৯৯৯ অফার

৯৯৯অফার নিয়ে কি ভাবছো?

শপাহলিক: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সারা বাংলার মানুষ যে আনন্দ উত্সবটি একসাথে পালন করে তার নাম পহেলা বৈশাখ। পুরোনো দিনের দুঃখ-স্মৃতি মুছে ফেলে প্রতিটি বাঙালি যেন নতুন স্বপ্ন ও আশা নিয়ে নববর্ষের সঙ্গে যাত্রা শুরু করে। বাংলা নববর্ষকে স্বাগত জানাতে প্রাণের এই মেলায় লাল-সাদার প্রাধান্য দিয়ে চলে সাজের পালা। শপিংমল থেকে শুরু করে মাঠে-ঘাটে থাকে কেনাকাটার ভিড়। কারণ বাঙালির প্রাণের উৎসব হলো বৈশাখ। পান্তা ইলিশ, লাল-সাদা শাড়ি ও পাঞ্জাবিতে সবাই যেন নিজেকে নতুন করে ফিরে পায়। 
 
 
নতুন রঙবেরঙের শাড়িতে দেখা যায় নারীদের। শাড়িতে সুন্দর নারী। সেজন্যই তো বিভিন্ন অনুষ্ঠানে রঙ বেরঙের শাড়ি ছোট বড় সব নারীদের গায়ে শোভা পায়। পহেলা বৈশাখে সাজটি হতে হবে স্বাভাবিক সময়ের থেকে বর্ণিল। বৈশাখে গরমের প্রকোপ থাকায় পোশাক নির্বাচনে সতর্ক হতে হবে। এক্ষেত্রে সুতির শাড়ি বা স্যালোয়ার কামিজ বেশী আরামদায়ক। শাড়ির ক্ষেত্রে আপনি তাঁতের শাড়ি, ঢাকাই জামদানী বা টাঙ্গাইলের শাড়ির প্রাধান্য দিতে পারেন। বর্তমানে শাড়িতে ব্লক-বাটিক, এব্রোয়ডারী এবং স্ক্রীণ প্রিন্টের কাজ বেশ চলছে। 
কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে সেটা যেন একটু উজ্জ্বল রং এর হয়। সাদা-লাল, সাদা-সবুজ, অথবা সাদার সঙ্গে অন্য যে কোন রং এর মিশ্রন হোক না কেন, সেটা অবশ্যই উজ্জ্বল হতে হবে। বৈশাখে শুধু যে সাদা-লালই পরতে হবে এমন কোন কথা নাই। আপনি আপনার পছন্দ মত যে কোন শাড়িই পরতে পারেন। পহেলা বৈশাখে প্রত্যেকেই চায় এর উদযাপন যেন হয় অন্য যেকোনো উৎসবের চেয়ে আলাদা ও জাঁকজমকপূর্ণ। তার জন্য প্রস্তুতির শেষ নেই। অনেকে এখনি পহেলা বৈশাখের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন হয়তোবা। আর করবে নাই বা কেন? হাতে গোনা কয়দিনই তো আছে! 
বৈশাখী সাজে অপরূপা হয়ে উঠতে শুধু সামান্য বুদ্ধি খাটিয়ে বাজেট করুন, দেখবেন সেদিনকার সেই বিশেষ দিনের সব থেকে সুন্দরী বাঙালি নারীটি হতে আপনাকে কেউ ঠেকাতে পারবে না। ভাবছেন খরচের কথা? না, মোটেই ভাববেন না l দামী কাপড় মানেই যে সবসময় নান্দনিক আর ভালো কাপড় তা কিন্তু নয় l মনে রাখবেন, পহেলা বৈশাখের মূল বিষয় হল্ খুশি মনে ও আনন্দ নিয়ে নতুন বছরকে বরণ করা। তার মানে এই নয় যে শুধু মাত্র দামি পোশাক পরলেই আর দামি জায়গায় খেলেই পহেলা বৈশাখ উদযাপন হবে নাহলে হবে না। আপনার খরচ সীমিত রেখেও আনন্দ নিতে পারেন আমাদের ঐতিহ্যবাহী উৎসব পহেলা বৈশাখের। 
ঘুরে আসতে পারেন লিঙ্কটিতে এবং শাড়ির ছবিগুলোতে। দারুন সব ক্লাসি শাড়ির কালেকশন রয়েছে তাদের ঝুলিতে। আমি তো ইতিমধ্যে ২ টো অর্ডার দিয়ে ফেলেছি। এবার আপনার পালা। এছাড়া ঘুরে ঘুরে কিনতে চাইলে নিউ মার্কেট, ধানমন্ডি হকার্স, সানরাইজ প্লাজা, আজিজ সুপার মার্কেট, দেশীও ফ্যাশন হাউসগুলোতেও আপনার বাজেটের ভেতর পেয়ে যেতে পারেন বৈশাখী শাড়ি। তবে এই রোদে ত্বক না পুড়িয়ে আমার মতে অনলাইনই বেস্ট।
শাড়ির সাথে ব্লাউজের রং এবং ডিজাইনেও আনতে পারেন কিছুটা চমক। এক্ষেত্রে আপনি ব্লাউজে বিভিন্ন ডিজাইন দিয়ে তৈরী করতে পারেন। ব্লাউজটি হতে হবে উজ্জ্বল রং এর। এটি আপনি আপনার পছন্দ মত ছোট হাতা, ত্রি-কোয়ার্টার অথবা ফুল হাতা যেভাবে খুশি পরতে পারেন, এটি আপনার স্বাচ্ছ্যন্দের উপর নির্ভর করবে। ব্লাউজের ক্ষেত্রেও সুতি কাপড় ব্যবহার হবে বুদ্ধিমানের কাজ, এটি গরমে বেশ আরামদায়ক হবে।
এছাড়া ঘরে বসেই অনলাইনে কেনাকাটার সাইট আজকের ডিল নিয়ে এসেছে বৈশাখের শাড়ির নানান কালেকশন। এখানে শুধুই বিভিন্নরকম আকর্ষণীয় ডিজাইনের টাঙ্গাইল শাড়ি পাওয়া যাবে। ঘরে বসেই অনলাইনে আজকের ডিলের বিভিন্ন কালেকশন দেখে অর্ডার করা যাবে। আপনার ঠিকানায় পৌঁছে যাবে আপনার পছন্দের টাঙ্গাইল শাড়ি। 
এখানে বিভিন্ন রকমের সুতি, ফুল সিল্ক, জামদানী, গ্যাস কটন, তসর কটন, ডেনু সিল্ক, পিওর সিল্ক, দোতারী জামদানী, সুতি জামদানীর সম্ভার রয়েছে। এ শাড়িগুলো সাশ্রয়ী মূল্যে পাওয়া যাবে। ঢাকার মধ্যে অর্ডারের ৪৮ ঘণ্টা ও ঢাকার বাইরে ৭২ ঘণ্টার শাড়ি পৌঁছে যাবে আপনার হাতে। পছন্দের শাড়ি হাতে পাওয়ার পর মূল্য পরিশোধ করা যাবে।
অনলাইনে বৈশাখী শাড়ি কিনতে এখানে ক্লিক করুন
*বৈশাখীশাড়ি* *পহেলাবৈশাখ* *৯৯৯অফার*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★