স্কটল্যান্ড

স্কটল্যান্ড নিয়ে কি ভাবছো?

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে স্কটিশদের বিপক্ষে সহজ জয় পেল অস্ট্রেলিয়া। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে স্কটল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। আগে ব্যাট করে অজিদের বোলিং তোপে পড়ে মাত্র ২৫.৪ ওভার খেলে ১৩০ রানেই গুটিয়ে যায় স্কটল্যান্ড। 

১৩১ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া।  কয়েকবার বৃষ্টির বাগড়া শেষে ১৫.২ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায়।  ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৩০ রানে কোলম্যানের বলে টেলরের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন অ্যারোন ফিঞ্চ (২০)।  ৮৮ রানের মাথায় ওয়াটসনকে (২৪) ফেরান ডেবি।  দলীয় ৯২ রানে অধিনায়ক ক্লার্ককে ফেরান ওয়ার্ডল। এরপর বৃষ্টি শেষে মাঠে নামেন জেমস ফকনার ও ডেভিড ওয়ার্নার। এই জুটি অবিচ্ছিন্ন থেকে ৪১ রান সংগ্রহ করে। আর তাতেই জয়ের নাগাল পেয়ে যায় অসিরা। ওয়ার্নার ২১ ও ফকনার ১৬ রানে অপরাজিত থাকেন।
*বিশ্বকাপক্রিকেট* *ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫* *অস্ট্রেলিয়া* *স্কটল্যান্ড*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

বিশ্বকাপে পরপর দুই ম্যাচে হারের পর অনেকটাই দিশেহারা হয়ে পড়া ইংল্যান্ড দল অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফিরে পেল। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বিশ্বকাপের ১৪তম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে সহজ জয় পেল ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ডের করা ৩০৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪২.২ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে স্কটল্যান্ড সংগ্রহ করে ১৮৪ রান ।

এর আগে খেলার প্রথম ইনিংসে নির্ধারিত ৫০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ৩০৩ রান সংগ্রহ করেন ইংল্যান্ড। ওপেনার মঈন আলি খেলেছেন ১২৮ রানের দারুন ইনিংস। ১০৭ বল খেলে ১২টি চার ও পাঁচটি ছয়ে ১২৮ রান করেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। সে তুলনায় তাঁর সঙ্গী ইয়ান বেল ছিলেন অনেকটাই ধীরগতির। ৮৫ বল খেলে দুটি চারে ৫৪ রান করেন বেল। তাঁদের ১৭২ রানের উদ্বোধনী জুটি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ।

ইনিংসের ৩১তম ওভারের প্রথম বলে বেরিংটনের বলে ১৭২ রানে বেল আউট হয়ে গেলেও ক্রিজে রয়ে যান আলি। তবে বেশিক্ষণ নয়, চার ওভার পরেই মজিদ হকের শিকার হন মঈন। স্কোর তখন ২ উইকেটে ২০১ রান। এর পর ধুঁকতে থাকে ইংলিশরা। হঠাৎ করেই যেন ছন্দপতন। ৩৬তম ওভারের প্রথম বলেই ফিরে যান গ্যারি ব্যালান্স। ১৮ বল খেলে দুই অঙ্কে পৌঁছান তিনি। ১০ রানে ব্যালান্স যখন আউট হন, স্কোরবোর্ডে রান তখন ২০৩। ঠিক ছয় বল পরও রানসংখ্যা অপরিবর্তিত, তবে ক্রিজের ব্যাটসম্যানদ্বয়ের একজন তাঁর স্থান পরিবর্তন করেছেন। ১ রান করে ড্রেসিংরুমে ফিরে গেছেন জো রুট।

এর পর জুটি গড়ার চেষ্টা করেন এউইন মরগান ও জেমস টেলর। ১৭ রান (২৬ বলে) করে আউট হন টেলর। মরগান করেন ৪৬ রান। জস বাটলার খেলেন ১৪ বলে ২৪ রানের ঝড়ো ইনিংস। ইংল্যান্ডের স্কোর দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ৩০৩।

জবাবে ইংল্যান্ডের দেয়া বিশাল টার্গেট তাড়া করতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় স্কটল্যান্ড। স্কটিশদের হয়ে উদ্বোধনী ব্যাট করতে নামা কালাম ম্যাকলেওড মাত্র চার রান করেই জেমস অ্যান্ডারসনের বলে আউট হন। খেলার ১৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় দলটি। অবশেষে ৪২.২ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১৮৪ রান করতে সক্ষম হয় স্কটল্যান্ড।

আজকের খেলায় ম্যাচ সেরা হয়েছেন মঈন আলী।

*ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপক্রিকেট* *বিশ্বকাপ২০১৫* *ইংল্যান্ড* *স্কটল্যান্ড*

খেলার খবর: একটি বেশব্লগ লিখেছে

টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিল স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। বিশ্বকাপের শুরু থেকেই ফেভারিট তকমা নিয়ে খেলতে নামা নিউজিল্যান্ডকে বেশ ভয় পাইয়ে দিয়েছিল পুচকে স্কটল্যান্ড। স্কটল্যান্ডের দেয়া ১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেট খুইয়ে ১৪৬ রান করে ম্যাচ জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড। টস জিতে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম এর ফিল্ডিং নেয়ার সিদ্ধান্ত যথাযথ ভাবেই প্রমাণ করেছে কিউই বোলাররা। 


ড্যানিয়েল ভেট্টোরির ঘুর্নি যাদুতে এবং কোরি এন্ডারসন এর নিয়ন্ত্রিত বোলিং এ ৩৬.২ ওভারেই ১৪২ রানেই অল আউট হয়ে যায় স্কটল্যান্ড । ভেট্টোরি এবং কোরি ৩টি করে উইকেট নেন , বোল্ট নেন ২ উইকেট । জবাবে ব্যাট করতে নেমে স্কটিশ পেসার ডেভি এবং ওয়ার্ডলয়ের বোলিং তোপে ৬ উইকেট হারিয়ে বসে নিউজিল্যান্ড। কিন্তু কেন উইলিয়ামসন এর ৩৮ রান কিউইদের জয়ের মুখ দেখায়। দুই ম্যাচে দুই জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে সবার শীর্ষে নিউজিল্যান্ড। 
*নিউজিল্যান্ড* *স্কটল্যান্ড* *ক্রিকেটবিশ্বকাপ* *বিশ্বকাপ২০১৫*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★