শ্রীলঙ্কা

শ্রীলঙ্কা নিয়ে কি ভাবছো?

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কা কতবার স্বাগতিক ছিল?

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

*এশিয়াকাপ* *শ্রীলঙ্কা* *স্বাগতিক*

Risingbd.com: দুপুরে আসছে শ্রীলঙ্কা, রাতে ভারত রোববার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলকে বহনকারী বিমান। রাত ৮টা ৪০ মিনিটে আসবে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বাধীন ভারত... বিস্তারিত- http://bit.ly/1Vw2Mbj

*বিমানবন্দর* *ভারত* *শ্রীলঙ্কা* *ক্রিকেট* *খেলাধুলা* *বিনোদন*
ছবি

নিউজ ফ্ল্যাশ: ফটো পোস্ট করেছে

শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্ট বিলুপ্ত ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা

আগাম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্ট বিলুপ্ত ঘোষণা http://tinyurl.com/q29klks শ্রীলঙ্কার আইন অনুযায়ী পার্লামেন্ট বিলুপ্তির ৫২ থেকে ৬৬ দিনের মধ্যে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

*শ্রীলঙ্কা* *পার্লামেন্ট* *নির্বাচন* *আন্তর্জাতিকখবর* *চটখবর*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে সহজ লক্যমাত্রা। কারণ গত দুই বারের ফাইনালিস্ট শ্রীলঙ্কা মাত্র ১৩৩ রানে অল আউট হয়েছে। আজ সিডনিতে বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ইমরান তাহির আর ডুমিনির বোলিং তোপে মাত্র ১৩৩ রানেই লন্ডভন্ড হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৫ রান আসে আগের চার ম্যাচের টানা সেঞ্চুরিয়ান সাঙ্গাকারার ব্যাট থেকে।

শ্রীলঙ্কার দেওয়া সহজ লক্ষ্যমাত্রাকে এখন তাড়া করছে দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকা ৬.৪ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৪০ রান সংগ্রহ করেছে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনার কুশল পেরেরা আর দিলশানের উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে লংকানরা। কুশাল পেরেরা ৩ আর দিলশান ০ রান করে আউট হন। এরপর সাঙ্গাকারাকে সাথে নিয়ে ৬৫ রানের জুটি গড়ে তোলেন লাহিরু থিরিমান্নে। ৪১ রান করা থিরিমান্নে আর ৭ রান করা মাহেলা জয়াবর্ধনে দ্রুত আউট হলে আবার বিপদে পড়ে যায় শ্রীলঙ্কা।

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে সাথে নিয়ে ৩৪ রানের জুটি গড়ে বিপদ কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করেন সাঙ্গাকারা। কিন্তু মাত্র ৫ ওভারের ব্যবধানে আর ৬ উইকেট হারালে ১৩৩ রানের শেষ হয় শ্রীলঙ্কার ইনিংস। দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে ইমরান তাহির ৪ আর ডুমিনি নেন ৩ উইকেট।

*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫* *কোয়ার্টারফাইনাল* *শ্রীলঙ্কা*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আসা যাওয়ার পালা চলছে শ্রীলঙ্কা শিবিরে। মাত্র ৩৪.৩ ওভারেই ৮ উইকেটের পতন ঘটেছে শ্রীলঙ্কার। প্রথমে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে দ.আফ্রিকার বোলারদের সামনে দাড়াতেই পারেনি শ্রীলঙ্কা। এক এক করে ধারাবাহিক ভাবে প্রথম সারির ব্যাটসম্যানরা বিদায় নিয়েছেন এবং পরবর্তীতে মিডল ওর্ডারের নামা ব্যাটসম্যানরাও তাদের পথ ধরেছেন। সাঙ্গাকারা এক প্রান্ত আগ্লে রাখলেও অন্যপ্রান্তে নেমে এসেছে হতাশার ঝড়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৩৬ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান।
*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫* *কোয়ার্টারফাইনাল* *শ্রীলঙ্কা*

আমানুল্লাহ সরকার: [ক্রিকেটরঙ্গ-১০০কইছিলামনা] টস জিতে ব্যাটিং নিয়ে বিপর্যয়ে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। ২৮ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ ১০০/৪ (২৮.২)

*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *শ্রীলঙ্কা* *বিশ্বকাপ২০১৫* *ক্রিকেট*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সেমিফাইনালে উঠার প্রত্যাশা নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা। নক আউট ভিক্তিক এই পর্বে যে দল হেরে যাবে তাদেরকে বিদায় নিতে হবে বিশ্বকাপের মঞ্চ থেকে। বুঝতেই পারছেন এটা শুধু হাড্ডা হাড্ডি লড়াই না এ লড়াই বাঁচা মরার লড়াই।

কোয়ার্টার ফাইনালে আজকের প্রথম খেলায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিং নিয়ে শ্রীলঙ্কা। অস্ট্রেলিয়ার সিডনি মাঠে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৫ ওভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে লংকানদের সংগ্রহ ৫০ রান। লাহিরু  থিরিমান্নে ৩০ আর সাঙ্গাকারা ৫ রান নিয়ে ব্যাট করছে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনার কুশল সিলভা আর দিলশানের উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে লংকানরা। কুশাল পেরেরা ৩ আর দিলশান ০ রান করে আউট হন।

বিশ্বকাপের নক-আউট পর্বে প্রথম জয় তুলে নিয়ে ‘চোকার্স’ অপবাদ ঘোচাতে মরিয়া দক্ষিণ আফ্রিকা। তাদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কার সামনে বিশ্বকাপে টানা চতুর্থবারের মতো সেমিফাইনালে ওঠার হাতছানি। দুই দলের সেরা ব্যাটসম্যান কুমার সাঙ্গাকারা আর এবি ডি ভিলিয়ার্স আছেন দারুণ ফর্মে।

ডেল স্টেইন-মর্নে মরকেলের সঙ্গে লাসিথ মালিঙ্গার বলের লড়াইও আকর্ষণীয় হওয়ার কথা। সব মিলিয়ে বুধবার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনাল জমজমাট হওয়ারই কথা। 

শ্রীলঙ্কা একাদশ:
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, লাহিরু থিরিমান্নে, তিলকারত্নে দিলশান, মাহেলা জয়াবর্ধনে, থারিন্ডু কুশাল, কুমার সাঙ্গাকারা, কুশাল পেরেরা, থিসারা পেরেরা, নুয়ান কুলাসেকারা, দুষ্মন্ত চামিরা, লাসিথ মালিঙ্গা

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ:
হাশিম আমলা, কুইনটন ডি কক, ফাফ ডু প্লেসি, রিলি রুশো, এবি ডি ভিলিয়ার্স, ডেভিড মিলার, জেপি ডুমিনি, ডেল স্টেইন, কাইল অ্যাবট, মর্নে মরকেল, ইমরান তাহির
*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫* *কোয়ার্টারফাইনাল* *শ্রীলঙ্কা*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

সাঙ্গাকারা-দিলশানের জোড়া সেঞ্চুরিতে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৬৩ রান সংগ্রহ করেছে শ্রীলঙ্কা। আউট হওয়ার আগে সাঙ্গাকারা ১২৪ আর দিলশান করেন ১০৪ রান।

এর আগে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ষষ্ঠ ওভারে দলীয় ২১ রানে লাহিরু থিরিমান্নে বিদায় নিলেও দ্বিতীয় উইকেটে ১৯৫ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের পথে এগিয়ে দেন সাঙ্গাকারা-দিলশান। আউট হওয়ার আগে ১০টি চার ও একটি ছক্কায় ৯৯ বলে ১০৪ রান করেন দিলশান আর ৯৫ বলে ১২৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পথে সাঙ্গাকারা মেরেছেন ১৩টি চার ও চারটি ছয়। জয়াবর্ধনে আউট হয়েছেন মাত্র ২ রান করে।

শেষ দিকে অধিনায়ক ম্যাথুস ২১ বলে ৫১ আর কুশল পেরেরা ১৩ বলে ২৪ করলে ৩৬৩ রানের বড় সংগ্রহ পায় শ্রীলঙ্কা। স্কটল্যান্ডের পক্ষে জজ ডেভি নেন ৩ উইকেট।
*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *খেলাধুলা* *ক্রিকেট* *শ্রীলঙ্কা* *বিশ্বকাপ২০১৫*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। হোবার্টে শুরু হয়েছে ম্যাচটি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা ১৫ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৭৩ রান সংগ্রহ করেছে।  এর আগে গ্রুপ ‘এ’থেকে আগেই শেষ চার নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া,শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ।

তবে পরিসংখ্যান নয়,বরং অভিন্ন এক লক্ষ্য নিয়েই মুখোমুখি হতে যাচ্ছে গ্রুপ `এ`-র দুই দল শ্রীলঙ্কা ও স্কটল্যান্ড। লঙ্কানদের লক্ষ্য থাকবে স্কটিশদের বিপক্ষে বড় ব্যবধানের জয় তুলে নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে রান রেটে এগিয়ে থেকে বাংলাদেশকে পেছনে ফেলা।

অন্যদিকে,স্কটিশদের লক্ষ্য লঙ্কানদের বিপক্ষে অঘটন ঘটিয়ে আইসিসি`র পূর্ণ সদস্য লাভের দিকে এগিয়ে যাওয়া।

শ্রীলঙ্কা একাদশ:

লাহিরু থিরিমান্নে,তিলকরত্নে দিলশান,কুমার সাঙ্গাকারা,মাহেলা জয়াবর্ধনে, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস,থিসারা পেরেরা,দুশমন্ত চামারা,সেকুগে প্রসন্ন,লাসিথা মালিঙ্গা,কুশল পেরেরা এবং কুলাসেকারা।

স্কটল্যান্ড একাদশ:
কাইল কোয়েৎজার,হামিশ গার্ডিনার,ম্যাথুউ ম্যাকহান,প্রিসটন মমসেন,রিচি বেরিংটন,ম্যাথুউ ক্রস,জজ ডেভি,অ্যালাসডাইর ইভান্স,মাজিদ হক,ইয়ান ওয়ার্ডলো এবং কালাম ম্যাকলিয়ড।

*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *খেলাধুলা* *ক্রিকেট* *শ্রীলঙ্কা* *বিশ্বকাপ২০১৫*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সহজ জয় পেল শ্রীলঙ্কা। আজকের খেলার মূল নায়ক ছিলেন লাহিরু থিরিমান্নে ও কুমার সাঙ্গাকারার। আজকের খেলায় লাহিরু থিরিমান্নে ও কুমার সাঙ্গাকারা ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি করায় শ্রীলঙ্কা সহজেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায়। ওয়েলিংটনের ওয়েস্টপ্যাক স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের দেওয়া ৩১০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে জয় পায় লংকানরা। 

এর আগে উদ্বোধনী জুটিতেই ১০০ রান যোগ করে দলকে শক্ত ভিত গড়ে দিয়েছিলেন তিলকারত্নে দিলশান ও থিরিমান্নে। ১৯তম ওভারে ৪৪ রান করে দিলশান ফিরে গেলেও দারুণভাবে এগিয়ে যায় আরেক ওপেনার থিরিমান্নে। শেষ পর্যন্ত কুমার সাঙ্গাকারার সাথে ২১২ রানের জুটি করে জয় নিয়েই  মাঠ ছাড়ে লংকান এই ব্যাটসম্যান। লাহিরু থিরিমান্নে ১৩৯ ও কুমার সাঙ্গাকারা ১১৭ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন। ইংল্যান্ডের পক্ষে মঈন আলি নেন ১ উইকেট।   
 
এর আগে জো রুটের ১২১ রানের উপর ভর করে ৩০৯ রান সংগ্রহ করে ইংলান্ড। টস জিতে ব্যাট করতে নামা ইংলান্ডকে উদ্বোধনী জুটিতেই মঈন আলি এবং ইয়ান বেল বড় রান সংগ্রহের ইঙ্গিত দেন। দু’জন মিলে গড়েন ৬২ রানের জুটি। ১৫ রান করে দলীয় ৬২ রানে আউট হন মঈন আলি। এরপর গ্যারি ব্যালান্স দ্রুত আউট হয়ে যান। বেলকে নিয়ে ৩০ রানের জুটি গড়েন রুট। মরগ্যানের সঙ্গে গড়েন ৬০ রানের জুটি। এরপর টেলরকে নিয়ে ৯৮ রানের সবচেয়ে বড় জুটিটা গড়ে ইংল্যান্ডকে বড় স্কোরের দিকে নিয়ে যান রুট।

১২১ রান করে রুট যখন আউট হন তখন ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে ২৬৫ রানের চূড়ায়। এরপর ৩০৯ রানে ইংল্যান্ডকে পৌঁছে দেন জস বাটলার ২৭ বলে অপরাজিত ৩৯ রান করে এবং ক্রিস ওকস ১৮ বলে ৯ রানে অপরাজিত থেকে। 

ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন কুমার সাঙ্গাকারা । 
*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *সাঙ্গাকারা* *বিশ্বকাপ* *শ্রীলঙ্কা* *ইংল্যান্ড*

আমানুল্লাহ সরকার: একটি বেশব্লগ লিখেছে

উপমহাদেশের দ্বীপ রাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা ভ্রমন কিংবা ব্যবসার জন্য খুবই উপযোগী। তবে শ্রীলঙ্কা যেতে বাংলাদেশের নাগরিকদের খুব একটা বেগ পেতে হয় না এমনকি শ্রীলঙ্কা যাওয়ার জন্য ভিসা বাধ্যতামূলক নয়। আপনি ইচ্ছে করলে শ্রীলঙ্কা গিয়েই ৩০ দিনের অন এরাইভাল ভিসা নিতে পারবেন। তবে ঢাকাস্থ শ্রীলঙ্কা দূতাবাসে গিয়ে আগে থেকেই ভিসা সংগ্রহ করে নেয়া ভাল, কারণ শ্রীলঙ্কা গিয়ে ভিসা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা যায় না। এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক শ্রীলঙ্কার ভিসা পাওয়ার উপায় গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:
যথাযথভাবে পূরণ কৃত ভিসা আবেদন ফরম, অন্তত ছয় মাস মেয়াদ আছে এমন বৈধ পাসপোর্ট, পাসপোর্টের প্রথম পাঁচ পৃষ্ঠার ফটোকপি, ফিরতি বিমান টিকেট এবং তার ফটোকপি, শ্রীলঙ্কা থেকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্র বা অফার লেটার এবং সাম্প্রতিক তোলা দুই কপি রঙিন ছবি।

ভিসা ফি:
২,১০০ টাকা এন্ডোর্সমেন্ট: ৩০ দিনের ভ্রমণের জন্য ১০০০ ডলারের এন্ডোর্সমেন্ট এবং দুই সপ্তাহের ভ্রমণের জন্য ৫০০ ডলারের এন্ডোর্সমেন্ট বা এন্ডোর্সমেন্টের রসিদ জমা দিতে হবে। ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করলে পর্যাপ্ত ব্যাল্যান্স থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক থেকে দেয়া সনদ জমা দিতে হবে। তবে ভিসা আবেদনকারীর স্পন্সর থাকলে এন্ডোর্সমেন্ট প্রয়োজন হবে না।

বিজনেস ভিসা :
বিজনেস ভিসার ক্ষেত্রে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রদেয় সব কাগজপত্রই প্রয়োজন হবে এবং সাথে আরও কিছু কাগজপত্র দিতে হবে: সংশ্লিষ্ট স্থানীয় প্রতিষ্ঠান বা চাকুরিদাতার তরফ থেকে লেখা একটি চিঠি জমা দিতে হবে। এই চিঠিতে ভ্রমণের উদ্দেশ্য, ভ্রমণের তারিখসহ বিস্তারিত উল্লেখ থাকতে হবে। শ্রীলঙ্কার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান থেকে পাঠানো আমন্ত্রণ পত্র।

বিনামূল্যের অফিসিয়াল ভিসা (Gratis Visa) :
আন্তর্জাতিক সংস্থা বা সরকারি কর্মকর্তারা বিনামূল্যের ভিসায় শ্রীলঙ্কা ভ্রমণ করতে পারেন। এসব ক্ষেত্রে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্রের সাথে অতিরিক্ত আরও কিছু কাগজপত্র দিতে হবে: কূটনীতিক বা অফিসিয়াল পাসপোর্ট, সরকারি অনুমতিপত্র, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বা সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক সংস্থার পক্ষ থেকে লেখা অনুরোধ পত্র (Note Verbale)।

রেসিডেন্স ভিসা :
শ্রীলঙ্কার যে প্রতিষ্ঠানে কাজ করার জন্য রেসিডেন্স ভিসার জন্য আবেদন করা হচ্ছে সে প্রতিষ্ঠানের তরফ থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ভিসা ইস্যু করার অনুরোধ জানিয়ে শ্রীলঙ্কার ইমিগ্রেশন বিভাগে চিঠি পাঠাতে হবে। এখানে ভিসা আবেদনকারীর নাম, জাতীয়তা, শ্রীলঙ্কায় অবস্থানের মেয়াদ, কাজের ধরন ইত্যাদি উল্লেখ করেতে হবে। এছাড়া মন্ত্রণালয় বা সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সুপারিশও প্রয়োজন হবে। শ্রীলঙ্কায় প্রবেশের পর এক মাসের অনএরাইভাল ভিসা দেয়া হয় এবং পর্যালোচনার পর সেটাকে রেসিডেন্স ভিসায় রূপান্তরিত করা হয়। অন্য কোন ধরনের ভিসাকে রেসিডেন্স ভিসায় রূপান্তরিত করা যায় না।

ভিসা আবেদনপত্র:
শ্রীলঙ্কা দূতাবাসের ওয়েবসাইট থেকে ভিসা আবেদন ফরমটি ডাউনলোড করে নেয়া যায়। আবার শ্রীলঙ্কা দূতাবাসে গিয়েও ভিসা আবেদন ফরম সংগ্রহ করা যাবে।
ডাউনলোড লিংক: http://www.slhcdhaka.org/dl_visa.php

ভিসা ইস্যু :
আবেদনপত্র জমা দেয়ার পরদিন বিকাল ৩:৩০ টা থেকে ৪:৩০টা মধ্যে ভিসা ইস্যু করা হয়।

*শ্রীলঙ্কা* *ভিসা* *ভ্রমন* *ভ্রমনটিপস*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★