মিথ্যা

মিথ্যা নিয়ে কি ভাবছো?

আকমল হোসেন আজাদ: মিথ্যা হতে দূরে থাকো, কেননা মিথ্যা মানুষের চেহারাকে কালো করে দেয়।

*মিথ্যা*

সুমনা হোসেন: কল্পনা শক্তি আছে বলেই সে মিথ্যা বলতে পারে । যে মানুষ মিথ্যা বলতে পারে না, সে সৃষ্টিশীল মানুষ না, রোবট টাইপ মানুষ । -----হুমায়ূন আহমেদ (আমি ভাই রোবট টাইপ না, চান্স পেলেই মিথ্যে বলি। তবে আমার পরিচিত রোবট টাইপ মানুষ আছে যারা মিথ্যা বলতেই পারেনা! )

*মিথ্যা* *রোবট* *কল্পনা*

নাবিক সিনবাদ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 "ভুল" ও "মিথ্যা" এর মধ্যে পার্থক্য কি??

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*ভুল* *মিথ্যা*

প্যাঁচা : সত্য বারবার বললে মিথ্যার মত শোনায় কিন্তু মিথ্যা বারবার বললে সত্যের মত শোনায়...এর কি কোন মানে আসলে আছে?(হাসি২)নাকি এর কোন প্র্যাক্টিকালিটি আসলে আছে?আমি সত্য একবার বলে চুপ করে থাকলে কেউ কানের মাছিও নাড়বে না এখন কিন্তু যখন আর কোন উপায় থাকবে না তখন একবার হয়ত দুঃখ কর বলবে কিন্তু লাভের লাভ কিছুই হবে না।তাই বরং এই কথাটা মুছে দিয়ে বলা উচিত,একই কথা বারবার না বলুন,কারণ মিথ্যা বারবার বললেও মিথ্যা।(হাসি-৩)এতে অন্তত মিথ্যাকে সত্যরূপ দানের চর্চা কমবে।

*সত্য* *মিথ্যা*

★ছায়াবতী★: [গ্রীষ্ম-বাত্তিইইই]মিথ্যাবাদীরা সব করতে পারে শুধু জিততে পারে না ! একটা সময়ে গিয়ে হেরে যায়। দিন হোক সত্য সুন্দর ও মঙ্গলকর

বিডি আইডল: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 মজা করার জন্য মিথ্যা বলাও কি গুনাহের কাজ ?

উত্তর দাও (৯ টি উত্তর আছে )

.
*মিথ্যা* *গুনাহ* *ইসলাম*

ফ্রেশ ফ্রজেন: [বেশবচন-বাটপারিকরস]যারা মিথ্যা বলে না তারা খুব বিপদজনক। তারা যখন একটা দুইটা মিথ্যা বলে তখন সেই মিথ্যাকে সত্য হিসাবে ধরা হয়। এক হাজার ভেড়ার পালের মধ্যে একটা নেকড়ে ঢুঁকে পড়ার মতো। একহাজার সত্যির মধ্যে একটা মিথ্যা। সেই মিথ্যা হবে ভয়ংকার মিথ্যা "হুমায়ূন আহমেদ"

*মিথ্যা*

মোঃআশিকুর রহমান: কথাটা একদম সত্যি।

*ভালবাসা* *মেকআপ* *মিথ্যা*
৪/৫

অসমাপ্ত কাব্য: যাকে আপনি পছন্দ করবেন সে মিথ্যা বললেও সত্য মনে হবে। ভুল করলেও ঠিক মনে হবে। আর যাকে সহ্য করতে পারেন না, সে সত্য বললেও মিথ্যা মনে হবে। তার ঠিক কাজও ভুল মনে হবে। কিন্তু মিথ্যা যতই মিস্টি হোক সেটা শুধু ক্ষণিকের। আর সত্য যতই তিতা লাগুক সেটাই বাস্তব...!!

*সত্য* *মিথ্যা* *বাস্তব*

আলোহীন ল্যাম্পপোস্ট: একটি বেশব্লগ লিখেছে

অনন্ত জলিল : অসম্ভবকে সম্ভব
করা অনন্তের কাজ ।কত বড় মিথ্যা কথা ।ভাই কবে আপনি অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন ?

যদি পারেন একটা ডিম পেড়ে দেখান ।

তামিম : বয়সতো মাত্র ২৩।এখননা হলে কখন?
গত দুই বছর
ধরে শুনে আসতেছি তোমার বয়স মাত্র ২৩ ।তোমার বয়স
কী বাড়েনা???
আর
এখন না হলে কখন কথাটার অর্থ কি ???

ফেয়ার এন্ড হেন্ডসাম : মাত্র তিন সপ্তাহে ফর্সা হোন । তিন সপ্তাহে যদি ফর্সা হওয়া যায় তাহলে আফ্রিকায়
এত নিগ্রো কেন???

সাকিব আল হাসান : টিফিন বিস্কুট খাও ছক্কা হাকাও।
যদি টিফিন
বিস্কুট খেলে ছক্কা হাকানো যায় তাহলে তামিমকে খাওয়া ।
ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতাবে ।

গ্রামীন ফোন : চলো বহুদূর । বহুদূর তো যেতে চাই
ভাড়া দিবা ????

রবি : জ্বলে উঠুন আপন শক্তিতে ।
দিয়াশলাই
কিনে দেন ।নিজের শক্তি নাই।

বাংলালিংক : দিন বদলের চেষ্টায়
বাংলালিংক ।
আজকে দশ বছর ধরে এই কথাই শুনছি । দেশতো বদলালো না ।

এয়ারটেল : ভালোবাসার টানে পাশে আনে ।--
মিথ্যুক
। তাহলে আমি সিঙ্গেল কেনো বুঝতেছিনা ??

সিটিসেল : অনেক বছর আগে বলছিল
চলে যাচ্ছি নেটওয়ার্কের বাইরে ।
ভাই
কবে আপনি নেটওয়ার্কের আওতায় ছিলেন ।

ম্যাগিনুডুলস : মাত্র দুইমিনিটে বানান ।
আরে
ভাই পানি গরম হইতেই তো ৫ মিনিট !

(বাংলাদেশ- দুর্নীতিতে কি এমনি এমনি মেডেল পায়)
*সংগৃহীত* *মিথ্যা* *রসিকতা*
*মিথ্যা* *রসিকতা*

হাফিজ উল্লাহ: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৪/৫
হাত মিথ্যা লিখতে পারে, ঠোঁট মিথ্যে বলতে পারে ...কিন্তু চোখ কখনো মিথ্যা বলতে পারেনা!
*চোখ* *মিথ্যা*

হাফিজ উল্লাহ: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৪/৫
এ জগত পুরোটাই সত্যি, জগতের কোথাও মিথ্যা নেই। মিথ্যা যা আছে তার সবই মানুষের মনে.......!
*মিথ্যা*
৫/৫

পায়েল : অনেক দিন হলো, তুমি আমাকে খুঁজো না, অনেক দিন হলো, আমিও তোমাকে খুঁজি না, হয়তো তুমি ভাল আছো, হয়তো আমিও ভাল আছি, আমি ভাল আছি, আমার মনে তোমার জন্যে, জমানো সত্যিকারের ভালবাসাকে বুকে পুষে, আর তুমি ভাল আছো তোমার মিথ্যে ভালবাসাকে লালন করে, বেঁচে থাকতে হয় বলে থাকি, সত্য ভোলার অভিনয়ের মাঝে থাকি......

*ভালোবাসা* *সত্য* *কবিতা* *মিথ্যা* *বিরহ*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সন্তানকে ছোটবেলা থেকে সততা, সত্যবাদিতা শেখানো বাবা-মায়ের একান্ত কর্তব্যের মধ্যে একটি। এই অভ্যাসগুলো ছোটবেলা থেকে শিশুর মাঝে তৈরি করতে না পারলে ছোট ছোট ভুলগুলোই শিশুর পরবর্তী জীবনে বড় কোন ভুলের কারন হয়ে দাঁড়াতে পারে। তিন/চার বছর বয়সে শিশুরা খাওয়া নিয়ে, নিয়মভঙ্গ করা নিয়ে, পড়ায় ফাঁকি দিতে কিংবা শুধুমাত্র কল্পনাপ্রসূত ভাবনার ফলেই মিথ্যে বলতে পারে। শিশুদের মিথ্যা বলার অনেকাংশ নির্ভর করে পারিবারিক কালচারের ওপর। সামাজিক ব্যবস্থা, শিশুর পারিপার্শিক পরিবেশ ও বন্ধুদের দ্বারাও প্রভাবিত হতে পারে। তবে শিশুদের মিথ্যা বলার প্রবণতা কোনো রোগ নয়। পিতা-মাতাকে অবশ্যই এ ব্যাপারে সচেতন হতে হবে।


শক্তিশালী সামাজিক ও পারিবারিক বন্ধনই পারে এ সমস্যা দূর করতে। কল্পনা ও বাস্তবতার জগৎ সম্পর্কে শিশুকে গল্পচ্ছলে বুঝিয়ে বলুন। কল্পনা করুক। তবে বাস্তবতা ভুলে গিয়ে নয়! অনেক সময় কল্পনাপ্রবণতায় মিথ্যা বলার অভ্যাস শিশুর বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মিলিয়ে যায়। তাই খুব বেশি চিন্তিত হওয়ারও কিছু নেই। শিশুদের মিথ্যা বলার প্রবণতা কিছু ক্ষেত্রে পারিবারিক কারণে হয়ে থাকে। অনেক শিশু কৃতিত্বের জন্য মিথ্যা বলে। কেউ বা অন্যের অনুকরণে বলে মিথ্যা। এর প্রতিকার হিসেবে শিশুদের পারিবারিক দ্বন্দ্ব থেকে দূরে রাখতে হবে। তারা যেন হতাশা বা হীনম্মন্যতায় না ভোগে। রাগ বা বকাঝকায় উল্টা ফল হতে পারে। সব সময় কাজে খুঁত ধরা, খিটমিট করা, ভয় দেখানো বা হুমকি দেওয়া_ এগুলো থেকে বিরত থাকতে হবে।

বরং চেষ্টা করুন এসব করতে:
  • শিশুকে কখনো সরাসরি এ কথাটি বলবেন না যে “তুমি মিথ্যেবাদী”। এতে করে সে অপমানিত বোধ করে জেদের বশে বারবার একই ভুল করতে পারে। তাকে খুব শান্তভাবে আদর করে বুঝিয়ে বলুন যে সে যা করছে তা ঠিক করছে না কিংবা তাকে সত্য বলার পরিবেশ তৈরি করে দিন যাতে সে নির্ভয়ে সত্য বলতে পারে।
  • যখনই টের পাবেন কোনো কারণে আপনার শিশু মিথ্যা কথা বলছে, প্রথমেই চেষ্টা করুন তার কারণ খুঁজে বের করতে। ও কি নিজেকে কোনো অসুবিধা থেকে বাঁচাতে মিথ্যা কথা বলছে? ও কি ভেবেছে সত্যি কথা বললে শাস্তি পাবে? না কি অভ্যাসবশত অসত্য বলেছে? কারণটা খুঁজে পেলে কিন্তু ওর ব্যবহার সংশোধন করতে সুবিধা হবে।
  • অনেক সময় বাচ্চারা অনেক কথা বাড়িয়ে বলে। হয়তো ছুটিতে বাড়িতেই ছিল, কিন্তু বন্ধুদের কাছে বলল- কক্সবাজার বেড়াতে গিয়েছিল। এটা ঠিক মিথ্যা নয়, বরং নিজেকে জাহির করা। বন্ধুদের বা বড়দের অ্যাটেনশন পাবে বলে ওরা এটা করে। এই বানানো গল্প নিয়ে বকাবকি না করে বাচ্চার কল্পনাশক্তিকে ঠিকভাবে পরিচালনা করতে সহায়তা করুন।
  • যখন বুঝতে পারবেন যে আপনার শিশু কোনো ব্যাপারে মিথ্যা বলছে, তখন জোর করে মেরেধরে তাকে দিয়ে সত্যি কথা বলানোর চেষ্টা করবেন না। এতে তার আরও জেদ চেপে যাবে। ব্যাপারটা থিঁতিয়ে গেলে নরম গলায় তার কাছে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইতে পারেন। সত্যি কথা বলার জন্য তাকে একটা ছোট্ট গিফটও দিতে পারেন।
  • সত্য বলাকে সবসময়ই ভালো চোখে দেখুন, উৎসাহিত করুন। এতে শিশু মিথ্যা বলতে আগ্রহী হবে না। আদর ভালোবাসা প্রিয় হয় বলে সহজেই তাদের সত্য বলার দিকে আকৃষ্ট করা যেতে পারে।
  • সন্তানকে বুঝিয়ে দিন মিথ্যা কখনো কাউকে কোন বিপদ থেকে বাঁচাতে পারেনা। বরং বড় কোন বিপদের দিকে ঠেলে দেয়। তাই বারবার যখনই সুযোগ পান শিশুকে বিভিন্ন কৌশলে ব্যাপারটি বুঝিয়ে দিন।
  • মিথ্যে ছোট আর বড় হোক তা মিথ্যেই থেকে যায়। ছোট ভুল ভেবে সন্তানের কোন রকমের মিথ্যাকেই প্রশ্রয় দেবেন না। এতে সে ভাববে মিথ্যা বলা এমন কোন দোষের কিছু নয় আর ভবিষ্যতে আরও বড় মিথ্যা বলতে সাহস পাবে।
  • বাচ্চার মধ্যে ভালো অভ্যাস গড়ে তোলার জন্য বাবা-মা দু’জন মিলে মজার সব অ্যাক্টিভিটি করতে পারেন। বাচ্চাকে কোনো একটা রূপকথা বা শিক্ষামূলক গল্প পড়ে শুনিয়ে জানতে চান যে, এই গল্পটা থেকে সে কী শিখল। দু’জন মিলে গল্পের চরিত্রগুলোর ভূমিকা নিয়ে অভিনয়ও করতে পারেন। এভাবেই সে বুঝতে পারবে কোনটা ভুল আর কোনটা ঠিক। অবসর সময়ে রঙ-বেরঙের পোস্টার বানাতে বাচ্চাকে সাহায্য করুন। প্রতিটি পোস্টারে কোনো একটি কার্টুন চরিত্রের সঙ্গে মরাল (যা ওকে ভালো হয়ে উঠতে সাহায্য করবে) লিখুন। পোস্টারটা তার পড়ার টেবিলের সামনে ঝুলিয়ে দিতে পারেন, যাতে তার চোখের সামনেই থাকে। বাচ্চাকে ডায়েরি লেখার উৎসাহ দিন যাতে সে রোজ কী ভালো কাজ করেছে তা লিখে রাখতে পারে। সপ্তাহ শেষে ভালো কাজের জন্য তাকে পুরস্কৃত করতে পারেন।
  • নিজেদের ব্যবহারে পরিবর্তন আনুন। বাচ্চার সামনে কখনও মিথ্যা বলবেন না। যদি বলেও ফেলেন, তাহলে সঠিক ভাষায় তাকে বুঝিয়ে বলুন কেন আপনি সত্যিটা বললেন না।

নিজেকে এমনভাবে তৈরি করুন যাতে আপনার সন্তান আপনাকে আদর্শ ভাবতে পারে। এই আদর্শেই আপনার শিশু উৎসাহ পাবে আর নিজেকে সেইভাবে গড়ে তুলতে চেষ্টা করবে। তাই সবার আগে নিজেকে পরিশুদ্ধ করে নিন। 
(সংকলিত)
*শিশুরযত্ন* *প্যারেন্টিং* *লাইফস্টাইলটিপস* *সন্তানপালন* *শিশুরভবিষ্যত* *মিথ্যা* *বদভ্যাস*
ছবি

অনি: ফটো পোস্ট করেছে

আসুন চেষ্টা করে দেখি!

*দুঃখ* *খুশি* *আত্মীয়তা* *বন্ধুত্ব* *শত্রু* *সত্য* *মিথ্যা* *দুশ্চিন্তা* *ভালবাসা* *ঘৃণা* *হাসি* *কান্না* *রাগ* *জীবন* *মধুর*

মন্টি মনি: ৩টা জিনিস ফিরে আসে না সময়, কথা, সুযোগ । ৩টা জিনিস হারানো ঠিক না শান্তি, আশা, সততা ৩টা জিনিস সহজ না : স্বপ্ন, সফলতা, ভবিষ্যৎ । ৩টা জিনিস এ পতন হয় অহঙ্কার, মিথ্যা , ঘৃণা । ৩টা জিনিস খুব দামী ভালোবাসা , আত্মবিশ্বাস,বন্ধু ।

*ভালোবাসা* *আত্মবিশ্বাস* *বন্ধু* *সততা* *সফলতা* *স্বপ্ন* *ভবিষ্যত* *আশা* *শান্তি* *অহংকার* *মিথ্যা* *ঘৃনা* *সময়* *কথা* *সুযোগ*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★