মানুষ

মানুষ নিয়ে কি ভাবছো?

সাদাত সাদ: [বসন্ত-সুখপাখি] কেউ যখন দূরে চলে যায় তখনই তাকে বেশি মনে পড়ে কাছে থাকলে সেই মানুষকে নিয়ে এতটা গুরুত্ব থাকেনা 

*মানুষ* *আবেগ*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

মন চাইলে- শত চেষ্টা করেও যে মানুষটা আর তার ভালোবাসার মানুষটার সাথে কথা বলতে পারেনা; দ্যাখা করতে পারে না। সেই মানুষটা আপনার ভালোবাসাকে জিতিয়ে দেওয়ার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করবে এতো কোনোপ্রকার সন্দেহ নেই। কারণ, ভালোবাসা না পাওয়া বা হারানোর যন্ত্রণা সম্পর্কে সে জ্ঞাত।
এমন কেউ আআশেপাশে থাকলে তার কাছে সাহায্য চাইতে কৃপণতা না করাই উত্তম।

*আবেগ* *নীলাদ্রি* *ভালোবাসা* *মানুষ* *প্রকৃত*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: আমি ইচ্ছা করলে মরে যেতে পারি, মানুষের সবচেয়ে বড় ক্ষমতা- সে ইচ্ছা করলে মরে যেতে পারে।।

*মানুষ* *ইচ্ছা* *বাস্তবতা* *মরন*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: [বেশবচন-ছন্দাহয়েগেলাম]আল্লাহ মানুষকে বানাইছে মাটি দিয়া , মাটি বানাইছে কি দিয়া ????

*মাটি* *মানুষ* *বাস্তবতা* *প্রশ্ন* *বিবেক*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

প্রত্যেকটা মানুষের জীবনের গল্প তার আঙ্গুলের ছাপের মতই ভিন্ন। দূর থেকে এক মনে হলেও যতই তার গভীরে যাবে কেউ ততই বৈচিত্রময় বিভিন্নতা পাবে। নিজের জীবনের গল্পে চরে বেড়ানো মানুষগুলো সবাই’ই যার যার জগতে বন্ধী। সহস্র বছর বাঁচতে পারলে পৃথিবীর প্রত্যেকটা মানুষের জীবনের গল্প আমি শুনতাম।নিজের দেখা জগৎ দেখা আদেখা মানুষদের জগতের সাথে গেঁথে নিতেই লিখি এবং আন্যের লিখা পড়ি। কেউ যদি মিথ্যুক বা ভন্ড না হয় তাহলে তার যে কোন ভিন্ন মতের কারন তার চার পাশের ভিন্ন জগৎ, ভিন্ন পরিবেশ, ভিন্ন শিক্ষা। তাই মানুষকে বুজতে হলে তার জগৎটাকে জানতে হবে, তার গল্পগুলো শুনতে হবে।

*গল্প* *মানুষ* *আবেগ* *জীবন*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

মেয়েটি বলেছিলো তোমার তো টোল পড়া গাল পছন্দ কিন্তু আমার মুখে তো টোল নেই! ছেলেটি বললো, সমস্যা নেই আমি নিয়মিত শিল্প চর্চা করে টোল বানিয়ে দিবো!

.

মেয়েটি বলেছিলো তোমার তো ফর্সা মেয়ে পছন্দ আমি তো কালো! ছেলেটি বলেছিলে, এই শহরে তো এখন কালো মেয়ে নেই! রাস্তার ধূলো সবাইকে ফর্সা বানিয়ে দিয়েছে! দুজন মিলে এই শহরে কিছু দিন ঘুরাঘুরি করলে তুমিও ফর্সা হয়ে যাবে!

.

মেয়েটি বলেছিলো আমি তো শর্ট তোমার তো লম্বা মেয়ে পছন্দ! ছেলেটি বলেছিলো, এই শহরের মেয়েরা চোখে চোখে কথা বলে মনে মনে না! তুমি বরং সুখে বুকে থাকবে!

.

মেয়েটি বলেছিলো আমি তো ক্ষেত তোমার তো কারিনা ক্যাটরিনা চ্যাটরিনা পছন্দ! ছেলেটি বলেছিলো ক্ষেতে ফসল ফলানো যায়!

.

মেয়েটি বলেছিলো তোমার তো বড়লোকের মেয়ে পছন্দ আমার বাবার তো কিছু নেই! ছেলেটি বলে ছিলো যার কিছু নেই তার শুধু একমাত্র আমি থাকবো ভেবে খুব ভালো লাগছে!

.

দিন শেষে কিংবা বেলা শেষে,

.

প্রথম ছেলেটি এখন গালে টোল পড়া একটি মেয়ের সাথে সেলফি আপলোড করে!

.

দ্বিতীয় ছেলেটির লোড শেডিংয়ের রাতে বউ খুঁজে পেতে সমস্যা হয়না!

.

তৃতীয় ছেলেটির বউ তারচেয়েও চার আঙ্গুল লম্বা!

.

চতুর্থ ছেলেটি অনুর্বর জমিতে কসরত করে ফসল ফলানোর চেষ্টায় লিপ্ত

.

পঞ্চম ছেলেটি মাশাল্লাহ শশুরের খান অব দি কোম্পানির অনারেবল এম.ডি.

.

প্রথমতো আমি তোমাকে চাই! দ্বিতীয়ত আমি তোমাকে চাই! তৃতীয়ত আমি তোমাকে চাই গল্পগুলোর এখানেই সমাপ্তি!

.

তবুও কিছু গল্প থাকে অপূর্ণতা কে পূর্ণতা দেওয়ার

.

মাঝ রাস্তায় হঠাৎ যখন দেখেন কি সুইট একটা ছেলের সাথে কি ক্ষেত মার্কা একটা মেয়ে তখন কি ভেবেছেন? ছেলেটা শুধু সুইট না তার মনটা আরো বেশী সুইটেস্ট!

.

পৃথিবীতে দুই ধরণের মানুষ আছে,

.

কুষ্টিয়াতে ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসের শুক্রবারে শিলা এবং শিমুলের বিয়ে ছিলো! গায়ে হলুদের দিন শিলার উপর দুর্বত্তরা এসিড ছুঁড়ে মারে তারপর শিলার বিয়ে ভেঙ্গে যায়!

.

ভারতের মুম্বাইয়ে রং নাম্বারে এসিড আক্রান্ত তরুণী ললিতা বেন বানসির  সাথে প্রেম অতঃপর তাকে বিয়ে করেছিলেন রবিশঙ্কর!

.

জগতে সবাই আমার তোমার মতো না রে পাগলা! কেউ কেউ অন্য রকম তাদের ভাবনাও.......!

.

বেলা শেষে, তারা বরং নতুন ভোরের স্বপ্ন দেখায়! গভীর রাতে হারিয়ে যায় না!

*আবেগ* *ভালোবাসা* *বাস্তবতা* *মানুষ*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: মূর্তি সরানোতে কিছু মহল্লায় যে কান্নাকাটির ধুম পড়েছে, যে দরদ ঝরে পড়ছে , তা যদি মূর্তির জন্য না হয়ে মানুষের জন্য হত তবেই বলতাম সবার উপরে মানুষ সত্যি তার উপরে নাই।

*মানুষ* *কান্না* *মুর্তি*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

বাস্তবতা
মানুষের কিছু চাই হয়তো সেটা প্রেম, কিছুটা শরীর অথবা স্বপ্ন দেখার বালিশে একজোড়া ওষ্ঠ ই প্রয়োজন।
*মানুষ* *শরীর* *বাস্তবতা* *ভালোবাসা* *স্বপ্ন*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: কাউকে উপকার করার মাঝে আনন্দই আলাদা !!! আসুন না মানুষের পাশে দাড়াই ।।

*মানুষ*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: এমন কিছু চিঠি আছে কখনো পোস্টও করা হয়না কখনো বলতে চেয়েও বলা হয়না ! সবার জীবন এমন কিছু মানুষ থাকে যাদের কখনো বলতে গিয়েও বলা যায় না ভালবাসি ! বড্ড ভালবাসি !

*ভালোবাসা* *মানুষ* *আবেগ* *চিঠি*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বেশতো খুব প্রিয় একটা নাম আমার কাছে শুধু আমার কাছে না সকলের কাছে ।। খুব বেশিদিন হয়নি তারা যাত্রা শুরু করেছে ।। কিন্তু অল্পসময়ের ভীতরে সে  সবার মন জয় করে নিয়েছে ।। সেই শুরু থেকে আছি বেশতো এর পাশে আর থাকবো মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ।।

এখানে অনেকেই খুব Active থাকে ।। যাদের লেখা পড়ে খুব ভালো লাগে যাদের নামের মাঝে ভালোবাসা খুজে পাই ।। ভালোবাসতে গেলে যে দেখার প্রয়োজন হয় সেটা আমি মানি না ।। না দেখেও অনেকের লেখা পরে প্রেমে পরে গেছি ।। তাদের অনেকের যদি বয়ফ্রেন্ড অথবা জামাই থেকে থাকে আন্তরিক ভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি নিজের প্রতি।  (মনখারাপ) (মনখারাপ) (মনখারাপ) (মনখারাপ) (মনখারাপ)

জাইহোক আসল কথা হচ্ছে বেশতো এই শুরু থেকে আমরা আছি হয়তো চিরকাল থাকবো না এই পৃথিবীতে বেচে কিন্তু তুমি থাকবে অনন্তকাল এই ভার্চুয়াল জগতে ।। আস্তএ আস্তে করে মাথা উচু করে দাঁড়াবে এই ভার্চুয়াল জগতে ।।

সেই দোয়া করি । কিন্তু কখনো ভূলে যেও না তোমার শুরুর পথিকদের কখনো ভূলে যেও না তাদের অস্তিত্ব তাদের লেখাগুলোকে ।। হয়তো ব্যাস্ততার কারনে তোমায় আগের টাইম দিবে না তারপর ও যখন আরও ফেমাস হবে ভূলে যেও না তাদের ।।

বেশতো তুমি হচ্ছ একটা আত্মার টান ।। হাজার ব্যাস্ততা থাকলেও তোমার কাছে ছূটে আসি মন খারাপ গুলো শেয়ার করি ।।

ভালো থেক ।। আরও পপুলার হও এই দোয়া করি ।।

বেশতো এর সাথে সম্পৃক্ত সকল মানব কে জানাই সালাম ও শুভেচ্ছা ।। ভালো থাকুন আপনারা সুস্থ্য থাকুন ।।

*বেশতো* *ভালোবাসা* *মানুষ* *ভূলেযাওয়া*

প্যাঁচা : কি কারণে আমরা সবাই-ই দিনশেষে একইরকম নিয়মে জড়াই নিজেদের, যদিও একটা সময় এই নিয়মগুলোকেই ভাঙ্গার এক অদম্য কাকুতি লালন করি আমাদের ভেতরে। কেন যে মানুষটি একসময় কিছুতে পিছপা হবার ছিল না, সে-ই আজ নানা ভয়ে পিছিয়ে যায় জীবনের নানা হাতছানি থেকে। এই এড়িয়ে চলাটা যদি তার জন্য বাস্তবতা বা জীবন হতে পারে তাহলে সেই রাস্তাটা এড়িয়ে চলা কেন কারো জীবন হতে পারে না?আচ্ছা,তারটাই না হয় গ্রহণযোগ্যতা পেল,আমারটা না হয় নাই পেল।নাকি ঋণশোধ করতেই হবে?জাতে মাতাল হলেও তালে ঠিক আমি(শয়তানিহাসি)(হাসি২)

*ডায়াগনোসিস* *স্টেরিলাইজ* *ঋণ* *OUT* *মানুষ* *জীবন-সংগ্রাম* *নিয়ম* *জীবন* *সমাজ*

প্যাঁচা : খুব বেশি ঘাটাঘাটি না করেই বলছি সো,এলোমেলো হলে আমার দোষ নাই।ইসলাম ধর্মের চার শ্রেষ্ঠ নারী,ফাতিমা(রাঃ),আছিয়া(রাঃ),বিবি খাদিজা(রাঃ) ও মরিয়ম(রাঃ)।ওনাদের কথা বা জীবনি নিয়ে কথা বলতে আমি ধার্মিক কোন নারীকে খুব একটা শুনি না কেন?এমনকি ধার্মিক পুরুষদেরও বলতে শুনিনা তেমন...এটা কি আমার দেখার ভুল নাকি আসলেই খুব একটা বলা হয় না।আমি কি ভুল বললাম?

*ইসলাম* *নারী* *মানুষ* *ধর্ম*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★