লিচু

ট্রাভেলার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দিনাজপুরের পূর্বনাম ছিল ঘোড়াঘাট। জানা যায় জনৈক দিনাজ বা দিনাজরাজ নামক ব্যক্তি দিনাজপুরে রাজপরিবারের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। তাঁর নামানুসারে জেলার নামকরণ হয়েছে দিনাজপুর। প্রধান নদনদীর মধ্যে রয়েছে -যমুনা, আত্রাই, পুনর্ভবা, ঢেপা, কাঞ্চন, খরখরিয়া ইত্যাদি। খনিজ সম্পদের জন্য সমৃদ্ধ দিনাজপুর। দিনাজপুরের যে দুটি কীর্তির জন্য রাজা রামনাথ অবিস্মরণীয় হয়ে আছেন তার একটি কান্তজীর মন্দির অন্যটি রামসাগর। কথিত আছে, রাজা রামনাথের আমলে বৃষ্টিপাতের অভাবে একবার ক্ষেতের সব শষ্য নষ্ট হয়ে যায়। প্রকৃতি হয়ে ওঠে রুক্ষ ও ধূসর। অনাবৃষ্টির অভিশাপে জর্জরিত হয় সাধারণ প্রজা। প্রজাদের দুঃখদৈন্য মেটাতে মহাপ্রাণ রাজা খনন করান দীঘিটি। তারপর থেকে বহুকাল পর্যন্ত এটি রয়ে গেছে। রামসাগারকে ঘিরে যে সৌন্দর্যের পশরা বসেছে তা বর্ণনাতীত।

আছে কান্তজীর মন্দির, বাংলাদেশের সবচেয়ে সুন্দর মন্দির । শুধু বাংলাদেশ নয়, উপমহাদেশের প্রাচীন স্থাপত্য কীর্তির অসাধারণ এক নিদর্শন এই মন্দির। দিনাজপুরের টেপা নদীর ওপারে কান্তনগর গ্রামে এর অবস্থান।  দিনাজপুরে প্রবেশেই চোখে পরে সড়কের দুদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অসংখ্য লিচু গাছ। দিনাজপুর অঞ্চল তো লিচুর এক দেশই বটে। এখানে এসে লিচু খাওয়ার মজাই আলাদা।

লিচুর রাজ্য দিনাজপুরের মাশিমপুর লিচুবাগান
মধুমাসে ভ্রমন করতে যাওয়ায় সকলের লিচু খাওয়া। দিনাজপুর জেলার সবখানেই কম-বেশি লিচুর চাষ হয়। তবে মাশিমপুর লিচুর জন্য সবচেয়ে বিখ্যাত। এখানকার বাড়িতে বাড়িতে দেখা গেল সবাই লিচু নিয়ে ব্যস্ত। সড়কের দুপাশে শুধুই লিচুগাছ। সবুজ পাতার ফাঁকে ফাঁকে ডাল ভারী হয়ে ঝুলছে লাল লাল লিচু।বাজার থেকে কিনে লিচু খাওয়া আর বাগানের গাছ থেকে নিজ হাতে পেড়ে লিচু খাওয়ার মধ্যে অনেক তফাৎ আছে।প্রধান সড়ক ছেড়ে ছোট একটি রাস্তায় ঢুকতেই পাওয়া যায় আরো শত শত লিচুবাগান। 


মাশিমপুরের লিচু বেশিরভাগই বাড়ি কেন্দ্রীক। ঘরের আঙিনা, আশপাশেই বেশিরভাগ লিচু গাছ। বাগানও আছে প্রচুর। ভ্রমণে গেলে এখানে তাই কমবেশি আতিথেয়তাও পাওয়া যায়। এই এলাকার যে কোনো বাড়ি কিংবা বাগানে ঢুকে পড়তে পারেন আপনিও দিনাজপুর ভ্রমনে গিয়ে। মাশিমপুরের বাগানে প্রতি শত লিচু জাতভেদে দাম ২শ’ থেকে ৮শ’ টাকা। দেশি ও মাদ্রাজি লিচুর দাম সবচেয়ে কম। আকারে বেশ বড় ও সুস্বাদু হওয়ায় বোম্বাই ও চায়না-থ্রি লিচুর দাম সবচেয়ে বেশি। বোম্বাই আর মাদ্রাজি লিচুর দাম কিছুটা কম, প্রতি ১০০ লিচু ১৫০ থেকে ২০০ টাকা। বেদানা ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা আর চায়না-থ্রি জাতের লিচু ৮০০ টাকা থেকে শুরু। এছাড়া রয়েছে কালিতলা নিউমার্কেট, যেখানে লিচুর হাট বসে, সেখানে লিচু কিনে পার্সেল করে দিতে পারেন আপনার গন্তব্যে। দিনাজপুর থেকে লিচু আনার এটাই সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি, তবে পরিমাণে অল্প হলে হাতে করেই নিয়ে আসা যায়।


লিচুর রাজ্যে ঘুরে দেখে লিচুর স্বাদ নিয়ার এটাই উপযুক্ত সময়। তাই এখনই বেড়ানোর পরিকল্পনা করে ফেলতে পারেন যে কেউ।

কিভাবে যাবেন,কেমন খরচ?
ঢাকা থেকে বাস ও ট্রেন দুই পথেই যাওয়া যায়। ঢাকা থেকে দিনাজপুরগামী (Dinajpur) বাসগুলো সাধারণত ছাড়ে গাবতলী ও কল্যাণপুর থেকে। এ পথে নাবিল পরিবহনের এসি বাস চলাচল করে। ভাড়া ৯০০ টাকা।
এ ছাড়া হানিফ এন্টারপ্রাইজ,এস আর ট্রাভেলস,কেয়া পরিবহন, এস এ পরিবহন, শ্যামলী পরিবহন, নাবিল পরিবহনের নন-এসি বাসও চলাচল করে এ পথে। ভাড়া ৫০০-৫৫০ টাকা। ঢাকা থেকে আসাদগেট, কলেজগেট, শ্যামলী, কল্যাণপুর, টেকনিক্যাল মোড় অথবা গাবতলী হতে নাবিল, বা বাবলু এন্টারপ্রাইজের চেয়ার কোচে করে সরাসরি দিনাজপুর । প্রায় সারাদিন ৩০ মিনিট বা ১ ঘণ্টা পরপর গাড়িগুলো ছেড়ে যায়। তা ছাড়া উত্তরা হতেও কিছু পরিবহন দিনাজপুর যায়।

ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে আন্তঃনগর ট্রেন দ্রুতযান এক্সপ্রেস ছাড়ে সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটে। আর আন্তঃনগর একতা এক্সপ্রেস ছাড়ে সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে। ঢাকা থেকে একতা ও দ্রুতযান এক্সপ্রেস বন্ধ থাকে যথাক্রমে মঙ্গল ও বুধবার। দিনাজপুর (Dinajpur) থেকে ঢাকার উদ্দেশে দ্রুতযান এক্সপ্রেস ছাড়ে সকাল ৮টা ১০ মিনিটে আর একতা এক্সপ্রেস ছাড়ে রাত ৯টা ৫০ মিনিটে। দিনাজপুর (Dinajpur) থেকে একতা ও দ্রুতযান এক্সপ্রেস বন্ধ থাকে যথাক্রমে সোমবার ও বুধবার।

কোথায় থাকবেন, কেমন খরচ?
দিনাজপুর শহরের কোন হোটেলে থাকতে পারেন। দিনাজপুর শহরে থাকার জন্য বাংলাদেশ পর্যটন কপোর্রেশন এর মোটেলসহ অনেকগুলো ব্যক্তি মালিকানাধীন হোটেল রয়েছে। আপনি চাইতে এখানে থাকতে পারেন। হোটেল ডায়মন্ড, পূর্নভবা, হোটেল আল রশিদ উল্লেখযোগ্য।দিনাজপুর (Dinajpur) শহরে থাকার জন্য ভালো মানের হোটেল হচ্ছে পর্যটন মোটেল (০৫৩১-৬৪৭১৮)। এ ছাড়া ঢাকায় পর্যটনের প্রধান কার্যালয় থেকেও এ মোটেলের বুকিং দিতে পারেন। দিনাজপুরের (Dinajpur) পর্যটন মোটেলে এসি টুইনবেড ১৫০০ টাকা এবং এসি টুইনবেড ডিলাক্স কক্ষ ১৮০০ টাকা। এ ছাড়া দিনাজপুরের (Dinajpur) অন্যান্য সাধারণ মানের হোটেলে ১০০-১২০০ টাকায় রাত্রিযাপনের ব্যবস্থা আছে। কয়েকটি সাধারণ মানের হোটেল হলো—মালদহ পট্টিতে হোটেল ডায়মন্ড (০৫৩১-৬৪৬২৯),নিমতলায় হোটেল আল রশিদ (০৫৩১-৬৪২৫১), হোটেল নবীন (০৫৩১-৬৪১৭৮), হোটেল রেহানা (০৫৩১-৬৪৪১৪), নিউ হোটেল (০৫৩১-৬৮১২২)।

দিনাজপুরের বিশেষ খাবার গুলোঃ
দিনাজপুর (Dinajpur) এর বিখ্যাত এবং খুব জনপ্রিয় খাবার লিচু,চিড়া,পাপড় খেতে ভুলবেন না।

বিস্তারিত জানিয়ে দিলাম দিনাজপুরের লিচু রাজ্য সম্পর্কে। এবার তাহলে ভ্রমনের সরঞ্জামাদি নিয়ে বেরিয়ে পড়ুন। 

*লিচু* *লিচুবাগান* *মাশিমপুর* *লিচুররাজ্য* *দিনাজপুর*

★ছায়াবতী★: একটি টিপস পোস্ট করেছে

লিচুর গুণের কথা
http://www.prothom-alo.com/life-style/article/539017/%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0-%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A3%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A6%A5%E0%A6%BE
প্রতিদিন শরীরের জন্য যে পরিমাণ ভিটামিন ‘সি’ প্রয়োজন, এক কাপের (২৪০ গ্রাম) সমপরিমাণ লিচু খেলে তার চেয়েও বেশি পরিমাণ ভিটামিন ‘সি’ পাওয়া যায়। ক্ষত নিরাময় এবং রক্তক্ষরণ প্রতিরোধের পাশাপাশি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবেও কাজ করে এই ভিটামিন। লিচু থেকে মিলবে প্রচুর শক্তি। ক্যালরি মান ভালো থাকলেও ফ্যাট আর সোডিয়াম কম থাকায় লিচু বেশ স্বাস্থ্যকর। তাই মৌসুমের রসাল, সুস্বাদু ও পুষ্টিকর এই ফলটি আপনার খাদ্যতালিকায় রাখুন। ১০০ গ্রাম লিচু বলতে মাঝারি আকারের প্রায় ১০টি লিচুকে বোঝায়। মার্কিন ওষুধ প্রশাসন বিভাগ বলছে, প্রতি ১০০ গ্রাম লিচুতে ৬৬ কিলোক্যালরি শক্তি ও ১৬ গ্রাম শর্করা রয়েছে। চর্বি একেবারেই নেই। আরও আছে ৭১ মিলিগ্রাম ভিটামিন ‘সি’, ১৭০ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম, ১৪ মাইক্রোগ্রাম ফলেট এবং সামান্য পরিমাণ (১ মিলিগ্রাম) সোডিয়াম। লিচুতে আরও আছে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন ‘বি’, যা প্রতিদিনের খাবার থেকে শরীরে শক্তি জোগাতে সহায়তা করে। এগুলোর মধ্যে ফোলেট নামের উপাদানটি শরীরে নতুন কোষ এবং লোহিত রক্তকণিকা তৈরিতে সাহায্য করে। ১৫ থেকে ৪৫ বছর বয়সী নারীর প্রতিদিন ৪০০ মাইক্রোগ্রাম ফোলেট প্রয়োজন, যার ২৭ মাইক্রোগ্রাম পরিমাণ পাওয়া যায় এক কাপ লিচু থেকে। লিচুতে আছে পটাশিয়ামও, যা আমাদের শরীরে পানির সমতা রক্ষা, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও মাংসপেশির সংকোচনে সহায়ক। এ ছাড়া ডায়াবেটিস, হৃদ্রোগ ও ক্যানসারের ঝুঁকি কমায় লিচু। ...বিস্তারিত
*হেলদিফুড* *লিচু* *হেলথটিপস*
১১৭ বার দেখা হয়েছে
ছবি

★ছায়াবতী★: ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

রসে ভরা লিচু

আমার সবচেয়ে প্রিয়ফল (পেটুক)(পেটুক)(লালালা) লিচুর আড়ত থেকে ছবিটা তুলেছি

*শখেরফটোগ্রাফি* *লিচু* *অন্যেরগাছের-লিচু*

আড়াল থেকেই বলছি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার ভারত সীমান্ত ঘেঁষা আউলিয়া বাজার, এই বাজারটিতে মাত্র দুই ঘন্টার ব্যবধানে অন্তত ৫০ লাখ টাকার লিচু পাইকারি বিক্রি হয়ে থাকে। তবে এই বছর ইফতারিতে লিচু ও থাকছে .....

*লিচু*

মাসুম: উহ! মজাদার লিচুর খোসা ছাড়িয়ে অনেক সময় বোটার কাছে ছোটছোট পোকা দেখতে পাই। এত স্বাদের আর মজার এই ফলটি তখন দেখে ভাবি আচ্ছা এই পোকা তো লিচুর ভিতরেই থাকে। পোকাও মনে হয় খেতে লিচুর মত হবে। *বিয়ার-গ্রিল* তো মনে হয় প্রোটিনের ছোটখাট উৎস পেয়ে ভুরিভোজ করে পোকাসহ, খোসাসহ, বিচিসহ সব খেয়ে ফেলত? আচ্ছা বিয়ারগ্রিল এত প্রোটিন কি করে? হজম শেষে কি শ্যাম্পু আকারে বের হয়?

*লিচু* *প্রোটিন* *ভুরিভোজ* *শ্যাম্পু* *বিয়ার-গ্রিল*

হাফিজ উল্লাহ: একটি টিপস পোস্ট করেছে

নানা গুণে অতুলনীয় লিচুঃ জেনে নিন এর উপকারীতা সম্পর্কে | নিরাপদ নিউজ
http://www.nirapadnews.com/2015/05/19/news-id:48733/
স্বাদে গন্ধে অনন্য লিচু ছোট বড় সবার কাছে খুবই প্রিয় একটি ফল। মধুমাস জৈষ্ঠ্য এলে দেশের প্রায় সব জায়গায় রসে ভরা টসটসে লিচুর দেখা মেলে। সুস্বাদু এই ফলে আছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ‘সি’। প্রতি ১০০ গ্রাম লিচুতে পাবেন শর্করা ১৩.৬ গ্রাম, ক্যালরি ৬৬ কিলোগ্রাম, কার্বোহাইড্রেট ১৬.৫৩ গ্রাম, খাদ্য আঁশ ১.৩ গ্রাম, ফোলেট ১৪ মাইক্রোগ্রাম, সোডিয়াম ১ গ্রাম, পটাসিয়াম ১৭১ মিলি গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৫ মিলিগ্রাম, লৌহ ০.৩১ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ৩১ মিলিগ্রাম ও ভিটামিন ‘সি’ ৩১ মিলিগ্রাম। শুধু স্বাদের যোগানদাতা নয়, নানা রোগ থেকে আমাদের রক্ষা করতে লিচু অতুলনীয়। আসুন জেনে নেয়া যাক লিচুর উপকারী গুণ সম্পর্কে। * লিচুতে প্রচুর পরিমানে ক্যালরি থাকে, যা আমাদের শক্তি যোগাতে সহায়তা করে। * লিচুতে থাকা কার্বোহাইড্রেট ও ফাইবার হজমে দারুনভাবে সহায়তা করে। * মনোপোজ পরবর্তী নারীদের শরীরে প্রয়োজনীয় ক্যালসিয়াম সরবারহে লিচু খুবই উপকারী। ...বিস্তারিত
*লিচু*
১৬১ বার দেখা হয়েছে
ছবি

আড়াল থেকেই বলছি: ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

লিচুর পুষ্টি মূল্য: লিচু হচ্ছে ভিটামিন বি এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ একটি ফল ..

ভেষজ গুণ: বোলতা, বিছে কামড়ালে এর পাতার রস ব্যবহার করা যায়। কাঁশি, পেটব্যাথা, টিউমার এবং গ্ল্যান্ডের বৃদ্ধি দমনে লিচু ফল কার্যকর।

*লিচু* *পুষ্টিগুন* *ভেষজগুণ*
ছবি

আড়াল থেকেই বলছি: ফটো পোস্ট করেছে

৫/৫

ঈশ্বরদীর লিচু....

জাত পরিচিতি: অনেক জাতের লিচুর মধ্যে বেদানা, গুটি, মাদ্রাজি, বোম্বাই, মঙ্গলবাড়ী, মোজাফফরপুরী, চায়না-৩, তবে কদমী লিচু সবচেয়ে ভাল।

*লিচু* *লিচুরজাত* *বেদানা* *গুটি* *মাদ্রাজি* *বোম্বাই* *মঙ্গলবাড়ী* *মোজাফফরপুরী* *চায়না-৩* *কদম*
৫/৫

আশিকুর রহমান: *লিচু* পারলে খাওয়ান...... না পারলে চুপ থাকেন। লোভ দেখান কেন?(রাগী)

shahnaz chaudhury: *লিচু* বাগান থেকে লিচু পেড়ে আনতে চাই !!এমন একটা বাগানের খোজ পেলে খুব ভালো হত !!

মনির হোসেন: আজ দুপুরে বাসায় এসেই দেখি টেবিল এর উপর এক বাটি *লিচু*, এই বছরের প্রথম *লিচু* খেলাম আজ, বাটিটা নিয়েই ৩০ টা *লিচু* খেয়ে ফেললাম.

আমানুল্লাহ সরকার: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 লিচুতে কি কি ভিটামিনের উপস্থিতি রয়েছে? লিচু ও লিচু পাতার ভেষজ গুণ সম্পর্কে জানতে চাই।

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

*লিচু* *ভেষজঔষধ* *স্বাস্থ্যতথ্য* *হেলথটিপস*

imroze chy runel: *লিচু* দিনাজপুর এর লিচু বেস্ট.........যদি ও আমি চিটাগাং এর .............

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★