মেয়ে বিয়ে দিবে না !'
.
হবু বর এবার বললেন, 'মিথ্যুক শ্বশুরের মেয়ে বিয়ে করবো না ! দেশে কি মেয়ের অভাব পড়েছে !'
.
শ্বশুর মশাই রেগে মেগে টেগে তো আরো ফায়ার, 'বেয়াদব জামাই ! আমাকে মিথ্যুক বলো ! জানো আমি তোমার বাবার মতো !'
.
জামাই সাহেব এবার বললেন, 'আমাকে আপনি জামাই বলেছেন অথচ আমি তো আপনার মেয়েকে বিয়ে করবো না বলেছি তো আপনি মিথ্যুক না ? আবার বাবার মতো ও বলছেন !'
.
শুধু এমন কারণে হাজারো সম্পর্ক ভেঙ্গে যায় !
.
সম্প্রতি এমন ঘটনার আমিও মুখোমুখি হয়েছি দুইবার, কেউ একজনের বাবা আমার খোঁজ নিয়েছে ! আদৌ চাকরি করি কি না ! তা ও আমার পাশে বসা কলিগ থেকে !
.
উপরের ঘটনার সাথে মিলিয়ে বলে দিয়েছি, শরীফ নামে এখানে কেউ নেই বলে দেন !
.
কারণ তার মেয়েকে আমি জানি,
'মেয়েটা আমার বন্ধুর এক্স গার্ল ফ্রেন্ড ছিলো আর আমার ক্রাশ !'
.
কিছু গল্প এমন, কোন এক ১৪ ফেব্রুয়ারী তোমার হাতে ছিলো গোলাপ তবুও ছেলেটির বাঁশে তোমার হয়েছিলো সর্বনাশ !

*জামাই* *শশুর* *যুদ্ধ* *মিথ্যে* *ফানি* *রসিকতা* *ভ্যালেন্টাইন*
ছবি

নাহিন: ফটো পোস্ট করেছে

(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট) আজকের ভ্যালেন্টাইনটা জোস কাটলো আমার (হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)

তবে বুকে একটু ঘষা খাইছি (শয়তানিহাসি)(খুশী২)

*ভ্যালেন্টাইন* *ভালোবাসাদিবস*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ভালোবাসা দিবসের উপহার হিসেবে প্রিয়জনকে দিতে পারেন স্টাইলিশ লেডিস ওয়াচ  ও ব্রেসলেট। আপনার সাধ ও সাধ্যের মধ্যে প্রিয়জনকে ভালোবাসার উপহারে রাঙিয়ে দিতে এই উপহারটির জুড়ি মেলা ভার। বর্ণিল ডিজাইন আর গর্জিয়াস লুকের এই লেডিজ ওয়াচগুলো প্রিয়মানুষটির জন্য হতে পারে অনবদ্য একটি ভ্যালেন্টাইন গিফট। তাই দেরি কেন আজই অনলাইনে অর্ডার দিয়ে কিনে নিতে পারেন সুদৃশ্য ভ্যালেন্টাইন গিফট।  
 
হার্ট ডিজাইন লেডিজ ওয়াচ
 
হার্ট ডিজাইন লেডিজ ওয়াচ
ডিসপ্লেঃ এনালগ ডায়াল 
শেপঃ রাউন্ড ডায়াল 
ম্যাটেরিয়ালঃ স্টেইনলেস স্টিল 
ডায়াল উইন্ডোঃ গ্লাস কোয়ার্টজ মুভমেন্ট 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
আধুনিকতার সাথে মানানসই
মূল্য ৬৮৯ টাকা
 
 
স্কার্ফ ওয়াচ
 
স্কার্ফ ওয়াচ
ডিসপ্লেঃ এনালগ ডায়াল 
শেপঃ রাউন্ড ডায়াল 
ম্যাটেরিয়ালঃ স্টেইনলেস স্টিল 
ডায়াল উইন্ডোঃ গ্লাস কোয়ার্টজ মুভমেন্ট 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
আধুনিকতার সাথে মানানসই
মূল্য ৭৫০ টাকা
 
 
 
লেডিজ ব্রেসলেট ওয়াচ
 
লেডিজ ব্রেসলেট ওয়াচ
এনালগ ডিসপ্লে ব্যান্ড 
ম্যাটেরিয়াল: লেদার 
কোয়ার্টেজ মুভমেন্ট কেস 
ম্যাটেরিয়াল: অ্যালয় 
হাই কোয়ালিটি ওয়াচ 
স্টাইলিশ ডিজাইন
মূল্য ৫৯৯ টাকা
 
 
STYLISH লেডিজ ওয়াচ
 
STYLISH লেডিজ ওয়াচ
হাই কোয়ালিটি প্রোডাক্ট 
ডিসপ্লেঃ এনালগ 
শেপঃ রাউন্ড 
লেদার স্ট্রাপ 
কোয়ার্টজ মুভমেন্ট 
আধুনিকতার সাথে মানানসই
 নজরকাড়া ডিজাইন
মূল্য  ৪৯৯ টাকা 
 
 
ব্রেসলেট টাইপ লেডিজ ওয়াচ
 
ব্রেসলেট টাইপ লেডিজ ওয়াচ
ডিসপ্লেঃ এনালগ 
ডায়াল শেপঃ রাউন্ড ডায়াল 
ম্যাটেরিয়ালঃ স্টেইনলেস স্টিল 
ডায়াল উইন্ডোঃ গ্লাস কোয়ার্টজ মুভমেন্ট 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
আধুনিকতার সাথে মানানসই
মূল্য ৬৯৯ টাকা
 
GUCCI লেডিজ ওয়াচ (কপি)
 
GUCCI লেডিজ ওয়াচ (কপি)
রেপ্লিকা প্রোডাক্ট 
ডিসপ্লেঃ এনালগ 
ডায়ালঃ রাউন্ড ব্যান্ড 
ম্যাটেরিয়ালঃ Stainless Steel 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
উপহার হিসেবে আকর্ষনিয়
মূল্য  ৭৯৯ টাকা
 
*ভ্যালেন্টাইন* *ভ্যালেন্টাইন-গিফট* *ভ্যালেন্টাইন-উপহার* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের আর মাত্র কয়েকদিন বাঁকি। এই দিনটিকে ঘিরে উৎসাহ উদ্দীপনার কোন কমতি নেই। কিভাবে ভ্যালেন্টাইনে প্রিয় মানুষটির কাছে আরও বেশি প্রিয় হয়ে ওঠা যায়, কিভাবে নিজেকে আরও একটু ফ্যাশনবেল করা যায় তাই নিয়ে তরুণ-তরুণীদের জল্পনা কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। তবে যে যাই বলুক এই দিনটাতে পোশাকে একটু ভিন্নতা থাকতেই হবে। তাই ভ্যালেন্টাইনে প্রিয় মানুষটির কাছে আরও প্রিয় হয়ে উঠতে পরুন নিচের ড্রেস গুলো। 
 
 
ভ্যালেন্টাইন'স টি-শার্ট
 
 
টি-শার্টেই যদি ভালো বাসার বহিপ্রকাশ ঘটে তাহলে তো কথায় নেই। ভ্যালেন্টাইন ডেতে এই রকম টি-শার্ট যদি আপনার পরণে থাকে তাহলে প্রেমিকের আর বুঝে নিতে দেরি থাকবেনা যে আপনি তার জন্য এই টি-শার্টটি পরেছেন। তাই আর দেরী না করে আজই কিনে নিন জাস্ট লাভ ভ্যালেন্টাইন'স টি-শার্ট। 
 
 
 
 
ভ্যালেন্টাইন’স কাপল টি-শার্ট 
ভালোবাসা দিবসে আপনাদের ড্রেসটি যদি একই রকম হয় তাহলে কেমন মজা হবে বলুন তো। যে কেউ ধরেই নেবে আপনার একজন আরেক জনকে অনেক ভালোবাসেন। আর আপনাদের মধ্যে ভালোবাসা অধিক বেড়ে যাবে। তাছাড়াও ভ্যালেন্টাইন’স কাপল টি-শার্টটিতে আপনাদের বেশ স্টাইলিশ দেখাবে। ফ্যাশনে যুক্ত হবে নতুন মাত্র। তাহলে আর দেরী না করে আজকের ডিল থেকে কম্বো অফারে কিনে নিন ভ্যালেন্টাইন’স কাপল টি-শার্ট। 
কাপল টি-শার্ট এখানে ক্লিক করুন
 
 
 
ফ্যাশনেবল কূর্তি
কূর্তি পরলে নাকি ফূর্তির শেষ থাকে না। তাই প্রিয় মানুষটিকে আনন্দ ফূর্তিতে ভরিয়ে দিতে বেছে নিতে পারেন কূর্তি। কূর্তি আমাদের দেশে বর্তমানে অধিক জনপ্রিয় পোশাক। বিশেষ করে তরুণীদের প্রথম পছন্দের তালিকায় রয়েছে এটি। এই পোশাকটি বেশ ঢিলেঢালা এবং আরামদায়ক। এই পোশাকটি আপনাকে এতটাই ফ্যাশনেবল করে তোলতে সক্ষম যা দেখেই আপনার মনের মানুষটি আপনাকে আরও কাছে টেনে নেবে।
কূর্তি কিনতে এখানে ক্লিক করুন
 
 
সেমিস্টিচড সানতুন থ্রি পিস 
সেমিস্টিচড সানতুন থ্রি পিস ভ্যালেন্টাইনে হতে পারে আপনার সেরা পরিধেয়। স্টাইলিশ এই থ্রী পিস গুলো আপনার আউটলুক দিগুণ করে তোলবে। প্রিয় মানুষটির পাশাপাশি একসাথে ঘুরে বেড়াতে ফ্যাশনেবল স্টাইলিশ থ্রী পিস কিনে নিতে পারেন। এটি প্রিয় মানুষটির কাছে আপনাকে আরও প্রিয় করে তুলবে। 
থ্রী পিস টি কিনতে  এখানে ক্লিক করুন
 
 
 
 
শাড়ি
বাঙালি ললনাদের নাকি শাড়িতে বেশি মানায়। কাথায় বলে, শাড়িতে অনন্যা বাঙালি ললনা। তাই ভালোবাসা দিবসে সত্যিকারের ললনা হয়ে উঠতে শাড়ি পরুন। বিশেষ করে যারা একেবারেই শাড়ি পরেন না তারা ভ্যালেন্টাইনে শাড়ি পরে ভালোবাসার মানুষটিকে চমকে দিতে পারেন। তবে শাড়ি পরার সময় অবশ্যই মাচিং করে ব্লাউজ পরবেন। 
শাড়িটি কিনতে এখানে ক্লিক করুন
 
ভালোবাসা দিবসের সব পোশাক কিনুন এই লিংকে
*ভ্যালেন্টাইন* *ভালোবাসাদিবস* *সাজসজ্জা* *ফ্যাশন* *শপিং* *স্মার্টশপিং* *লাইফস্টাইলটিপস*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

রোজে শুরু ভ্যালেন্টাইনে শেষ! বছর ঘুরে আবারও দরজায় কড়া নাড়ল ভ্যালেন্টাইন উইক। পুরনো প্রেমকে গুছিয়ে নিতে আর নতুন প্রেমের খাতা খুলতেই ‘ভ্যালেন্টাইন উইক’ এর আগমন। শুধু একটি সপ্তাহ নয় ভালবাসা যুগলদের প্রত্যাশা- “তুমি আমি কাছাকাছি সারাটা জীবন যেন পাশে থাকি। ”
 
যাদের প্রেম কর্মব্যস্ততায় মাঝপথে হাবুডুবু খাচ্ছে কিংবা যারা এখনও কাল-পরশু করে মনের কথাটি প্রিয়জনকে বলতে পারেননি, তাদের জন্য মোক্ষম সময়। বাঁধন ছাড়া প্রেমের জোয়ারে নিজেকে ভাসিয়ে দেওয়ার। এই প্রেমের শুরু হোক লালা গোলাপে, চিরকাল থাকুক চকোলেটের মতো মিষ্টি, প্রিয়জনের সান্নিধ্য হোক ট্রেডির মতো কোমল, নিবিড় চুম্বনে ভালোবাসার প্রতিশ্রুতি হোক আরও জোড়াল।
 
কি কি থাকছে ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহ জুড়ে!!
রোজ ডে: ৭ ফেব্রুয়ারি রবিবার
প্রপোজ ডে: ৮ ফেব্রুয়ারি সোমবার
চকোলেট ডে: ৯ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার
টেডি ডে: ১০ ফেব্রুয়ারি বুধবার
প্রমিজ ডে: ১১ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার
কিসস ডে: ১২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার
হাগ ডে: ১৩ ফেব্রুয়ারি শনিবার
ভ্যালেন্টাইন ডে: ১৪ ফেব্রুয়ারি রবিবার
 
রোজ ডে
প্রেম পার্বণের শুরু হয় একে অপরকে লাল গোলাপ দিয়ে। ৭ই ফেব্রুয়ারি রোজ ডে: এদিন আপনি আপনার পছন্দের মানুষটি গোলাপ দিতে পারেন। আর সে যদি আপনার গোলাপ নিয়ে নেয় তাহলেই গ্রীণ সিগন্যাল। মানে আমার প্রেমের চাকা এবার ঘুরবে।
প্রপোজ ডে
যে কাজটা গোলাপ দিয়ে একটু এগিয়ে রেখেছিলেন আজ সেই কাজের পরিণতির দিন। ভালোবাসার মানুষটি জাদু-মাখ সেই তিনটি শব্দ বলেই ফেলুন এদিন। দেখবেন আপনাকে না করতে পরবে না। যদি আপনার জন্য প্রেম থাকে তাঁর অনন্তরেও।
 
চকোলেট ডে
আপনার সম্পর্ক যাতে মিষ্টি-মধুর হয়ে থাকে তাই এইদিন। ৯ই ফেব্রুয়ারি চকোলেট ডে এইদিনটিতে প্রেমিক-প্রেমিকারা একে অপরকে চকোলেট দিয়ে থাকে। আর এই দ্রব্যটি যে আট থেকে আশি সবার প্রিয় সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না।
 
টেডি ডে
সিম্বল ফর সফট রিলেশনশিপ।যদিও এইদিন ছেলেই মেয়েদের টেডি দিয়ে থাকে পরিবর্তে পায় অনেক ভালবাসা। কারণ মেয়েদের কাছে বরাবরই টেডি খুব পছন্দের।
 
প্রমিজ ডে
এদিন তাঁকে বলুন আপনি তাঁকে কতটা ভালোবাসেন। সারাটা বছর তাঁর হাতে হাত দিয়ে চলার প্রতিশ্রুতি দিন। যদিও এই প্রতিশ্রুতি দিতে বছরের কোনও একটি দিন কোনও দিন নির্ধারিত নয়।
 
কিসস ডে
দুরুদুরু বুকে একটু কাছে আসার দিন। নিজের করে কাছে পাবার দিন। ১২ ই ফেব্রুয়ারি কিসস ডে। এদিন ভালোবাসা পায় নিবিড়তা।
 
হাগ ডে
১৩ই ফেব্রুয়ারি হাগ ডে। জড়িয়ে ধরুন তাঁকে দুহাতে। বুঝিয়ে দিন এমনই করেই সারাটা জীবন আগলে রাখবেন তাঁকে।
 
ভ্যালেন্টাইন ডে
বাঁধন ছাড়া ভালোবাসার দিন। এদিন শুধু তোমাদের।
*ভ্যালেন্টাইন* *ভালোবাসা* *ভ্যালেন্টাইনউইক*
ছবি

নাহিন: ফটো পোস্ট করেছে

হ্যাপী রোজ ডে (লজ্জা)(লজ্জা)(লজ্জা) (সব বন্ধুদের প্রতি)

(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)(হার্ট)

*রোজডে* *ভ্যালেন্টাইন*
৫/৫

রাজ: 25 টা বসন্ত পেরিয়ে আবার এলো ভ্যালেন্টাইন তবু কাউকে বলা হলো না জাতীয় সঙ্গীতের দ্বিতীয় লাইন।

*ভ্যালেন্টাইন*
৫/৫

কবি: [পিরিতি-আগডুমবাগডুম] এতটুকু আফসোস করতেই পারি বালিকা, যদিওবা বুকে বাজে সুখের মত ব্যথা...

*ভ্যালেন্টাইন*

হাফিজ উল্লাহ: একটি বেশব্লগ লিখেছে

১৪ ফেব্রুয়ারি ভ্যালেনটাইন ডে উপলক্ষে সঙ্গী খুঁজে নিতে অনেকেই এখন ঢুঁ মারছেন ডেটিং অ্যাপ বা সাইটে। প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা বলছেন, বিশ্বজুড়ে এবার ১৪ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ডেটিং অ্যাপগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়তে দেখা গেছে।

সম্প্রতি কফি মিটস ব্যাগেল নামের একটি সাইটের সহপ্রতিষ্ঠাতা ডাউন ক্যাং জানান, তাঁদের সাইটে শুধু ১৪ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ৪৫ শতাংশ পর্যন্ত ব্যবহারকারী বেড়েছে।
ক্যাং আরও বলেন, অনলাইন ডেটিংয়ের ক্ষেত্রে ফেব্রুয়ারি মাসটিকে এমনিতে শীতল মাস হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কারণ, সবাই জানুয়ারিতে নতুন বন্ধু বা সঙ্গী খুঁজে নেওয়ার পরিকল্পনা সেরে ফেলেন। কিন্তু ১৪ ফেব্রুয়ারির আগের এক সপ্তাহ থেকেই আবার ডেটিং সাইটগুলোতে আগ্রহ বাড়তে শুরু করে।
ওয়েবক্যাম ডেটিংয়ে প্রতারণা
ওয়েবক্যাম ব্যবহার করে ভিডিও চ্যাটিং এখন বেশ জনপ্রিয়। কিন্তু অপরিচিত কারও সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ও অনলাইন ডেটিং সাইটগুলোতে এই ভিডিও চ্যাটিং বিপদের কারণ হতে পারে। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে বলছেন, ওয়েবক্যামে অনলাইন ডেটিংয়ে এখন প্রতারণার ফাঁদ পাতা থাকতে পারে।
বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, অনলাইনে ওয়েবক্যামে দেখানো সুন্দরী তরুণীর ফাঁদে পড়ে ধোঁকা খান অনেকেই। প্রতারণার ফাঁদে পা দেওয়া ব্যক্তিটিকে কথার জালে আটকে ফেলে তাঁকে ব্ল্যাকমেল করা হয়।
এ প্রসঙ্গে ফ্রান্সের এক ভুক্তভোগী তাঁর অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেন, ‘অনলাইন ডেটিং সাইট থেকে একটি মেয়ে শুরুতেই আমাকে একটা বার্তা পাঠিয়েছিল। যেহেতু সচরাচর মেয়েরা শুরুতেই এ রকম কোনো বার্তা পাঠায় না, কিন্তু অনলাইনে একটি মেয়ের কাছ থেকে প্রথম এ ধরনের বার্তা পেয়ে আমার খুব ভালো লেগেছিল। পরিচয় পর্ব ও চ্যাট শেষে মেয়েটি আমাকে একটি ভিডিও দেখায়। একপর্যায়ে সম্পর্ক যতটা গভীর হতে থাকে, তত আমাকে কথার জালে আটকে ফেলে পরনের কাপড় খুলে ফেলতে বলে। এটা প্রতারণার ফাঁদ বুঝতে আমার দেরি হয়েছিল।’
অনলাইন বিশেষজ্ঞরা বলেন, অনলাইন প্রতারণা বাড়লেও তা সহজে প্রকাশ্যে আসে না। এ বিষয়ে সচেতন থাকা উচিত। যিনি প্রতারণার শিকার হন তিনি বিষয়টি ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারেন। তরুণদের ক্ষেত্রে বিষয়টি বেশি ঝুঁকির। তাই তাঁদের সচেতনতা বেশি প্রয়োজন। গবেষকেরা জানিয়েছেন, অনলাইন ডেটিং থেকে বাস্তবের সঙ্গী নির্বাচনের আগে প্রকৃত তথ্য জেনে নেওয়া প্রয়োজন। কারণ, এ ক্ষেত্রে প্রতারণার শিকার হতে হয় অনেককেই।

- প্রথম আলো ১৪.২.১৫

*টেকনিউজ* *অ্যাপস* *বেশটেক* *ভ্যালেনটাইন* *ভ্যালেন্টাইন*

সমুদ্র তীর: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

(হার্ট)
মেয়েরা যদি ছেলেদের একবার মুখ ফুটে বলত \”ভালোবাসি তোমায়\” তাহলে আজ কোন ছেলে সিঙ্গেল থাকত না । কিন্তু এটা কখনো সম্ভব না, বা এমনটি হবেও না… কেননা \”মেয়েদের বুক ফাটে তবু, মুখ ফুটে না\”
*ভ্যালেন্টাইন* *বেচেলরবাণী*

প্যাঁচা : [পিরিতি-আওলাভকরি]আপনি যদি কোন বিজ্ঞানী বা কোন নার্ড টাইপ কাউকে ভালোবাসেন কাল আপনার সবচেয়ে দুঃখের দিন...কার শুনতে ভাল লাগবে,ভালোবাসা ডোপেমিন আর নোরেপিনেফ্রিণ-এর প্রভাব যা কোকেইন সেবনেও হতে পারে।হাহাহাহা... https://www.youtube.com/watch?v=eDMwpVUhxAo

*ভালোবাসা* *ভ্যালেন্টাইন* *প্রেম* *সম্পর্ক* *সায়েন্সফিকশন* *সায়েন্স*
ছবি

মোস্তফা কামাল: ফটো পোস্ট করেছে

ভ্যালেন্টাইন

*ভ্যালেন্টাইন*
ছবি

অমৃতা: ফটো পোস্ট করেছে

বাংলার বেদুঈন: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কি জানি একটা দিন আইসে ভ্যালেন্টাইন,
তাই লইয়া লাফালাফি করে পলাপাইন।
কিয়ের নাকি ভালবাসা দিবস ?
আমাগো সময় শুনলে হাত পা হইত অবস।
ওরা দেখি হাত ধইরা পাশাপাশি হাটে,
পাশ কাটাইয়া চইলা যাইতাম দেখলে পথে ঘাটে।
হোটেল পার্কে সবখানে কত মাখামাখি,
আমাগো কিছু ছিল না খালি চোখাচখি।
সারাদিন থাকতাম বইয়া পুকুর পাড়ে,
গোসল করতে আইলে তয় দেখতাম তারে।
একদিন সাহস কইরা ধরছিলাম একটু হাত,
সারাদিন কিছু খায় নাই, কানছে সারা রাত।
ভালবাসার কথাডা কই নাই কভু মুখে,
 ৬০ বছর ধইরা তবুও আছি অনেক সুখ।
কোনদিন বায়না ধরে কোন কিছুর জন্য,
যদি মিষ্টি কইরা ডাকি তাতেই সে ধন্য।
এতগুলা দিন কাটাইলাম একসাথে,
কোনদিন খাই নাই ভাত বাইরা নিজ হাতে।
কোনদিন যদি কোন অসুখ হইত তার
চিন্তায় কেন জানি ঘুম হইত না আমার।
এখনো বিবাহ বার্ষিকীর মধুর সেই  দিনে
সারারাত গল্প করি দুইজনে।
কি জানি বুঝি না তোমাদের মডার্ন ভালবাসা,
আমাগো পুরান জিনিসই অনেক খাসা।
কোনদিন ডাকে সে আমারে নাম ধইরা,
চোখের ইশারায় ডাকছে মোরে জীবন ধইরা।
তোমাগো ভালবাসায় অর্থের প্রভাব বেশী,
টাকার দাপটে হারাইছে আসল ভালবাসাবাসি।



*ভ্যালেন্টাইনডে* *ভ্যালেন্টাইন* *ভ্যালেনটাইনরঙ্গ*

নাহিন: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৫/৫
ভ্যালেন্টাইন ডে’তে রাজামশাইয়ের চালাকি !!!
আচ্ছা ঠিক আছে আমাকে তোমার ভালবাসতে হবে না, শুধু বলো I Love You এর মানে কি ?
এর মানে হলো ‘‘মে তুমছে বহুত পেয়ার কারতা হু”
*পিরিতি* *বেশটুন* *জোকস* *রসিকতা* *ভালবাসা* *ভ্যালেন্টাইন*
শপিং

লিজা : কেনাকাটা সংক্রান্ত একটি তথ্য দিচ্ছে

৮৮০ টাকা
http://www.ajkerdeal.com/Product/31494/exclusive-playboy-perfume

১০০ এম.এল-এর এই পারফিউমটি ভালবাসা দিবসে আপনার উপহারের তালিকায় থাকতে পারে.

*ভালেন্টাইন* *উপহার* *গিফট* *ভালোবাসাদিবস* *অনলাইনশপিং* *ভ্যালেন্টাইন*
১২৯বার দেখা হয়েছে

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★