রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি নিয়ে কি ভাবছো?

উদয়: একটি বেশব্লগ লিখেছে

স্বাধীনতার সময়কাল থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের ২০জন রাষ্ট্রপতি ছিলেন, তাদের  নাম ও তাদের মেয়াদাকাল চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক।


১। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
মেয়াদ: ১১ইএপ্রিল ১৯৭১ইং থেকে ১২ই জানুয়ারী ১৯৭২ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ)
২। সৈয়দ নজরুল ইসলাম (অস্থায়ী)
মেয়াদ: ১১ ই এপ্রিল ১৯৭১ইং হতে ১০ই জানুয়ারী ১৯৭২ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ)
৩। বিচারপতি আবু সাইদ চৌধুরী
মেয়াদ: ১২ইং জানুয়ারী ১৯৭২ ইং থেকে ২৪শে ডিসেম্বর ১৯৭৩ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ)
৪। মোহম্মদ মোহম্মদ উল্লাহ ।
মেয়াদ: ২৪শে ডিসেম্বর ১৯৭৩ইং থেকে ২৫শে জানুয়ারী ১৯৭৫ ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ)
৫। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
মেয়াদ: ২৫শে জানুয়ারী ১৯৭৫ইং থেকে ১৫ই আগষ্ট ১৯৭৫ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ)
৬। খন্দকার মোশতাক আহম্মদ
মেয়াদ: ১৫ ই আগষ্ট ১৯৭৫ইং থেকে ৬ই নভেম্বর ১৯৭৫ ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ)
৭। বিচারপতি আবু সাদাত মোহম্মদ সায়েম ।
মেয়াদ: ৬ই নভেম্বর ১৯৭৫ইং থেকে ২১শে এপ্রিল ১৯৭৭ইং পর্যন্ত।
৮। মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান ।
মেয়াদ: ২১শে এপ্রিল ১৯৭৭ ইং থেকে ৩০শে মে ১৯৮১ইং পর্যন্ত। (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল)
৯। বিারপতি আব্দুস সাত্তার (অস্থায়ী)
মেয়াদ: ৩০শে মে ১৯৮১ইং থেকে ২৪শে মার্চ ১৯৮২ইং পর্যন্ত ।(বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল)
১০। হুসেইন মোহাম্মাদ এরশাদ ।
মেয়াদ: ২৪শে মার্চ ১৯৮২ইং থেকে ২৭শে মার্চ ১৯৮২ ইং পর্যন্ত। (জাতীয় পার্টি)
১১। বিচারপতি এ.এফ.এম আহসান উদ্দিন চৌধুরী
মেয়াদ: ২৭শে মার্চ ১৯৮২ ইং থেকে ১১ই ডিসেম্বর ১৯৮৩ইং পর্যন্ত (জাতীয় পার্টি)
১২। হুসেইন মোহাম্মাদ এরশাদ ।
মেয়াদ: ১১ই ডিসেম্বর ১৯৮৩ইং থেকে ৬ ডিসেম্বর ১৯৯০ ইং পর্যন্ত (জাতীয় পার্টি)
১৩। বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ (অস্থায়ী)
মেয়াদ: ৬ ডিসেম্বর ১৯৯০ ইং থেকে ১০ই অক্টোবর ১৯৯১ ইং পর্যন্ত (নির্দলীয়,তত্বাবধায়ক সরকার প্রধান)
১৪। বিচারপতি আবদুর রহমান বিশ্বাস
মেয়াদ: ১০ই অক্টোবর ১৯৯১ ইং থেকে ৯ই অক্টোবর ১৯৯৬ইং পর্যন্ত (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল)
১৫। বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহম্মদ ।
মেয়াদ: ৯ই অক্টোবর ১৯৯৬ইং থেকে ১৪ই ডিসেম্বর ২০০১ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীগ কর্তৃক নির্বাচিত)
১৬। অধ্যাপক এ. কিউ. এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ।
মেয়াদ: ১৪ই ডিসেম্বর ২০০১ইং থেকে ২১শে জুন ২০০২ ইং পর্যন্ত (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল)
১৭। ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ।
মেয়াদ: ২১শে জুন ২০০২ ইং থেকে ৬ই সেপ্টেম্বর ২০০২ পর্যন্ত (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল)
১৮। অধ্যাপক ইয়াজ উদ্দিন আহমেদ ।
মেয়াদ: ৬ই সেপ্টেম্বর ২০০২ থেকে ১২ই ফেব্রুয়ারী ২০০৯ ইং পর্যন্ত (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল)
১৯। অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান ।
মেয়াদ: ১২ই ফেব্রুয়ারী ২০০৯ ইং থেকে ২০ মার্চ ২০১৩ ইং পর্যন্ত (আওয়ামী লীক, মাহামান্য রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান সে বছরের ২০ মার্চ বিকেল ৪টা ৪৭ মিনিটে সিঙ্গাপুরের এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন )
২০। এ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ
মেয়াদ: ২০ মার্চ ২০১৩ইং থেকে (আওয়ামী লীগ)

সূত্র: ইন্টারনেট

*বাংলাদেশ* *সাধারণজ্ঞান* *রাষ্ট্রপতি* *জানা-অজানা*

Risingbd.com: একটি বেশব্লগ লিখেছে

মাঝির ছেলে থেকে রাষ্ট্রপতি


মানুষের জীবনে উত্থান-পতন আসে। ধনীর ছেলে ফকির হয়, আর ফকিরের ছেলে রাজা। পৃথিবীর ইতিহাস ঘাঁটলে এ রকম হাজারো উদাহরণ খুঁজে পাওয়া যাবে। এমনই এক ঘটনার জ্বলন্ত সাক্ষী ড. এ পি জে আবদুল কালাম। মাঝির কুঁড়েঘর থেকে হয়েছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি। বিশ্বের শীর্ষ পদার্থবিজ্ঞানীর পাশে তার নাম উঠেছে অবিসংবাদিত বিজ্ঞানী হিসেবে।

 

ড. এ পি জে আবদুল কালাম হয়ে ওঠার গল্প
তামিলনাড়ু রাজ্যের উপকূলসংলগ্ন রামেশ্বারামে ১৯৩১ সালের ১৫ অক্টোবর দরিদ্র পরিবারে জন্ম তার। বাবা জয়নুল আবেদিন একজন নৌকাচালক (মালিক)। মা আশিয়াম্মা গৃহিণী। অভাব তার পড়াশোনার পথে অনেকবার বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। পড়াশোনার ব্যয় মেটাতে তিনি অনেক ছোট কাজও করেছেন। পত্রিকার হকারিও করেছেন বেশ কিছুদিন।

প্রজাতন্ত্র দিবসে রাষ্ট্রপতি ভবনের সামনে তিনি
গণিতশাস্ত্রে আগ্রহী কর্মঠ কালাম বিদ্যালয়ে একজন মধ্যম মানের ছাত্র ছিলেন। রামনাথপুরম সোয়ার্জ ম্যাট্রিকুলেশন বিদ্যালয় থেকে শিক্ষা সমাপন করে ১৯৫৪ সালে তিনি মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে তিরুচিরাপল্লীতে অবস্থিত সেন্ট জোসেফ`স কলেজ থেকে পদার্থবিদ্যায় স্নাতক হন। ১৯৫৫ সালে তিনি মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে বিমান প্রকৌশলবিদ্যায় উচ্চ ডিগ্রি লাভ করেন। এই প্রতিষ্ঠানে পড়ার সময় তার পঠনপাঠনের অগ্রগতিতে অখুশি ডিন তিন দিনের মধ্যে প্রকল্প শেষ না করলে বৃত্তি বন্ধ করে দেওয়ার ভয় দেখালে কালাম নির্দিষ্ট দিনের মধ্যে তার প্রকল্প সম্পন্ন করেন। আটটি পদের জন্য পরীক্ষায় নবম স্থান লাভ করায় ভারতীয় বিমানবাহিনীতে যুদ্ধবিমানের চালক হিসেবে তার স্বপ্ন খুব অল্পের জন্য হাতছাড়া হয়।

 

পেশা
এমআইটি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করার পর কালাম ভারতের অ্যারোনটিক্যাল ডেভেলপমেন্ট স্টাবলিশমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ডিআরডিও) প্রধান বিজ্ঞানী হিসেবে যোগ দেন। এখানেও সন্তুষ্ট হতে পারেননি। তখন ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনে (আইএসআরও) স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকেল প্রকল্পের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব নেন।

দিল্লিতে যুদ্ধজাহাজের নকশা দেখছেন তিনি
১৯৭০-এর দশকে প্রজেক্ট ডেভিল এবং প্রজেক্ট ভ্যালিয়ান্ট নামে দুটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প হাতে নেন তিনি। এই প্রকল্পের অধীনেই ভারত ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে সক্ষম হয়। ভারতের তৈরি রোহিনি-১ নামের মিসাইলটি সফলভাবে উৎক্ষেপণ করার পর বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি এনে দেয়। ২০০২ সালে ক্ষমতাসীন বিজেপির সমর্থনে রাষ্ট্রপতি হিসেবে মনোনীত হন। ২০০৭ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। ভারতের সবচেয়ে সম্মানিত ব্যক্তিত্বদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

 ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনে তার অবদান অনেক। ভারতের রকেট ও মিসাইল প্রযুক্তিতে তার অবদান সর্বাগ্রে। ‘অগ্নি’, ‘পৃথ্বি’ এর মতো পারমাণবিক অস্ত্রবাহী মিসাইল প্রযুক্তি পূর্ণতা পেয়েছে তার হাত ধরেই। এ জন্য তাকে ‘মিসাইলম্যান অব ইন্ডিয়া’ বলে আখ্যায়িত করা হয়।
আরো কিছু বিস্তারিত - http://www.risingbd.com/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%9D%E0%A6%BF%E0%A6%B0-%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%A5%E0%A7%87%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%B7%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%AA%E0%A6%A4%E0%A6%BF/117570



*রাষ্ট্রপতি* *ভারতের_রাষ্ট্রপতি* *বিজ্ঞানী* *রাইজিংবিডি_ডট_কম*

দীপ্তি: আব্দুল হামিদই বাংলাদেশের ২০তম *রাষ্ট্রপতি* হিসেবে মনোনীত হলেন। (খুকখুকহাসি)

তাশফীন হাসান: নতুন *রাষ্ট্রপতি* নির্বাচনে আগামী ২৯ এপ্রিল ভোট হবে জাতীয় সংসদে।আগ্রহী প্রার্থীরা ২১ এপ্রিল মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। পরদিন মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পর ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত তা প্রত্যাহার করা যাবে।

তাশফীন হাসান: অস্থায়ী *রাষ্ট্রপতি* এর অবাক সিদ্ধান্ত (চিন্তাকরি) http://tiny.cc/kqj1uw

তাশফীন হাসান: ২৬শে মার্চ ইঙ্গিত মিলবে কে হচ্ছেন রাষ্ট্রপতি! http://goo.gl/UuAQr *খবর* *রাষ্ট্রপতি*

নাকিব ওসমান : শেখ হাসিনা যদি *রাষ্ট্রপতি* হন... (ব্যাপকটেনশনেআসি) http://tinyurl.com/cy2mepr *রাজনীতি* *বাংলাদেশ* *জানো* *খবর* *রাজনীতি* *বেশতো* *প্রজন্মেরপ্রত্যাশা*

ফাহিম মাশরুর: গত ২ দিন দেশের রাজনীতিক আবহাওয়া অনেক শান্ত-সবার মধ্যেই একটা পরিমিতি বোধ, একে অন্যের প্রতি সম্মান বোধI জানি খুব তাড়াতাড়ি এই প্রশান্তি কেটে যাবেI আবারও গালাগালি,হানাহানি,কদর্য কথা শুরু হবেI কিন্তু আশা করতে ইচ্ছে হয়- কিছু দিনের জন্য হলেও শান্তি থাকুক I

সম্পাদকীয়: 'আপনি আসেন না কেন বঙ্গভবনে আজকাল?'- প্রয়াত *রাষ্ট্রপতি* স্মরণে আলী জাকেরের লেখা পড়ুন [DailyShamakal] http://tinyurl.com/a2nmpto

তারেক বাঙ্গালী: *রাষ্ট্রপতি* রাষ্ট্রপতির জন্য তিনদিনের শোক, সবাই (লক্ষ্মীপুরের এ্যাডভোকেট নুরুল ইসলামের পরিবার???)শোকাহত! আহারে !!! বড়ই দয়ালু মানুষ ছিলো।

রাজনীতির খবর: *রাষ্ট্রপতি* হবার দৌড়ে কে এগিয়ে? স্পিকার আব্দুল হামিদ নাকি সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী? [DailyProthom-Alo] http://tinyurl.com/dxm9ldp

নাকিব ওসমান : আমলাতন্ত্রের অদক্ষতা বনাম রাজনৈতিক অনৈক্য - লিংক: http://tinyurl.com/cuazxs5 *খবর* *রাষ্ট্রপতি* *প্রজন্মেরপ্রত্যাশা* *বাংলাদেশ* *জানো* *রাজনীতি*

নিউজ ফ্ল্যাশ: রাষ্ট্রপতির মৃত্যুশোকে বহুদিন পর আবারো এক ছাদের নিচে এলেন দেশের দুই প্রধান রাজনৈতিক দলের নেতা। কিন্তু এবারো তাদের মধ্যে কোনো কথা হলো না।

Suman Raj: মহামান্য রাষ্ট্রপতির মরদেহ বঙ্গভবনে রাখা হয়েছে এবং বেগম খালেদা জিয়া শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য গিয়েছেন। তার এই সৌজন্যবোধ প্রশংসনীয়। আমরা আরও খুশী হতাম যদি আমাদের দুই নেত্রী দুই দলের প্রতিনিধি হয়ে যদি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য পাশাপাশি দাঁড়াতেন।

দীপ্তি: প্রয়াত *রাষ্ট্রপতি* মো. জিল্লুর রহমানের প্রতি শেষশ্রদ্ধা জানাচ্ছে জাতি। বঙ্গভবনে ভিড়! আসুন আমরা *বেশতো* পরিবারের সদস্যরা নিজ নিজ জায়গা থেকে সবার কাছে শ্রদ্ধার এই ব্যক্তিত্বকে জানাই আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধা......

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★