শীত ফ্যাশন

শীতফ্যাশন নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

এ প্রজন্মের তরুণরা ক্যাজুয়াল ফ্যাশন বেশি পছন্দ করে। কিন্তু শীতের তীব্রতা তো অনেকটাই বেড়ে গেছে। এখন তাহলে কিসে হবে ক্যাজুয়্যাল ফ্যাশন? এই চিন্তা যাদের মাথা ঘোরপাক খাচ্ছে তাদের জন্য শীত ফ্যাশনে সঙ্গী হতে পারে ক্যাজুয়্যাল জ্যাকেট। ফ্যাশনের পাশাপাশি এই শীতে উষ্ণতা পেতে গায়ে জড়িয়ে নিতে পারেন ফ্যাশনেবল জ্যাকেট। ক্যাজুয়াল এই জ্যাকেট গুলো উষ্ণতা দেয়ার পাশাপাশি আপনাকে করে তুলবে দারুণ স্টাইলিশ।

এবার শীত উপলক্ষ্যে বাজারে বিভিন্ন ডিজাইন ও মডেলের জ্যাকেট পাওয়া যাচ্ছে। দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিল থেকে প্রতিদিন শতশত জ্যাকেট কিনছে ক্রেতারা। ক্রেতাদের পছন্দ এবং সবচেয়ে বেশি বিক্রির তালিকায় থাকা এই শীতের সেরা ১০টি ফ্যাশনেবল জ্যাকেট আপনাদের মাঝে তুলে ধরালাম। শীতের কাপড় তো আর প্রতি বছর কেনা হয় না। তাই যারা ভাবছেন এবার পছন্দসই এক-দুটি জ্যাকেট কিনে নেবেন, তাদের জন্য রইলো এই ১০টির যেকোন একটি।

০১.  ফুল স্লিভ জেন্টস ক্যাজুয়াল জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০২. মেনজ মাল্টিকালার জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৩. মিক্সড লেদার ফ্লুল-স্লিভ জেন্টস জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৪. মেনজ ফুলস্লিভ জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৫. আর্টিফিশিয়াল লেদার মেনজ জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৬. মাল্টিকালার জেন্টস জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৭. জেন্টস রেগুলার ফিট কটন জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৮. জেন্টস কটন ফুলস্লিভ জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৯. ফুল স্লিভ জেন্টস জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

১০. ফুল স্লিভ জেন্টস ক্যাজুয়াল জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

তরুণদের কথা মাথায় রেখে উপরের জ্যাকেটের প্যাটার্নে এখন বেশ নতুনত্ব আনা হয়েছে। এগুলো ছাড়াও সিনথেটিক এবং মিক্সড লেদারের জ্যাকেটও রয়েছে আজকেরডিলের ওয়েবসাইটে। এগুলো অফিসের ক্যাজুয়াল পোশাক থেকে সান্ধ্য পার্টি ঘুরে নৈশ আড্ডাতেও দারুণ মানিয়ে যাবে। লেদারের জ্যাকেটের মধ্যে বেসিক ওয়েস্টলেস জিপ ফ্রন্ট জ্যাকেট, ক্লাসিক লেন্থ জিপ ফ্রন্ট, টু বাটন, ফোর বাটন, ভেলেন্ট লেদার রাইডিং জ্যাকেট, ইলাস্টিক, বোম্বার স্টাইল, মোটরবাইক, পুলিশ জ্যাকেট, পাঙ্ক, রকস্টার, এভিয়েটর লেদারের জ্যাকেটও কিনে নিতে পারেন। তাছাড়াও কনটেন্টটির ছবিতে যেসব ক্যাজুয়াল জ্যাকেট দেখতে পাচ্ছেন সেগুলো বেশ স্টাইলিশ এবং এবছরের বিক্রির শীর্ষে রয়েছে।

জ্যাকেটের লেটেস্ট কালেকশন থেকে সেরা জ্যাকেট কিনতে চাইলে অন্যতম মাধ্যম হতে পারে আজকেরডিল ডটকম। দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে অনলাইনে ফ্যাশনেবল জ্যাকেট কিনতে চাইলে আজকের ডিল ছাড়া আর সহজ উপায় কি হতে পারে। কারণ আজকের ডিলে আছে ক্যাজুয়াল সহ বিভিন্ন ধরনের অস্থির কালেকশন ! সেই সাথে সারা দেশে দ্রুত ডেলিভারীর ব্যবস্থা তো রয়েছেই। তাই এখনি আপনার পছন্দের জ্যাকেটটি কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*জ্যাকেটকালেকশন* *শীতফ্যাশন* *স্পন্সরডকনটন্ট* *আজকেরডিল* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

জ্যাকেট ক্যাজুয়াল ফ্যাশনে তরুণদের প্রথম পছন্দ। ফ্যাশনের পাশাপাশি এই শীতে উষ্ণতা পেতে গায়ে জড়িয়ে নিতে পারেন ফ্যাশনেবল জ্যাকেট। ক্যাজুয়াল এই জ্যাকেট গুলো উষ্ণতা দেয়ার পাশাপাশি আপনাকে করে তুলবে দারুণ স্টাইলিশ।

এবার শীত উপলক্ষ্যে বাজারে বিভিন্ন ডিজাইন ও মডেলের জ্যাকেট পাওয়া যাচ্ছে। দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিল ১ হাজার টাকার নিচে সেরা কিছু জ্যাকেট কালেকশন। ক্রেতাদের পছন্দ এবং সবচেয়ে বেশি বিক্রির তালিকায় থাকা এই শীতের ৯৯৯ টাকার মধ্যে সেরা ১০টি ফ্যাশনেবল জ্যাকেট আপনাদের মাঝে তুলে ধরালাম। শীতের কাপড় তো আর প্রতি বছর কেনা হয় না। তাই যারা ভাবছেন এবার পছন্দসই এক-দুটি জ্যাকেট কিনে নেবেন, তাদের জন্য রইলো এই ১০টির যেকোন একটি।

০১.  ফুল স্লিভ জেন্টস ক্যাজুয়াল জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০২. মিক্সড লেদার ফুল স্লিভ জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৩. মেনজ ফ্লুল-স্লিভ জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৪. লেডিস স্লীভ লেস ডেনিম শার্ট

কিনতে ক্লিক করুন

০৫. আর্টিফিশিয়াল লেদার মেনজ জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৬. ফুলস্লীভ জেন্টস ক্যাজুয়াল জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৭.জেন্টস রেগুলার ফিট কটন জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৮. মাল্টিকালার জেন্টস ক্যাজুয়াল জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

০৯. স্লিম ফিট ফুল স্লিভ কটন জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

১০. জেন্টস কটন জ্যাকেট

কিনতে ক্লিক করুন

তরুণদের কথা মাথায় রেখে উপরের জ্যাকেটের প্যাটার্নে এখন বেশ নতুনত্ব আনা হয়েছে। এগুলো ছাড়াও সিনথেটিক এবং মিক্সড লেদারের জ্যাকেটও রয়েছে আজকেরডিলের ওয়েবসাইটে। এগুলো অফিসের ক্যাজুয়াল পোশাক থেকে সান্ধ্য পার্টি ঘুরে নৈশ আড্ডাতেও দারুণ মানিয়ে যাবে। লেদারের জ্যাকেটের মধ্যে বেসিক ওয়েস্টলেস জিপ ফ্রন্ট জ্যাকেট, ক্লাসিক লেন্থ জিপ ফ্রন্ট, টু বাটন, ফোর বাটন, ভেলেন্ট লেদার রাইডিং জ্যাকেট, ইলাস্টিক, বোম্বার স্টাইল, মোটরবাইক, পুলিশ জ্যাকেট, পাঙ্ক, রকস্টার, এভিয়েটর লেদারের জ্যাকেটও কিনে নিতে পারেন। তাছাড়াও কনটেন্টটির ছবিতে যেসব ক্যাজুয়াল জ্যাকেট দেখতে পাচ্ছেন সেগুলো বেশ স্টাইলিশ এবং এবছরের বিক্রির শীর্ষে রয়েছে।

জ্যাকেটের লেটেস্ট কালেকশন থেকে সেরা জ্যাকেট কিনতে চাইলে অন্যতম মাধ্যম হতে পারে আজকেরডিল ডটকম। দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে অনলাইনে ফ্যাশনেবল জ্যাকেট কিনতে চাইলে আজকের ডিল ছাড়া আর সহজ উপায় কি হতে পারে। কারণ আজকের ডিলে আছে ক্যাজুয়াল সহ বিভিন্ন ধরনের অস্থির কালেকশন ! সেই সাথে সারা দেশে দ্রুত ডেলিভারীর ব্যবস্থা তো রয়েছেই। তাই এখনি আপনার পছন্দের জ্যাকেটটি কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*৯৯৯টাকায়জ্যাকেট* *শীতফ্যাশন* *জ্যাকেটফ্যাশন* *স্পন্সরডকনটেন্ট* *আজকেরডিল* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

শীতের সকালে কোন পোশাক পরে বের হবেন? অফিসে যেতে হলে শুধু যে স্যুট-কোট পরতে হবে তা নয়। এই শীতে স্টাইলের সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে ফুলহাতা শার্ট-টাইয়ের সঙ্গে সোয়েটারও পরতে পারেন । ছেলে মেয়ে সকলের জন্য দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিলে রয়েছে বাহারি কালেকশনের সব বাহারি সোয়েটার যেখান থেকে আপনি আনার পছন্দেরটি বেছে নিতে পারবেন। এখন আমাদের দেশেই তৈরি হচ্ছে আন্তর্জাতিকমানের বাহারি সব সোয়েটার। চলুন কয়েকটি ফ্যাশনেবল ও ট্রেন্ডি সোয়েটার দেখে নেই।

সোয়েটারের ডিজাইনে লাল, নীল, সবুজ, গোলাপি, বেগুনি, কমলাসহ রঙিন সব নকশা ও বুনন সবার মন কাড়বে। সাদা, কালো, ছাই, বাদামি রংগুলো তো থাকছেই। উষ্ণতা দেয়ার পাশাপাশি সোয়েটার এখন হয়ে উঠেছে ছেলেমেয়েদের অন্যতম ফ্যাশন অনুষঙ্গ। শীতের প্রকোপভেদে তাই এখন হালকা, ভারি, ফরমাল, ক্যাজুয়াল, ফ্যাশনেবল বিভিন্ন ধরনের সোয়েটারে সেজে উঠেছে শপিংমলগেুলো বাদ যায়নি অনলাইন শপগুলোও।


বর্তমানে কাট, বড় কলার আর বোতামের ফ্যাশন বেশ চলছে। তাছাড়াও শার্ট, ব্লেজার ও কোট কলার ধাঁচের। এর সঙ্গে ভি ও গোল আকৃতি এবং বন্ধ গলা তো রয়েছেই। ফুলহাতা সোয়েটারের ধারায়ও এবার বৈচিত্র্য এসেছে। কোনোটি ঝোলা আলখাল্লা ঘরানার, আবার কোনোটি কোমর ও হাতের কাছে চাপা। কোনোটিতে আবার বেল্ট ব্যবহার হয়েছে, কোনোটি বা ট্রেঞ্চ কোট কাটের। মজার ব্যাপার হলো, পোশাকের ওপর শীতের সোয়েটারখানি চাপানোর পর এবার আর পোশাক ঢেকে পড়ার দুঃখ থাকবে না আপনার। কারণ সোয়েটারটাই যে দারুণ ফ্যাশনেবল!

যারা পাশ্চাত্য পোশাকে অভ্যস্ত, তারা যেমন ইচ্ছামতো বেছে নিতে পারেন পছন্দসই শীতের পোশাকটি, তেমনি দেশীয় পোশাকের সঙ্গেও সহজে মানিয়ে যাবে এসব সোয়েটার। টি-শার্ট ও শার্টের ওপর হালকা শীতে যেমন পরতে পারেন হাতাকাটা সোয়েটার, তেমনি শীতের প্রকোপ বেশি হলে বেছে নিতে পারেন স্ট্রাইপ ও চেকের ফ্যাশনেবল ফুলহাতা সোয়েটারও।


ছেলে ও মেয়েদের ফ্যাশনেবল সোয়েটার মিলবে ১২৫০ থেকে ২৯৫০ টাকার মধ্যে। আর হাতাকাটা কিংবা হাতাসহ সোয়েটার পাবেন ৭৮০ থেকে ১৪৫০ টাকার মধ্যে। এই সবগুলো সোয়েটার দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিল থেকে কিনতে পারবেন ঘরে বসেই। দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে দ্রুত ডেলিভারী নিতে এবং সাধ্যের মধ্যে সোয়েটার কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*শীতফ্যাশন* *শীতেরসোয়েটার* *স্পন্সরডকনটেন্ট* *আজকেরডিল* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

প্রকৃতিতে শীতের মৌসুম প্রায় শুরু হয়ে গেছে। হেমন্তের এই সময়টাতে ভোরে ও সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে হিম ঠাণ্ডা অনুভূত হয়। শীতের প্রবল প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে প্রস্তুতি নেওয়ার এখনই সময়। তাই শীত আসার আগেই সতর্কতাস্বরূপ শীতের প্রস্তুতি প্রয়োজন। আর প্রতি শীতে তরুণদের জন্য আধুনিক ফ্যাশনে প্রতিনিয়ত যোগ হচ্ছে নতুন মাত্রা। পোশাকের রংঢং যেন বদলে দেয় প্রকৃতি। আর এবারের শীতে তরুণদের শীত নিবারণের পাশাপাশি স্টাইল মেইনটেইন করাটাও জরুরি হয়ে পড়েছে। বরাবরের মতো এবারেও তরুণদের অভিযোগ তরুণীদের শীত ফ্যাশন সর্বদাই নতুন মাত্রা যোগ করে। কিন্তু তাদের জন্য সেই চিরচেনা শীতের পোশাক। ফ্যাশন এ পরিবর্তন আনতে চায় তাঁরা। আর তাই এবারের শীত ফ্যাশন এ তরুণদের জন্য “স্টাইলিশ ক্যাপ”।

ক্যাপঃ

সর্বপ্রথম ষাটের দশকে কিউবার বিপ্লবী নেতা চে’ গুয়েভারা ক্যাপ পরে তরুণদের মধ্যে এটি জনপ্রিয় করে তুলেছিলেন, যা পরে ধীরে ধীরে সারা বিশ্বের তরুণদের একটা বিশেষ স্টাইল হয়ে দাঁড়ায়।

এমনিতে যারা ক্যাপ পরেন না, তারাও অনেকে এ শীতে ক্যাপ ব্যবহার করে থাকেন। কারণ শীতে ক্যাপ ব্যবহার করলে শীত এবং শিশিরের কবল থেকে মাথা নিরাপদে রাখা যায়। আর এ সময়টায় ক্যাপ ব্যবহারকারীদের সংখ্যা বেড়ে যায় বলে ক্যাপের চাহিদাও বেড়ে যায়। এ চাহিদা মেটাতেই ক্যাপ প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলো বাজারে নিয়ে আসে হরেক রং, ডিজাইন এবং আকারের ক্যাপ। যে কারণে দেখা যায় অন্য যে কোনো সময়ের তুলনায় এ সময়টায় ক্যাপের বাজার থাকে জমজমাট। সাধারণত যে আকারের টুপিকে আমরা ‘ক্যাপ’ হিসেবে চিনি, এর বাইরেও বিশেষ কিছু আকারের ক্যাপ এ সময় বাজারে আসে। এটা শুধু শীতের সময়ের জন্যই। কারণ শীতের হাত থেকে বাঁচার জন্য এধরনের ক্যাপ পরা খুবই জরুরী।


বর্তমানে অনেক তরুণকেই দেখা যায় নানা রঙ ও ধরনের ক্যাপ পরতে। ব্যক্তিভেদে পরার ধরনেও রয়েছে ভিন্নতা। যেমন—কেউ সোজাভাবে না পরে ঘুরিয়ে পরে, যেখানে ক্যাপের বোর্ডটা থাকে মাথার পেছন দিকে। কোনো সময় খেলাচ্ছলেই হয়তো কেউ এভাবে ক্যাপ পরেছিল। পরে সেটাই একটা বিশেষ স্টাইল হয়ে দাঁড়ায়। আগে শুধু ছেলেরা ক্যাপ পরলেও এখন মেয়েরাও এ স্টাইলের দিকে ঝুঁকছে। এই শীতে জিন্স ও টি-শার্টের সঙ্গে মানানসই ক্যাপ আপনাকে দিতে পারে ফ্যাশনেবল লুক।

তাই আর দেরি না করে শীত জেঁকে বসার আগেই সংগ্রহ করে নিন এই শীতের স্টাইলিশ ক্যাপ। হুট করে শীতের প্রকোপ বেড়ে যাবার আগেই ঘরে বসে সংগ্রহ করুন আপনার পছন্দের ক্যাপটি। শীতে কেমন ক্যাপ পরবেন জানতে, দেখতে ও কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*শীতফ্যাশন* *স্টাইলিশক্যাপ* *ক্যাপ* *স্পন্সরডকনটেন্ট* *আজকেরডিল* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুনচলছে মাঘ মাস! হীম শীতের ঠাণ্ডা হাওয়া শরীরটাকে নিমেষেই শীতল করে দিচ্ছে। শীতের এই সময়টাতে উষ্ণতার পর নিতে ফ্যাশন ও ট্রেন্ড বজায় রেখে চলছে শীতের পোশাক কেনার ধুম। হিম কুয়াশায় আর সন্ধ্যায় ঝিরঝিরে বাতাসটাকে ফাঁকি দিয়ে তরুণ তরুনীরা মেতে উঠছে শীত ফ্যাশনে। প্রতিবারের মত শীতের ফ্যাশনে এসেছে হুডি। শীতে তরুণ-তরুণীর পোশাক মানেই চোখে ভেসে ওঠে পায়ে কনভার্স, পরনে জিন্স ও ফুল স্লিভ টি-শার্ট, ফুল স্লিভ পোলো শার্ট, জ্যাকেট, কাশ্মীরি শাল, চাদর, মাফলার সঙ্গে যোগ হয় শীত ফ্যাশনের মুডি পোশাক হুডি।

হুডি:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
হুডি পোশাক পশ্চিমা ফ্যাশনের গুরুত্বপূর্ণ একটি সংস্করণ। সময় বদলের ফ্যাশনে হুডি টিনএজদের মধ্যে জনপ্রিয় একটি পোশাক ও ফ্যাশন হয়ে উঠেছে। শুধু ছেলেরাই নয়, স্বাচ্ছন্দ্যে চলাফেরার জন্য টিনএজ মেয়েরাও বেছে নিচ্ছেন চমৎকার এ শীত পোশাকটি। শীতে হিমেল হাওয়ার হাত থেকে কানকে বাঁচাতে হুডির বিকল্প নেই। কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ যে কোনো জায়গায় হুডি পরে সহজেই চলাচল করা যায় এবং অন্যান্য শীত পোশাকের মতো বাড়তি কোনো ঝামেলা নেই। হুডির সবচেয়ে বড় সুবিধা হল জিন্স, সালোয়ার-কামিজসহ যে কোনো পোশাকের সঙ্গে মানানসই। হালকা শীতের মধ্যে এ পোশাকটির চাহিদা সব থেকে বেশি থাকে। তবে হাড় কাপানো শীতের মোকাবিলা দিতেও হুডির জুড়ি নেই l দেশের শীতের তাপমাত্রা অনুযায়ী নরম উলের হুডি এবং ভারী সিন্থেটিক হুডি সব রকমের কালেকশনই এখন সর্বত্রই পাওয়া যায় l একবার ঢু মেরে দেখতে পারেন আজকের ডিল ডট কমের উইন্টার কালেকশনে, তরুণ তরুনীদের জন্য সেখানে রয়েছে বিভিন্ন স্টাইলের হুডি l

জ্যাকেট/ব্লেজার/ওয়েস্ট কোট:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
শীতে ফ্যাশনেবল পুরুষের সবচেয়ে পছন্দ এবং আরামদায়ক পোশাক হলো জ্যাকেট। কারণ এগুলো কর্মক্ষেত্রে যেমন পরা যায়, তেমনি মানিয়ে যায় অন্য যে কোন স্থানেও। যাদের বাইকে করে কাজে যেতে হয় তাদের জন্য জ্যাকেটের সবচেয়ে কমফর্টেবল পোশাক কারণ এটি যেমন ফ্যাশনেবল তেমনি শীত থেকে আমাদের রক্ষা করে দারুণভাবে। আজকের ডিলে রয়েছে জ্যাকেটের দারুন সব সম্ভার l সিন্থেটিক লেদার, ডেনিম, ফ্লিচ এবং পলিয়েস্টারের জ্যাকেটকে রং-বেরঙের স্টিকার, পকেট, জিপার এবং প্রিন্ট যুক্ত করে করা হয়েছে আকর্ষণীয়। আজকাল মেয়েদের মধ্যেও জ্যাকেট পরার প্রবণতা বেশ লক্ষ্যনীয় l ডেনিম ট্রাউজার্স এবং হাই টপ স্নিকার্সের সঙ্গে জ্যাকেট বেশ মানিয়ে যায় l হালকা-পাতলা গরম কাপড়ই পছন্দ এই সময়ের তরুণ তরুনীদের। আর তাই দেখা আজকাল ডিলে মিলছে পাতলা কাপড়ের জ্যাকেটের। শীতের পোশাকের মধ্যে পুরুষরা ফর্মাল গেট আপ নিতে বেছে নেয় কোট এবং ব্লেজারকে। কারণ এগুলো কর্মক্ষেত্রে যেমন পরা যায়, তেমন যেকোনো পার্টিতেও বেশ মানিয়ে যায়, কারণ শীতে মানেই তো বিয়ের মৌসুম l এবারের শীতের ফ্যাশনে তরুণদের চাহিদা মাথায় রেখে ব্লেজারেও এসেছে পরিবর্তন। ব্লেজারের কাপড়, কাট-ছাঁট, বেতাম, রং ইত্যাদি বিষয়ে এবার বৈচিত্র্যের ছোঁয়া লেগেছে বেশি। জিনস, চামড়া, সুতির বাইরে এবার নতুন এসেছে মখমলের জ্যাকেট বা ওয়েস্ট কোট। চলুন দেখে নেই এক ঝলক আজকের ডিলে জ্যাকেট, ব্লেজার এবং ওয়েস্ট কোটের সব এক্সক্লুসিভ কালেকশন l

শাল:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
কুয়াশার প্রভাবে হালকা শীতে শাল হয়ে ওঠে নারীর প্রধান স্টাইল স্টেটমেন্ট। শীতের পোশাকের মধ্যে মেয়েদের পছন্দের তালিকায় অন্যতম শীর্ষে কাশ্মীরি শাল, হাজার ফ্যাশনের মধ্যেও চোখ আটকে যায় সব সময়। গোটা প্রকৃতি যেন প্রস্তুত হচ্ছে কাশ্মীরি বাহারি শালে নিজেকে জড়িয়ে শীত উপভোগ করতে। তাই আজকের ডিলেও লেগেছে শীতের আমেজ, সেখানে রয়েছে নানা ডিজাইনের আকর্ষনীয় সব কালেকশন l অনেক জায়গাতেই পশমিনা বা কাশ্মীরি শাল বলে যা বিক্রি করা হয় সেগুলি কি আসল কাশ্মীরি শাল? একটি প্রশ্ন থেকেই যায়। তবে একটু সচেতন হলে আপনি নিজেই চিনে নিতে পারবেন অরিজিনাল শাল।

টুপি ও মাফলার:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
হাড়কাঁপানো শীত আর তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে শুরু হয়েছে শীত ফ্যাশনের জোয়ার। সোয়েটার, জ্যাকেট আর অন্যসব শীতের পোশাকে আকর্ষণীয় করে তোলে এর এক্সেসরিজ। এর মধ্যে অন্যতম মাফলার ও টুপি। শীতের ফ্যাশনে অনেক বড় ভূমিকা রাখে টুপি। পুরো স্টাইলকে যেন পাল্টে দেয়। তবে মাফলরও বেশি মানানসই। এর পাশাপাশি এসেছে মেয়েদের জন্য বিনি ক্যাপ। শীত থেকে রক্ষার পাশাপাশি কানও সুরক্ষা করবে বিনি ক্যাপ। টুপির সঙ্গে ম্যাচ করে নিন মাফলারও। টুপির রং ও ম্যাটেরিয়ালের সঙ্গে মানানসই মাফলার বেশ আকর্ষণীয় করে তুলবে আপনাকে। পছন্দের কানটুপি ও মাফলার পেয়ে যাবেন রাজধানীর বিভিন্ন মার্কেট সহ আজকের ডিলেও l

লেডিজ ওয়্যার/সোয়েটার:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
এবার পাশ্চাত্য ধারা অনুসরণ করে তৈরি করা হয়েছে মেয়েদের শীতপোশাক, বিশেষ করে সোয়েটার। দৈর্ঘ্য একটু বেশি ও স্ট্রাইপ সোয়েটার এবার বেশি চলছে। সোয়েটারের গলায় ওভার ফ্লিপ ডিজাইন ব্যবহার করা হয়েছে। এটি স্কার্ফের বিকল্প হিসেবে কাজ করে। শীতে অফিসে কর্মরত মেয়েদের পাশাপাশি সাধারণ মেয়েরাও স্যুটকে শীতের ফ্যাশন হিসেবে বেছে নিতে পারেন। এধরনের পোশাক শুধু আভিজাত্যই প্রকাশ করে না সেই সাথে করপোরেট লুকও বজায় রাখে। টি-শার্ট ও শার্টের ওপর পরার জন্য হাতাকাটা সোয়েটার মানানসই। মধ্যে কুচি দেওয়া, চুড়িদার হাতা তরুণীদের পছন্দ। এবার সম্পূর্ণ আঁঁটসাঁট নয় বরং একটু ঘের দেওয়া, ঢোলা শীতপোশাকের বেশ চল দেখা যাচ্ছে। নিট কাপড় দিয়েই মূলত তৈরি হয়েছে এসব সোয়েটার। এ ছাড়া পশমি উলের, ক্রুশ কাজের সোয়েটারও পরছেন অনেকে। তবে সোজা কাটের প্যান্ট বা জিনসের সঙ্গে পরতে পারেন ব্লেজার ও কোট। দৈর্ঘ্যে হাঁটুর ওপর পর্যন্ত এমন সোয়েটার মেয়েদের কাছে এবার জনপ্রিয়। ফুলহাতার পাশাপাশি খাটো হাতার সোয়েটারও চলছে। কালো, সাদা, চাপা সাদা, ছাই, ধূসর ছাড়াও হলদে সবুজ, লাল, গোলাপি, নীল ইত্যাদি বিভিন্ন রঙের স্ট্রাইপ দেওয়া সোয়েটার প্রাধান্য পেয়েছে। 

ছেলেদের সোয়েটার:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
প্রচণ্ড শীতে চাই উষ্ণতায় মোড়া সোয়েটার। পোশাকের সঙ্গে ফ্যাশনেবল সোয়েটার নিয়ে আসে বৈচিত্র্য। এবার পাতলা কাপড়ের সোয়েটার চলছে বেশ। অল্প শীতে এ ধরনের পাতলা সোয়েটার আরামদায়ক। এছাড়া ফুলহাতা টি-শার্ট, ফুলহাতা পলো শার্টও পরতে পারেন এই মৌসুমে। ছেলেদের শীতের পোশাকের মধ্যে আছে নানা ধরনের সোয়েটার। গোল গলা, ভি গলা, চিকন কলারের এসব সোয়েটারে থাকছে বিভিন্ন ধরনের ডিজাইন। সামনের দিকে চেইন বা বোতাম আছে কিছু সোয়েটারে। মেয়েদের জন্য উলের তৈরি কার্ডিগানও রয়েছে, উলেন ছাড়াও পশমি উলের, ক্রুশ কাজের সোয়েটারও বেশ চলছে l হাফ স্লিভ সোয়েটার তো পুরুষদের অন্যতম পছন্দের শীত পোশাক l টি-শার্ট ও শার্টের ওপর পরার জন্য হাতাকাটা সোয়েটার মানানসই। স্টাইলিশ সোয়েটারের সব কটি কালেকশনই মিলছে আজকের ডিলে l
শীতের সোয়েটার

ডেনিম শার্ট/ ফুল স্লিভ পোলো শার্ট:

শীতের ট্রেন্ডি পোশাক কিনুন
হালকা শীতে ফুলহাতা ডেনিম আর ফুল হাত পোলো শার্টের চাহিদা প্রচুর। আর ক্যাজুয়াল লুক নিতে চাইলে টি-শার্টের চেয়ে ভালো আর কী আছে! নানা ধরনের ফুল হাতা টি-শার্ট এবং ফুল হাতা ডেনিম শার্ট পাওয়া যাচ্ছে আজকের ডিলে l

এই শীতের সবগুলো কালেকশন একসাথে দেখে নিতে ঘরে বসেই ঢুঁ মারুন আজকের ডিলের ওয়েবসাইটে। আর আর অনলাইনে কিনতে এখানে ক্লিক করুন। 

*শীতফ্যাশন* *টেন্ড্রিপোশাক* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

জিন্স প্যান্টের জব্বর কালেকশনবেশ কয়েক দশক থেকেই জিন্স প্যান্টের জনপ্রিয়াতা তুঙ্গে। তবে আগের জিন্স প্যান্ট আর এখনকার জিন্স প্যান্টের ধরণে বেশ প্রার্থক্য রয়েছে। বিংশ শতকে এসে দেখা গেল বেশির ভাগ সেলিব্রেটির প্রথম পছন্দ জিন্স আর টি-শার্ট। ক্যাম্পাস কিংবা আড্ডায় জিন্স প্যান্টের বিকল্প নেই। তরুণ-তরুণীদের কাছে জিন্স প্যান্ট প্রথম পছন্দের পোশাক, বাদ যায় না বৃদ্ধ এবং শিশুরা। অবশ্য বিভিন্ন পার্টিতে আজকাল জিন্সের আধিক্য চোখে পড়ার মতো। রুচি এবং চাহিদার প্রেক্ষিতে জিন্স প্যান্টের রয়েছে রকমভেদ।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুনমানুষ নিজ জীবনের মাধুর্য ও সৌন্দর্য অটুট রাখতে প্রতিনিয়ত ব্যস্ত। ব্যস্ততার ধারায় ঋতু বৈচিত্র্যের পালাবদলে ক্রেতাদের ফ্যাশন ট্রেন্ডের পরিবর্তন ঘটে। এই ট্রেন্ডকে অনুসরণ করেই এগিয়ে চলে ফ্যাশন হাউসগুলো। কিন্তু কিছু পোশাক কখনো যেন পুরনো হয় না, বরং বেড়ে চলে চাহিদা। তেমনি একটি ফ্যাশন অনুষঙ্গ জিন্স প্যান্ট।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুনমোটা কটন কাপড়কে জার্মান ভাষায় বলা হয় জিনিয়া। যা বর্তমানে জিন্স হিসেবে পরিচিত। জিন্সের প্রথম ব্যবহার শুরু হয়েছে আমেরিকার ওয়েস্টার্ন কাউবয়দের থেকে। তারা দীর্ঘস্থায়ীত্বের জন্য এটা পরতো বলে ধারণা করা হয়। তবে ১৮৭২ সালের কিছু সময় পরে জার্মান কাপড় ব্যবসায়ী লেভি স্ট্রস নামের এক ব্যক্তি জিন্স প্যান্টের বাটন, হুক এবং ব্যাকপকেটের প্রথম ডিজাইন করেন। এরপর থেকেই শুরু হয় জনপ্রিয় জিন্স প্যান্টের ব্যবহার।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুনক্যাম্পাস কিংবা আড্ডায় জিন্স প্যান্টের বিকল্প নেই। তরুণ-তরুণীদের কাছে জিন্স প্যান্ট প্রথম পছন্দের পোশাক, বাদ যায় না বৃদ্ধ এবং শিশুরা। অবশ্য বিভিন্ন পার্টিতে আজকাল জিন্সের আধিক্য চোখে পড়ার মতো। রুচি এবং চাহিদার প্রেক্ষিতে জিন্স প্যান্টের রয়েছে রকমভেদ। যেমন ব্যাগি জিন্স, ন্যারো শেপ, স্ট্রেট, স্টিচ ইত্যাদি। ফুটপাথ থেকে শুরু করে বড় বড় শপিং কমপ্লেক্সগুলোয় জিন্সের চমকপ্রদ সমাহার।

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুনআগে জিন্স প্যান্ট মানেই ছিল নীল রঙ, কিন্তু বর্তমানে জিন্সের রয়েছে বহু রঙ এবং স্টাইল। বর্তমান সময়ে বস্নু জিন্স ছাড়াও চোখে পড়ে লাল, সবুজ, কালো, হলুদ, কমলা রঙের জিন্স, তারুণ্যের সঙ্গে মানিয়েও যাচ্ছে বেশ। দেশেই প্রস্তুত হচ্ছে উন্নতমানের জিন্স প্যান্ট। ফলে পর্যাপ্ততার কারণে দামও সাধ্যের মধ্যে। জিন্সের প্যান্টগলো ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ১২০০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায় নগরীর বিপণি বিতানগুলোয়। স্মার্টেক্স, ব্যাঙ, ইজি, মেনজক্লাব, স্বপ্ন চূড়া প্রভৃতি ফ্যাশন হাউসসহ সব হাউসেই দেখা মিলে নিত্যনতুন ডিজাইনের জিন্স প্যান্ট। শুধু নিজের সাধ্য এবং রুচি অনুযায়ী বেছে নিলেই হলো।

কিনতে ক্লিক করুনরাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসগুলো থেকেই আপনার পছন্দের জিন্সপ্যান্ট কিনে নিতে পারবেন। তবে বর্তমানে জিন্স কেনার জন্য অনেকেই অনলাইন শপিংমলের উপর আস্থা রাখছে। আপনিও আপনার পছন্দের প্যান্ট অনলাইন শপিংমল থেকে কিনে নিতে পারেন। কমদামে জিন্স প্যান্টের লেটেস্ট কালেকশন কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*জিন্সফ্যাশন* *জিন্সপ্যান্ট* *শীতফ্যাশন* *জিন্স* *প্যান্ট* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

চলছে জানুয়ারী মাস। পরিসংখ্যান বলছে জানুয়ারী মাসেই বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি শীত পড়ে। শীতের এই সময়টাতে হিম হিম বাতাসের সাথে গরম কাপড় আর গরম চা ছাড়া যেন সকালটাই জমে না। এই শীতের মৌসুম ফ্যাশন প্রিয় মানুষদের কাছে খুবই পছন্দের একটি সময়। শীতের হরেক ফ্যাশনের মধ্যে তরুণ-তরুণী সবার পছন্দের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে শাল। এটি শুধু এখন না অনেক আগে থেকেই শালের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

শাল নানা ধরনের হতে পারে। কোনোটি হালকা আবার কোনোটি ভারী। বহনে শাল যেমন সহজ তেমনই এটি শীতে আরামদায়ক। শালের ক্ষেত্রে খাদি শাল সবার পছন্দের শীর্ষে। এছাড়া শীতের শালের উপর উলের কাজ কিংবা নানা সুতার কাজ শাল এর মাঝে নিয়ে এসেছে নতুনত্ব।

শাল যে শুধু খাদির হয়ে তা কিন্তু নয়। বর্তমানের ফ্যাশন হাউজগুলো ফ্যাশন প্রিয় মানুষদের কথা চিন্তা করে তৈরি করছে সিল্ক, পশমি সুতা, মোটা সুতি ইত্যাদি কাপড়ের শাল। এসব চাদরে এখন আবার যুক্ত হয়েছে নানা নকশা। তাতে কখনো কখনো যুক্ত হচ্ছে পুঁতি, চুমকি এবং দুই রঙা কাপড়ের ব্যবহার। অফিসে, বিশ্ববিদ্যালয়ে কিংবা বাড়িতে সব জায়গাতেই ছেলেমেয়ে উভয়ের কাছেই শালের চাহিদা সমান।

শালের মধ্যে উল্লেখযোগ্য শাল হচ্ছে কাশ্মীরি শাল। দূর দূরান্ত থেকে মানুষ এই শাল সংগ্রহ করে। এই কাপড়ে রয়েছে উষ্ণতা তা শীতকে আপনার কাছে থেকে অনেক দূরে রাখে। শালের ক্ষেত্রে বাইরের শালের কদরও কম নয়। নানা রঙের আর ডিজাইনের শালের চাহিদা অনেক। বাইরের দেশের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দেশের শালের চাহিদাও কম নয়। মানুষ আগ্রহ নিয়ে দেশীয় পণ্যের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে। দেশে তৈরি শালের মধ্য পশমিনা শাল উল্লেখযোগ্য। এ ছাড়া রয়েছে লুধিয়ানা, জয়পুরি, চায়নিজ, বার্মিজ সহ আরো অনেক শাল।

শীতের শুরু থেকেই শালের গ্রহণযোগ্যতা থাকে অনেক। হালকা শীতে আপনি বাছাই করে নিতে পারেন খাঁদি, তাঁত, গ্রামীণ চেক সহ প্রিন্ট এবং এম্ব্রয়ডারি আর হাতের কাজ করা শাল। এসব শাল আপনি ঘরে পরার পাশাপাশি কাজের ক্ষেত্রে পড়ে যেতে পারেন। তবে পার্টির ক্ষেত্রে কিছুটা ভিন্ন ধরনের শাল পছন্দ করা উচিৎ। এসব জায়গার জন্য আপনার পছন্দে রাখতে পারেন সিল্কের, ফেব্রিক্সের উপর নকশিকাঁথার সহ নানা ধরনের ভারী কাজের শাল। আরেকটু জমকালো ভাব আনতে চাইলে তাতে পুঁতি কাঁচ বসিয়ে নিতে পারেন। রঙের ক্ষেত্রে সাদা-কালো, সবুজ, বাদামী, ম্যাজেন্ডা রঙ পছন্দ করতে পারেন।

শালের ক্ষেত্রে রঙের পাশাপাশি এর কাজের প্রতিও সমানভাবে নজর দিন। অনেকে কেবল রঙ আর নকশা দেখে শাল কিনে নেয়। এ কাজটি করা ঠিক নয়। শালের ক্ষেত্রে উষ্ণতার কথা সবার আগে মাথায় রাখতে হবে। আর এই শীতের হিম শীতল বাতাসকে ঢেকে নিন শালের উষ্ণ পরশে।


বন্ধুরা, ফ্যাশনেবল এই সব শাল আপনি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমেই কিনে নিতে পারবেন। দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইনে শপিংমল আজকের ডিলে পাওয়া যাচ্ছে হরেক রকমের ফ্যাশনেবল শাল আপনি দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে তাদের কালেকশনগুলো দেখে অর্ডার করতে পারেন। অনলাইনে শাল কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*শীতফ্যাশন* *শাল* *চাদর* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুনফিটিংস এ ফিট না হলে ফ্যাশনে বাজিমাত করা যায় না। তাই শীত ফ্যাশনে সারাক্ষণ ফিটফাট থাকতে ফিটিংস পোশাক পরা চাই। শীতের যতগুলো পোশাক আছে তারমধ্যে কয়েকটি পোশাক কখনওই আউট অফ ফ্যাশন হয় না। যেমন: ওয়েস্ট কোট। ওয়েট কোট আগেও ইন ছিল, এখনও ইন। যে কোনও অকেশনে ওয়েস্ট কোট দিব্যি মানিয়ে যায়। শার্ট, কুর্তার সঙ্গে দারুণভাবে মানিয়ে যায় ওয়েস্ট কোট। শুধু সঠিকভাবে মিক্স অ্যান্ড ম্যাচ করে পরতে হবে।

ওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুনওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুনসঠিক ওয়েস্ট কোট বেছে নিতে হবে – ওয়েস্ট কোটের পুরো ব্যাপারটাই ফিটিংস। ফিটিংস ঠিক না থাকলে ওয়েস্ট কোট পরার মানেই হয় না। পলিয়েস্টারের মতো চকচকে কাপড়ের ওয়েস্ট কোট পরবেন না। সুতির ওয়েস্ট কোট বেছে নিন। নিদেনপক্ষে বেছে নিন টুইড কাপড়ের ওয়েস্ট কোট।

ওয়েস্ট কোটে বাজিমাত করবেন কী করে?

ওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুনওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুন

ফর্মাল ওয়্যারের সঙ্গে ওয়েস্ট কোট – লেয়ারিং স্টাইলে ওয়েস্ট কোট পরুন। এমনটা হতেই পারে, শীতকালে ফর্মাল কোনও শার্টের সঙ্গে আপনি ঢিলঢিলে কোনও কোট পরতে চাইলেন। এতে কিন্তু আপনাকে মোটেই স্টাইলিশ দেখাবে না। শার্টের সঙ্গে কম্বো হিসেবে টাই ও চিনোজ় পরে নিন। কোটের পরিবর্তে পরে নিন ওয়েস্ট কোট।

ওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুনওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুন

ক্যাজুয়াল ওয়্যারের সঙ্গে ওয়েস্ট কোট – হাফ স্লিভ টি শার্ট, চিনোজ় বা ডেনিমের সঙ্গে ওয়েস্ট কোট পরে দেখুন। অফিসে শুক্রবার বা শনিবারের ক্যাজ়ুয়াল ওয়্যার হিসেবে দারুণ মানাবে। রাতের কোনও পার্টিতেও পরতে পারেন কম্বোটি।

 সব শেষে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথাটা বলে আলোচনা শেষ করছি। যে কোনও ওয়েস্ট কোট যে কোনও শার্ট বা টি শার্টের সঙ্গে পরে নিলেই হল না। শার্ট বা টি শার্টের টেক্সচার ও রং মানিয়েই পরতে হবে ওয়েস্ট কোট।

যেখানে পাবেন: 

ওয়েস্ট কোটটি কিনতে ক্লিক করুন

ওয়েস্ট কোট কেনার জন্য বসুন্ধরা শপিং সেন্টার, এ্যালিফ্যান্ট রোড, ইস্টার্ন প্লাজা, রাপা প্লাজা, মেট্রো শপিংমল, কর্ণফুলী গার্ডেন সিটিসহ কিছু অভিজাত শপিংমলে যেতে পারেন। তবে দর দামের ক্ষেত্রে খুব বেশি পার্থক্য কোথাও থাকছে না। সবগুলো শপিংসেন্টারে ৯০০ টাকা থেকে ২০০০ টাকায় এটি কিনতে পাওয়া যাবে। এছাড়াও যারা অনলাইনে কিনতে ইচ্ছুক তারা দেশের বড় বড় অনলাইন শপিংমল গুলোর ওয়েব সাইটে নক করুন অথবা এখানে ক্লিক করুন। 

*ওয়েস্টকোট* *শীতফ্যাশন* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ফ্যাশনে টপে থাকতে টপি পরুনফ্যাশনে টপে থাকতে কে না চায়? বিশেষ করে শীতের এই সময়টাতে ফ্যাশনে নিজেকে মানিয়ে নেওয়াটা খানিকটা কষ্টকর। তারপরেও যারা একটু সচেতন তারা তো ফ্যাশনে সবসময় ফিট। শীতে ফ্যাশনে নিজেকে টপে রাখতে শাল, সোয়েটার কেনার পাশাপাশি মাথা ও কান দু’টাকে হিমেল বাতাস থেকে রক্ষা করতে আকর্ষণীয় টুপি হতে পারে আপনার অন্যতম অনুসঙ্গ। চলুন হরেক রকমের রং-বেরংয়ের কিছু টুপি কালেকশন দেখে নেই।


টুপির রকমফের:

কিনতে ক্লিক করুন

কান ঢাকা টুপি বা মাঙ্কি টুপি: আস্তিনসহ টুপিগুলো এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ছোটদের জন্য ভালুক, কার্টুনের টুপি, বড়দের জন্য একরঙা বা বিভিন্ন রঙের সংমিশ্রণের টুপিও পাওয়া যাচ্ছে।

মাফলার টুপি: এখন বাজারে এমন টুপিও এসেছে যার প্রান্তভাগ গলায় জড়িয়ে রাখা যাবে।

ক্যাপের মতো: এগুলো গেঞ্জি কাপড় থেকে মোটা উলেরও হয়ে থাকে। ছেলেমেয়ে সবার মাঝেই এই টুপির জনপ্রিয়তা রয়েছে।

ঝোলা টুপি: সাধারণত এইরকম টুপির পেছনের দিক একটু ঝোলানো থাকে। মেয়েদের মধ্যে এই টুপি বেশ জনপ্রিয়। রাস্তার ধুলাবালি ও শীতের আবহাওয়া থেকে অনায়াসেই চুল রক্ষা করা যায় এই টুপির জন্য।

টুপি ফ্যাশন:

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন
কোথাও তাড়াহুড়ো করে যেতে হলে চুল বেঁধে এই টুপি পরলেও আধুনিকতার ছোঁয়া থাকবে পোশাকে। তবে রং ও টুপির কাপড় যাচাইয়ের ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।

বাজারে রয়েছে বাহারি টুপি। এছাড়াও পুরানো ফ্যাশনের টুপির ভেতরে মোটা উলের টুপি, একসঙ্গে মুখ ও মাথা ঢাকার টুপিও আছে বাজারে।কোন টুপিতে মানাবে বেশি? এমন প্রশ্ন মাথায় ঘুরে বেড়ায়। মুখের গড়ন ও ত্বকের রংয়ের সঙ্গে মিলিয়ে টুপি পরলে দেখতে ভালো লাগবে। শীতের টুপি পরার ক্ষেত্রে কোনো নির্দিষ্ট নিয়মাবলী নেই। তবে কিছু জিনিস মেনে চললেই সবাইকে মানানসই লাগবে।

সঠিক টুপি বাছাই

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন
শীত থেকে বাঁচতে সঠিক টুপি বাছাই করাও জরুরী। রং, মাপ ও টুপির ডিজাইনের উপর অনেক কিছু নির্ভর করে।

রং: এমন রং নির্বাচন করা উচিত যা সব ধরনের পোশাকের সঙ্গেই হবে মানানসই। যেমন কালো, খয়েরি, নীল রংয়ের যে কোনো টুপি মানিয়ে যাবে যে কোনো পোশাকের সঙ্গে। উৎসবমুখর পরিবেশে লাল, সাদা অথবা সবুজ রংয়ের টুপি পরা যেতে পারে। কারো উজ্জ্বল রং পছন্দ হলে হলুদ বা নিওন টুপিও বেছে নিতে পারেন।
মাপ: সবসময় এমন টুপি বেছে নেওয়া উচিত যা একটু ঢিলে হবে। কারণ টুপিতে ব্যবহৃত ইলাস্টিক কপালের কাছে আঁটসাঁট হয়ে থাকলে তা অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এমনকি কপালে দাগ ও ফেলে দেয়।
অলঙ্করণ: সবসময় এমন টুপি বেছে নেওয়া উচিত যা পুরো শীতের কাপড়ের সঙ্গে মানানসই হবে। তবে অনেকেই চাইলে ভিন্ন ডিজাইনের টুপিও পরতে পারেন পোশাকে বৈচিত্র্য আনতে।
 

কোথায় পাবেন?

কিনতে ক্লিক করুনকিনতে ক্লিক করুন
রাজধানীর নিউমার্কেট, গাউছিয়া মার্কেট, চন্দ্রিমা সুপার মার্কেট, নুরজাহান মার্কেট, বদরুদ্দোজা মার্কেট, বঙ্গবাজার, গুলিস্তানসহ অনেক জায়গাতেই পেয়ে যাবেন এমন সব রং-বেরংয়ের বাহারি শীতের টুপি। আর যারা ঘরে বসেই দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে বাহারি রঙের আকর্ষণীয় টুপি কিনতে চান তারা এখানে ক্লিক করুন

*টুপি* *টুপিফ্যাশন* *শীতফ্যাশন* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ট্রেন্ডি সোয়েটার কিনতে ক্লিক করুনশীতের সকালে কোন পোশাক পরে বের হবেন? অফিসে যেতে হলে শুধু যে স্যুট-কোট পরতে হবে তা নয়। এই শীতে স্টাইলের সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে ফুলহাতা শার্ট-টাইয়ের সঙ্গে সোয়েটারও পরতে পারেন । ছেলে মেয়ে সকলের জন্য বাজারে রয়েছে বাহারি কালেকশনের সব বাহারি সোয়েটার যেখান থেকে আপনি আনার পছন্দেরটি বেছে নিতে পারবেন। এখন আমাদের দেশেই তৈরি হচ্ছে আন্তর্জাতিকমানের বাহারি সব সোয়েটার। চলুন কয়েকটি ফ্যাশনেবল ও ট্রেন্ডি সোয়েটার দেখে নেই।

কিনতে ক্লিক করুনসোয়েটারের ডিজাইনে লাল, নীল, সবুজ, গোলাপি, বেগুনি, কমলাসহ রঙিন সব নকশা ও বুনন সবার মন কাড়বে। সাদা, কালো, ছাই, বাদামি রংগুলো তো থাকছেই। উষ্ণতা দেয়ার পাশাপাশি সোয়েটার এখন হয়ে উঠেছে ছেলেমেয়েদের অন্যতম ফ্যাশন অনুষঙ্গ। শীতের প্রকোপভেদে তাই এখন হালকা, ভারি, ফরমাল, ক্যাজুয়াল, ফ্যাশনেবল বিভিন্ন ধরনের সোয়েটারে সেজে উঠেছে শপিংমলগেুলো বাদ যায়নি অনলাইন শপগুলোও। 


বর্তমানে কাট, বড় কলার আর বোতামের ফ্যাশন বেশ চলছে। তাছাড়াও  শার্ট, ব্লেজার ও কোট কলার ধাঁচের। এর সঙ্গে ভি ও গোল আকৃতি এবং বন্ধ গলা তো রয়েছেই। ফুলহাতা সোয়েটারের ধারায়ও এবার বৈচিত্র্য এসেছে। কোনোটি ঝোলা আলখাল্লা ঘরানার, আবার কোনোটি কোমর ও হাতের কাছে চাপা। কোনোটিতে আবার বেল্ট ব্যবহার হয়েছে, কোনোটি বা ট্রেঞ্চ কোট কাটের। মজার ব্যাপার হলো, পোশাকের ওপর শীতের সোয়েটারখানি চাপানোর পর এবার আর পোশাক ঢেকে পড়ার দুঃখ থাকবে না আপনার। কারণ সোয়েটারটাই যে দারুণ ফ্যাশনেবল!


কিনতে ক্লিক করুনযারা পাশ্চাত্য পোশাকে অভ্যস্ত, তারা যেমন ইচ্ছামতো বেছে নিতে পারেন পছন্দসই শীতের পোশাকটি, তেমনি দেশীয় পোশাকের সঙ্গেও সহজে মানিয়ে যাবে এসব সোয়েটার। টি-শার্ট ও শার্টের ওপর হালকা শীতে যেমন পরতে পারেন হাতাকাটা সোয়েটার, তেমনি শীতের প্রকোপ বেশি হলে বেছে নিতে পারেন স্ট্রাইপ ও চেকের ফ্যাশনেবল ফুলহাতা সোয়েটারও।


কিনতে ক্লিক করুনতরুণীদের অাঁটসাঁট সোয়েটারের পাশাপাশি একটু ঘের দেয়া ঢোলা সোয়েটারেও খারাপ লাগবে না। চুড়িদার হাতা আর লম্বা ঝুলের সোয়েটারও বেছে নিতে পারেন। ওভারকোট কাটের হাতাকাটা সোয়েটারের নিচে পাতলা হাতাসহ কোনো সোয়েটার আর গলায় রঙিন মাফলার জড়ালে দারুণ মানাবে।

কিনতে ক্লিক করুন
ছেলে ও মেয়েদের ফ্যাশনেবল সোয়েটার মিলবে ১২৫০ থেকে ২৯৫০ টাকার মধ্যে। আর হাতাকাটা কিংবা হাতাসহ সোয়েটার পাবেন ৭৮০ থেকে ১৪৫০ টাকার মধ্যে। এই সবগুলো সোয়েটার অনলাইন থেকে কিনতে এখানে ক্লিক করুন। 

*সোয়েটার* *শীতেরফ্যাশন* *শীতফ্যাশন* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

স্টাইলিশ জ্যাকেট কিনতে ক্লিক করুনশীতের ঠান্ডা অলরেডি হালকা হালকা করে ধাক্বা দেওয়া শুরু করেছে। এই সময়টাতে পাতলা কাপড়ের উপর নির্ভশীলতা কমিয়ে অনেকেই ভারী কাপড় কিনতে শুরু করেছে। তবে ভারী কাপড় ফ্যাশনে কতটা স্টাইলিশ হবে সেটা নিয়ে চিন্তা করেই ফ্যাশন সচেতনরা ঝুঁকছে চমকপ্রদ সব শীতের জ্যাকেটর দিকে।

স্টাইলিশ জ্যাকেট কিনতে ক্লিক করুনসমসাময়িক চাহিদার কথা বিবেচনা করে ফ্যাশন হাউসগুলোও তাদের কালেকশনে যুক্ত করেছে বাহারি ধাচের ফ্যাশনেবল জ্যাকেট। শার্ট, টিশার্ট, শাড়ীর ও প্যান্টের সঙ্গে পরতে পারবেন এই জ্যাকেট।

স্টাইলিশ জ্যাকেট কিনতে ক্লিক করুনবাজারে প্রাপ্ত অনেক জ্যাকেট সামনে একেবারে খোলা থাকে আবার অনেক গুলোতে থাকে বোতাম চেইন, ফিতা ইত্যাদি। মানুষভেদে পছন্দ আলাদা তাই ফ্যাশনের কালেকশন ও আলাদা। যাই বলেন ফ্যাশনে যুক্ত হয়েছে জ্যাকেট। তরুণরাও স্বাগত জানিয়ে গ্রহণ করেছে। বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজের মালিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে এবার শীতে ফ্যাশনএ্যাবল জ্যাকেটের ক্রেতা বেশীর ভাগই হলো নারী।


যেখানে পাওয়া যাবে

কিনতে ক্লিক করুন

রাজধানীর যতোগুলো ফ্যাশন হাউজ রয়েছে সবগুলোতেই পাবেন জ্যাকেটের প্রদর্শন। উন্নতমানের কিনতে হলে নির্দিষ্ট ব্র্যান্ডের শো-রুমে যাওয়াই ভালো। তবে পছন্দমত ভাল জ্যাকেট আপনি অনলাইন মার্কেটপ্লেস আজকেরডিল থেকেও কিনতে পারবেন। এছাড়াও নিউ মার্কেট, বঙ্গবাজার, ইসলামপুর, বদরুদ্দোজা সুপার মার্কেট, আজিজ সুপার মার্কেট, রাজধানী সুপার মার্কেট, প্রিন্স প্লাজাসহ বিভিন্ন মার্কেট গুলোতে পাবেন জ্যাকেটের শো-রুম।

জ্যাকেটের দর-দাম

কিনতে ক্লিক করুন

অনলাইনে জ্যাকেট কিনে দরদাম করার কোন উপায় নেই ঠিক কিন্তু অনলাইন থেকে কিনে ঠকবেন না এটা নিশ্চিত। আর যারা মার্কেটে গিয়ে জ্যাকেট কিনতে চান দর দাম সম্পর্কে একটু অভিজ্ঞতা নিয়ে গেলে অবশ্যই আপনার সহযোগীতা হবে। বেশ কতোগুলো ফ্যাশন হাউজ ঘুরে আপনাদেরকে দরদামের একটি ধারনা দিচ্ছি। রেকসিন জ্যাকেট পাবেন-১২শ থেকে ২৫শ টাকার মধ্যে, চামড়ার জ্যাকেট ২২শ থেকে ১২ হাজার টাকার মধ্যে।

কিনতে ক্লিক করুনরেইন কোর্টের মতো পাতলা কাপড়ের জ্যাকেট পাবেন- ১৫শ টাকা থেকে ৩৫শ টাকার মধ্যে, মকমলের জ্যাকেট পাবেন- ৪ হাজার থেকে ৬ হাজার টাকার মধ্যে। সুতি কাপড়ের জ্যাকেট ১৮শ থেকে ৫ হাজার টাকায় এবং খাদি কাপড়ের জ্যাকেট ১ হাজার থেকে শুরু করে ৫ হাজার টাকার মধ্যে পাবেন। বাংলাদেশী ক্রেতাদের রুচি যাচাই-বাছাই করে, বিদেশী কম্পানী গুলো এবার তৈরী করেছে ফ্যাশনএ্যাবল জ্যাকেট।

বন্ধুরা ঘরে বসেই যারা আকর্ষণীয় সব জ্যাকেট কিনতে চান তারা এখানে ক্লিক করুন

*জ্যাকেট* *শীতফ্যাশন* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

একদিকে মাঘের শীত অন্যদিকে শৈত্যপ্রবাহ সাথে ভারী কুয়াশাতো আছেই। তাই বলে কি ফ্যাশন থেমে থাকবে? এই শীতে ফ্যাশন ও উষ্ণতা দুটোই হবে এক সাথে। কারণ বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শপিং মল আজকের ডিল ফ্যাশনেবল সব হুডিতে দিচ্ছে ২৬% ছাড়। তাহলে আর দেরি কেন? এই শীতে পায়ে কনভার্স, পরনে জিন্স ও টি-শার্ট, সঙ্গে মিলিয়ে পরুন ফ্যাশনেবল হুডি। 


শীতে হুডি ফ্যাশন
শীতে তরুণ-তরুণীর আকর্ষণীয় পোশাক হুডি। বাহারি ডিজাইন আর নানান রঙের সমন্বয়ে তৈরী হুডি শীত ফ্যাশনে অন্যতম অলংকারে পরিণত হয়েছে। এই শীতে পায়ে কনভার্স, পরনে জিন্স ও টি-শার্ট, সঙ্গে যোগ হয় যোগ হয় ফ্যাশনেবল হুডি। এ যেন ফ্যাশনের সঙ্গে নিত্যনতুন পথচলা। শীত ফ্যাশনে হুডি মূলত সোয়েটারের উন্নত সংস্করণ। শীতে পরার মতো পোশাক তো অনেক কিছুই আছে। কিন্তু শীত তাড়ানো এবং ফ্যাশন একসঙ্গে এই দুই শর্ত পূরণ করছে হুডি। এবারের শীতে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে জিন্স হুডি। এগুলো শীতের হাত থেকে আপনাকে রক্ষার পাশাপাশি এনে দেবে ফ্যাশনেবল স্টাইলিশ ভাব।
 

ফ্যাশনেবল ছেলেদের যদি প্রশ্ন করা হয় হুডি কেন পরা হয় এর উত্তর বোধহয় ফ্যাশন আর শীতে আরাম। ছেলেদের যেকোনো পোশাকের চেহারা বদলে যায় শুধু হুড যোগ করার ফলে।  শীতে  হুডি দারুণ কার্যকর। এমনকি গরমেও অনেক তরুনরা হুডসহ শার্ট পরতে পছন্দ করেন।  হডি পরলে একটু ভিন্ন রকম ক্যাজুয়াল ভাব আসে । যে সকল তরুন রা গরমেও খাটো হাতার হুডি টপ পরতে ভালবাসেন। তাদের কাছে ডেনিম প্যান্টের সঙ্গে হুডি টপ দারুণ ফ্যাশনেবল বলে মনে হয়। জিন্স প্যান্ট, টিশার্ট, ফুলশার্ট সব ধরনের পোশাকের উপরেই হুডি পরা যায়।  


কোথায় পাবেন, দাম কেমন?
শীত উপলক্ষে বাংলাদেশের বড় অনলাইন শপিংমল আজকের ডিলে ফ্যাশনেবল সব ধরনের হুডি পাবেন। তাছাড়াও থাকছে ক্রেজি ডিল অফার। ফুরফুরে মেজাজে শীতকে উপভোগ করতে সেইসঙ্গে শীতে স্মার্ট থাকতে আজই কিনে নিন আপনার পছন্দের হুডি। 
নিচে প্রায় এক হাজারটি হুডির কালেশন তুলে ধরলাম। দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।
*হুডি* *শীতফ্যাশন* *শপিং* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

অফিস আর সংসার, দুটোই নিপুণ হাতে সামলাচ্ছে আজকের কর্মজীবী নারীরা। অফিস হোক বা বাসা, সব জায়গাতেই একজন নারী চায় নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে। হয়ে উঠতে চায় ফ্যাশনেবল l শীতের পোশাক হিসেবে কর্মজীবী নারীদের প্রথম পছন্দ শাল l শীতের ফ্যাশন অনুষঙ্গ হিসেবে শাল বা চাদর যাই-ই বলুন না কেন, শীত তাড়াতে অন্য পোশাকের তুলনায় এর ব্যবহার একটু বেশীই হয়। বিশেষ করে কর্মজীবী মহিলাদের ক্ষেত্রে এর কদর খানিকটা বেশিই l কারণ কর্মজীবী মহিলারা আজকাল অন্যান্য শীতের পোশাকের চেয়ে শালেই বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করেন। তাই আজ কথা হবে শাল নিয়ে l চলুন শীতের ফ্যাশনেবল শাল কালেকশন গুলো দেখে নেই।  
 
শীত ফ্যাশনে বাহারি শাল
বিভিন্ন ডিজাইন ও মোটিফের শাল মিলছে আজকাল। ভারি কাজ করা দামি বিদেশি শাল থেকে শুরু করে কমদামি দেশীয় শালের কতই না রঙের বাহার। চমৎকার বুনন আর ডিজাইনে তৈরি হচ্ছে এসব নজরকাড়া চাদর বা শাল। দেশি শালের মধ্যে বাঙ্গালি মেয়েদের প্রথম পছন্দ খাদি শাল। তবে এখন যে শালটি খুব চলছে, তা হলো পশমিনা এবং কাশ্মীরি। 
 
 
 
কাশ্মীরি শালের মধ্যে পশমিনা শাল জনপ্রিয়তার শীর্ষে। দেশেও আজকাল তৈরি হচ্ছে পশমিনা শাল। হালকা এবং নিখুত ডিজাইনের জন্য কর্মজীবী নারীরা আজকাল এই শালের প্রতিই বেশি ঝুকছেন l আকর্ষনীয় ডিজাইনের এই শালগুলো পরতে খুবই আরাম এবং শীতের হাত থেকে রক্ষা করতে বেশ কার্যকর। বর্তমানে এসব শালে ফুলের নকশা বা কলকা মোটিফের চাহিদাই বেশি। তারপরও একরঙ্গা কালেকশন গুলো বেশ ভাল চলে।  
 
 
 
কর্মজীবী নারীরা পোশাকের সাথে মিলিয়ে শাল পরতে পছন্দ করেন l এক্ষেত্রে সাদা-কালো, সবুজ, বাদামি, বেগুনি, বিস্কিট-ম্যাজেনটা, আকাশি , ছাই রং রঙগুলোই বেছে নেবেন ; কন্ট্রাস্ট শেডগুলোও বেছে নিতে পারেন নির্দ্বিধায় l দুই পাশে পাড় এবং আধাআধি ভিন্ন রঙের শাল এসেছে এবারের ফ্যাশনে। 
 
কোথায় পাবেন?
রাজধানীসহ দেশের সবগুলো শপিং মলেই ভাল মানের শাল পেয়ে যাবেন। তবে আপনাদের জন্য সুখবর! দেশের অনলাইন শপিং মলগুলোতেও পাওয়া যাচ্ছে হরেক রকম রং বেরঙের শালের কালেকশন l আপনারা ঘরে বসে অনলাইন শপিং মল গুলোর ওয়েবসাইটে গিয়ে অর্ডার করে পছন্দমত শাল কিনতে পারবেন। নিচে দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল আজকের ডিল ডটকমের একটি লিংক দিয়ে দিলাম ইচ্ছে হলে এদের শাল কালেকশন গুলো দেখে নিতে পারেন।
*শাল* *শপিং* *স্মার্টশপিং* *শীতফ্যাশন*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

শীত মানেই যুবুথুবু হয়ে ঘরে বসে থাকা নয়। বর্তমানে শীত মানে স্টাইলিশ ফ্যাশন। শীত মানে নতুন বৈচিত্র। শীত ফ্যাশনের এই বৈচিত্রে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে মেয়েরা। ফ্যাশনে বাজিমাত করতে শীত ঋতুতে মেয়েরা বেছে নিয়েছে নিজস্ব এক স্টাইল। বাজারে শীতকে সাজাতে এসেছে নানা রকমারি পোশাক। ফ্যাশন হাউজগুলো বাহারী শীতের কাপড়ের পরশা সাজিয়ে বসেছে।  এতো কিছুর পরেও কোন পোশাকটি পরবেন তা নিয়ে অনেকেরই দ্বিধাদ্বন্দ্ব রয়ে যায়। যারা পোশাক নির্বাচনে একটু সেকেলের তারা দেখে নিন শীতের এই সময়টাতে কোন ফ্যাশন বেশি চলছে। 

স্টাইলিশ ব্লেজার
শীতে পোলোশার্ট বা ফর্মাল শার্টের সাথে মেয়েরা স্টাইলিশ ব্লেজার পরতে পারেন। অফিসের জন্য মেয়েরা শার্ট এর সঙ্গে ব্লেজার পরতে পারেন। এই শীতে ফ্যাশন ডিজাইনাররা নানা রকম ডিজাইনের ব্লেজার তৈরি করেছেন।  যেগুলো ব্যবহারে আপনি শীতের হাত থেকে বাঁচবেন পাশাপাশি আপনার ফ্যাশনও ঠিক থাকবে।

শর্ট কিংবা লং সোয়েটার
শীতে ফ্যাশন এবং সৌন্দর্য্য দুটাই রক্ষা করবে সোয়েটার। শীতে পোশাকের উপরে সোয়েটার পরে অনায়াসে সব জায়গায় যেতে পারবেন।  ছেলে ও মেয়ে উভয়ের জন্যই সোয়েটার উপযোগী। বর্তমান ফ্যাশনে লং এবং শর্ট সোয়েটার দুটোই চলছে। অনেক মেয়েরা লং বেশি চুজ করে অনেকে আবার শর্টটা।  বাজারে নানা কালারের সোয়েটার পাওয়া যাচ্ছে আপনি ইচ্ছে মত আপনারটি কিনে নিতে পারেন। দাম খুব একটা বেশি পড়বে না। ২০০ টাকা থেকে শুরু করে ৫ হাজার টাকা দামের সোয়েটার পাওয়া যাবে। 

শাল/চাদর
শীতে ফ্যাশনেবল শাল পরতেই  বেশি ভাল বাসেন। বাজারে শালের প্যাটার্নের মধ্যেও বৈচিত্র্য রয়েছে। কিছু শাল রয়েছে রয়েছে স্টাইলিশ ডিজাইনের আবার কিছু রয়েছে একরঙ্গা। আপনি  আপনার রুচি ও  পছন্দের সাথে মিলিয়ে মানানসেই শাল কিংবা চাদর  কিনে নিন। তবে শাল কিনলে একটু ফ্যাশনেবল শাল কেনাই উত্তম। যাতে শীতও মরবে আবার আপনার ফ্যাশনও ঠিক থাকবে। 

কোট
শীতের পোশাকে কোট খুবই জনপ্রিয়। প্রফেশনাল অফিস লুকের সাথে এটি সলিড ও ভারী পোশাকে ভাল লাগবে। দূরে কোথাও গেলে অবশ্যই লংকোট গায়ে জড়াবেন। হাই-ক্লাস ফক্স-ফারে আপনাকে উষ্ণ ও সুরুচিসম্পন্ন দেখাবে। একইসঙ্গে রাতের পোশাকের সম্পূরক হবে। কোট পরার আগে প্রথমে আবহাওয়া ও পরে ফ্যাশনের দিকে নজর দিন।

স্টাইলিশ মাফলার
শীতের সময়টাতে সবচেয়ে বেশি শীত লাগে কানে। তাই সবার আগে কানটা ঢাকা চাই। কিন্তু কানটাকে কি যাতা মাতা পোশাকে ঢাকা উচিৎ হবে? নিশ্চয় না। অতএব ফ্যাশন সচেতনরা এই শীতে বেছে নিতে পারেন স্টাইলিশ মাফলার। এগুলো বেশ সফট এবং পরতে খুবই আরাম। আপনি মাথা আর গলায় জড়িয়ে রাখলে টেরই পাবেন না। 

হুডি/জ্যাকেট
বর্তমান তরুণ প্রজন্মের কাছে শীতের পোশাক মানেই হুডি। ছেলে মেয়ে উভয়েই হুডি পোশাক পরছে। ফ্যাশনেবল হুডি তরুণ-তরুণীদের পছন্দের পোশাকে জায়গা করে নিয়েছে। যখন গরম লাগবে, তখনহুড ফেলে রাখলেই যথেষ্ট। আবার ঠাণ্ডার সময় হুড পরে ফেললেই কাজ হয়ে যায়। ফ্যাশনের সঙ্গে সঙ্গে শীত মোকাবেলার ভালো বন্ধুও বটে এ হুডি পোশাক। মেয়েরা যখন হুডি পছন্দ করবেন তখন আপনার শরীরের সাথে খাপ খায় এমন টাইপের হুডি কিনবেন। কালার আপনার পছন্দ মত চয়েজ করে নিন।

কোথায় পাবেন দাম কেমন?
পোশাক গুলোর দাম জানতে ও কিনতে ঘুরে আসুন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল আজকের ডিল থেকে। অথবা নিচের লিংকে ক্লিক করুন।
*শীতফ্যাশন* *শীতেরপোশাক* *শপিং* *অনলাইনশপিং* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

শীতে তরুণদের শীত নিবারণের পাশাপাশি স্টাইল মেইনটেইন করাটাও জরুরি হয়ে পড়ে। তাই শীতের ভারী পোশাক জ্যাকেটেও এসেছে নতুনত্বের ছোঁয়া,তরুণদের জন্য আধুনিক ফ্যাশনে প্রতিনিয়ত যোগ হচ্ছে নতুন মাত্রা। পোশাকের রংঢং যেন বদলে দেয় প্রকৃতি। 
জ্যাকেটের কাটিং প্যাটার্নের মধ্যেও বৈচিত্র্য লক্ষ্য করা যায়। কিছু জ্যাকেট সামনে খোলা। তাতে হয়তো বোতাম বা ফিতা ব্যবহার করা হয়েছে আটকানোর জন্য। 

শুধু জ্যাকেট ব্যবহার করলেই তো আর হল না। বরং বাছাই করা কিছু পোশাকের সঙ্গে ফ্যাশনেবল্ জ্যাকেট আপনাকে এনে দিতে পারে এলিট ক্লাসের লুক। তাই জেনে নিন কী ধরনের পোশাকের সঙ্গে লেদার জ্যাকেটে আপনাকে দেখতে বেশি ভালো লাগবে। সেই সাথে পরিচিত হবো কিছু দারুন  জ্যাকেটের সাথে ।

HARLEY DAVIDSON জ্যাকেট

ডেনিম বা ফর্ম্যাল ট্রাউজ়ারের সঙ্গে এই লেদার জ্যাকেটটি বেশ ভালো মানাবে আপনাকে। 
এটি আপনার ফ্যাশন স্টেটমেন্টে এনে দেবে আলাদা মাত্রা। 
হাই কোয়ালিটি ফেব্রিক 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
আধুনিকতার সাথে মানানসই 
সাইজঃ S, M, L S-
লেন্থঃ ২৬"/ চেস্টঃ ৩৪"; M-লেন্থঃ ২৭"/ 
চেস্টঃ ৩৬"; L-লেন্থঃ ২৯"/ চেস্টঃ ৪০"
জ্যাকেটটির মুল্য ৩,৫০০ টাকা
কিনতে চাইলে ক্লিক করুন  HARLEY DAVIDSON জ্যাকেট


আর্টিফিসিয়াল লেদার হুডি জ্যাকেট

ফেব্রিকঃ আর্টিফিসিয়াল লেদার ও নীট কটন 
কাপড়টি স্ট্রেচ ফেব্রিক 
যেকোনো মাপের বডিতে এডজাস্টেবল 
হাই কোয়ালিটি ফেব্রিক 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
আধুনিকতার সাথে মানানসই 
এটি ড্রাই ওয়াশ করতে হবে 
সাইজঃ (লেন্থ-৩০”, চেষ্ট-৪২”)
১,২০০ টাকা
কিনতে চাইলে ক্লিক করুন  লেদার হুডি জ্যাকেট



স্মার্ট স্পোর্টস হুডি জ্যাকেট

জেন্টস স্পোর্টস হুডি জ্যাকেট 
হাই কোয়ালিটি ট্রাউজার ফেব্রিক 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
আধুনিকতার সাথে মানানসই 
এটি ড্রাই ওয়াশ করতে হবে 
সাইজঃ M, L, XL. M=লেন্থঃ ২৮"/ চেস্টঃ ১৯"; L=লেন্থঃ ২৯"/ চেস্টঃ ১৯.৫"; XL=লেন্থঃ ৩০"/ চেস্টঃ ২০";
জ্যাকেটটির মুল্য ২,৩৯৯ টাকা
কিনতে চাইলে ক্লিক করুন  স্মার্ট স্পোর্টস হুডি জ্যাকেট



এক্সক্লুসিভ লেদার জ্যাকেট

এই শীতে RAVEN এর এক্সক্লুসিভ লেদার জ্যাকেট 
হয়ে উঠুন স্টাইল আইকন 
জেনুইন লেদারে তৈরী 
রাউন্ড কলারজিপ ক্লোজার 
সাইজঃ S, M, L 
মেজারমেন্টঃ S
এ ধরনের জ্যাকেট ব্যবহার করা যেতে পারে কুর্তা, টপস, এর সঙ্গে। 
মুল্য ৭,৮০০ টাকা
কিনতে চাইলে ক্লিক করুন  RAVEN এর এক্সক্লুসিভ লেদার জ্যাকেট



জেন্টস ফুল স্লিভ জ্যাকেট

জেন্টস ফুল স্লিভ জ্যাকেট
হাই কোয়ালিটি ফেব্রিক 
স্টাইলিশ ডিজাইন 
ড্রাই ওয়াশ করতে হবে 
আধুনিকতার সাথে মানানসই 
সাইজঃ M M-লেন্থঃ ২৬"/ চেস্টঃ ৪২";
৩,৫৫০ টাকা 
কিনতে চাইলে ক্লিক করুন  জেন্টস ফুল স্লিভ জ্যাকেট


এক্সক্লুসিভ লেদার জ্যাকেট

এই শীতে RAVEN এর এক্সক্লুসিভ লেদার জ্যাকেট গায়ে হয়ে উঠুন স্টাইল আইকন 
জেনুইন লেদারে তৈরী 
রাউন্ড কলারজিপ ক্লোজার 
সাইজঃ S, M, L 
মেজারমেন্টঃ S
জ্যাকেটটি ব্যবহার করা যেতে পারে কুর্তা, টপস, এর সঙ্গে। 
৭,৮০০ টাকা
কিনতে চাইলে ক্লিক করুন  এক্সক্লুসিভ লেদার জ্যাকেট


*জ্যাকেট* *শীতফ্যাশন* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে ফ্যাশনে নিত্য নতুন পরিবর্তন আসছে।  পরিবর্তন এসেছে আমাদের চিন্তা-ভাবনা, আচার আচরণ ইত্যাদিতেও। সেই সাথে পরিবর্তন হয় আমাদের পোশাকের স্টাইলও। তারপরেও কিছু কিছু পুরানো স্টাইল আছে যা আজও তার আবদার ধরে রাখতে সক্ষম। সেই ধারাবাহিকতায় অনেক আগের প্রচলিত পোশাকগুলোই এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ঠিক তেমন একটি পোশাক হচ্ছে ওয়েস্ট কোট। একটা সময় ছিল যখন এই পোশাকটির বেশ প্রচলন ছিল। কালক্রমে তা হারিয়ে গেলেও এই সময়ে এসে ওয়েস্ট কোট আবার ব্যাপক চাহিদা পেয়েছে। এমনকি সব বয়সী মানুষের জন্যই যথেষ্ট মানানসই। চলুন শীত ফ্যাশনে ওয়েস্ট কোট সম্পর্কে জেনে নেই। 

মেনজ ওয়েস্ট কোট
রুষদের কয়েকটি পোশাক কখনওই আউট অফ ফ্যাশন হয় না। তার মধ্যে অন্যতম ওয়েস্ট কোট। ওয়েট কোট আগেও ইন ছিল, এখনও ইন। যে কোনও অকেশনে ওয়েস্ট কোট দিব্যি মানিয়ে যায়। শার্ট, কুর্তার সঙ্গে দারুণভাবে মানিয়ে যায় ওয়েস্ট কোট। শুধু সঠিকভাবে মিক্স অ্যান্ড ম্যাচ করে পরতে হবে। সঠিক ওয়েস্ট কোট বেছে নিতে হবে – ওয়েস্ট কোটের পুরো ব্যাপারটাই ফিটিংস। ফিটিংস ঠিক না থাকলে ওয়েস্ট কোট পরার মানেই হয় না। পলিয়েস্টারের মতো চকচকে কাপড়ের ওয়েস্ট কোট পরবেন না। সুতির ওয়েস্ট কোট বেছে নিন। নিদেনপক্ষে বেছে নিন টুইড কাপড়ের ওয়েস্ট কোট। 

লেডিস ওয়েস্ট কোট
আমাদের দেশের ফ্যাশনেবল মেয়েদের কাছেও এখন ওয়েস্ট কোটের ব্যাপক চাহিদা। কারণ এই কটি যে কোন পরিবেশে বিশেষ করে শীতের মৌসুমে পরতেও বেশ ভাল লাগে এবং বেশ মানানসই। ওয়েস্ট কোট পোশাকের শ্রী-বৃদ্ধি করে।  মেয়েরা টিশার্ট, ক্যাজুয়াল শার্ট এবং জিন্স প্যান্টর সাথে মিলিয়ে মাননসেই ফ্যশনেবল ওয়েস্ট কোট পরতে পারেন।  মেয়েরা বিভিন্ন রঙের  ওয়েস্ট কোটও পরতে পারেন এতে আপনাদেরকে বেশ রঙিন দেখাবে। । যদি আপনি কোথাও বেড়াতে যাবেন বলে ঠিক করেন, তাহলে সেই পরিবেশের সঙ্গে এবং আপনার অন্য পোশাকটির সঙ্গে ওয়েস্ট কোটটি অবশ্যই মিলিয়ে নেবেন।

দরদাম ও কেনাকাটা
বাজারে এখন পর্যন্ত ৭০টি রঙের এবং ভিন্ন ডিজাইনের ওয়েস্ট কোট শোভা পাচ্ছে। য়েস্ট কোট কেনার  জন্য বসুন্ধরা শপিং সেন্টার, এ্যালিফ্যান্ট রোড, ইস্টার্ন প্লাজা, রাপা প্লাজা, মেট্রো শপিংমল, কর্ণফুলী গার্ডেন সিটিসহ কিছু অভিজাত শপিংমলে যেতে পারেন। তবে দর দামের ক্ষেত্রে খুব বেশি পার্থক্য কোথাও থাকছে না। সবগুলো শপিংসেন্টারে ৯০০ টাকা থেকে 2000 টাকায় এটি কিনতে পাওয়া যাবে।  এছাড়াও যারা অনলাইনে কিনতে ইচ্ছুক তারা দেশের বড় বড় অনলাইন শপিংমল গুলোর ওয়েব সাইটে নক করতে পারেন। নিচে ওয়েস্ট কোট সহ বিভিন্ন ধরনের কোটের একটি লিংক শেয়ার করলাম। ঘরে বসে এখান থেকেও আপনি পছন্দমত শীতের পোশাক কিনতে পারবেন।
*শীতেরপোশাক* *শীতফ্যাশন* *ফ্যাশন* *ওয়েস্টকোট* *কোট* *শপিং* *স্মার্টশপিং* *অনলাইনশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

শীতে তরুণ-তরুণীর আকর্ষণীয় পোশাক হুডি। বাহারি ডিজাইন আর নানান রঙের সমন্বয়ে তৈরী হুডি শীত ফ্যাশনে অন্যতম অলংকারে পরিণত হয়েছে। এই শীতে পায়ে কনভার্স, পরনে জিন্স ও টি-শার্ট, সঙ্গে যোগ হয় যোগ হয় ফ্যাশনেবল হুডি। এ যেন ফ্যাশনের সঙ্গে নিত্যনতুন পথচলা। শীত ফ্যাশনে হুডি মূলত সোয়েটারের উন্নত সংস্করণ। শীতে পরার মতো পোশাক তো অনেক কিছুই আছে। কিন্তু শীত তাড়ানো এবং ফ্যাশন একসঙ্গে এই দুই শর্ত পূরণ করছে হুডি। চলুন শীতের সঙ্গী হুডি পোশাকের মেনজ ও লেডিস সংস্করণ সম্পর্কে জেনে নেই। 


মেনজ হুডি
ফ্যাশনেবল ছেলেদের যদি প্রশ্ন করা হয় হুডি কেন পরা হয় এর উত্তর বোধহয় ফ্যাশন আর শীতে আরাম। ছেলেদের যেকোনো পোশাকের চেহারা বদলে যায় শুধু হুড যোগ করার ফলে।  শীতে  হুডি দারুণ কার্যকর। এমনকি গরমেও অনেক তরুনরা হুডসহ শার্ট পরতে পছন্দ করেন।  হডি পরলে একটু ভিন্ন রকম ক্যাজুয়াল ভাব আসে । যে সকল তরুন রা গরমেও খাটো হাতার হুডি টপ পরতে ভালবাসেন। তাদের কাছে ডেনিম প্যান্টের সঙ্গে হুডি টপ দারুণ ফ্যাশনেবল বলে মনে হয়। জিন্স প্যান্ট, টিশার্ট, ফুলশার্ট সব ধরনের পোশাকের উপরেই হুডি পরা যায়।  


লেডিস হুডি
ফ্যাশনে মেয়েরাও পিছিয়ে নেই। ছেলেদের পাশাপাশি শীত ফ্যাশনে মেয়েরাও বেছে নিয়েছেন নানান ডিজাইনের ফ্যাশনেবল হুডি। হুডি যেমন আকর্ষণীয় তেমনি মানানসই। বর্তমান বাজারে  মেয়েদের জন্য আছে নানা রঙের স্ট্রাইপ দেয়া হুডি টপ। মেয়েরা ডেনিম প্যান্টের সঙ্গেই হুডি বেশি পরছেন।  মেয়েরা স্কার্টের সঙ্গেও হুডি পরতে পারেন। তাছাড়াও লেগিংস প্যান্ট, এবং সবধরনের জিন্সপ্যান্ডের সাথেও মেয়েরা মানানসই হুডি পরতে পারেন। 


কোথায় পাবেন, দাম কেমন?
ফ্যাশন হাউসগুলোর পাশাপাশি নিউমার্কেট, বঙ্গবাজারসহ নগরীর অভিজাত শপিং মলগুলোতেও বেশ হুডি কালেকশন রয়েছে।  ব্র্যান্ডের হুডিগুলোর দাম পড়বে ৭০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত। আর নিউমার্কেট, বঙ্গবাজার হকার্স মার্কেটে হুডির দাম পড়বে ২৫০ থেকে ৭৫০ টাকা। শীত উপলক্ষে বাংলাদেশের বড় অনলাইন শপিংমল আজকের ডিলে ফ্যাশনেবল সব ধরনের হুডি পাবেন। তাছাড়াও থাকছে ক্রেজি ডিল অফার। ফুরফুরে মেজাজে শীতকে উপভোগ করতে সেইসঙ্গে শীতে স্মার্ট থাকতে আজই কিনে নিন আপনার পছন্দের হুডি। 
নিচে প্রায় এক হাজারটি হুডির কালেশন তুলে ধরলাম। দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।
*হুডি* *শীতেরপোশাক* *শীতফ্যাশন* *ফ্যাশন* *শপিং* *কেনাকাটা* *স্মার্টশপিং* *অনলাইনশপিং*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

টিএজাররা অন্য সবার মত না। তারা চায় নিজেদেরকে একটু আলাদা আঙ্গিকে তুলে ধরতে একটু ফ্যাশনেবল করে সাঁজাতে। এই শীতেও টিনএজারদের ফ্যাশনের কোন কমতি নেই। আর ফ্যাশন হাউজগুলো টিনএজারদের কথা চিন্তা করেই শীত ফ্যাশনের নানান সব ফ্যাশনেবল পোশাকের আয়োজন করেছে। চলুন ফ্যাশন হাউজ গুলো থেকে টিনএজ  ফ্যাশনের খোঁজ খবর নিয়ে আসি।

তহু’স ক্রিয়েশনস
শীতকে উপল করে তহু’স ক্রিয়েশনস এনেছে শীতের বিভিন্ন পোশাক। এর মধ্যে রয়েছে টিনএজার মেয়েদের টপস, ফ্যাশনেবল সোয়েটার, শাল। রয়েছে শিশুদেরও বিভিন্ন পোশাক। সব কিছুর মূল্যই রয়েছে মধ্যবিত্তদের ক্রয়মতার মধ্যে।

১৯৭১-এর শীত আয়োজন
ফ্যাশন হাউজ ১৯৭১ প্রতি বছরেই নতুন নতুন ডিজাইনের হুডি টি-শার্ট নিয়ে হাজির হয় তাদের শোরুমে। সেইসাথে এবার নিয়ে এসেছে বেশ কিছু চমৎকার ডিজাইনের ফুলহাতা শার্ট যা সুতি কাপড়ের তৈরি এবং শীতে এগুলো পরতে অনেক আরামদায়ক  হবে। এ ছাড়া বরাবরের মতোই সময়োপযোগী সব পোশাক তো থাকছে। যেমন- টি-শাটর্, পলো টি-শাট, ক্যাজুয়াল শার্ট, পাঞ্জাবি ইত্যাদি।
 
বিন্দুর শীতের পোশাক
তারুণ্যের পছন্দের ব্র্যান্ড বিন্দু এবারের শীতে তাদের হাউজে এনেছে শীত উপযোগী সব ধরনের পোশাক। বিশেষ আয়োজন হিসেবে রয়েছে হুডি র্টি-শার্ট। প্রতিটি উপলক্ষে নতুন ডিজাইনের পোশাক নিয়ে আসে বিন্দু। বিন্দুর পোশাকের বিশেষত্ব হচ্ছে সব পোশাকই আরামদায়ক কাপড়ের তৈরি। বিন্দুর পোশাকের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন কালারের টি-শার্ট, পলো টি-শার্ট, শার্ট, সোয়েটার ও পাঞ্জাবিসহ অন্যান্য পোশাক। এসব পোশাকে রয়েছে আলাদা আলাদা শীতের ছোঁয়া। 
 
মেঘ ফ্যাশন হাউস
ফ্যাশন হাউজ মেঘ শীত ঋতুকে কেন্দ্র করে তাদের শোরুম সাজিয়েছে নিত্যনতুন পোশাকের আয়োজনে। শীত ঋতুর প্রস্তুতি হিসেবে মেঘে রঙ বেরঙের ফুলহাতা গোলগলা, ভিগলা টি-শার্ট, ফুলহাতার হুডি, ম্যাগি হুডি, হুডি টপসের সব কালেকশন রয়েছে।
 
শীতের উষ্ণতায় সুইসুতা
সুইসুতা এবারের শীত আয়োজনে নতুন ডিজাইন ও স্টাইলের বেশ কিছু পোশাক নিয়ে এসেছে। সুইসুতায় এবারের শীত আয়োজনে রয়েছে ছেলেদের ফুল-স্লভি টি-শার্ট, ভি-নেক, পলো-শার্ট, হুডি এবং হ্যান্ড প্রিন্ট, এম্ব্রয়ডারি, ব্লক প্রিন্ট ও মোটিভের পাঞ্জাবি। এ ছাড়া রয়েছে ছোট শিশুদের জন্য টি-শার্ট। দেশীয় ফেব্রিক্সের তৈরি এসব পোশাকের মূল্য ক্রেতাদের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই। তারুণ্যের প্রতিটি রঙের দেশীয় ফেব্রিক্স ব্যবহার করায় বুটিকস হাউজ সুইসুতার এসব পোশাক সবার কাছে বেশ আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে।
 
ভিসার শীত আয়োজন
ভিসা  ফ্যাশন রুচিশীল ক্রেতাদের জন্য বাজারে নিয়ে এসেছে নান্দনিক ডিজাইনের নানা রকম পোশাক। নজরকাড়া এসব হুডিশার্ট, হুডি টি-শার্ট, ক্যাজুয়াল  শার্ট, টি-শার্ট ও পাঞ্জাবি রয়েছে ক্রেতাদের ক্রয় সীমার মধ্যেই।

*টিনএজফ্যাশন* *ফ্যাশন* *শীতফ্যাশন* *ফ্যাশনহাউস*
ছবি

আমানুল্লাহ সরকার: ফটো পোস্ট করেছে

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★