সুতি কাপড়

সুতিকাপড় নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

গরমের এই সময়ে মেয়েরা সাধারণত সুতি কাপড় পরতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। তবে এখন লিনেন কাপড়ের চলটাও অনেক বেশি। তাই গরমের উপযোগী বাহারি কামিজ নিয়ে এবারের আয়োজন। সালোয়ার কামিজে পুরনো আমলের কামিজের ধাঁচ ব্যবহার করা হয়েছে। নানান স্টাইলের কামিজ, সঙ্গে চাপা সালোয়ার বা চুড়িদার। কাপড় ব্যবহার করা হয়েছে সুতি, সিল্ক, এন্ডি কটন, এন্ডি সিল্ক, হাফ সিল্ক। ওড়নার সাইজ কামিজের সঙ্গে মিলিয়ে তৈরি করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এবারের গরমেও মেয়েরা পছন্দ করছে লং কামিজ। গেল বছরের মতো এ বছরও থ্রি কোয়ার্টার হাতাই থাকছে তরুণীদের পছন্দের শীর্ষে।

কিনতে ক্লিক করুন। প্রিন্টেড সেমিস্টিচড শার্টন ড্রেস সালোয়ার ও কামিজ -শার্টন কাপড় ওড়না – শিফন হাই কোয়ালিটি ফেব্রিক স্টাইলিশ ডিজাইন ১০০% কালার নিশ্চয়তা

অনেকে আবার গরম থেকে বাঁচতে স্লিভলেসও বেছে নিচ্ছেন। কামিজে কলার দেখা যাচ্ছে না খুব একটা। হাইনেক আর রিনেক গলা চলছে বেশি। সালোয়ারের ছাঁটটা এবার নরমাল হলেও ধরনটা একটু চাপা। উচ্চতা খুব ছোট বা লম্বা কোনোটাই হবে না। নরমাল ছাঁটের পাশাপাশি চুড়িদার ও ধুতি সালোয়ারও চলছে। তবে এ ধরনের সালোয়ারে কুচি কম থাকছে। পোশাকের জৌলুস বাড়াতে ব্যবহার করা হচ্ছে লেইস, চুমকি, পুঁতি, ব্লক, পট্টি, এমব্রয়ডারি, কারচুপি, অ্যাপলিক আর কুচি। সুতির চেয়ে শিফন, মসলিন, হাফ সিল্ক ও পাতলা ভয়েলের ওড়নাই বেছে নিচ্ছেন সবাই।


কিনতে ক্লিক করুন।

ঋতু চক্রে এখন বৈশাখমাস, গ্রীষ্মকাল, গ্রীষ্মের এই গরমে চাই আরামদায়ক পোশাক। এ ব্যাপারে মেয়েদের পছন্দ সুতি কাপড়ের পোশাক—সেটা সালোয়ার-কামিজ, কুর্তি বা ফতুয়া যা-ই হোক না কেন। আর পোশাকটা যদি কামিজ হয় তাহলে এর সঙ্গে মানানসই রং ও ডিজাইনের সালোয়ার ও ওড়না। এসময় সুতির পাশাপাশি এন্ডি কটন, তাঁত, হাফ সিল্ক, সিল্ক, মসলিনটাও চলছে বেশ। তবে রেগুলার ডিজাইনের পোশাকেই সবার আগ্রহ বেশি দেখা যাচ্ছে।

কিনতে ক্লিক করুন। 

প্রচণ্ড গরমের কারণে আরামদায়ক কুর্তা ও ফতুয়ার প্রতিও ঝুঁকছে তরুণীরা। জিন্সের সঙ্গে মানানসই এই পোশাকগুলো হতে পারে বিকেলের জন্য আদর্শ। গরমের সময় কোনোরকম সংকেত ছাড়াই হানা দিতে পারে হঠাত্ বৃষ্টি। তাই এ সময়ের পোশাক ডিজাইনে এ ধরনের বিষয়গুলোও গুরুত্ব পেয়েছে। আরামদায়ক পোশাক হিসেবে সুতি কাপড় এখন অনেক জনপ্রিয়। সুতির সব কামিজে থাকছে ব্লক, কারচুপি, অ্যাপ্লিক, ভরাট অ্যাপ্লিক ও এমব্রয়ডারির কাজ। লম্বা কাটিংয়ের কামিজের জায়গায় এখন চলছে মাঝারি কাটিংয়ের কামিজগুলো। কামিজের নিচে চওড়া সার্টিন কিংবা কুরুশের চওড়া লেজ দিয়ে ডিজাইন করা হয়েছে এবার ট্রেন্ড লং এবং সেমি লং কামিজের। এসব কামিজে ইয়োগ, ভরাট রূপ্লক, কাঁথা স্টিচের কাজের ইয়োক সেট করা, হাতে প্রিন্ট করা, বস্নক, বাটিক করা ডিজাইন রয়েছে। কামিজে পরিচ্ছন্ন সামঞ্জস্যপূর্ণ এমব্রয়ডারি কামিজগুলোকে আরো রুচিশীল করেছে।

কিনতে ক্লিক করুন।

ফ্যাশনের পরিবর্তনের সঙ্গে মিল রেখে প্রতিটি ফ্যাশন হাউসই কামিজের কাটিং প্যাটার্নে পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছে। আর এই পরিবর্তনের ব্যাপকতা চোখে পড়ার মতো। কামিজের কাটিং, কলার, লে-আউট, ছাপা, ব্লক, বুটিক, বাটিক, লেস ও চুমকির ব্যবহারসহ প্রায় সবকিছুতে ইদানীং ভিন্নতা দেখা যাচ্ছে। আজকের তরুণীরা ট্র্যাডিশনাল পোশাকের পাশাপাশি এই নতুন ধারার ফ্যাশনের সঙ্গে সহজেই নিজেকে মানিয়ে নিচ্ছেন। সাধ আর সাধ্যের সমন্বয়েই তৈরি হচ্ছে এই পোশাকগুলো। সালোয়ার কামিজ কেনার জন্য ক্রেতাদের প্রধান আকর্ষণ থাকে দেশের বুটিক হাউসগুলোর দিকে। বুটিক হাউসগুলো সময়, উৎসব ও ঋতুকে প্রাধান্য দিয়ে পোশাক তৈরি করে থাকে বলেই ক্রেতাদের কাছে এর গ্রহণযোগ্যতা অনেক বেশি। তবে ভারতীয় কাপড়ে জরি, সুতা, পুঁতি, চুমকি, কুন্দন ইত্যাদি দিয়ে নকশা করা সালোয়ার কামিজের চাহিদাও রয়েছে বেশ।
 

কিনতে ক্লিক করুন।

তবে দামের ক্ষেত্রে আমরা ক্রেতার ক্রয়ক্ষমতার কথা চিন্তা করে দাম নির্ধারণ করা হয়। রাজধানীর ছোট-বড় সব শপিংমলেই রয়েছে নানা ডিজাইন ও রঙের গরমে উপযোগী সালোয়ার-কামিজের সমাহার। তাই যেকোনো মার্কেটে গেলেই পাবেন আপনার পছন্দের সালোয়ার-কামিজ। তবে আনস্টিচ সালোয়ার-কামিজ ও তৈরি পোশাকের সবচেয়ে বড় মার্কেট হচ্ছে ঢাকার গাউছিয়া, নিউমার্কেট, চাঁদনী চক, ইসলামপুর, বনানী বাজার ও মিরপুর। সব ধরনের কাপড় ও ডিজাইনের পোশাক মিলবে এই জায়গায়।  

কিনতে ক্লিক করুন।

এ বছর গরমে পূজা হওয়ার কারণে সুতি, খাদি, এন্ডি কটন, এন্ডি সিল্ক কাপড়ে হালকা হাতের কাজ বা এমব্রয়ডারি কাজে প্রাধান্য দিয়েছেন বেশি। ডিজাইনের পাশাপাশি ফ্যাশন হাউসগুলো পোশাকে ব্যবহার করেছে উজ্জ্বল রঙ ও উজ্জ্বল রঙের সুতো। সুতি কাপড়ের পরিবর্তে এন্ডি সুতি, এন্ডি সিল্ক কাপড়ের প্রাধান্য বেশি। চুড়িদার পায়জামা ও সালোয়ার দুটোই সমানভাবেই চলছে। এসব বিষয় মাথায় রেখে দেশীয় বুটিক হাউসগুলো থেকে শুরু করে প্রতিটি শপিংমলের মূল আকর্ষণ এখন সালোয়ার কামিজ। সময়ের বিবর্তনে এই পোশাকটিই ভিন্ন ভিন্ন ডিজাইনে আর্বিভাব হলেও পোশাকটির আদি নামের তেমন কোনো পরিবর্তন হয়নি। সালোয়ার কামিজ নামেই এর খ্যাতি বিশ্বজোড়া।
 

কিনতে ক্লিক করুন।

লন থ্রি পিস 
নমনিয়তার প্রতিক নারী। তাই বরাবরই নারীর পছন্দ কোমলতায় ভরা কিন্তু ফ্যাশনেবল পোশাক। হাল সময়ের সবচাইতে জনপ্রিয় কাপড় হলো লন। পিউর সুতি কাপড়ে সাধারণ ডিজাইনে প্রস্তুত অসাধারণ পাকিস্তানি লন থ্রী-পিস। নারীরা এখন কামিজের জন্য লন ছাড়া আর কিছু যেন ভাবতেই পারছেন না।প্রথমে পাকিস্তানি লন দিয়ে বাজার ভরে গিয়েছিলো। কিন্তু পরবর্তিতে ইন্ডিয়ান লনও পাওয়া যাচ্ছে মার্কেটে। পাকিস্তানি ও ইন্ডিয়ান লন এর দাম খানিকটা বেশি হওয়াতে বর্তমানে দেশেই তৈরি হচ্ছে নানান মানের লন এর থ্রি পিস। এই লনের কোনোটা জর্জেট হাত আর ওড়না, আবার কোনোটা পুরোটাই সুতি কাপড়ে পাওয়া যাচ্ছে লন এর থ্রি পিস গুলো। ফ্যাশন হাউস ‘ইয়েলো’ বেক্সিমকো এর লন পাওয়া যাচ্ছে মার্কেটে। সব মিলিয়ে লনের ফ্যাশনটাই থাকবে জমজমাট। ভালো লন থ্রিপি

কিনতে ক্লিক করুন।

পরামর্শ : তৈরি করা সালোয়ার-কামিজ ফিট নাও হতে পারে। তাই পরিচিত কোনো দর্জির কাছ থেকে কেনার পর ফিট করিয়ে নিন। অনেক সময় এসব সালোয়ার-কামিজের মেটেরিয়ালস ভালো হয় না। তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই কেনার আগে সাবধান। কেনার সময় রঙের বিষয়েও খেয়াল রাখুন। কারণ অনেক কাপড়ই এক ধোয়া দিলেই রং নষ্ট হয়ে যায়। কোনগুলো পানি দিয়ে ধুতে পারবেন আর কোনগুলো ড্রাইওয়াশ করতে হবে, কেনার সময় ভালো করে দেখে নিন। পুরো সেট মেলানো আছে কি না, কেনার সময় খেয়াল করুন। ঈদের সময় এমনিতেই অনেক ভিড় থাকে, তাই এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখা জরুরি।

 

কিনতে ক্লিক করুন।

সালোয়ার কামিজে পুরনো আমলের কামিজের ধাঁচ ব্যবহার করা হয়েছে। নানান স্টাইলের কামিজ, সঙ্গে চাপা সালোয়ার বা চুড়িদার। কাপড় ব্যবহার করা হয়েছে সুতি, সিল্ক, এন্ডি কটন, এন্ডি সিল্ক, হাফ সিল্ক। ওড়নার সাইজ কামিজের সঙ্গে মিলিয়ে তৈরি করা হয়েছে। গেল বছরের মতো এ বছরও থ্রি কোয়ার্টার হাতাই থাকছে তরুণীদের পছন্দের শীর্ষে। অনেকে আবার গরম থেকে বাঁচতে স্লিভলেসও বেছে নিচ্ছেন। কামিজে কলার দেখা যাচ্ছে না খুব একটা। হাইনেক আর রিনেক গলা চলছে বেশি। পোশাকের জৌলুস বাড়াতে ব্যবহার করা হচ্ছে লেইস, চুমকি, পুঁতি, ব্লক, পট্টি, এমব্রয়ডারি, কারচুপি, অ্যাপলিক আর কুচি। সুতির চেয়ে শিফন, মসলিন, হাফ সিল্ক ও পাতলা ভয়েলের ওড়নাই বেছে নিচ্ছেন সবাই। 

কিনতে ক্লিক করুন।

যাদের আগ্রহ ও পছন্দ দেশি ফ্যাশন হাউসগুলোর পোশাকের প্রতি, তারা ঘুরে আসতে পারেন আড়ং, অঞ্জন’স, রঙ, স্টুডিও এমদাদ, নগরদোলা, সাদাকালো, অন্যমেলা, কে-ক্র্যাফট, বাংলার মেলা, প্রবর্তনা, বিবিয়ানা, দেশালের শোরুমগুলোয়। আর এখন অনলাইন শপিং মল আজকের ডিল আছেই l প্রায় ২০০০০ মত সালোয়ার-কামিজের কালেকশন আছে আজকের ডিলে l রয়েছে আনস্টিচড, রেডিমেড, অরিজিনাল কালেকশন, রেপ্লিকা ও দেশী বুটিক। আজকের ডিল থেকে কিনতে ক্লিক করুন এখানে। এ ছাড়া বিভিন্ন শপিং মলেও দোকানিরা নতুন ডিজাইনের সালোয়ার-কামিজ বিক্রি করছেন। সেখান থেকে আপনার পছন্দমতো সালোয়ার-কামিজ বেছে নিতে পারেন। অথবা ঢুঁ মারতে পারেন নিউমার্কেট, গাউছিয়ায়। যেখানে পেয়ে যাবেন পছন্দের সালোয়ার-কামিজটি। আর দামটাও থাকবে হাতের নাগালে। 

*সালোয়ারকামিজ* *গরমেরপোশাক* *সুতিকাপড়*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★