স্পিকার

স্পিকার নিয়ে কি ভাবছো?

খুশি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

মোবাইলে গান শোনার জন্য যে স্পিকার ব্যবহার করা হয়, সে স্পিকারের সাউন্ডে আপনি যদি সন্তুষ্ট না হন তবে আপনার দরকার হবে আলাদা স্পিকার। তার জন্যে পয়সা খরচ করে আবার আলাদা স্পিকার কেনা! স্পিকার না কিনেও ঘরের অপ্রয়োজনীয় জিনিস দিয়েও সহজে বানিয়ে নিতে পারেন মোবাইল স্পিকার। এতে খরচ হবে না এক টাকাও। লাগবে না কোন বিদ্যুৎ বা ইউএসবি কানেকশান। এই স্পিকার বানাতে গেলে যা যা লাগবে।

প্রয়োজনীয় উপকরণ

১. টয়লেট টিস্যুর রোল ৩টি
২. প্লাস্টিক কোল্ডড্রিঙ্কস গ্লাস
৩. কাচি

প্রথমে টয়লেট টিস্যু ব্যবহারের পর যে রোল থাকে সেই ধরনের তিনটি রোলকে জোড়া লাগাতে হবে। বড় সাইজের টিস্যু হলে একটি রোলই যথেষ্ট। এবার প্লাস্টিকের গ্লাস গুলোকে টিস্যু রোলের সাইজ অনুযায়ী কেটে নিয়ে টিস্যু রোলের মাঝখানে আপনার মোবাইলের সাইজ অনুযায়ী কেটে নিন। এমনভাবে কাটতে হবে যেন মোবাইলটি রোলের ভেতরে প্রবেশ করে।

রোলের দুই প্রান্তে গ্লাস গুলোকে ভরে নিয়ে। মাঝখানের কাটা অংশে মোবাইলটি প্রবেশ করিয়ে দিতে হবে। এবার দেখুন আপনার মোবাইলের শব্দ বেড়ে গেছে দ্বিগুণ।

প্লাস্টিক গ্লাসের জায়গায় সিরামিক বা মেটালের কোন গ্লাস ব্যবহার করা হলে সাউন্ড আরো বেশি হবে।

কিভাবে তৈরী করবেন ভিডিও টি দেখে নিন

*স্পিকার* *মোবাইলস্পিকার*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

প্রযুক্তির কল্যাণে এখন আর তারের ঝামেলা কেউ করতে চায় না। তাই তার বিহীন প্রযুক্তি পন্যগুলির জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে মাউস, কি বোর্ড, স্পিকারের ব্যবহার বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আজকের আয়োজন সেরা কিছু ব্লুটুথ স্পিকার নিয়ে। ব্লুটুথ স্পিকারগুলো আপনার মোবাইল ফোন বা অন্য কোনো ডিভাইস থেকে তারহীন প্রযুক্তিতে গান বাজাতে পারে।

HP ROAR BT ব্লুটুথ স্পিকার:

কিনতে ক্লিক করুন
প্রযুক্তি পন্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এইচপির ROAR BT ব্লুটুথ স্পিকারটি বর্তমানে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এ স্পিকারটি দেখতে অত্যন্ত চমৎকার। একটি অ্যাপের সাহায্যে এ স্পিকারটির ফিচারগুলো স্মার্টফোনের মাধ্যমেই নিয়ন্ত্রণ করা যায়। প্রিমিয়াম কোয়ালিটির সাউন্ড সিস্টেমের এই স্পিকারটি ৮ ঘন্টা ব্যাক আপ দেবে।

BOSE SOUNDLINK মিনি ব্লুটুথ স্পিকার:

কিনতে ক্লিক করুন
নিখুঁত সাউন্ড সিস্টেমের জন্য বোসের কোনো তুলনা হয় না। বোস নির্মিত এ ব্লুটুথ স্পিকার তাই ব্যবহারকারীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। গান শোনার জন্য যদি বাইরে যেতে চান তাহলে বোস নির্মিত এ ব্লুটুথ স্পিকারটি সঙ্গে নিতে পারেন। এটি স্পিকারের মানের দিক দিয়ে অত্যন্ত উন্নত। পাশাপাশি এর ব্যবহারও সুবিধাজনক।

সনি এসআরএস এক্স২:

কিনতে ক্লিক করুন
জাপানি প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা সনি ভালো সাউন্ড সিস্টেম নির্মাতা হিসেবে পরিচিত। তাদের এ ছোট স্পিকারটিতে রয়েছে হাতের তালুতে রেখেই উন্নত মানের গান শোনার ব্যবস্থা। ১০ ওয়াট অডিও ক্ষমতার এ স্পিকারটির ব্যবহারও সুবিধাজনক। এই স্পিকারটির চার্জ ব্যাকআপ খুব ভাল। এটির সাথে থাকবে চার্জিং ক্যাবল ও সাউন্ড ক্যাবল।

টিপি-লিং এইচএ১০০ ব্লু-টুথ স্পিকার:

কিনতে ক্লিক করুন
স্পিকারটি দেখতে যেমন সুন্দর তেমন কাজেও ভালো। এটি শুধু স্পিকার হিসেবে নয়, ফ্যাশন সামগ্রী হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে। মূলত আকর্ষণীয় ডিজাইনের জন্যই এটি মেয়েদের হ্যান্ডব্যাগের সঙ্গে মানিয়ে যায়। ব্লুটুথ অথবা ৩.৫ মি মি জ্যাকের মাধ্যমে এই ব্লুটুথ স্পিকারটি কানেক্ট করা যাবে। প্রিমিয়াম কোয়ালিটির সাউন্ড সিস্টেমের এই স্পিকারটি ৬ ঘন্টার অধিক সময় ব্যাক আপ দেবে।

BEATS MONSTER ব্লুটুথ স্পিকার:

কিনতে ক্লিক করুন
আপনার যদি বাজেটে সীমাবদ্ধতা থাকে কিন্তু মানসম্মত জিনিস চান তাহলে এটি কিনতে পারেন। সাধারণ ডিজাইনের এ স্পিকারটিতে মানসম্মত সাউন্ড পাওয়া যায়। ১০ মিটার রেঞ্জের এই স্পিকারটি একটি কক্ষের ভেতর বাজানোর জন্য যথেষ্ট। এতে সহজে ব্যবহারযোগ্য প্লাস ও মাইনাস বাটন রয়েছে। এগুলোর মাধ্যমে ভলিউম নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এটির শব্দের মানও উন্নতমানের।
অনলাইনে স্পিকারগুলো কিনতে এখানে ক্লিক করুন

*স্পিকার* *প্রযুক্তিপন্য* *স্মার্টশপিং*

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কিনতে ক্লিক করুনধুমধাম গান শুনতে ভাল লাগেনা এমন বেরসিক মানুষ খুঁজে পাওয়া এখন কষ্টসাধ্য ব্যাপার! কারণ মন মাতানো গান শুনানোর প্রযুক্তি পন্য মোবাইল,এমপিথ্রি প্লেয়ার আর আইপড এখন অনেকেরই পকেটে। একা একা গান শুনতেই হয়তো বেশি ভালো লাগে আপনার। তবে কখনো হয়তো মন চায় প্রিয় গানটি বন্ধুদেরও শোনাতে। আবার ল্যাপটপেও অনেকে আরও একটু জোরে শব্দ শুনতে চান। তাঁরা কিনে নিতে পারেন ছোট বড় বাহারি স্পিকার

 

ইউএসবি, ব্লুট্রুথ ও মাল্ডিমিডিয়া স্পিকারঃ

 

কিনতে ক্লিক করুন  
বর্তমান বাজারে হরেক রকমের ইউএসবি, ব্লুট্রুথ ও মাল্ডিমিডিয়া স্পিকার পাওয়া যায়। এগুলোর কোনটা তারসহ বা তার ছাড়া দুভাবেই ব্যবহার করতে পারেন । দেখতেও বাহারি এসব স্পিকার। কোনোটা আপেল আকারের, কোনোটা আবার নানা পানীয়র ক্যানের মতো। কাজও চলবে, দেখতেও দারুণ। গান শোনার জন্য বহনযোগ্য স্পিকারগুলোতে বেশ কিছু সুবিধাও রয়েছে। তাছাড়াও বাড়িতে বা ছোটখাট পার্টিতে গান শোনার জন্য একটু বড় মাল্টিমিডিয়া স্পিকার নিয়ে নিতে পারেন। বর্তমান বাজারের বেশিরভাগ স্পিকারগুলোতে রয়েছে এফএম রেডিও শোনার সুবিধাও আর আছে মেমোরি কার্ড ব্যবহারের সুযোগ। তাছাড়াও রিচার্জেবল ব্যাটারি সুবিধা তো অনেক স্পিকারেরই থাকছে।

দরদামঃ

কিনতে ক্লিক করুন   

বিভিন্ন কোমল পানীয় ক্যানের আকৃতির বহনযোগ্য স্পিকারের দাম ৪৫০ টাকা। বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি আকৃতির পোর্টেবল স্পিকারের দাম ৪০০ টাকা। আপেল আকৃতির পাবেন ৫০০ টাকায়। গাড়ি আকৃতির স্পিকার ৬০০ টাকা। পাওয়া যাচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবলের মাসকট ফুলেকো দ্য আরমাডিলো আকারের স্পিকারও, দাম ৯৫০ টাকা।
এ ছাড়া বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ইউএসবি মিনি স্পিকারের দাম ৬৫০ থেকে দুই হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে। ক্রিয়েটিভ স্পিকারের দাম ৬৫০ থেকে এক হাজার টাকা। মাইক্রোল্যাব ব্র্যান্ডের স্পিকার ৬০০ থেকে এক হাজার ২০০ টাকা। হেভিট মিনি স্পিকার ৬০০ থেকে এক হাজার ৭০০ টাকা। জিনিয়াস স্পিকার ৬০০ থেকে দুই হাজার ৩০০ টাকা। এছাড়াও বড় মানের মাল্টিমিডিয়া স্পিকারের দাম ১৫’শ থেকে ১০ হাজার টাকা।

ওয়ারেন্টিঃ
ব্র্যান্ডের স্পিকারগুলো প্রতিটি এক বছরের ওয়ারেন্টি দেওয়া হয়। নন-ব্র্যান্ডের যেমন বহনযোগ্য ক্যান, ট্রফি, পুতুল এই ধরনের স্পিকারগুলো সাধারণত ওয়ারেন্টি থাকে না।

কোথায় পাবেন?

কিনতে ক্লিক করুন   
এই স্পিকার পাবেন ঢাকার বিসিএস কম্পিউটার সিটি, বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের প্রথম তলা ও ষষ্ঠ তলায়, প্রগতি সরণি যমুনা ফিউচার পার্কের চতুর্থ তলা, ইস্টার্ন প্লাজার পঞ্চম তলা, এলিফ্যান্ট রোড মাল্টিপ্ল্যান সেন্টারের চতুর্থ থেকে দশম তলার দোকানগুলোতে। এছাড়াও যারা ঘরে বসে হাজারও স্পিকারের মধ্যে থেকে আপনার পছন্দেরটি কিনতে চান তারা ঢুঁ মারতে পারেন এই লিংকে

*স্পিকার* *মাল্টিমিডিয়াস্পিকার* *স্মার্টশপিং*
শপিং

তৌফিক পিয়াস: কেনাকাটা সংক্রান্ত একটি তথ্য দিচ্ছে

২২৫০ টাকা
http://www.ajkerdeal.com/Product/17513/beats-fb-portable-bluetooth-speaker

হাই কোয়ালিটি সাউন্ডের সাথে থাকুন সব সময়..

*স্পিকার*
১২৮বার দেখা হয়েছে

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★