shahnaz chaudhury: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ফেসবুক ঘিরেই ছিল সব ফ্যাসিনেশন। কে আমার পোস্টে লাইক দিল ,কে কমেন্ট করল ,কোন ইস্যুতে গরম ফেসবুক। এড্রিনালিন রাশ হত কারণে অকারণে।

সেই সাথে বিষন্নতা ঘিরে ধরত। পাচ মিনিট মন ভাল থাকলে দশ মিনিট খারাপ থাকত। কারণ ছাড়াই মন খারাপ হত কারণ ছাড়াই ভাল হত। মন খারাপের কারণগুলো ভাবলে এখন নিজেরো হাসি পায়। সারারাত ফেসবুকের নিউজফিডে পরে থাকলে যা হয় আর কি।

হঠাত ধাক্কায় বুঝতে পারলাম। আশেপাশের জগত থেকে কিভাবে নিজেকে আইসোলেট করে ফেলেছি। সারারাত ফেসবুকিং করে সারাদিন ঘুমিয়ে সন্ধ্যায় একগাদা খেয়ে আবার ফেসবুকে। নিজের কাছেই নিজেকে ঘৃণ্য লাগছিল।

নিজেকে সময় দিয়েছিলাম ৬ মাস। এই ছয় মাসে রাত জাগা ,ফেসবিকুং এডিকশন সব কিছু থেকে বের হয়ে আসব। অনেক কষ্ট হলেও বের হয়ে আসতে পেরেছি। আজকাল তাই ফেসবুকিং টাও ভাল লাগে। কারণ আগে আমি আমার রিয়েল লাইফটা ঠিক করতে পেরেছি। আমার লাইফ ফেসবুকের লাইক শেয়ার কমেন্ট ফ্রেন্ডস ইস্যুরা আর কন্ট্রোল করেনা। আমার ঘুম ,আমার মনের পাইলট আমিই।
.
বিষন্নতায় ভুগে তোমরা যারা ফেসবুককে একমাত্র আশ্রয় ভেবে নাও। রাত জেগে ফেসবুকিং কর্। তোমরা নিজেরাও জানোনা এটা তোমার বিষন্নতা কে জ্বালানি জোগাচ্ছে
.
রাত জেগে জেগে নিউজফিডে আলু,কলা ,পটল দেখলে লাইফে চিড়া ভিজবে না
এমন না যে সাফল্যটা আজকেই পেতে হবে। আর সাফল্য পেলেই সব ঠিক হয়ে যাবে। মোটেই না
.
একটা ভাল বই পড়
একটা ভাল মুভি দেখ
বাবা মায়েদের সাথে একটু গল্প করো
ভাই বোনরা মিলে কোথাও ঘুরতে যাও
সকালে ফজরের নামাজটা পড়ে একটু হেটে আস বাইরে থেকে
রাতটা ঘুমে তলিয়ে যাও
ভাল স্বপ্ন দেখার জন্য ভাল ঘুম জরুরী
মন খারাপ আবার কি রে পাগলা ,ইউ আর দা ক্যাপ্টেন অফ ইওর লাইফ I
By Warish Azad Nafi

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?


অথবা,

এক্ষনি একাউন্ট তৈরী কর

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত