দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

অফিসে বা পাড়া-প্রতিবেশীর সঙ্গে গসিপ করতে নিশ্চয়ই ভালোবাসেন। এই অভ্যাসের কারণে অনেকের টিটকারীও শুনতে হয় নিশ্চয়। তবে মোটেও অস্বস্তির কিছু নেই। কারণ, এক দল স্কটিশ গবেষক তাদের গবেষণায় দেখেছেন যে, অধিকাংশ মানুষই তাদের চেনা কারো সম্পর্কে গসিপ করতে খুবই পছন্দ করেন। কাজেই আপনি একা নন। স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইউনিভার্সিটি অব দ্য ওয়েস্ট এর কয়েকজন গবেষক জানান, মানুষের মধ্যে সহজাতভাবে তাদের চেনা-জানা কারো সম্পর্কে রসালো কোনো বিষয় নিয়ে গসিপ করতে পছন্দ করেন।

সাধারণত সেলিব্রিটি এবং বড় বড় ব্যক্তিত্বরা মানুষের গসিপের কেন্দ্রবিন্দু হন বলে জানান গবেষকরা। উদাহরণস্বরূপ তারা বারাক ওবামা থেকে শুরু করে বেকহ্যামের মতো তারকাদের প্রেম, বিয়ে বা সেক্স লাইফ নিয়ে ব্যাপক গসিপ চলেছে যার অনেকগুলোই মিথ্যা ছিলো।

এ গবেষণায় শপিংমলে, কফি শপে বা পথিকদের বেশ কিছু খবর সরবরাহ করা হয়। তারা এসব খবর নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে কীভাবে আলাপ করবেন তা জানতে চাওয়া হয়। ফলাফলে দেখা যায়, তারা সবাই এসব চরিত্রদের নিয়ে দৃষ্টিভঙ্গি, কল্পনা এবং ধারণার মিশেল ঘটিয়ে খবরটি উপস্থাপন করেন।

এক গবেষক বো ইয়াও বলেন, সব মানুষের মধ্যে পরিচত বা আগ্রহ রয়েছে এমন মানুষের বিষয়ে যেকোনো খবর নিজের মতো করে রটিয়ে দেওয়ার প্রবণতা রয়েছে। কাজেই আমরা এসব বিষয়ে গসিপ করতে চাই যা বেশ উপভোগ্য হয়। তবে গসিপের ধরন কেমন হবে তা নির্ভর করে ওই চরিত্রের সাম্প্রতিক কোনো বিশেষ ঘটনা বা তার সম্পর্কে প্রচলিত সাধারণ ধারণা ওপর।

তবে অনেক সময় মানুষ স্বার্থ উদ্ধারের জন্য এবং উদ্দেশ্যপ্রনোদিত হয়ে গসিপ করেন যা ক্ষতিকর। এ গবেষণা প্রতিবেদনটি 'প্লস ওয়ান' জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। 

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস
*লাইফস্টাইলটিপস* *পরামর্শ* *অফিসঅ্যাটিকেট*

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

এক্ষনি একাউন্ট তৈরী কর

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত