স্বার্থপর

স্বার্থপর নিয়ে কি ভাবছো?

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 মায়েরা কি কখনো স্বার্থপর হতে পারে?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*মা* *স্বার্থপর*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 মানুষ ঠিক কি কি কারণে স্বার্থপর হয়?

উত্তর দাও (১৪ টি উত্তর আছে )

.
*স্বার্থপর* *জীবনেরভাবনা*

মুখোশ: ♥ আমি চেয়েছিলাম এমন একটা ঘর যে ঘরে সবাই হবে আমার আপন নয়তো স্বার্থপর

*স্বার্থপর* *ঘর* *মুখোশ*

মেঘবালক: [পিরিতি-কলিজাখানখান] অবহেলা আর স্বার্থপরতা সম্পর্কের ক্ষেত্রে সায়ানাইড এর চেয়েও মারাত্বক ক্ষতিকর(রাগী)

*অবহেলা* *স্বার্থপর*

হাফিজ উল্লাহ: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

স্বার্থপর ছাড়া কোন মানুষ হয়না, পৃথিবীতে প্রতিটা মানুষ কোন না কোন দিক থেকে স্বার্থপর।
*স্বার্থপর*

অনুপ: [বাঘমামা-হেব্বিফুর্তি]যার জন্য দিন রাত টেনশন করে মরি (মনখারাপ) , আজ খবর পেলাম সে নাকি আমাদের ছেড়ে নতুন কারও সাথে অনেক ভালো আছে !!!(অবাক) হায়রে মানুষ!!(টাইমনাই) ব্যপক বিনোদন !!! (খিকখিক) । । । দোস্তো তুই ভালো থাকিস !!! (খুকখুকহাসি)

*বিচিত্রমানুষ* *স্বার্থপর* *বিনোদন* *ভুল*

কাঁচা মরিচ: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 মানুষ এতো স্বার্থপর কেন?

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

*স্বার্থপর*

ফ্রেশ ফ্রজেন: একটি বেশব্লগ লিখেছে

হুট করে স্বার্থপরের সঙ্গে যে কারো দেখা হয়ে যেতে পারে। তখন দেখা যায়, সে আলোচনার সব বিষয় নিজের দিকে ফিরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। সে সবসময় নিজের মহত্ত্ব প্রকাশে গর্ব করে। পরিবারের সদস্যরা আর দশজন থেকে তাকে সব ক্ষেত্রে আলাদা করে দেখুক, এটাই সে চায়। কিন্তু মাঝে মধ্যে তার বৈশিষ্ট্য আরো সূক্ষ্মভাবে দেখা যেতে পারে। সবসময় আবার স্বার্থপরদের চেনা মুশকিল। কারণ অনেক সময় তাদের বৈশিষ্ট্যগুলো স্পষ্টভাবে প্রকাশ পায় না।

জর্জিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ‪#‎সাইকোলজি‬ বিভাগের প্রধান ও স্বার্থপরতা বিষয়ক গবেষক ডব্লিউ কেনেথ কম্পবেল বলেন, যারা স্বার্থপরতামূলক বৈশিষ্ট্য ধারণ করে, তাদের মধ্যে চলমান একটা স্বভাবসুলভ আচরণ লক্ষ করা যায়। তবে স্বার্থপরতার মাত্রা হিসেবে অধিকাংশ স্বার্থপর মাঝামাঝি পর্যায়ের। যদিও কেউ কেউ চরম পর্যায়ের স্বার্থপরতায় লিপ্ত থাকে।

‪‎প্রথম_সাক্ষাতেই_পছন্দ_হবে‬: এ ধরনের
 স্বার্থপরদের প্রথম প্রকাশ ভঙ্গিতেই নিজেকে বড় করে উপস্থাপনের একটা প্রবণতা দেখা যায়। আকর্ষণীয়
 ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করে থাকে। এরা চাকরির সাক্ষাত্কারে নেতিবাচক ফল করে। প্রথম দেখাতেই এদের ভালো লাগতে।পারে যে কারোর। কিন্তু দীর্ঘ সময় পর
 এদের থেকে অনেক নেতিবাচক বৈশিষ্ট্য বেরিয়ে আসে। ডব্লিউ।কম্পবেল বলেন, ‘তখন হঠাৎ করেই তার প্রতি অবাক হয়ে যেতে হয় এবং আক্ষেপ করে বিস্ময়ের সঙ্গে বলতে হয় আমি যাকে এত ভালো
 জেনেছিলাম, সে এত নেতিবাচক!’

‪‎লাজুক_এবং_শান্ত_প্রকৃতির_স্বার্থপর‬: আগ বাড়িয়ে এরা নিজেকে বড় করে দেখাতে আসে না এবং বেশি কথা বলে না। তবে যখন তাদের সঙ্গে কেউ কথা বলতে আসে এবং কম কথার মাঝে যে দু-চারটে কথাই তারা বলে, সে কথাগুলোর মাধ্যমে নিজেকে বড় করে
 জাহির করতে চেষ্টার কমতি থাকে না। ইয়োয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির সাইকোলজি ডিপার্টমেন্টের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. জেলাটন।ক্রাইজেন বলেন, ‘একপ্রকার স্বার্থপর নিজেকে প্রবলভাবে কর্তৃত্বপূর্ণ
 হিসেবে উপস্থাপন করে। আরেক প্রকার লাজুক, যারা নিজেকে সহজে স্পষ্ট করে উপস্থাপন করে না এবং সংকীর্ণ প্রকৃতির হয়। কিন্তু তারা দৃঢ়ভাবে মনে।করে তাদের দিন একদিন আসবে।’

‪‎নিজেকে_নেতা_হিসেবে_জাহির_করতে_তত্পর‬: সফল না হলেও তারা নিজেকে সর্বদা নেতৃত্বের পর্যায়ে রাখতে তত্পরতা দেখায়। সান ডিয়াগো স্টেট ইউনিভার্সিটির সাইকোলজি ডিপার্টমেন্টের প্রফেসর
 ও স্বার্থপরতা বিষয়ক গবেষণায় কম্পবেলের সহযোগী ড. জিয়ন টুয়েনজ বলেন, এরা সবসময় নিজেকে নেতা হিসেবে দেখতে চায়। কিন্তু ভালোভাবে নেতৃত্ব দিতে পারছে কি না, তা দেখে না। তারা নিতান্তই নেতা হতে চায়, যে করে হোক না কেন।

‪‎তাক_লাগানোর_জন্য_গুরুত্বপূর্ণ_ব্যক্তির_নাম_উল্লেখ_করে‬: কম্পবেল বলেন, এ প্রকারের স্বার্থপর নিজের অবস্থান আরো বড় করে দেখানোর জন্য বড় বড় গুরুত্বপূর্ণ মানুষের নাম উল্লেখ করে এবং তাদের বিখ্যাত উক্তি, সূত্র, ঘটনা প্রভৃতি তুলে ধরে। আলোচনার মধ্যে।নিজের অবস্থানকে আরো সুদৃঢ় করতে তারা এ কৌশল নেয়। তাদের সঙ্গে নিজের যোগাযোগ বা খাতিরের সত্য-মিথ্যা গল্পও হাজির করে।

‪‎ভালো_জিনিস_পছন্দ_করে‬: সব স্বার্থপরই
 নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রকাশে তত্পর থাকে। তবে কৌশল ভিন্ন। ঠিক এভাবেই একপ্রকার স্বার্থপর নিজের
 শ্রেষ্ঠত্বকে জাহির করতে তার ভালো ভালো পছন্দের জিনিসের নাম উল্লেখ করে। টুইনজ বলেন, সে বলতে পারে বিখ্যাত ব্র্যান্ডের গাড়ি ফেরারি তার পছন্দ। অথবা খেতে ভালোবাসে দামি কোনো রেস্টুরেন্টে।

‪‎সব_স্থানে_তাদের_উপস্থিতি‬: গবেষক টুইনজ বলেন, এই প্রকারের স্বার্থপরেরা সব স্থানে নিজের উপস্থিতি জানান দেয়ার একটা প্রবল তত্পরতা দেখায়। তারা নিজেকে অন্যের কাছে আকর্ষণ করতে শারীরিকভাবেও তত্পরতা দেখায়। যেমন: তারা বিভিন্ন স্টাইলের চুল, নখ প্রভৃতি দিয়ে অন্যের আকর্ষণের কারণ হতে চায়।

‪‎ফেসবুকে_অনেক_বন্ধু_এবং_কোনো_খারাপ_ছবি_নেই‬: গবেষক ড. কম্পবেল বলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একপ্রকারের স্বার্থপর
 নিজেকে সভ্য এবং মহৎ হিসেবে উপস্থাপন করে। তারা আলোচনার সময় বলে, আমার এত এত বন্ধু ফেসবুকে বা আমার প্রোফাইলে কোনো খারাপ ছবি নেই। এসব বলে সে নিজেকে।আলোচনার ক্ষেত্রে গর্ব করে।

‪‎নিজের_সমালোচনা_সহ্য_করেনা‬: এ প্রকারের স্বার্থপর তার সমালোচনা কোনোভাবেই মেনে নেয় না। গবেষক কম্পবেল বলেন, তার সমালোচনা কেউ করলে সে সহ্য করতে পারে না। এমন কি সে নিজের সমালোচনামূলক কোনো নেতিবাচক কিছু স্বীকারও করে না কোনোভাবেই।

‪‎ব্যর্থতার_দিক_এড়িয়ে_যাবে‬: এ প্রকারের স্বার্থপরের জীবনে অবশ্যই অনেক ব্যর্থতার দিক থাকবে কিন্তু সে তার ব্যর্থতার দিকগুলো এড়িয়ে যাবে। এমনকি যখন শুনবে তার কাছের বন্ধু বা সহপাঠী বিপদে বা খারাপ
 পরিস্থিতিতে আছে, তখন সে তাদের।এড়িয়ে যাবে। কম্পবেল বলেন, সম্পর্কের ক্ষেত্রে এরা অন্যকে সন্দেহের চোখে দেখে। সম্পর্ক নষ্ট করতে তাদের এ রকম ব্যবহারে অন্যজন আর কখনো তাকে বিশ্বাস করে না।

‪‎প্রতারণাপূর্ণ_মনোভাব‬: এ ধরনের স্বার্থপরেরা অন্যকে সব সময় সন্দেহের চোখে দেখে এবং বিশ্বাস করতে চায় না। এদেরকে অনেক আকর্ষণীয় মনে হতে পারে বাহ্যিকভাবে কিন্তু এরা প্রতারণামূলক আচরণ করে থাকে। গবেষক।কম্পবেল বলেন, এদেরকে কেন প্রতারক বলা হবে, সেটা বুঝতে হলে প্রশ্ন করুন কেন এরা সবাইকে অবিশ্বাস করে?

‪‎নিজেকে_কখনই_স্বার্থপর_হিসেবে_মনে_করে_না‬: এই প্রকারের স্বার্থপরেরা কখনই নিজেকে স্বার্থপর হিসেবে মনে করে না। এমনকি সে নিজেকে কখনই স্বার্থপর হিসেবে বুঝতেও চায় না বা চেষ্টাও করে না। গবেষক ক্রাইজেন বলেন, সহপাঠীরা তার মধ্যে স্বার্থপরতার প্রমাণ পেয়ে ছেড়ে চলে গেলেও সে নিজেকে একজন স্বার্থপর হিসেবে স্বীকার করে না। বরং সে বলে আমি তো ঠিক আছি, আমার সব কিছুই তো ভালো কিন্তু কেন সবাই আমাকে ছেড়ে চলে যাচ্ছে?এ ধরনের স্বার্থপরকে খুব আত্মবিশ্বাসী মনেহয়। 

বি :দ্র   অনেক ক্ষেত্রে এর বেতিক্রম হতে পারে 

*স্বার্থপর*

♦ মমিতা ♦: মানুষ কেন যে এমন হয়, সবাই সবাইকে নিয়ে ব্যস্ত। সবাই আপন স্বার্থের জন্যে সব করতে পারে হোক না সে যেকোন অপরাধ মূলক কাজ

*স্বার্থপর*

★ছায়াবতী★: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

(ঘৃণা)
এসিড নীল লিটমাসকে লাল করে। ক্ষারক লাল লিটমাসকে নীল করে। কিন্তু মানুষ এর চেয়েও দ্রুত তার রঙ পরিবর্তন করে... দুনিয়াতে selfish লোকের অভাব নাই..... ‪সবাই‬ একরকম হয়না যদিও...
*স্বার্থপর*

ঝিঁঝিপোকা: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৪/৫
মানুষ মাত্রই স্বার্থপর জাতি। স্বীকার করি বা না করি আমরা সবাই কমবেশি স্বার্থপর!
*মানুষ* *স্বার্থপর*

ঝিঁঝিপোকা: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৪/৫
স্বার্থত্যাগ একটা অনেক বড় ক্ষমতা, যা সৃষ্টিকর্তা একমাত্র মানুষকেই দিয়েছেন। কিন্তু মানুষ এই ক্ষমতা ব্যবহার করতে ভুলে গেছে।
*স্বার্থত্যাগ* *স্বার্থপর* *মানুষ*

হাফিজ উল্লাহ: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৫/৫
পৃথিবীতে "নিজে ভালো" থাকতে চাইলে "স্বার্থপর" হয়ে যাও ...!
আর "মানুষের কাছে ভালো হয়ে" থাকতে চাইলে "নিঃস্বার্থ" হও !
*স্বার্থপর* *নিঃস্বার্থ*

শুভাশীষ: একটি বেশব্লগ লিখেছে

"তোমাকে সবাই বুঝবে না ...হাসিমুখে তোমাকে দেখে সবাই ধরে নেবে, তুমি সুখে আছো ... মেসেজে ছোট্ট করে যখন তুমি লিখোঃ "ভালো আছি" , সবাই ভেবে নিবে তুমি সত্যি বলছো ... তোমার অভিনয় সবাই ধরতে পারবে না !!

চোখের দিকে সবাই দুই সেকেন্ড বেশি সময় নিয়ে মনোযোগ দিয়ে তাকিয়ে থাকবে না ... চোখের নিচের কালি দেখে সবাই প্রশ্ন করবে না, "রাতে কেন ঘুম হয় নি ??" ... এলোমেলো চুল দেখে সবাই ধরে নেবে না, তুমি ভালো নেই ... অতকিছু খেয়াল করার সময় সবার নেই ... অত কিছু সবাই খেয়াল করে না !!

সবাই ব্যস্ত ... সবাই স্বার্থপর ... তোমার সাথে কাজের কথা বলে চলে যাবে ... হয়তো জিজ্ঞেস করবে "কেমন আছো ??" ... ঐ "কেমন আছো" টায় "ভদ্রতা" মিশে থাকে, "আবেগ" এর ছিটেফোঁটাও থাকে না !!
*সম্পর্ক* *আবেগ* *স্বার্থপর*

সৌ র ভী: একটি বেশব্লগ লিখেছে

কখনো কি মনে হয় তুমি স্বার্থহীনভাবে করছো কাজ 
অথচ তোমার চারপাশ স্বার্থের অন্বেষণে দিবা নিশি হারাচ্ছে লাজ 
তোমারি ক্ষয় ক্ষতিতে নির্লিপ্ত তারা আজ 

তুমি তাদের বাসছ ঠিকই মন থেকে ভালো 
কিন্তু না তাদের মন বরাবরই অমাবস্যার রাতের মতই কালো..
তাদের তুমি সন্ধান দিয়েছ পূর্নিমার চাদের আলো.. 

ওরা না শুষতে জানে.. জানে শুধু কষ্ট দিতে 
তোমার দুখে হাসতে জানে, আর জানে ব্যঙ্গ করতে 
ওরা স্বার্থপর..ওদের স্বার্থের একটুও ব্যঘাত ঘটলেই ওরা হয়ে যায় হিংস্র 

ওদের এককথায় কি বলা যায়?
আসলে ওরা যারপরনাই সুবিধা বাদী মানুষ 
*রাগ* *অনুভূতি* *স্বার্থপর*

কেয়া _নাহিদা: একটি বেশটুন পোস্ট করেছে

৪/৫
আমি, তুমি, আপনি, সে কেউ এই স্বার্থপরতা থেকে বের হতে পারে না। পারলে পৃথিবীটা বদলে যেতো। সত্যিই বদলে যেতো। যে মানুষটা দু’ মিনিট পরেই সুইসাইড করবে, সেও তার নিজের কথা ভেবে নিজের জন্যই সুইসাইড করে। নিজের শান্তি, নিজের ইচ্ছা-অনিচ্ছা, নিজের পাওয়া-না পাওয়া সব কিছু জমিয়েই সে সুইসাইড করে।
ভাবে না চারপাশে থাকা লোকগুলোর কথা একবারও। ভাবে না তার মায়ের বুক চাপড়ে আহাজারির কথা, ভাবে না তার বাবার নিঃশব্দ আস্ফালনের কথা। ভাবে না তার অগ্রজ কিংবা অনুজদের অভাব বোধের কথা। সে তার নিজের জন্যই মরে যায়। আমরাই তার দোষ চাপাই অন্যের ঘাড়ে। "সংগৃহীত"
*স্বার্থপর*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★