আসিফ আমিন: একটি বেশব্লগ লিখেছে

অনলাইন ডেস্ক:শীতকালে নারী-পুরুষ সকলেই মাথায় খুশকির সমস্যা নিয়ে চিন্তিত অনেকেই।কিন্তু একটু সচেতন হলে ভেষজ উপায়ে তা প্রতিরোধ করা সম্ভব।আসুন খুসকি রোধে ভেষজ উপায়গুলো এক নজরে জেনে নেই:

১. অলিভ ওয়েল হালকা গরম করে আঙ্গুলের ডগায় নিয়ে চুলের ফাঁকে ফাঁকে আলতো ঘষে ঘষে লাগান। একঘণ্টা রেখে দিন। তারপর কুসুম গরম পানিতে শ্যাম্পু করুন। বেশি পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।এছাড়া অলিভ ওয়েল চুলের কন্ডিশনারের কাজ করে। রাতে শোবার আগে অলিভ ওয়েল লাগিয়ে তোয়ালে দিয়ে চুল জড়িয়ে ঘুমান। সকালে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই পদ্ধতিটি সপ্তাহে ২-৩ বার করলে উপকার পাবেন।

২. গরম পানিতে ৩-৪টি নিম পাতা ছেড়ে দিয়ে ভালো করে ফোটান। এই পানি দিয়ে ভালোভাবে গোসল করুন। মাথার খুশকি দূর করতে নিম পাতা খুবই কার্যকরী।

৩. প্রতিদিন সকালে লেবুর রস খেলে খুসকির সমস্যা অনেকটা দূর হয়। এছাড়া অল্প গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে মাথায় দিতে পারেন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এতে খুশকি দূর হওয়ার পাশাপাশি চুলকানি থেকেও রেহাই পাওয়া যায়।

৪. প্রচুর পরিমাণে পানি, ফল ও শাক-সবজি খান। মিষ্টি জাতীয় খাবার না খাওয়াই ভাল। চা-কফি কম খাবেন।

৫. ঘৃতকুমারী বা অ্যালোভেরার জেল চুলের জন্য বেশ উপকারী। এটি একটি প্রাকৃতিক ভেষজ যা চুলের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।

৬. খুশকির সমস্যায় চুলে তেল ব্যবহার না করাই ভালো। তবে বেবি ওয়েল লাগিয়ে বেশ কিছুক্ষণ ধরে ম্যাসাজ করুন। তারপর একটি তোয়ালে মাথায় জড়িয়ে রাখুন সারারাত। পরের দিন হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

*খুসকি* *খুসকিসমস্যা* *ভেষজ*

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

এক্ষনি একাউন্ট তৈরী কর

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত